alt

অর্থ-বাণিজ্য

কাজে ফিরে আসা শ্রমিকদের ৯ শতাংশের বেতন কমেছে, বেড়েছে কাজের পরিধি

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক : রোববার, ০৯ মে ২০২১
image

করোনাভাইরাসের প্রথম ঢেউয়ের ধাক্কায় কাজ হারানোর পর আবার যোগদান করা শ্রমিকদের মধ্যে ৯ শতাংশের বেতন কমেছে। ৩০ শতাংশ শ্রমিক জানিয়েছেন, নতুন করে কাজে যোগ দিয়ে কাজের পরিধি বেড়েছে। ২২ শতাংশ শ্রমিক জানিয়েছেন, তারা কারখানায় হয়রানির শিকার হচ্ছেন। ৭৭ দশমিক ৭ শতাংশ শ্রমিক আগের বেতনেই যোগদান করেছেন। বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) এক গবেষণায় এসব তথ্য উঠে এসেছে। গতকাল সিপিডি ও সজাগ কোয়ালিশন আয়োজিত ‘পোশাক খাতে করপোরেট জবাবদিহিতা- পরিপ্রেক্ষিত কোভিড-১৯ মহামারী’ শীর্ষক ভার্চুয়াল আলোচনায় মূল প্রবন্ধে সিপিডির গবেষণা পরিচালক খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম জরিপের এ তথ্য তুলে ধরেন।

গোলাম মোয়াজ্জেম জানান, মহামারীকালে বন্ধ হয়ে যাওয়া ১২০টি কারখানা ও সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান, কোভিড-১৯ এর কারণে ছাঁটাইয়ের পর আবার কাজে যোগ দেয়া ৩০০ জন শ্রমিক, এখনও বেকার ১০০ জনসহ মোট ৪০০ শ্রমিকের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে এই জরিপ করা হয়েছে। মার্চ মাসে এই জরিপ পরিচালনা করা হয় এবং এতে গত ডিসেম্বর ও জানুয়ারির তথ্য ব্যবহার করা হয়েছে। জরিপে ৩০ শতাংশ শ্রমিক বলেছেন- নতুন করে কাজে যোগ দিয়ে কাজের পরিধি বেড়েছে। ২২ শতাংশ শ্রমিক জানিয়েছেন তারা কারখানায় হয়রানির শিকার হচ্ছেন। কারখানা নিয়ে অনিশ্চয়তায় ভোগা শ্রমিকের সংখ্যা ৬ শতাংশে নেমে এসেছে। এই সংখ্যা গত জুলাইয়ের জরিপে অনেক বেশি ছিল।

সিপিডি ও সজাগ কোয়ালিশন আয়োজিত এই আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেছেন, ‘কোভিড-১৯ এর কারণে গত এক বছরে পোশাক খাতের শ্রমিকদের সুযোগ-সুবিধা কমেছে। এটাকে বাড়িয়ে আগের অবস্থায় নিয়ে আসতে হলে মালিক, শ্রমিক, ক্রেতা ও সরকার সব পক্ষকেই দায়িত্ব নিতে হবে। এই খাতের শ্রমিকদের সুযোগ-সুবিধা বাড়ানোর জন্য আন্তর্জাতিক ভ্যালু চেইনের উন্নতিও করতে হবে।’

সিপিডির সম্মানীয় ফেলো অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিজিএমইএ এর নবনির্বাচিত সভাপতি মো. ফারুক হাসান বলেন, ‘কোভিড-১৯ কেন্দ্র করে সুতাসহ অনেক পণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় উৎপাদন ব্যয় বেড়েছে, সার্বিকভাবে উৎপাদন কমে গেছে।’ এই পরিস্থিতিতেও বিজিএমইএ এই খাতের শ্রমিকদের করপোরেট দায়বদ্ধতা পূরণ করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এর বাইরেও আরও বৃহত্তর পরিসরে শ্রমিক সমাজের কল্যাণ কীভাবে করা যায় তা নিয়েও কাজ করা হচ্ছে। এরইমধ্যে আমরা কিছু লক্ষণ দেখছি। আগামী বছর এই খাত ভালোমতো ঘুরে দাঁড়াতে পারে।’

আলোচনা সভায় শ্রমিক নেতাদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তৈরি পোশাক রপ্তানিকারকদের সংগঠনের এই নেতা বলেন, ‘পোশাক খাতে কর্মীর তালিকা প্রায় ৪৭ থেকে ৫৭ লাখ লোকের। এত দীর্ঘ তালিকা থেকে কাউকে কালো তালিকাভুক্ত করা অসম্ভব। তাই কোন শ্রমিককে কালো তালিকাভুক্ত করার অভিযোগ ঠিক নয়।’ বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিকেএমইএ সহ-সভাপতি মো. হাতেম বলেন, ‘মুনাফার অর্থ নিয়ে কারখানার সম্প্রসারণ করে থাকি বরং যা মুনাফা করি তার চেয়েও বেশি পুনঃবিনিয়োগ করি। তাই আমাদের হাতে ৪-৫ মাস বেতন দেয়ার মতো অর্থ থাকে না।’ কর্মীদের বেতন কমানোর অভিযোগের প্রেক্ষিতে তার দাবি কোথাও বেতন কমানো হয়নি।

আলোচনা সভায় শ্রমিক নেতা মন্টু চন্দ্র ঘোষ, নমিতা নাথ, আহসান হাবিব বুলবুল, বাবুল আক্তারসহ অনেক শ্রমিক প্রতিনিধি বক্তব্য দেন। তারা এই খাতের শ্রমিকদের সুযোগ-সুবিধার ক্ষেত্রে করপোরেট জবাবদিহিতা মানা হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন। শ্রমিকদের বেতন কমিয়ে দেয়া, শ্রম ঘণ্টা বাড়ানো এবং আন্দোলনে জড়িত শ্রমিকদের চিহ্নিত করে কালো তালিকাভুক্ত করে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে তারা দাবি করেন।

ছবি

অর্ধেক আসন খালি রেখে কমিউনিটি সেন্টার খোলার দাবি

সূচক ও লেনদেন দুটোই কমেছে শেয়ারবাজারে

বাংলাদেশে ভ্যাট নিবন্ধন নিল ফেইসবুক

ছবি

রূপালী ব্যাংকের চেয়ারম্যান পদে কাজী ছানাউল হকের যোগদান

চূড়ান্ত উৎপাদন শুরু করেছে রিং সাইন টেক্সটাইল

বেপজা অর্থনৈতিক অঞ্চলের শিল্প প্লট বরাদ্দ শুরু

খাবারের মান নিয়ন্ত্রণে দেড় কোটি টাকার বেশি জরিমানা

করোনায় অসচ্ছল মানুষের পাশে প্রাণ ইউএইচটি মিল্ক

বাজেট প্রতিক্রিয়ায় তামাক চাষি-ব্যবসায়ীদের সংবাদ সম্মেলন

ওয়ালটন ওয়াশিং মেশিনের নতুন প্রোডাকশন লাইন উদ্বোধন

ছবি

লেনদেনের ধীরগতিতে নিম্নমুখী সূচক

ছবি

বাংলাদেশের মোট বৈদেশিক দেনা ৬ লাখ কোটি টাকা ছাড়িয়ে গেছে

ছবি

সিনজেনটা বাংলাদেশ লিমিটেডের ২০% লভ্যাংশ ঘোষণা

ছবি

আমরা সংসদে আছি শুধু ‘হ্যাঁ’ বা ‘না’ বলার জন্য: সাবের হোসেন

শেয়ারবাজারে ১২ হাজার ৭০০ কোটি টাকার লেনদেন

ছবি

ব্যাংক হিসাবে চার্জমুক্ত থাকবে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত

ছবি

বাজেটের সুফল বাস্তবায়নের ওপর নির্ভরশীল

ছবি

উন্নত জাতের ‘সুবর্ণ রুই’ উদ্ভাবন

ইগলু আইসক্রিম ফ্যাক্টরিতে জরিমানা

২৫ হাজার কৃষকের থেকে সরাসরি পণ্য কিনছে আরিফ গ্রুপ

ছবি

এবি ব্যাংকের ৩৯তম বার্ষিক সাধারণ সভা

প্রধানমন্ত্রীর করোনা তহবিলে ২ কোটি টাকা দিয়েছে সাইফ পাওয়ারটেক

ছবি

ইস্টল্যান্ড ইন্স্যুরেন্সের ১০ শতাংশ লভ্যাংশ অনুমোদন

ছবি

বোরো ধানের বাম্পার ফলনের পরও চালের বাজার অস্থির

ছবি

ইউনিলিভার বাংলাদেশের নতুন সিইও এবং এমডি জাভেদ আখতার

ছবি

ব্লুঅরচার্ড মাইক্রোফাইন্যান্স ফান্ড থেকে ১৫ মিলিয়ন ডলার বৈদেশিক ঋণ নিলো লংকাবাংলা ফাইন্যান্স

ছবি

শিল্পের কাঁচামাল আমদানিতে উৎসে কর না রাখার সুপারিশ বিসিআই’র

ব্যাপক ক্ষতির আশঙ্কা পর্যটন স্পটগুলোর

ছবি

ইউনিলিভার বাংলাদেশের নতুন এমডি জাভেদ আখতার

ছবি

টাইলস-স্যানিটারি পণ্যে আরোপিত শুল্ক প্রত্যাহারের দাবি

ছবি

স্বর্ণের ভ্যাট কমানোর দাবি বাজুসের

স্টার্টাপে ৫ কোটি পর্যন্ত বিনিয়োগ করবে ইভ্যালি

গতবছর ১০ কোটি ৬১ লাখ টাকা মুনাফা করেছে জনতা ক্যাপিটাল

প্রথম ঘন্টায় ডিএসইতে হাজার কোটি টাকা লেনদেন

ছবি

এক বছরে একটি কোম্পানির শেয়ারের দাম বেড়েছে ৮৯১ শতাংশ

ছবি

মাইক্রোবাস আমদানিতে সম্পূরক শুল্ক প্রত্যাহারের দাবি বারভিডার

tab

অর্থ-বাণিজ্য

কাজে ফিরে আসা শ্রমিকদের ৯ শতাংশের বেতন কমেছে, বেড়েছে কাজের পরিধি

অর্থনৈতিক বার্তা পরিবেশক
image

রোববার, ০৯ মে ২০২১

করোনাভাইরাসের প্রথম ঢেউয়ের ধাক্কায় কাজ হারানোর পর আবার যোগদান করা শ্রমিকদের মধ্যে ৯ শতাংশের বেতন কমেছে। ৩০ শতাংশ শ্রমিক জানিয়েছেন, নতুন করে কাজে যোগ দিয়ে কাজের পরিধি বেড়েছে। ২২ শতাংশ শ্রমিক জানিয়েছেন, তারা কারখানায় হয়রানির শিকার হচ্ছেন। ৭৭ দশমিক ৭ শতাংশ শ্রমিক আগের বেতনেই যোগদান করেছেন। বেসরকারি গবেষণা প্রতিষ্ঠান সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগের (সিপিডি) এক গবেষণায় এসব তথ্য উঠে এসেছে। গতকাল সিপিডি ও সজাগ কোয়ালিশন আয়োজিত ‘পোশাক খাতে করপোরেট জবাবদিহিতা- পরিপ্রেক্ষিত কোভিড-১৯ মহামারী’ শীর্ষক ভার্চুয়াল আলোচনায় মূল প্রবন্ধে সিপিডির গবেষণা পরিচালক খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম জরিপের এ তথ্য তুলে ধরেন।

গোলাম মোয়াজ্জেম জানান, মহামারীকালে বন্ধ হয়ে যাওয়া ১২০টি কারখানা ও সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান, কোভিড-১৯ এর কারণে ছাঁটাইয়ের পর আবার কাজে যোগ দেয়া ৩০০ জন শ্রমিক, এখনও বেকার ১০০ জনসহ মোট ৪০০ শ্রমিকের কাছ থেকে তথ্য নিয়ে এই জরিপ করা হয়েছে। মার্চ মাসে এই জরিপ পরিচালনা করা হয় এবং এতে গত ডিসেম্বর ও জানুয়ারির তথ্য ব্যবহার করা হয়েছে। জরিপে ৩০ শতাংশ শ্রমিক বলেছেন- নতুন করে কাজে যোগ দিয়ে কাজের পরিধি বেড়েছে। ২২ শতাংশ শ্রমিক জানিয়েছেন তারা কারখানায় হয়রানির শিকার হচ্ছেন। কারখানা নিয়ে অনিশ্চয়তায় ভোগা শ্রমিকের সংখ্যা ৬ শতাংশে নেমে এসেছে। এই সংখ্যা গত জুলাইয়ের জরিপে অনেক বেশি ছিল।

সিপিডি ও সজাগ কোয়ালিশন আয়োজিত এই আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। তিনি বলেছেন, ‘কোভিড-১৯ এর কারণে গত এক বছরে পোশাক খাতের শ্রমিকদের সুযোগ-সুবিধা কমেছে। এটাকে বাড়িয়ে আগের অবস্থায় নিয়ে আসতে হলে মালিক, শ্রমিক, ক্রেতা ও সরকার সব পক্ষকেই দায়িত্ব নিতে হবে। এই খাতের শ্রমিকদের সুযোগ-সুবিধা বাড়ানোর জন্য আন্তর্জাতিক ভ্যালু চেইনের উন্নতিও করতে হবে।’

সিপিডির সম্মানীয় ফেলো অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমানের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিজিএমইএ এর নবনির্বাচিত সভাপতি মো. ফারুক হাসান বলেন, ‘কোভিড-১৯ কেন্দ্র করে সুতাসহ অনেক পণ্যের দাম বেড়ে যাওয়ায় উৎপাদন ব্যয় বেড়েছে, সার্বিকভাবে উৎপাদন কমে গেছে।’ এই পরিস্থিতিতেও বিজিএমইএ এই খাতের শ্রমিকদের করপোরেট দায়বদ্ধতা পূরণ করছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘এর বাইরেও আরও বৃহত্তর পরিসরে শ্রমিক সমাজের কল্যাণ কীভাবে করা যায় তা নিয়েও কাজ করা হচ্ছে। এরইমধ্যে আমরা কিছু লক্ষণ দেখছি। আগামী বছর এই খাত ভালোমতো ঘুরে দাঁড়াতে পারে।’

আলোচনা সভায় শ্রমিক নেতাদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে তৈরি পোশাক রপ্তানিকারকদের সংগঠনের এই নেতা বলেন, ‘পোশাক খাতে কর্মীর তালিকা প্রায় ৪৭ থেকে ৫৭ লাখ লোকের। এত দীর্ঘ তালিকা থেকে কাউকে কালো তালিকাভুক্ত করা অসম্ভব। তাই কোন শ্রমিককে কালো তালিকাভুক্ত করার অভিযোগ ঠিক নয়।’ বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিকেএমইএ সহ-সভাপতি মো. হাতেম বলেন, ‘মুনাফার অর্থ নিয়ে কারখানার সম্প্রসারণ করে থাকি বরং যা মুনাফা করি তার চেয়েও বেশি পুনঃবিনিয়োগ করি। তাই আমাদের হাতে ৪-৫ মাস বেতন দেয়ার মতো অর্থ থাকে না।’ কর্মীদের বেতন কমানোর অভিযোগের প্রেক্ষিতে তার দাবি কোথাও বেতন কমানো হয়নি।

আলোচনা সভায় শ্রমিক নেতা মন্টু চন্দ্র ঘোষ, নমিতা নাথ, আহসান হাবিব বুলবুল, বাবুল আক্তারসহ অনেক শ্রমিক প্রতিনিধি বক্তব্য দেন। তারা এই খাতের শ্রমিকদের সুযোগ-সুবিধার ক্ষেত্রে করপোরেট জবাবদিহিতা মানা হচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন। শ্রমিকদের বেতন কমিয়ে দেয়া, শ্রম ঘণ্টা বাড়ানো এবং আন্দোলনে জড়িত শ্রমিকদের চিহ্নিত করে কালো তালিকাভুক্ত করে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে বলে তারা দাবি করেন।

back to top