alt

সারাদেশ

তারেক-জোবায়দার মামলার শুনানিতে

আইনজীবীদের হাতাহাতি, এজলাস ছাড়লেন বিচারক

আদালত বার্তা পরিবেশক : মঙ্গলবার, ৩০ মে ২০২৩

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও তার স্ত্রী ডা. জোবায়দা রহমান অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় সাক্ষ্য নেয়ার সময় আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দলীয় আইনজীবীদের মধ্যে বাকবিতন্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার (৩০ মে) বিকেল ৩টার দিকে ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ মো আছাদুজ্জামানের আদালতে এ ঘটনা ঘটে। যার মধ্যে বিচারক সাক্ষ্যগ্রহণ মূলতবি রেখে এজলাস ছাড়তে বাধ্য হন। এরপর বিকেল সাড়ে ৫টার পর পর্যন্ত দুই পক্ষের আইনজীবীদের মধ্যে হট্টগোল চলে।

এর আগে গত ২৮ মে থেকে প্রতিদিন সাক্ষ্যগ্রহণ চলছিল। ওই সময় বিএনপিপন্থি আইনীজীবী ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাবেক সেক্রেটারি ওমর ফারুক ফারুকী মামলাটির সাক্ষ্য চলাকালে বিচারককে বলেন, মামলাটি প্রতিদিন সাক্ষ্যগ্রহণের বিষয়টি দৃষ্টিকটূ। আমরা চাই এভাবে যেন প্রতিদিন সাক্ষ্যগ্রহণ না করা হয়। তখন বিচারক বলেছিলেন, তিনি বিষয়টি দেখবেন।

এরপরও মঙ্গলবার আবার মামলাটি সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য থাকায় এ আইনজীবী বিএনপি দলীয় কিছু আইনজীবীর উপস্থিতিতে বিষয়টি আবার আদালতে মেনশন করলে রাষ্ট্রপক্ষের একজন প্রসিকিউটর বিচারককে মেনশনকৃত আইনজীবী ফারুকীর বক্তব্য ভিডিও করছিলেন।

ওই সময় বিএনপি দলীয় আইনজীবীরা ভিডিও করা নিয়ে বাধা দেয়। বিষয়টি নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হয়, যা একপর্যায়ে হাতাহাতিতে রূপ নেয়। তখন বিচারক এজলাস ছেড়ে যান। খবর পেয়ে আওয়ামী লীগ দলীয় আইনজীবীরাও ওই আদালতে আসেন। তখন উভয় পক্ষের আইনজীবীরা একে অন্যের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকেন। বেলা সাড়ে ৫টা পর্যন্ত বিএনপি দলীয় আইনজীবীরা আদালত কক্ষে অবস্থানের পর তারা চলে আসেন। সন্ধ্যা ৬টার দিকে বিচারক পুনরায় এজলাসে ওঠে ২৫ মিনিট অবস্থান করে সাক্ষীর অবশিষ্ট জবানবন্দি শেষ করেন।

এ নিয়ে দুই পক্ষ একে অন্যকে অভিযুক্ত করে বক্তব্য দিয়েছেন। এ সম্পর্কে দুদক প্রসিকিউটর মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, মামলার আসামি তারেক রহমান ও জোবায়দা রহমান পলাতক। তাই এ মামলায় আসামি পক্ষের কোন বক্তব্য থাকতে পারে না। তারপরও তারা প্রতিদিন আদালতে উপস্থিত থেকে বাধা সৃষ্টি করেন। মঙ্গলবার তারা আদালতের সঙ্গে অনেক অশোভন আচরণ করেছে।

এ বিষয়ে আইনজীবী ওমর ফারুক ফারুকী বলেন, আসামি পলাতক থাকলেও আমরা কি আদালতে উপস্থিতও থাকতে পারবো না। তারা আদালত পক্ষে বেআইনিভাবে ছবি তুলতে, ভিডিও করতে পারেন? আমরা এর প্রতিবাদ করায় আমাদের ওপর চড়াও হয়ে মারধর করেছেন। তারাই আদালতের পরিবেশ নষ্ট করেছেন।

এদিকে আদালত মামলাটির আরও এক জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেছেন। এ সাক্ষী হলেন, আরব বাংলাদেশ ব্যাংকের চাটার্ড অ্যাকাউন্টেড এমএ মতিন। এ নিয়ে মামলাটির ৫৬ জন সাক্ষীর মধ্যে ৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হলো।

ছবি

নাফনদী থেকে একদিনে দুই মরদেহ উদ্ধার জসিম সিদ্দিকী কক্সবাজার

ছবি

নরসিংদীতে ট্রেন দুর্ঘটনায় মা-মেয়ে নিহত, ছেলে হাসপাতালে ভর্তি

স্মার্ট বাংলাদেশের ভিশন প্রধান লক্ষ্য: দক্ষতা বৃদ্ধিমূলক শিক্ষা, শিক্ষক প্রশিক্ষণ ও গবেষণায় অগ্রাধিকার

ছবি

নাফনদী থেকে ভাসমান ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর উপহা‌রের আশ্রয়ণ প্রকল্পের রাস্তা না থাকায় ভোগা‌ন্তি

ছবি

২৬ তম সিনেট অধিবেশন -২০২৪

শরীয়তপুর হাসপাতালের শৌচাগারে মিললো রোগীর মরদেহ

নাজিরপুরে পারিবারিক কলহে ছেলের হাতে মা খুন

ছবি

শাহপরীর দ্বীপ হয়ে সেন্টমার্টিনে স্বল্প পরিসরে যাচ্ছে নৌযান

ছবি

বেনজীরের স্ত্রীর মাছের খামার থেকে মাছ চুরি, গ্রেপ্তার ৩

ছবি

রংপুরে চালসহ সকল নিত্যপ্রয়োজনীয় পন্যের দাম অস্বাভাবিক বৃদ্ধি, আদা কেজি সাড়ে ৪শ’ টাকা, সাধারন মানুষ দিশেহারা

অসামাজিক কার্যকলাপের অভিযোগে যুবলীগ নেতাসহ আটক ৪

ছবি

বোনকে বাঁচাতে চায় রাবি শিক্ষার্থী, দরকার ৬ লাখ টাকা

ছবি

পর পর তিন দফা বন্যার কবলে সুনামগঞ্জ, জন দুর্ভোগ চরমে

ছবি

ফরিদপুর মেডিকেলে পাঁচটি লিফটের মধ্যে তিনটি বন্ধ, ভোগান্তির শেষ নেই

সিলেটে সবজির দাম আকাশছোঁয়া

ছবি

জিআই পণ্যের স্বীকৃতি পেয়েছে গোপালগঞ্জের ব্রোঞ্জের গহনা

ছবি

কক্সবাজারে পাহাড় ধসে ৪ জনের মৃত্যু গেলো ১ মাসে রোহিঙ্গা ক্যম্পসহ ঝরল ১৮ প্রাণ

ছবি

ক্যাম্প থেকে ৫ আরসা সন্ত্রাসী অস্ত্র ও গোলাবারুদসহ গ্রেফতার

ছবি

বাড়িতে ধসে পড়লো পাহাড় : পরিবারের ৭ সদস্য উদ্ধার, শিশু নিহত

ছবি

লোহাগড়ায় বকুল আলী ও তার পরিবারের নামে ষড়যন্ত্রমূলক মামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

ছবি

সিলেটে মর্টার সেল উদ্ধার

ঘোড়াঘাটে হাটে গরু বিক্রি করতে এসে ট্রাক-নসিমন সংঘর্ষে ব্যবসায়ী নিহত, আহত ৬

ছবি

শ্রেষ্ঠ উপজেলা চেয়ারম্যানের সম্মাননা পেলেন শরণখোলার শান্ত

ছবি

কুমিল্লায় ব্যবসায়ী হত্যা: ১১ বছর পর ৪ জনের মৃত্যুদণ্ড

ছবি

কিশোরীর মৃত্যু: চাঁদপুরে ওষুধ ভেবে কীটনাশক পান

ছবি

রামুতে নতুন সেতুতে ভাঙন, চলাচলে ঝু্ঁকি

ছবি

টানা বর্ষণে পানিবন্দি কক্সবাজার, নিহত ৩

ছবি

কোটা: কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে সংঘর্ষ, আহত ২০

ছবি

সিলেটবাসীর প্রতি বিদায়ী এসপির খোলা চিঠি

ছবি

নরসিংদীতে চালককে হত্যার পর ইজিবাইক ছিনতাই, আটক ৪

ছবি

কক্সবাজারে পাহাড় ধসে শিশুসহ ২ জনের মৃত্যু

ছবি

সিলেটের বিদায়ী এসপির খোলা চিঠি, দিলেন কাজের ফিরিস্তি

ধর্ষক কারাগারে,ফরিদপুরে ধর্ষণের ঘটনায় প্রবাসী নারী ৪ মাসের অন্তঃস্বত্তা

ছবি

আবারও বেপরোয়া সার্ভেয়ার বাকের ও হাসান সিন্ডিকেট ঘুষ ছাড়া ফাইল নড়ে না কক্সবাজার এলএ শাখায়

ছবি

সিলেটে বন্যা কবলিত মানুষের মধ্যে ভারতীয় সহকারী হাইকমিশনের ত্রাণ বিতরণ

tab

সারাদেশ

তারেক-জোবায়দার মামলার শুনানিতে

আইনজীবীদের হাতাহাতি, এজলাস ছাড়লেন বিচারক

আদালত বার্তা পরিবেশক

মঙ্গলবার, ৩০ মে ২০২৩

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান ও তার স্ত্রী ডা. জোবায়দা রহমান অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলায় সাক্ষ্য নেয়ার সময় আওয়ামী লীগ ও বিএনপি দলীয় আইনজীবীদের মধ্যে বাকবিতন্ডা ও হাতাহাতির ঘটনা ঘটেছে।

মঙ্গলবার (৩০ মে) বিকেল ৩টার দিকে ঢাকা মহানগর সিনিয়র স্পেশাল জজ মো আছাদুজ্জামানের আদালতে এ ঘটনা ঘটে। যার মধ্যে বিচারক সাক্ষ্যগ্রহণ মূলতবি রেখে এজলাস ছাড়তে বাধ্য হন। এরপর বিকেল সাড়ে ৫টার পর পর্যন্ত দুই পক্ষের আইনজীবীদের মধ্যে হট্টগোল চলে।

এর আগে গত ২৮ মে থেকে প্রতিদিন সাক্ষ্যগ্রহণ চলছিল। ওই সময় বিএনপিপন্থি আইনীজীবী ঢাকা আইনজীবী সমিতির সাবেক সেক্রেটারি ওমর ফারুক ফারুকী মামলাটির সাক্ষ্য চলাকালে বিচারককে বলেন, মামলাটি প্রতিদিন সাক্ষ্যগ্রহণের বিষয়টি দৃষ্টিকটূ। আমরা চাই এভাবে যেন প্রতিদিন সাক্ষ্যগ্রহণ না করা হয়। তখন বিচারক বলেছিলেন, তিনি বিষয়টি দেখবেন।

এরপরও মঙ্গলবার আবার মামলাটি সাক্ষ্যগ্রহণের জন্য থাকায় এ আইনজীবী বিএনপি দলীয় কিছু আইনজীবীর উপস্থিতিতে বিষয়টি আবার আদালতে মেনশন করলে রাষ্ট্রপক্ষের একজন প্রসিকিউটর বিচারককে মেনশনকৃত আইনজীবী ফারুকীর বক্তব্য ভিডিও করছিলেন।

ওই সময় বিএনপি দলীয় আইনজীবীরা ভিডিও করা নিয়ে বাধা দেয়। বিষয়টি নিয়ে উভয় পক্ষের মধ্যে বাকবিতন্ডা শুরু হয়, যা একপর্যায়ে হাতাহাতিতে রূপ নেয়। তখন বিচারক এজলাস ছেড়ে যান। খবর পেয়ে আওয়ামী লীগ দলীয় আইনজীবীরাও ওই আদালতে আসেন। তখন উভয় পক্ষের আইনজীবীরা একে অন্যের বিরুদ্ধে স্লোগান দিতে থাকেন। বেলা সাড়ে ৫টা পর্যন্ত বিএনপি দলীয় আইনজীবীরা আদালত কক্ষে অবস্থানের পর তারা চলে আসেন। সন্ধ্যা ৬টার দিকে বিচারক পুনরায় এজলাসে ওঠে ২৫ মিনিট অবস্থান করে সাক্ষীর অবশিষ্ট জবানবন্দি শেষ করেন।

এ নিয়ে দুই পক্ষ একে অন্যকে অভিযুক্ত করে বক্তব্য দিয়েছেন। এ সম্পর্কে দুদক প্রসিকিউটর মোশাররফ হোসেন কাজল বলেন, মামলার আসামি তারেক রহমান ও জোবায়দা রহমান পলাতক। তাই এ মামলায় আসামি পক্ষের কোন বক্তব্য থাকতে পারে না। তারপরও তারা প্রতিদিন আদালতে উপস্থিত থেকে বাধা সৃষ্টি করেন। মঙ্গলবার তারা আদালতের সঙ্গে অনেক অশোভন আচরণ করেছে।

এ বিষয়ে আইনজীবী ওমর ফারুক ফারুকী বলেন, আসামি পলাতক থাকলেও আমরা কি আদালতে উপস্থিতও থাকতে পারবো না। তারা আদালত পক্ষে বেআইনিভাবে ছবি তুলতে, ভিডিও করতে পারেন? আমরা এর প্রতিবাদ করায় আমাদের ওপর চড়াও হয়ে মারধর করেছেন। তারাই আদালতের পরিবেশ নষ্ট করেছেন।

এদিকে আদালত মামলাটির আরও এক জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেছেন। এ সাক্ষী হলেন, আরব বাংলাদেশ ব্যাংকের চাটার্ড অ্যাকাউন্টেড এমএ মতিন। এ নিয়ে মামলাটির ৫৬ জন সাক্ষীর মধ্যে ৭ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হলো।

back to top