alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

দুদকের মামলা

জাল মানি অর্ডারে জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসির খাতা ক্রয়!

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : বুধবার, ০৩ আগস্ট ২০২২

ভুয়া ও জাল মানি অর্ডারের মাধ্যমে শিক্ষা বোর্ডের জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার নিরীক্ষিত খাতা ক্রয় করে সরকারি অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে পথশিশু ফাউন্ডেশনের প্রধান মো. ফজলুল হক আশরাফ ও তার স্ত্রী মোছা. আছমা আক্তার শিমুর বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

দুদকের গাজীপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে সংস্থাটির উপসহকারী পরিচালক ওয়াহিদ মঞ্জুর সোহাগ বাদী হয়ে মামলা করেন। বুধবার (৩ আগস্ট) দুদকের একটি সূত্রে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে ২০২০ সালের ৮ ডিসেম্বর থেকে ১৭ ডিসেম্বরের মধ্যে পরীক্ষকদের নিকট দেশের বিভিন্ন ডাকঘরের ভুয়া ও জাল মানি অর্ডার প্রেরণ করে খাতা সংগ্রহ করে সরকারি অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে। আসামিদের বিরুদ্ধ দণ্ডবিধির ৪০৬/৪২০/৪৬৭/৪৭১/১০৯ ধারায় মামলাটি করা হয়।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, পোস্টাল জালিয়াত ও প্রতারক চক্রের সক্রিয় সদস্য মো. ফজলুল হক আশরাফ পথশিশু ফাউন্ডেশন ছাড়াও ছানোয়ার ফাউন্ডেশন ও এ্যারোলাইট বায়োগ্যাস নামে কতিপয় প্রতিষ্ঠানের প্রধান। তার স্ত্রী মোছা. আছমা আক্তার শিমু তার প্রতারণা কাজের সহযোগী। তারা শিক্ষা বোর্ডের জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার নিরীক্ষিত খাতা প্রতিটি ০.৬০ টাকায় কেনার আবেদন করেন। আবেদন বাতিল হলে জনকল্যাণমূলক কাজে ব্যয়ের কথা বলে আসামি ফজলুল হক হাইকোর্টে রিট পিটিশন দায়ের করেন। ওই রিটের আলোকে হাইকোর্ট বিভাগের মাধ্যমে বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষার উত্তরপত্র কেনার আদেশ পায়। এরপর নিরীক্ষিত খাতাগুলো তাদের নিকট প্রেরণের জন্য সংশ্লিষ্ট পরীক্ষকদের নিকট বিভিন্ন পোস্ট অফিসের জাল সিল ও স্বাক্ষরযুক্ত মানি অর্ডার প্রেরণ করে খাতাগুলো সংগ্রহ করেন। বিষয়টি সন্দেহ হলে ডাক বিভাগ তদন্ত করলে জমা দেওয়া মানি অর্ডার জাল ও ভুয়া বলে প্রমাণিত হয়।

দেখা গেছে, আসামিরা তাদের অজ্ঞাতনামা কয়েকজনের সহায়তায় দেশের বিভিন্ন ডাকঘর থেকে ৪১০টি জাল মানি অর্ডার প্রেরণ করে। যার প্রতিটির মূল্যমান আড়াই হাজার থেকে ৫ হাজার টাকা। এ ধরনের আরও জাল মানি অর্ডার তারা ব্যবহার করেছে বলে দুদকের অনুসন্ধানে প্রমাণ পাওয়া গেছে।

এর আগে, ২০২০ সালের ২৯ জুলাই উত্তরার র‌্যাব-১ এর অভিযানে নকল সিল, প্যাড ও জাল মানি অর্ডারসহ ওই আসামিদের গ্রেপ্তার করেছিল। এরপরই বিষয়টি নিয়ে বোর্ড কর্তৃপক্ষের সন্দেহ হয়। ডাক বিভাগের মাধ্যমে টাকা পেলেও মূলত সরকারি টাকা আত্মসাৎ হয়েছে বলে প্রমাণিত হয়েছে। বিপুল পরিমাণ অর্থ প্রতারক চক্র হাতিয়ে নিয়েছে। যদিও মামলার এই অবস্থায় আত্মসাৎকৃত টাকার পরিমাণ বের করা সম্ভব হয়নি। তদন্তকালীন সময়ে লোপাট করা অর্থের পরিমাণ জানা যাবে বলে দুদক জানিয়েছে।

গ্রামীণ টেলিকমের দুর্নীতি সব ধরনের নথিপত্র দুদকে

ছবি

চকবাজারে অগ্নিকাণ্ড : হোটেল মালিক আটক

বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ:অশ্লীল ভিডিও তুলে চাঁদা আদায়, গ্রেফতার ২

শোকসভা থেকে ফেরার পথে যুবলীগ নেতার মাথা ফাটালেন ছাত্রলীগ নেতা

শরনার্থী ক্যাম্পে বিদেশি পিস্তলসহ সন্ত্রাসী আটক

সুধারামে শ্বশুর বাড়িতে জামাইকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

হবিগঞ্জে কারাগার থেকে জামিনে বেরিয়ে আসা যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা

প্রবাসীর স্ত্রীকে অচেতন করে নগ্ন ভিডিও ধারণ,গ্রেফতার-২

ছবি

বঙ্গবন্ধু হত্যার ৫ খুনি এখনও অধরা

ছবি

ডেল্টা লাইফ ইন্স্যুরেন্স: তিন সদস্যেরে তদন্ত কমিটি গঠন

ছবি

রিক্রুটিং এজেন্সির প্রতারণার শিকার দুই নারী দেশে ফিরলো

ছবি

হোটেল জোনে টর্চার সেল: মামলায় ২ আসামি গ্রেপ্তার

ছবি

স্বাস্থ্যের সাবেক ডিজিসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে সাক্ষ্যগ্রহণ শুরু

ছবি

ছিনতাইকারী সেজে তিন ছেলে বাবাকে পিটিয়ে ৩১ লাখ টাকা আত্মসাৎ, গ্রেফতার ২

ছবি

কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ: আসামী নাজমুল হুদা সাহেদ গ্রেপ্তার

ছবি

‘সড়ক দুঘটনায়’ মারা যাওয়ার কথা বলে তদন্ত করেনি পুলিশ

ছবি

ডিমের পিকআপে ডাকাতি, যেভাবে গ্রেপ্তার ৬ ডাকাত

লালমনিরহাটে আ.লীগ নেতার ছেলের নেতৃত্বে ৪ সাংবাদিকের ওপর হামলা

ছবি

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ের এক শিক্ষার্থীকে ধর্ষণের মামলায় গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ

ছবি

জন্মদিন পালনের কথা বলে এনে নারী চিকিৎসককে খুন : র‍্যাব

ছবি

হোটেল থেকে নারী চিকিৎসকের লাশ উদ্ধার: ছেলেবন্ধু গ্রেপ্তার

ছবি

ডেল্টা লাইফের গুরুত্বপূর্ণ নথির ফটোকপি গাড়িযোগে পাচারের চেষ্টা

ছবি

জঙ্গি নেতা রাজীব গান্ধীর সহযোগী আফজাল গ্রেপ্তার

ছবি

ইন্টারন্যাশনাল লিজিং এর সাবেক এমডি রাশেদুলের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলা

ছবি

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে যুগ্ম সচিবের বিরুদ্ধে মামলা

ছবি

‘জজ মিয়ার’ জন্য ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে নোটিশ

কর ফাঁকি : মদিনার ৪ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা

সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় কামরাঙ্গীরচরে গ্রেপ্তার চারজন রিমান্ডে

ছবি

নারায়ণগঞ্জে মানব পাচার আইনে চারজনের যাবজ্জীবন

ছবি

বাংলাদেশের দুই বোনকে ভারতের যৌনপল্লীতে বিক্রি

ছবি

রোহিঙ্গা শিবিরে দুই রোহিঙ্গা নেতাকে হত্যা

প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি : নড়াইলে স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা গ্রেফতার

বগুড়ায় ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্র হত্যা

২৬ মামলার আসামি স্বেচ্ছাসেবকদল নেতা গ্রেফতার

তিন দিন আগে বাস ডাকাতির পরিকল্পনা করে মূলহোতা ডাকাত রতন

সখীপুরে জমি বিরোধে ভাতিজাদের হাতে চাচা খুন

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

দুদকের মামলা

জাল মানি অর্ডারে জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসির খাতা ক্রয়!

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

বুধবার, ০৩ আগস্ট ২০২২

ভুয়া ও জাল মানি অর্ডারের মাধ্যমে শিক্ষা বোর্ডের জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার নিরীক্ষিত খাতা ক্রয় করে সরকারি অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে পথশিশু ফাউন্ডেশনের প্রধান মো. ফজলুল হক আশরাফ ও তার স্ত্রী মোছা. আছমা আক্তার শিমুর বিরুদ্ধে মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

দুদকের গাজীপুর সমন্বিত জেলা কার্যালয়ে সংস্থাটির উপসহকারী পরিচালক ওয়াহিদ মঞ্জুর সোহাগ বাদী হয়ে মামলা করেন। বুধবার (৩ আগস্ট) দুদকের একটি সূত্রে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

মামলায় আসামিদের বিরুদ্ধে ২০২০ সালের ৮ ডিসেম্বর থেকে ১৭ ডিসেম্বরের মধ্যে পরীক্ষকদের নিকট দেশের বিভিন্ন ডাকঘরের ভুয়া ও জাল মানি অর্ডার প্রেরণ করে খাতা সংগ্রহ করে সরকারি অর্থ আত্মসাতের অভিযোগ আনা হয়েছে। আসামিদের বিরুদ্ধ দণ্ডবিধির ৪০৬/৪২০/৪৬৭/৪৭১/১০৯ ধারায় মামলাটি করা হয়।

এজাহার সূত্রে জানা যায়, পোস্টাল জালিয়াত ও প্রতারক চক্রের সক্রিয় সদস্য মো. ফজলুল হক আশরাফ পথশিশু ফাউন্ডেশন ছাড়াও ছানোয়ার ফাউন্ডেশন ও এ্যারোলাইট বায়োগ্যাস নামে কতিপয় প্রতিষ্ঠানের প্রধান। তার স্ত্রী মোছা. আছমা আক্তার শিমু তার প্রতারণা কাজের সহযোগী। তারা শিক্ষা বোর্ডের জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার নিরীক্ষিত খাতা প্রতিটি ০.৬০ টাকায় কেনার আবেদন করেন। আবেদন বাতিল হলে জনকল্যাণমূলক কাজে ব্যয়ের কথা বলে আসামি ফজলুল হক হাইকোর্টে রিট পিটিশন দায়ের করেন। ওই রিটের আলোকে হাইকোর্ট বিভাগের মাধ্যমে বিভিন্ন পাবলিক পরীক্ষার উত্তরপত্র কেনার আদেশ পায়। এরপর নিরীক্ষিত খাতাগুলো তাদের নিকট প্রেরণের জন্য সংশ্লিষ্ট পরীক্ষকদের নিকট বিভিন্ন পোস্ট অফিসের জাল সিল ও স্বাক্ষরযুক্ত মানি অর্ডার প্রেরণ করে খাতাগুলো সংগ্রহ করেন। বিষয়টি সন্দেহ হলে ডাক বিভাগ তদন্ত করলে জমা দেওয়া মানি অর্ডার জাল ও ভুয়া বলে প্রমাণিত হয়।

দেখা গেছে, আসামিরা তাদের অজ্ঞাতনামা কয়েকজনের সহায়তায় দেশের বিভিন্ন ডাকঘর থেকে ৪১০টি জাল মানি অর্ডার প্রেরণ করে। যার প্রতিটির মূল্যমান আড়াই হাজার থেকে ৫ হাজার টাকা। এ ধরনের আরও জাল মানি অর্ডার তারা ব্যবহার করেছে বলে দুদকের অনুসন্ধানে প্রমাণ পাওয়া গেছে।

এর আগে, ২০২০ সালের ২৯ জুলাই উত্তরার র‌্যাব-১ এর অভিযানে নকল সিল, প্যাড ও জাল মানি অর্ডারসহ ওই আসামিদের গ্রেপ্তার করেছিল। এরপরই বিষয়টি নিয়ে বোর্ড কর্তৃপক্ষের সন্দেহ হয়। ডাক বিভাগের মাধ্যমে টাকা পেলেও মূলত সরকারি টাকা আত্মসাৎ হয়েছে বলে প্রমাণিত হয়েছে। বিপুল পরিমাণ অর্থ প্রতারক চক্র হাতিয়ে নিয়েছে। যদিও মামলার এই অবস্থায় আত্মসাৎকৃত টাকার পরিমাণ বের করা সম্ভব হয়নি। তদন্তকালীন সময়ে লোপাট করা অর্থের পরিমাণ জানা যাবে বলে দুদক জানিয়েছে।

back to top