alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

এমপি আজীম খুন : জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আটক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক, ঢাকা ও প্রতিনিধি, কলকাতা : মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪

এমপি আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। তাকে রাজধানীর মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয়ে নেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (১১ জুন) বিকেলে ধানমন্ডি থেকে তাকে আটক করা হয় বলে ডিবি সূত্রে জানা গেছে।

হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী আক্তারুজ্জামান শাহীনের সঙ্গে সাইদুল করিম মিন্টুর যোগাযোগ ছিল। এছাড়া গ্রেপ্তার ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক কাজী কামাল আহমেদ বাবু ওরফে গ্যাস বাবুর সঙ্গে যোগাযোগ ছিল তার। এসব বিষয়ে সাইদুল করিম মিন্টুকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ডিবি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. শফিকুল ইসলাম অপু বলেন, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের একটি অনুষ্ঠান ছিল মঙ্গলবার । সেই অনুষ্ঠানে মিন্টুর উপস্থিত থাকার কথা ছিল। কিন্তু তিনি অনুষ্ঠানে আসেননি। আটকের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, বাই দ্যা বাই শুনতেছি আটক, তবে আমি এখনো নিশ্চিত না। কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে কথা বলার পর নিশ্চিত হতে পারবো।

#বাবুসহ চারজনের মোবাইলের ফরেনসিক পরীক্ষার নির্দেশ

এমপি আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগ নেতা কাজী কামাল আহমেদ ওরফে বাবুসহ চারজনের মোবাইল ফোনের ফরেনসিক পরীক্ষা করার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। তদন্ত কর্মকর্তার আবেদন মঞ্জুর করে ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মাহবুবুল হক ১০ জুন সোমবার এই আদেশ দেন। ওই চারজন হলেনÑ ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক বাবু, চরমপন্থি নেতা আমানুল্লা সাঈদ ওরফে শিমুল ভুঁইয়া, তার ভাতিজা তানভীর ভূঁইয়া ও সেলেস্টি রহমান।

আদালত পুলিশের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা এস আই জালাল আহমেদ বলেন, মামলার আলামত হিসেবে গ্রেপ্তার চারজনের মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। ফোনগুলোর ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ আদালতে আবেদন করেছিল। ওই আবেদন সোমবার মঞ্জুর করেছে আদালত।

ডিবির আবেদনে বলা হয়, আনোয়ারুল আজীম আনারকে খুনের পর শিমুল, বাবু, তানভীর ও সেলেস্টি নিজেদের মধ্যে হোয়াটসঅ্যাপে বিভিন্ন রকম তথ্য আদান-প্রদান করেছেন। এছাড়া আসামিদের হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে এবং মোবাইলে থাকা ছবি, ভিডিওসহ অপহরণ ও খুন-সংক্রান্ত কোনো তথ্য মুছে ফেলা হয়েছে কি না, সেটি জানা প্রয়োজন।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর মিন্টো রোডে ডিবি কার্যালয়ে অতিরিক্ত কমিশনার (গোয়েন্দা) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেন, কিলিং মিশনে যারা অংশ নিয়েছিল কলকাতা থেকে এমপি আজীমের ছবি হোয়াটসঅ্যাপে কার সঙ্গে শেয়ার করা হয়েছে এবং এতে কোনো আর্থিক সংশ্লিষ্টতা ছিল কি না সবকিছু তদন্ত চলছে।

এছাড়া এমপি আজীম হত্যার ‘মূল পরিকল্পনাকারী’ তার বাল্যবন্ধু ও যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী আখতারুজ্জামান শাহীনের গুলশানের ভাড়া বাসায় অভিযান চালিয়ে দুটি গাড়িও জব্দ করেছে ডিবি পুলিশ। এর মধ্যে একটি সাদা রঙের প্রাডো, অন্যটি মাইক্রোবাস রয়েছে।

উদ্ধার মাংসের টুকরা ও হাড়গোড় ‘পুরুষ মানুষের’

আমাদের কলকাতা প্রতিনিধি জানান,আজীম হত্যার তদন্তে পশ্চিমবঙ্গে যে মাংসের টুকরা ও হাড়গোড় উদ্ধার হয়েছে, সেগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রাথমিক ফরেনসিক প্রতিবেদন এসেছে ভারতীয় সিআইডির কলকাতা ব্যুরোর হাতে। এ ঘটনায় গঠিত বিশেষ তদন্ত দলের প্রধান কলকাতা সিআইডির আইজি অখিলেশ চতুর্বেদী বলেছেন, প্রতিবেদন থেকে একটি বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছে সিআইডি, আর তা হল- এগুলো ‘মানুষেরই দেহাবশেষ’ এবং তা ‘পুরুষ মানুষের’।

কলকাতা টাইমস অব ইনডিয়াকে এ সিআইডি কর্মকর্তা বলেছেন, মাংসের টুকরা ও হাড়গুলো এমপি আজীমের কিনা, তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য ডিএনএ পরীক্ষা করাতে আদালতের অনুমতি চাইবেন তারা। অনুমতি পেলে আজীমের স্বজনদের ডেকে ডিএনএ পরীক্ষা করা হবে এবং তারপর সিদ্ধান্তে আসা যাবে। বাংলাদেশ ও ভারতের গোয়েন্দাদের তথ্য অনুযায়ী, ১৩ মে কলকাতার নিউ টাউনের অভিজাত অ্যাপার্টমেন্ট ব্লক ‘সঞ্জিভা গার্ডেনস’ এর ফ্ল্যাটে ডেকে নিয়ে হত্যা করা হয় ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আজীমকে।

যে ফ্ল্যাটে এমপি আজীমকে হত্যা করা হয়, ঢাকার গোয়েন্দাদের উপস্থিতিতে তার সেপটিক ট্যাংক থেকে কয়েক কেজি মাংসের টুকরা উদ্ধার হয় গত মাসে। আগে রোববার কলকাতার ভাঙড় এলাকার বাগজোলা খাল থেকে উদ্ধার হয় কিছু হাড়গোড়।

সিআইডির আইজি চতুর্বেদী টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেছেন, দুটি স্থান থেকে উদ্ধার হাড়-মাংসের ফরেনসিক রিপোর্ট তারা হাতে পেয়েছেন। ডিএনএ পরীক্ষার জন্য কূটনৈতিক অনুমোদন লাগবে। আমরা আশা করছি, এমপি আজীমের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন আসবেন এবং তার সঙ্গে ডিএনএ মিলিয়ে দেখাই হবে এর শেষ ধাপ। পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হতে কিছু সময় লেগে যাবে।’ এ প্রক্রিয়া চলতে থাকার মধ্যে হত্যায় ব্যবহৃত ‘হাতিয়ার’ বা সরঞ্জাম উদ্ধারে মনোযোগ দেবে সিআইডি।

সিআইডির এক কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নেপালে গ্রেপ্তার সিয়াম হোসেনই কলকাতা নিউমার্কেট থেকে হত্যার সরঞ্জাম জোগাড় করেন। সিআইডি শিগগির তাকে সেখানে নিয়ে যাবে। একটি চাপাতির সন্ধান করছেন তারা, যা দিয়ে দেহটি টুকরা টুকরা করা হয়েছিল।

ডিএনএ পরীক্ষার নমুনা দিতে ভারতের যাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন আজীমের পরিবারের সদস্যরা। ইতোমধ্যে তাদের ভিসাও হয়ে গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আজীমের ব্যক্তিগত সহকারী আবদুর রউফ বলেন, ‘এর আগে ডিবি আমাদের বলেছিল, মাংসের টুকরাগুলোর ফরেনসিক পরীক্ষা শেষ হলে তারা আমাদের জানাবে। এরপর আমরা উনার (আজীম) মেয়েসহ (ডরিন) ডিএনএ টেস্টের জন্য কলকাতায় যাব। ঢাকার ডিবি থেকে ফরেনসিক রিপোর্টের বিষয়ে আমাদের এখনও কিছু জানায়নি।

আজীম চোরাচালানে যুক্ত ছিল, কখনোই বলিনি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আজীম হত্যাকাণ্ডের পর বিভিন্ন সময় বলা হয়েছিল তিনি চোরাচালানের সঙ্গে যুক্ত। মঙ্গলবার দুপুরে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে হাইওয়ে পুলিশের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান শেষে এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, চোরাচালানের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন এমপি আজীম, তা আমরা কখনোই বলিনি।

তিনি বলেন, আমরা সবসময় বলে আসছি এমপির ওই এলাকা সন্ত্রাসপূর্ণ একটি এলাকা। ওখানে সত্যিকারে কী হয়েছে সেটা আমাদের জানতে হবে। আমরা তদন্ত করছি, তদন্তের পরে সব কিছু জানাবো। সংসদ সদস্য আজীমের মেয়ে ডরিন সন্দেহভাজনদের নাম বলেছেন। কাদের নাম বলেছেন তিনি? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যখন তদন্ত চলে তখন আমাদের মন্ত্রী, আইজিপি কিংবা তদন্তকারী কর্মকর্তার পক্ষ থেকে তদন্ত না করে কোনো কিছু বলা সম্ভব নয়। আমরা মনে করি তদন্ত শেষ হলে এগুলো নিয়ে কথা বলবো।

গত ১১ মে চিকিৎসার জন্য ভারতে গিয়ে নিখোঁজ হন ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আজীম। তার বন্ধু স্বর্ণ ব্যবসায়ী গোপাল বিশ্বাস কলকাতায় জিডি করার পর দুই দেশে তদন্ত শুরু হয়। এরপর ২২ মে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, এমপি আজীমকে কলকাতার এক বাড়িতে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

এরপর ভারতীয় পুলিশের দেয়া তথ্যে বাংলাদেশের পুলিশ শিমুল ভুঁইয়া, তানভীর ভুঁইয়া ও সেলেস্টি রহমানকে গ্রেপ্তার করে। তারা ইতোমধ্যে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। কিন্তু হত্যাকাণ্ডের ‘হোতা’ শাহীন নেপালের কাঠমান্ডু হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে চলে গেছেন বলে পুলিশের ভাষ্য। পরে ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের নেতা বাবুকেও গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে তিন দিনের রিমান্ডে পাঠায় আদালত।

নাশকতার অভিযোগে সারাদেশে সাড়ে ৫ হাজার গ্রেপ্তার

কিশোরী কন্যাকে ধর্ষণের দায়ে জন্মদাতার যাবজ্জীবন

ছবি

সিলেটে ৭ জুয়াড়ি গ্রেফতার

প্রশ্নপত্র কিনে সহযোগী দুই ভাইকে দিতেন পিএসসির অফিস সহায়ক সাজেদুল

ছবি

গরুকাণ্ডে ফাঁসছেন সাদিক অ্যাগ্রোর ইমরান ও প্রাণিসম্পদের কর্মকর্তারা

ছবি

এমপি আজীম খুন : আরও দুই খুনি ভারতে

ছাত্রীকে আটকে রেখে ধর্ষণ, নির্যাতন

ছবি

প্রশ্ন ফাঁস: বরখাস্ত ৫ কর্মীর বিষয়ে তদন্ত করতে দুদকে চিঠি দিলো পিএসসি

ছবি

স্ত্রীসহ ডিপিডিসির ব্যবস্থাপকের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

ছবি

প্রশ্নফাঁসের মাস্টারমাইন্ড নোমান সিদ্দিক

ছবি

প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় পিএসসির ২ উপপরিচালকসহ ১৭ জন গ্রেপ্তার

ছবি

অভিযোগ গঠন বাতিল চেয়ে হাইকোর্টে ড. ইউনূস

ছবি

জয়পুরহাটে তিন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

ছবি

মুন্সীগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানকে গুলি করে হত্যা

জাটকা নিধন রোধে অভিযান, গ্রেপ্তার ৮ হাজার জেলে

ছবি

ঘোড়াঘাটে টিকটকের আড়ালে সমকামী ভিডিও তৈরি, পুলিশের জালে দুই যুবক

ছবি

এনবিআরের সাবেক কর্মকর্তা মতিউরের পরিবারের সম্পদ ক্রোকের নির্দেশ

ছবি

ড. ইউনূসসহ ৪ জনের জামিনের মেয়াদ ফের বাড়লো

ছবি

"অবৈধ সম্পদ: চিত্রনায়ক শান্ত খানের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা দায়ের"

ছবি

১৩ বছর পর সাভারে সাবেক এমপির স্ত্রী হত্যার রহস্য উদ্ঘাটন

ছবি

সাজা কখনও স্থগিত হয় না : ড. ইউনূসের মামলার পর্যবেক্ষণে হাইকোর্ট

ছবি

সাবেক ডিসি ও জজসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে দুদকের অভিযোগপত্র দাখিল

ছবি

নকল কসমেটিকস উৎপাদন : ৭ প্রতিষ্ঠানকে জরিমানা সাড়ে ১৪ লাখ টাকা

চাঁদপুরে কোহিনুর হত্যা মামলায় ২ আসামীর মৃত্যুদণ্ড

ছবি

মাথাচাড়া দিচ্ছে নিত্য-নতুন সাইবার অপরাধ: সিক্যাফ’র গবেষণা

ছবি

কেন্দ্রে প্রভাষকসহ ১০ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

ছাগলকাণ্ডে বেরিয়ে আসছে আরও দুর্নীতি

সোনারগাঁয়ে বিচার শালিসে সন্ত্রাসী হামলায় দলিল লেখক গুলিবিদ্ধ

ছবি

নরসিংদীতে ভূয়া পুলিশ আটক

সোনারগাঁয়ে সাবেক নারী সদস্যকে শ্লীলতাহানি করে পেটালেন ইউপি সদস্য

সিলেটে কাউন্সিলর আজাদের বাসভবনে হামলা, সিসিক মেয়র ও কাউন্সিলরদের নিন্দা

ছবি

জুড়ীতে জুয়াড়িদের অভ্যন্তরীণ লেনদেনের বলি আরমান

পীরগাছায় স্কুল ছাত্রীকে অপহরণের অভিযোগ

ছবি

মতিউর আসলে কোথায়?

ছবি

সৎ মেয়েকে ধর্ষণ, ফরিদপুরে সাবেক বিডিআর কর্মকর্তার যাবজ্জীবন কারাদন্ড

ছবি

এমপি আনার হত্যা: মোস্তাফিজ ও ফয়সাল ৬ দিনের রিমান্ডে

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

এমপি আজীম খুন : জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আটক

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক, ঢাকা ও প্রতিনিধি, কলকাতা

মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪

এমপি আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল করিম মিন্টুকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। তাকে রাজধানীর মিন্টো রোডের ডিবি কার্যালয়ে নেয়া হয়েছে। মঙ্গলবার (১১ জুন) বিকেলে ধানমন্ডি থেকে তাকে আটক করা হয় বলে ডিবি সূত্রে জানা গেছে।

হত্যাকাণ্ডের মূল পরিকল্পনাকারী আক্তারুজ্জামান শাহীনের সঙ্গে সাইদুল করিম মিন্টুর যোগাযোগ ছিল। এছাড়া গ্রেপ্তার ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক কাজী কামাল আহমেদ বাবু ওরফে গ্যাস বাবুর সঙ্গে যোগাযোগ ছিল তার। এসব বিষয়ে সাইদুল করিম মিন্টুকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ডিবি।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. শফিকুল ইসলাম অপু বলেন, প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে জেলা আওয়ামী লীগের একটি অনুষ্ঠান ছিল মঙ্গলবার । সেই অনুষ্ঠানে মিন্টুর উপস্থিত থাকার কথা ছিল। কিন্তু তিনি অনুষ্ঠানে আসেননি। আটকের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, বাই দ্যা বাই শুনতেছি আটক, তবে আমি এখনো নিশ্চিত না। কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে কথা বলার পর নিশ্চিত হতে পারবো।

#বাবুসহ চারজনের মোবাইলের ফরেনসিক পরীক্ষার নির্দেশ

এমপি আনোয়ারুল আজীম আনার হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে গ্রেপ্তার আওয়ামী লীগ নেতা কাজী কামাল আহমেদ ওরফে বাবুসহ চারজনের মোবাইল ফোনের ফরেনসিক পরীক্ষা করার নির্দেশ দিয়েছে আদালত। তদন্ত কর্মকর্তার আবেদন মঞ্জুর করে ঢাকার অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম মাহবুবুল হক ১০ জুন সোমবার এই আদেশ দেন। ওই চারজন হলেনÑ ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক বাবু, চরমপন্থি নেতা আমানুল্লা সাঈদ ওরফে শিমুল ভুঁইয়া, তার ভাতিজা তানভীর ভূঁইয়া ও সেলেস্টি রহমান।

আদালত পুলিশের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা এস আই জালাল আহমেদ বলেন, মামলার আলামত হিসেবে গ্রেপ্তার চারজনের মোবাইল ফোন জব্দ করা হয়েছে। ফোনগুলোর ফরেনসিক পরীক্ষার জন্য মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ আদালতে আবেদন করেছিল। ওই আবেদন সোমবার মঞ্জুর করেছে আদালত।

ডিবির আবেদনে বলা হয়, আনোয়ারুল আজীম আনারকে খুনের পর শিমুল, বাবু, তানভীর ও সেলেস্টি নিজেদের মধ্যে হোয়াটসঅ্যাপে বিভিন্ন রকম তথ্য আদান-প্রদান করেছেন। এছাড়া আসামিদের হোয়াটসঅ্যাপ নম্বরে এবং মোবাইলে থাকা ছবি, ভিডিওসহ অপহরণ ও খুন-সংক্রান্ত কোনো তথ্য মুছে ফেলা হয়েছে কি না, সেটি জানা প্রয়োজন।

মঙ্গলবার বিকেলে রাজধানীর মিন্টো রোডে ডিবি কার্যালয়ে অতিরিক্ত কমিশনার (গোয়েন্দা) মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ বলেন, কিলিং মিশনে যারা অংশ নিয়েছিল কলকাতা থেকে এমপি আজীমের ছবি হোয়াটসঅ্যাপে কার সঙ্গে শেয়ার করা হয়েছে এবং এতে কোনো আর্থিক সংশ্লিষ্টতা ছিল কি না সবকিছু তদন্ত চলছে।

এছাড়া এমপি আজীম হত্যার ‘মূল পরিকল্পনাকারী’ তার বাল্যবন্ধু ও যুক্তরাষ্ট্রপ্রবাসী আখতারুজ্জামান শাহীনের গুলশানের ভাড়া বাসায় অভিযান চালিয়ে দুটি গাড়িও জব্দ করেছে ডিবি পুলিশ। এর মধ্যে একটি সাদা রঙের প্রাডো, অন্যটি মাইক্রোবাস রয়েছে।

উদ্ধার মাংসের টুকরা ও হাড়গোড় ‘পুরুষ মানুষের’

আমাদের কলকাতা প্রতিনিধি জানান,আজীম হত্যার তদন্তে পশ্চিমবঙ্গে যে মাংসের টুকরা ও হাড়গোড় উদ্ধার হয়েছে, সেগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রাথমিক ফরেনসিক প্রতিবেদন এসেছে ভারতীয় সিআইডির কলকাতা ব্যুরোর হাতে। এ ঘটনায় গঠিত বিশেষ তদন্ত দলের প্রধান কলকাতা সিআইডির আইজি অখিলেশ চতুর্বেদী বলেছেন, প্রতিবেদন থেকে একটি বিষয়ে নিশ্চিত হয়েছে সিআইডি, আর তা হল- এগুলো ‘মানুষেরই দেহাবশেষ’ এবং তা ‘পুরুষ মানুষের’।

কলকাতা টাইমস অব ইনডিয়াকে এ সিআইডি কর্মকর্তা বলেছেন, মাংসের টুকরা ও হাড়গুলো এমপি আজীমের কিনা, তা নিশ্চিত হওয়ার জন্য ডিএনএ পরীক্ষা করাতে আদালতের অনুমতি চাইবেন তারা। অনুমতি পেলে আজীমের স্বজনদের ডেকে ডিএনএ পরীক্ষা করা হবে এবং তারপর সিদ্ধান্তে আসা যাবে। বাংলাদেশ ও ভারতের গোয়েন্দাদের তথ্য অনুযায়ী, ১৩ মে কলকাতার নিউ টাউনের অভিজাত অ্যাপার্টমেন্ট ব্লক ‘সঞ্জিভা গার্ডেনস’ এর ফ্ল্যাটে ডেকে নিয়ে হত্যা করা হয় ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আজীমকে।

যে ফ্ল্যাটে এমপি আজীমকে হত্যা করা হয়, ঢাকার গোয়েন্দাদের উপস্থিতিতে তার সেপটিক ট্যাংক থেকে কয়েক কেজি মাংসের টুকরা উদ্ধার হয় গত মাসে। আগে রোববার কলকাতার ভাঙড় এলাকার বাগজোলা খাল থেকে উদ্ধার হয় কিছু হাড়গোড়।

সিআইডির আইজি চতুর্বেদী টাইমস অব ইন্ডিয়াকে বলেছেন, দুটি স্থান থেকে উদ্ধার হাড়-মাংসের ফরেনসিক রিপোর্ট তারা হাতে পেয়েছেন। ডিএনএ পরীক্ষার জন্য কূটনৈতিক অনুমোদন লাগবে। আমরা আশা করছি, এমপি আজীমের মেয়ে মুমতারিন ফেরদৌস ডরিন আসবেন এবং তার সঙ্গে ডিএনএ মিলিয়ে দেখাই হবে এর শেষ ধাপ। পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন হতে কিছু সময় লেগে যাবে।’ এ প্রক্রিয়া চলতে থাকার মধ্যে হত্যায় ব্যবহৃত ‘হাতিয়ার’ বা সরঞ্জাম উদ্ধারে মনোযোগ দেবে সিআইডি।

সিআইডির এক কর্মকর্তাকে উদ্ধৃত করে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নেপালে গ্রেপ্তার সিয়াম হোসেনই কলকাতা নিউমার্কেট থেকে হত্যার সরঞ্জাম জোগাড় করেন। সিআইডি শিগগির তাকে সেখানে নিয়ে যাবে। একটি চাপাতির সন্ধান করছেন তারা, যা দিয়ে দেহটি টুকরা টুকরা করা হয়েছিল।

ডিএনএ পরীক্ষার নমুনা দিতে ভারতের যাওয়ার অপেক্ষায় রয়েছেন আজীমের পরিবারের সদস্যরা। ইতোমধ্যে তাদের ভিসাও হয়ে গেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আজীমের ব্যক্তিগত সহকারী আবদুর রউফ বলেন, ‘এর আগে ডিবি আমাদের বলেছিল, মাংসের টুকরাগুলোর ফরেনসিক পরীক্ষা শেষ হলে তারা আমাদের জানাবে। এরপর আমরা উনার (আজীম) মেয়েসহ (ডরিন) ডিএনএ টেস্টের জন্য কলকাতায় যাব। ঢাকার ডিবি থেকে ফরেনসিক রিপোর্টের বিষয়ে আমাদের এখনও কিছু জানায়নি।

আজীম চোরাচালানে যুক্ত ছিল, কখনোই বলিনি : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

আজীম হত্যাকাণ্ডের পর বিভিন্ন সময় বলা হয়েছিল তিনি চোরাচালানের সঙ্গে যুক্ত। মঙ্গলবার দুপুরে রাজারবাগ পুলিশ লাইন্সে হাইওয়ে পুলিশের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান শেষে এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, চোরাচালানের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন এমপি আজীম, তা আমরা কখনোই বলিনি।

তিনি বলেন, আমরা সবসময় বলে আসছি এমপির ওই এলাকা সন্ত্রাসপূর্ণ একটি এলাকা। ওখানে সত্যিকারে কী হয়েছে সেটা আমাদের জানতে হবে। আমরা তদন্ত করছি, তদন্তের পরে সব কিছু জানাবো। সংসদ সদস্য আজীমের মেয়ে ডরিন সন্দেহভাজনদের নাম বলেছেন। কাদের নাম বলেছেন তিনি? এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, যখন তদন্ত চলে তখন আমাদের মন্ত্রী, আইজিপি কিংবা তদন্তকারী কর্মকর্তার পক্ষ থেকে তদন্ত না করে কোনো কিছু বলা সম্ভব নয়। আমরা মনে করি তদন্ত শেষ হলে এগুলো নিয়ে কথা বলবো।

গত ১১ মে চিকিৎসার জন্য ভারতে গিয়ে নিখোঁজ হন ঝিনাইদহ-৪ আসনের সংসদ সদস্য আজীম। তার বন্ধু স্বর্ণ ব্যবসায়ী গোপাল বিশ্বাস কলকাতায় জিডি করার পর দুই দেশে তদন্ত শুরু হয়। এরপর ২২ মে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল ঢাকায় এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, এমপি আজীমকে কলকাতার এক বাড়িতে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

এরপর ভারতীয় পুলিশের দেয়া তথ্যে বাংলাদেশের পুলিশ শিমুল ভুঁইয়া, তানভীর ভুঁইয়া ও সেলেস্টি রহমানকে গ্রেপ্তার করে। তারা ইতোমধ্যে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছেন। কিন্তু হত্যাকাণ্ডের ‘হোতা’ শাহীন নেপালের কাঠমান্ডু হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে চলে গেছেন বলে পুলিশের ভাষ্য। পরে ঝিনাইদহ জেলা আওয়ামী লীগের নেতা বাবুকেও গ্রেপ্তার করে পুলিশ। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাকে তিন দিনের রিমান্ডে পাঠায় আদালত।

back to top