alt

সারাদেশ

রংপুরের চাহিদা মিটিয়েও অতিরিক্ত ১ লাখ ৩২ হাজার কোরবানির পশু

খাবারের দাম তিনগুন বৃদ্ধি পাওয়ায় লোকসানের আশংকায় খামারিরা

লিয়াকত আলী বাদল, রংপুর : রোববার, ২৬ জুন ২০২২

আর মাত্র কয়েকদিন পর পবিত্র ঈদুল আযহা। ইতিমধ্যে পশু কোরবানীর জন্য বিভিন্ন হাটে পশু আমদানী শুরু হয়েছে। এখনও হাট গুলোতে রাজধানী ঢাকা বন্দর নগরী চট্টগ্রাম সহ বিভিন্ন অঞ্চল থেকে গরু ছাগল কেনার জন্য পাইকাররা আসছেন। তারা মুলত খামারীদের কাছে গিয়ে সরাসরি দরদাম করে গরু কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। রংপুরে এবার রেকর্ড পরিমান পশু রয়েছে খামারীদের কাছে জেলার চাহিদা মিটিয়েও ১ লাখ ৩২ হাজারেও বেশি পশু বিক্রি করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন খামারীরা। তবে পশু খাদ্যের মুল্য ৩ গুন বৃদ্ধি পাওয়ায় ভালো দাম না পেলে লোকসান গুনতে হবে বলে আশংকা খামারীদের।

রংপুর প্রাণী সম্পদ বিভাগ জানিয়েছে, চলতি বছর কোরবানী ঈদের জন্য পশু কোরবানীর এ জেলায় ২৫ হাজার ৭১জন খামারীর কাছে রেকর্ড পরিমান গরু ছাগল ভেড়া ও মহিষ রয়েছে ৩ লাখ ৫৩ হাজার ৬শ ১০টি। রংপুর জেলার জন্য চাহিদা রয়েছে ২ লাখ ১৬ হাজার ৩শ ৭০টি পশু। উদ্বৃত্ত থাকবে ১ লাখ ৩২ হাজার ৩শ১৫টি পশু। ফলে কোরবানীর পশুর জন্য ভারতীয় গরুর কোন প্রয়োজন নেই। বরং এখন রংপুর কোরবানীর পশুর সংখ্যার দিক থেকে পুরোপুরি স্বাবলম্বি। জেলার চাহিদা মিটিয়ে ১ লাখ ৩২ হাজার পশু দেশের অন্য জেলার চাহিদা মেটাতে সক্ষম।

তবে খামারীরা জানিয়েছেন, পশু খাদ্যের মুল্য গত বছরের চেয়ে তিন গুন বৃদ্ধি পাবার কারনণ এবার অর্থের অভাবে প্রয়োজনীয় খাবার দিতে পারেননি তাদের খামারে থাকা পশুদের। ফলে গরু মোটা তাজাকরণ কিংবা রিষ্ট পুষ্ট সেভাবে করা সম্ভব হয়নি। ফলে তারা পুরো বছর জুড়ে যে অর্থ ব্যায় করেছে সেভাবে পশুর মুল্য না পাওয়ার আশংকা করছেন খামারীরা। এতে করে চড়া সুদে ঋন নিয়ে গরু মোটা তাজা করনসহ পশু লালন পালন করে বিপুল পরিমান অর্থ লোকসানের সম্ভাবনা দেখছেন তারা।

সরেজমিন রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার জায়গীরহাট গ্রামে ঘুরে দেখা যায় সেখানেই দুই শতাধিক গরুর খামার রয়েছে। প্রতিটি খামারে ২৫ থেকে একশ করে গরু ছাগল রয়েছে। সব গুলোই কোরবানীর জন্য প্রস্তুত করে রেখেছে খামারীরা।

খামারী বাতেন মিয়া জানান, তার খামারে ৩৫টি দেশী ফ্রিজিয়ান জাতের গরু রয়েছে। গড়ে এক থেকে দেড় লাখ টাকা দাম হবার কথা। কিন্তু গোখাদ্যের দাম অস্বাভাবিক বৃদ্ধি পাওয়ায় এবার গরু মোটা তাজাকরন সেভাবে করা সম্ভব হয়নি। যেভাবে গরু পুষ্ট করা দরকার তা শুধু মাত্র গোখাদ্যের দাম বৃদ্ধির কারনে সম্ভব হয়নি। ফলে গরুর দাম যে ভাবে আশা করা হয়েছিলো তা পাওয়ার সম্ভাবনা কম।

একই কথা জানালেন বৈরীগজ্ঞ এলাকার খামারী মমতাজুর রহমান তিনি জানান, গরু মোটা তাজাকরন করতে এবং পুষ্ট করতে ভুষি , খৈল , চালের গুড়াসহ খাদ্য প্রয়োজন। একটা গরুর পেছনে কমপেক্ষে গড়ে প্রতিদিন ৫শ টাকা করে ব্যায় করতে হয়। এবার গোখাদ্যের দাম আঁকাশ ছোঁয়া হবার কারণে প্রয়োজনীয় খাদ্য দেয়া সম্ভব য়নি। সে কারণে ভালো দাম পাবার আশা কম বলে তিনি জানান।

অন্যদিকে রংপুর নগরীর মাহিগজ্ঞ এলাকায় প্রায় এক হাজার গরুর খামার রয়েছে। খামারীরা জানালেন রাজধানী ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে পাইকাররা আসছে। তারা যে গরুর দাম ২ লাখ টাকা হওয়ার কথা তা সেরকম পুষ্ট না হওয়ায় এক লাখ টাকাও বলছে না।

অনেক খামারী বলেছেন রংপুরে অনেক শিক্ষিত বেকার তরুন গরুর খামার গড়ে তুলেছেন ফলে রংপুরে খামারের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে ২৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। তারা কোরবানী ঈদ উপলক্ষ করে গরু ছাগল পুষ্টু ও মোটা তাজাকরন করেন। আশা করেন ঈদের সময় তাদের খামারের সব গরু ছাগল বিক্রি করে যে আয় হবে তাই দিয়ে সারাবছর পরিবার পরিজন নিয়ে দিন যাপন করবেন।আবারো আগামী বছরের ঈদের জন্য অপেক্ষা করেন তারা। কিন্তু এবার অতীতের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করে গোখাদ্যের দাম বৃদ্ধি রোধে সরকারী ভাবে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় তাদের এবার লাভের মুখ দেখার সম্ভাবনা নেই বলে আশংকা প্রকাশ করেছেন।

সার্বিক বিষয়ে রংপুর জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা রেয়াজুল ইসলাম জানিয়েছেন, রংপুরে খামারীরা এবার রেকর্ড পরিমান পশু প্রতিপালন করেছে। যা জেলার চাহিদা মিটিয়ে ঢাকাসহ অন্যন্য জেলার অনেক চাহিদা পুরন করা সম্ভব হবে। পশু খাদ্যের দাম একটু বেশি হলেও খামারীরা লাভবান হবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন এই কর্মকর্তা।

ছবি

পদ্মা সেতু থেকে ঝাঁপ দিয়ে যুবক নিখোঁজ

ছবি

গার্ডার পড়ে ৫ জনের প্রাণহানি: তদন্ত কমিটি গঠন

বঙ্গবন্ধু নিপীড়িত মানুষের আশার আলো-প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

ছবি

অবিনশ্বর-চিরঅম্লান বঙ্গবন্ধু

ছবি

সাগরে আটকা পড়া ১৩ জেলেসহ ট্রলার উদ্ধার

ছবি

আখাউড়ায় ১০০ দুঃস্থ পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিলো বিজিবি

ছবি

ডেসকোর উদ্যোগে শোক দিবস পালিত

ছবি

কক্সবাজার সৈকতে গোসল নেমে পর্যটক নিখোঁজ, উদ্ধার ২

ছবি

উত্তরায় গার্ডার ধস: বেঁচে রইলেন শুধু নবদম্পতি

ছবি

জলবায়ু ও পরিবেশবান্ধব বিনিয়োগে উৎসাহিত করতে জিআইজেড এর প্রশিক্ষণ

ছবি

সেনাবাহিনীর ‘লেডিস ক্লাব ও বাফওয়ার” জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে দুস্থদের মধ্যে খাবার বিতরন

ছবি

ডিফেন্স ফাইন্যান্স ডিপার্টমেন্টের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস পালন

ছবি

রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শনে কক্সবাজারে আসছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার প্রধান

ছবি

কারযোগে ইয়াবা কারবার: ৬ পাচারকারী আটক করলো ডিবি

ছবি

আগামী বছরে সপ্তাহে ৫ দিন ক্লাস: শিক্ষামন্ত্রী

সোনারগাঁয়ে গোসলে নেমে দুই যুবক নিখোঁজ, একজন মৃত উদ্ধার

নওগাঁয় হাসপাতাল থেকে অজ্ঞাত নবজাতক উদ্ধার

ছবি

এমপির সামনেই সংঘর্ষে জড়াল ছাত্রলীগ, পুলিশের লাঠিচার্জ

ছবি

প্রবাসীর স্ত্রীকে অচেতন করে নগ্ন ভিডিও ধারণ, গ্রেপ্তার ২

ছবি

জয়পুরহাটে ইজিবাইক চার্জার তৈরির কারখানায় অগ্নিকাণ্ড

ছবি

গাজীপুরের পথে ১১ ঘণ্টা পর ট্রেন চলাচল শুরু

ছবি

জাতীয় পতাকা টাঙাতে গিয়ে প্রাণ গেল দুই ভাইয়ের

ছবি

মামুনকে আদালতে তোলা হবে আজ

ছবি

সুন্দরবনের জন্য বাংলাদেশ ব্যাংক ও এমআরডিআইয়ের যৌথ উদ্যোগ

রোগীর পেট কাটার পর ডাক্তার বললেন অস্ত্রোপচার অসম্ভব

ছাত্রীকে উত্ত্যক্ত : স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতার বিরুদ্ধে মামলা

খালে দুই জনের সলিল সমাধি

দাউদকান্দিতে বিনামূল্যে চিকিৎসা পেল পাঁচ শতাধিক রোগী

তরুণদের উচ্চ রক্তচাপ ও হৃদরোগ ঝুঁঁকি বাড়ছে

ছবি

দেশের প্রথম ব্লাস্টলেস রেললাইন সর্বাধুনিক হবে ভাঙ্গা রেল জংশন

শীতলক্ষ্যায় সেতুর দাবিতে কাপাসিয়ায় মানববন্ধন

ছবি

বিএসএমএমইউতে স্থূলতা ক্লিনিক চালু করা হবে: উপাচার্য

ছবি

ঢামেক ইন্টার্ন চিকিৎসকদের কর্মবিরতি প্রত্যাহার

ছবি

নাফনদী থেকে ক্রিস্টাল মেথ আইস ও ইয়াবা উদ্ধার

ছবি

গোসল করতে নেমে ৪র্থ শ্রেণীর শিক্ষার্থী নিহত

ডেঙ্গুজ্বরে আরও ৯২ হাসপাতালে ভর্তি মোট মৃত্যু ১৬

tab

সারাদেশ

রংপুরের চাহিদা মিটিয়েও অতিরিক্ত ১ লাখ ৩২ হাজার কোরবানির পশু

খাবারের দাম তিনগুন বৃদ্ধি পাওয়ায় লোকসানের আশংকায় খামারিরা

লিয়াকত আলী বাদল, রংপুর

রোববার, ২৬ জুন ২০২২

আর মাত্র কয়েকদিন পর পবিত্র ঈদুল আযহা। ইতিমধ্যে পশু কোরবানীর জন্য বিভিন্ন হাটে পশু আমদানী শুরু হয়েছে। এখনও হাট গুলোতে রাজধানী ঢাকা বন্দর নগরী চট্টগ্রাম সহ বিভিন্ন অঞ্চল থেকে গরু ছাগল কেনার জন্য পাইকাররা আসছেন। তারা মুলত খামারীদের কাছে গিয়ে সরাসরি দরদাম করে গরু কিনে নিয়ে যাচ্ছেন। রংপুরে এবার রেকর্ড পরিমান পশু রয়েছে খামারীদের কাছে জেলার চাহিদা মিটিয়েও ১ লাখ ৩২ হাজারেও বেশি পশু বিক্রি করা সম্ভব হবে বলে জানিয়েছেন খামারীরা। তবে পশু খাদ্যের মুল্য ৩ গুন বৃদ্ধি পাওয়ায় ভালো দাম না পেলে লোকসান গুনতে হবে বলে আশংকা খামারীদের।

রংপুর প্রাণী সম্পদ বিভাগ জানিয়েছে, চলতি বছর কোরবানী ঈদের জন্য পশু কোরবানীর এ জেলায় ২৫ হাজার ৭১জন খামারীর কাছে রেকর্ড পরিমান গরু ছাগল ভেড়া ও মহিষ রয়েছে ৩ লাখ ৫৩ হাজার ৬শ ১০টি। রংপুর জেলার জন্য চাহিদা রয়েছে ২ লাখ ১৬ হাজার ৩শ ৭০টি পশু। উদ্বৃত্ত থাকবে ১ লাখ ৩২ হাজার ৩শ১৫টি পশু। ফলে কোরবানীর পশুর জন্য ভারতীয় গরুর কোন প্রয়োজন নেই। বরং এখন রংপুর কোরবানীর পশুর সংখ্যার দিক থেকে পুরোপুরি স্বাবলম্বি। জেলার চাহিদা মিটিয়ে ১ লাখ ৩২ হাজার পশু দেশের অন্য জেলার চাহিদা মেটাতে সক্ষম।

তবে খামারীরা জানিয়েছেন, পশু খাদ্যের মুল্য গত বছরের চেয়ে তিন গুন বৃদ্ধি পাবার কারনণ এবার অর্থের অভাবে প্রয়োজনীয় খাবার দিতে পারেননি তাদের খামারে থাকা পশুদের। ফলে গরু মোটা তাজাকরণ কিংবা রিষ্ট পুষ্ট সেভাবে করা সম্ভব হয়নি। ফলে তারা পুরো বছর জুড়ে যে অর্থ ব্যায় করেছে সেভাবে পশুর মুল্য না পাওয়ার আশংকা করছেন খামারীরা। এতে করে চড়া সুদে ঋন নিয়ে গরু মোটা তাজা করনসহ পশু লালন পালন করে বিপুল পরিমান অর্থ লোকসানের সম্ভাবনা দেখছেন তারা।

সরেজমিন রংপুরের মিঠাপুকুর উপজেলার জায়গীরহাট গ্রামে ঘুরে দেখা যায় সেখানেই দুই শতাধিক গরুর খামার রয়েছে। প্রতিটি খামারে ২৫ থেকে একশ করে গরু ছাগল রয়েছে। সব গুলোই কোরবানীর জন্য প্রস্তুত করে রেখেছে খামারীরা।

খামারী বাতেন মিয়া জানান, তার খামারে ৩৫টি দেশী ফ্রিজিয়ান জাতের গরু রয়েছে। গড়ে এক থেকে দেড় লাখ টাকা দাম হবার কথা। কিন্তু গোখাদ্যের দাম অস্বাভাবিক বৃদ্ধি পাওয়ায় এবার গরু মোটা তাজাকরন সেভাবে করা সম্ভব হয়নি। যেভাবে গরু পুষ্ট করা দরকার তা শুধু মাত্র গোখাদ্যের দাম বৃদ্ধির কারনে সম্ভব হয়নি। ফলে গরুর দাম যে ভাবে আশা করা হয়েছিলো তা পাওয়ার সম্ভাবনা কম।

একই কথা জানালেন বৈরীগজ্ঞ এলাকার খামারী মমতাজুর রহমান তিনি জানান, গরু মোটা তাজাকরন করতে এবং পুষ্ট করতে ভুষি , খৈল , চালের গুড়াসহ খাদ্য প্রয়োজন। একটা গরুর পেছনে কমপেক্ষে গড়ে প্রতিদিন ৫শ টাকা করে ব্যায় করতে হয়। এবার গোখাদ্যের দাম আঁকাশ ছোঁয়া হবার কারণে প্রয়োজনীয় খাদ্য দেয়া সম্ভব য়নি। সে কারণে ভালো দাম পাবার আশা কম বলে তিনি জানান।

অন্যদিকে রংপুর নগরীর মাহিগজ্ঞ এলাকায় প্রায় এক হাজার গরুর খামার রয়েছে। খামারীরা জানালেন রাজধানী ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে পাইকাররা আসছে। তারা যে গরুর দাম ২ লাখ টাকা হওয়ার কথা তা সেরকম পুষ্ট না হওয়ায় এক লাখ টাকাও বলছে না।

অনেক খামারী বলেছেন রংপুরে অনেক শিক্ষিত বেকার তরুন গরুর খামার গড়ে তুলেছেন ফলে রংপুরে খামারের সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে ২৫ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। তারা কোরবানী ঈদ উপলক্ষ করে গরু ছাগল পুষ্টু ও মোটা তাজাকরন করেন। আশা করেন ঈদের সময় তাদের খামারের সব গরু ছাগল বিক্রি করে যে আয় হবে তাই দিয়ে সারাবছর পরিবার পরিজন নিয়ে দিন যাপন করবেন।আবারো আগামী বছরের ঈদের জন্য অপেক্ষা করেন তারা। কিন্তু এবার অতীতের সকল রেকর্ড ভঙ্গ করে গোখাদ্যের দাম বৃদ্ধি রোধে সরকারী ভাবে কোন পদক্ষেপ গ্রহণ না করায় তাদের এবার লাভের মুখ দেখার সম্ভাবনা নেই বলে আশংকা প্রকাশ করেছেন।

সার্বিক বিষয়ে রংপুর জেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা রেয়াজুল ইসলাম জানিয়েছেন, রংপুরে খামারীরা এবার রেকর্ড পরিমান পশু প্রতিপালন করেছে। যা জেলার চাহিদা মিটিয়ে ঢাকাসহ অন্যন্য জেলার অনেক চাহিদা পুরন করা সম্ভব হবে। পশু খাদ্যের দাম একটু বেশি হলেও খামারীরা লাভবান হবেন বলে আশা প্রকাশ করেছেন এই কর্মকর্তা।

back to top