alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

ইউএনও’র উদ্দেশে হাইকোর্ট

‘এমন আচরণ রাষ্ট্রের জন্য কলঙ্ক’

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : মঙ্গলবার, ২১ জুন ২০২২

আদালতের নোটিশ জারিকারকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারের পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে বিচারের হুমকি দেয়ার ঘটনায় ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার ইউএনও রেজাউল করিমকে ভর্ৎসনা করেছেন হাইকোর্ট ।

ইউএনও’র এমন আচারণকে সভ্য রাষ্ট্রের জন্য একটি কলঙ্কজনক অধ্যায় হয়ে থাকবে বলেও মন্তব্য করেছেন উচ্চ আদালত।

ওই ঘটনায় ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার ইউএনও’র নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা আবেদনের ওপর গতকাল শুনানিকালে বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই মন্তব্য করেন।

আদালতে ইউএনও-নাজিরের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ ও ব্যারিস্টার মাহবুব শফিক। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায়।

শুনানিকালে ইউএনও রেজাউল করিমকে উদ্দেশ করে আদালত বলেন, ‘আপনাকে ক্ষমা করলে আমরা আটকে যাব। আদালত সবার ওপরে। আদালতের আদেশ সবার মানতে হয়।’

‘আপনি আদালতের আদেশ মানেননি। আদালতের সমন নিয়ে নোটিশ জারিকারকরা আপনাদের কাছে গিয়েছিল। আপনার উচিত ছিল তাকে ধন্যবাদ দেওয়া। অথচ কী দুর্ব্যবহার না করলেন! কত অজুহাত দেখালেন!’

আদালত বলেন, ‘আপনি যে আচরণ করলেন তা সভ্য রাষ্ট্রে কলঙ্ক লেগে গেল। আপনি একটা ছোট বিষয় হ্যান্ডেল করতে পারেন না। কীভাবে জনসেবা করবেন? একটি কথা মনে রাখবেন আইন আদালত আছে বলেই আপনি সম্মান পান। আপনি যদি আইন না মানেন আপনাকে কেউ মানবে না।’

আদালত আরও বলেন, ‘আপনি নিজের ভবিষ্যৎ নিজে নষ্ট করেছেন। আদালত অবমাননার ঘটনায় আদালতে আসতে হয়েছে আপনাকে। আপনার ক্যারিয়ারে একটি স্পট পড়ে গেল। আমরা যদি একটি লাইন লেখে দিই আপনার ক্যারিয়ার ধ্বংস হয়ে যাবে।’

এসময় নাজির উকিল মিয়াকে উদ্দেশ করে আদালত বলেন, ‘আপনি মূল অপরাধী। আপনি সিনক্রিয়েট করেছেন। খুব খারাপভাবে মিসগাইড করেছেন।’

পরে ইউএনও’র উদ্দেশে আদালত আরও বলেন, ‘ভবিষ্যতে এ ধরনের আচরণ করবেন না। আপনার দায়িত্ব-কর্তব্যের প্রতি নজর রাখবেন। আদালতকে সম্মান না করলে আপনি কখনও সম্মান পাবেন না।’

এরআগে ওই ঘটনায় ভূমিকা কী ছিল সেই ব্যাখ্যা জানতে বোয়ালমারী উপজেলার ইউএনও ও তার নাজির উকিল মিয়াকে তলব করলে তারা এদিন আদালতে উপস্থিত হন।

শুনানি শেষে পরে আদালত তাদেরকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দেন। একইসঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে জারি করা আদালত অবমাননার রুলের আদেশের জন্য আগামী রোববার দিন ধার্য করেন।

ছবি

শিক্ষককে পিটিয়ে হত্যা: ৫ দিনের রিমান্ডে জিতু

ছবি

রংপুরে হত্যা মামলায় বাপ ছেলের ফাঁসির আদেশ

গ্যাস সিলিন্ডারে ফেন্সিডিল

ছবি

পদ্মা সেতুর নাট খোলার পৃথক ঘটনায় আরেক যুবক গ্রেপ্তার

ছবি

সাভারে শিক্ষককে পিটিয়ে খুন: মামলায় অভিযুক্ত ছাত্রের বয়স ১৬, র‍্যাব বলছে সনদ অনুযায়ী ১৯

ছবি

বিমানবন্দরে ২২ লাখ রিয়াল জব্দ, পালিয়েছেন যাত্রী

ছবি

যুদ্ধাপরাধ : একজনের মৃত্যুদণ্ড, তিনজনের আমৃত্যু কারাদণ্ড

ছবি

অর্থ আত্মসাৎ: ডেসটিনির মেজর সাকিবুজ্জামানসহ ৪ জন কারাগারে

কলেজ শিক্ষক হত্যা : অভিযুক্ত ছাত্রের বাবা আটক

মেয়ের প্রেমের বিয়ের বিরোধে ছেলের মা’কে আগুনে পুড়িয়ে মারলো মেয়ের মা

ছবি

মানবপাচার মামলায় ইভা আরমানের আগাম জামিন

ছবি

বন্ধুকে খুনের পর মোবাইল বিক্রির টাকায় বান্ধবীকে নিয়ে হোটেলে কিশোর

ছবি

পদ্মা সেতুর ‘ষড়যন্ত্রকারীদের’ চিহ্নিতে এক মাসের মধ্যে কমিশন গঠনের নির্দেশ

ছবি

অর্থ পাচারকারীদের খেলাপি ঋণ পুনঃতফসিল খতিয়ে দেখতে হবে: হাইকোর্ট

ছবি

নড়াইলে শিক্ষক নির্যাতন, প্রতিবাদ সমাবেশ চলছে

সাবেক সেনাপ্রধান হারুনের চিকিৎসায় মেডিকেল বোর্ড গঠনে আবেদন

ছবি

পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খোলা বায়েজিদ ৭ দিনের রিমান্ডে

ছবি

পদ্মা সেতুর নাট-বল্টু খোলা নিয়ে যা বলল সিআইডি

ছবি

পদ্মা সেতুর বিরোধিতাকারীরা জাতির শত্রু, তাদের চিহ্নিত করা দরকার: হাইকোর্ট

সোনাইমুড়ীতে আ’লীগের দু’গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত-৯

অর্থ আত্মসাৎ : গাজীপুরের সাবেক মেয়র জাহাঙ্গিরের বিরুদ্ধে অনুসন্ধান শুরু

ছবি

ভারতে আশ্রয় নিয়েছিল শেখ হাসিনা হত্যাচেষ্টা মামলার আসামি পিন্টু

ছবি

পদ্মা সেতু নিয়ে গুজবের শিকার রেনুর পরিবার কেমন আছে

ছবি

মোবাইলের আইএমইআই নম্বর পরিবর্তন করে বেশি দামে বিক্রি করত তারা

হাতিয়ার মেঘনাপাড় থেকে আগ্নেয়াস্ত্র উদ্ধার

১৮ বছর পর গৃহবধূ গণধর্ষণ মামলার রায় : ২ জনের যাবজ্জীবন

ছবি

মুক্তিযোদ্ধা হোসেন হত্যা: ৬ জেএমবির ফাঁসির রায়

ছবি

অর্থ আত্মসাৎ: ওয়াসার এমডিসহ ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন

র‌্যাবকে ঘুষ দিতে গিয়ে মামলার আসামি

মহাসড়কে ব্যারিকেড দিয়ে সোয়াবিন ভর্তি ট্রাক ছিনতাই

ছবি

১৫ পর কৃষক হত্যার রায়, ৮ জনের যাবজ্জীবন

ময়মনসিংহের ছোট ভাইয়ের দায়ের কোপে বড় ভাই নিহত

সিরাজগঞ্জে হেরোইন বহনের দায়ে দু’জনের যাবজ্জীবন

ছবি

সাতক্ষীরায় আ. লীগ নেতা মোশাররফ হোসেন গুলিবিদ্ঘধ, হাসপাতালে ভর্তি

পাবনা জেনারেল হাসপাতালে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা সামগ্রী ক্রয়ে দুর্নীতি!

ছবি

নন্দীগ্রামের জীবন কুমারের আত্মহত্যায় প্ররোচনাকারীদের শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

ইউএনও’র উদ্দেশে হাইকোর্ট

‘এমন আচরণ রাষ্ট্রের জন্য কলঙ্ক’

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

মঙ্গলবার, ২১ জুন ২০২২

আদালতের নোটিশ জারিকারকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারের পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে বিচারের হুমকি দেয়ার ঘটনায় ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার ইউএনও রেজাউল করিমকে ভর্ৎসনা করেছেন হাইকোর্ট ।

ইউএনও’র এমন আচারণকে সভ্য রাষ্ট্রের জন্য একটি কলঙ্কজনক অধ্যায় হয়ে থাকবে বলেও মন্তব্য করেছেন উচ্চ আদালত।

ওই ঘটনায় ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার ইউএনও’র নিঃশর্ত ক্ষমা প্রার্থনা আবেদনের ওপর গতকাল শুনানিকালে বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি রাজিক আল জলিলের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এই মন্তব্য করেন।

আদালতে ইউএনও-নাজিরের পক্ষে ছিলেন ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ ও ব্যারিস্টার মাহবুব শফিক। আর রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল তুষার কান্তি রায়।

শুনানিকালে ইউএনও রেজাউল করিমকে উদ্দেশ করে আদালত বলেন, ‘আপনাকে ক্ষমা করলে আমরা আটকে যাব। আদালত সবার ওপরে। আদালতের আদেশ সবার মানতে হয়।’

‘আপনি আদালতের আদেশ মানেননি। আদালতের সমন নিয়ে নোটিশ জারিকারকরা আপনাদের কাছে গিয়েছিল। আপনার উচিত ছিল তাকে ধন্যবাদ দেওয়া। অথচ কী দুর্ব্যবহার না করলেন! কত অজুহাত দেখালেন!’

আদালত বলেন, ‘আপনি যে আচরণ করলেন তা সভ্য রাষ্ট্রে কলঙ্ক লেগে গেল। আপনি একটা ছোট বিষয় হ্যান্ডেল করতে পারেন না। কীভাবে জনসেবা করবেন? একটি কথা মনে রাখবেন আইন আদালত আছে বলেই আপনি সম্মান পান। আপনি যদি আইন না মানেন আপনাকে কেউ মানবে না।’

আদালত আরও বলেন, ‘আপনি নিজের ভবিষ্যৎ নিজে নষ্ট করেছেন। আদালত অবমাননার ঘটনায় আদালতে আসতে হয়েছে আপনাকে। আপনার ক্যারিয়ারে একটি স্পট পড়ে গেল। আমরা যদি একটি লাইন লেখে দিই আপনার ক্যারিয়ার ধ্বংস হয়ে যাবে।’

এসময় নাজির উকিল মিয়াকে উদ্দেশ করে আদালত বলেন, ‘আপনি মূল অপরাধী। আপনি সিনক্রিয়েট করেছেন। খুব খারাপভাবে মিসগাইড করেছেন।’

পরে ইউএনও’র উদ্দেশে আদালত আরও বলেন, ‘ভবিষ্যতে এ ধরনের আচরণ করবেন না। আপনার দায়িত্ব-কর্তব্যের প্রতি নজর রাখবেন। আদালতকে সম্মান না করলে আপনি কখনও সম্মান পাবেন না।’

এরআগে ওই ঘটনায় ভূমিকা কী ছিল সেই ব্যাখ্যা জানতে বোয়ালমারী উপজেলার ইউএনও ও তার নাজির উকিল মিয়াকে তলব করলে তারা এদিন আদালতে উপস্থিত হন।

শুনানি শেষে পরে আদালত তাদেরকে ব্যক্তিগত হাজিরা থেকে অব্যাহতি দেন। একইসঙ্গে তাদের বিরুদ্ধে জারি করা আদালত অবমাননার রুলের আদেশের জন্য আগামী রোববার দিন ধার্য করেন।

back to top