alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

বগুড়ায় চাঁদাবাজীর অভিযোগ সোর্সসহ পুলিশ সদস্য ঘেরাও, পুলিশের এস আই ক্লোজড

বগুড়া প্রতিনিধি : শুক্রবার, ০৫ আগস্ট ২০২২

বগুড়ায় শহরের নাটাইপাড়া এলাকায় চাঁদাবাজী অভিযোগে পুলিশের সোর্সসহ এক এসআইকে স্থানীয় লোকজন আটক করে। এঘটনায় অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য বগুড়া সদর থানার এসআই মাসুদ রানাকে ক্লোজড করা হয়েছে। পুলিশের সোর্স ইকবাল নামে এক ব্যক্তিকে সদর থানা পুলিশ আটক করেছে।

বগুড়া পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়ে বলেন, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পুলিশের একাধিক সুত্রসহ এলাকাবাসী জানায়, দুপুরে শহরের দক্ষিন নাপিত পাড়া এলাকার তরুণ চন্দ্রশীল নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে এস আই মাসুদ ও তার সোর্স ইকবাল যান। সেখানে চাঁদাবাজীর টাকার দাবি নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়। এক পর্যায়ে বাড়ির লোকজনকে মারপিটও করা হয় বলে অভিযোগ করা হয়।

এক পর্যায়ে স্থানীয় লোকজন সোর্সসহ এসআই মাসুদকে আটক করে বিক্ষোভ করতে থাকে। বিষয়টি পুলিশের জরুরী সহায়তা ৯৯৯ এ জানান হয় বলেও সুত্র জানায়। পরে বগুড়া সদর থানা ও নারুলী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং সেখান থেকে পুলিশ সদস্য এসআই মাসুদকে উদ্ধার ও সোর্স ইকবালকে আটক করে।

সুত্র জানায়, ক্রিকেট খেলার বেটিং চলছে এমন খবর এসআইকে দিয়েছিলো পুলিশের সোর্স। এতে পুলিশের এসআই মাসুদ রানা ও সোর্স ইকবাল সেখানে গিয়ে জুয়া চালানোর জন্য চাঁদা দাবি করলে বিপত্তি বাঁধে। পরে বিক্ষুদ্ধ লোকজন তাদের আটক করে।

তরুন শীলের পরিবারের সদস্য ভক্তি রানী জানান, তাদের বাড়িতে অবৈধভাবে প্রবেশ করে ভাংচুর ও টাকা দাবি করা হয়েছে। পুলিশ সদস্যের মারপিটে তরুন আহত হয়ে হাসপাতালে রয়েছেন। এ বিষয়ে তারা বিচার দাবি করে বলেন, তাদের বাড়িতে কোন বেটিং হয়না। তরুণ এধরনের কোন কর্মকান্ডের সঙ্গে জড়িত নন। একটি সেলুন ও সমিতি পরিচালনা করেন বলে জানান ভক্তি রানী।

এ ব্যাপারে বগুড়ার এসপি জানান, বিষয়টি সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরাফত ইসলামকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে এসআই মাসুদকে ক্লোজড করা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, সোর্স হিসাবে অভিযুক্ত ইকবালকে আটক করা হয়েছে এবং এসআই মাসুদ রানাকে পুলিশ লাইন্সে ক্লোজড করা হয়েছে। ওই দু’জন কেন সেখানে গিয়েছিলো এবং মারপিটের বিষয়টি তদন্ত করা হবে।

ছবি

হোটেল থেকে নারী চিকিৎসকের লাশ উদ্ধার: ছেলেবন্ধু গ্রেপ্তার

ছবি

ডেল্টা লাইফের গুরুত্বপূর্ণ নথির ফটোকপি গাড়িযোগে পাচারের চেষ্টা

ছবি

জঙ্গি নেতা রাজীব গান্ধীর সহযোগী আফজাল গ্রেপ্তার

ছবি

ইন্টারন্যাশনাল লিজিং এর সাবেক এমডি রাশেদুলের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জনের মামলা

ছবি

অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে যুগ্ম সচিবের বিরুদ্ধে মামলা

ছবি

‘জজ মিয়ার’ জন্য ১০ কোটি টাকা ক্ষতিপূরণ চেয়ে নোটিশ

কর ফাঁকি : মদিনার ৪ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে মামলা

সাংবাদিকের ওপর হামলার ঘটনায় কামরাঙ্গীরচরে গ্রেপ্তার চারজন রিমান্ডে

ছবি

নারায়ণগঞ্জে মানব পাচার আইনে চারজনের যাবজ্জীবন

ছবি

বাংলাদেশের দুই বোনকে ভারতের যৌনপল্লীতে বিক্রি

ছবি

রোহিঙ্গা শিবিরে দুই রোহিঙ্গা নেতাকে হত্যা

প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তি : নড়াইলে স্বেচ্ছাসেবক দল নেতা গ্রেফতার

বগুড়ায় ছুরিকাঘাতে স্কুল ছাত্র হত্যা

২৬ মামলার আসামি স্বেচ্ছাসেবকদল নেতা গ্রেফতার

তিন দিন আগে বাস ডাকাতির পরিকল্পনা করে মূলহোতা ডাকাত রতন

সখীপুরে জমি বিরোধে ভাতিজাদের হাতে চাচা খুন

ছবি

নওগাঁয় সরকারী সম্পত্তি ব্যক্তি মালিকানায় খাজনা-খারিজের অভিযোগ

ছবি

দলবদ্ধ ধর্ষণ ছাড়াও একাধিক নারীর শ্লীলতাহানি করে ডাকাত দল

ছবি

সিন্ডিকেটের ৩ সদস্য গ্রেপ্তার, স্বীকারোক্তি

বগুড়ায় অবৈধ মজুদ রাখা ১২ হাজার বস্তা সার ও ২টিট্রাক আটক

ছবি

জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে রিট

ছবি

খালাসের পরও কনডেম সেলে ৭ বছর : বিচারবিভাগীয় তদন্তের নির্দেশ

বখাটের উৎপাতে ছাত্রীর মাদ্রাসায় যাওয়া বন্ধ, ব‍্যবস্থা নেয়নি ইউএনও

ছবি

আদালত ঘুরে এলাকায় আজিজুল, ফুলের মালা দিয়ে বরণ

ছাত্রদল,স্বেচ্ছাসেবকদলের ৫ নেতা গাঁজা ও ইয়াবা সহ গ্রেফতার।

রূপগঞ্জে বিএনপি নেতার কার্যালয়ে ‘জয়বাংলা শ্লোগান দিয়ে’ হামলা

ছবি

এসএসএফের নামে প্রতিষ্ঠান খুলে কোটি টাকার প্রতারণা : গ্রেফতার ৬

ছবি

অস্ত্র মামলায় নূর হোসেনের যাবজ্জীবন

কুষ্টিয়া থেকে ঢাকাগামী চলন্ত বাসে ডাকাতি-সংঘবদ্ধ ধর্ষণ

‘মোল্লা শামিমকে পেলেই তদন্ত ক্লোজ করবে পুলিশ’

ছবি

এমপি জাফর পত্নী শাহেদার অবৈধ সম্পদ অনুসন্ধানে দুদক

ছবি

রেলক্রসিংয়ে দুর্ঘটনা: তদন্ত চেয়ে মহিউদ্দিন রনির রিট

ছবি

জাল মানি অর্ডারে জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসির খাতা ক্রয়!

ছবি

মাদক বিজ্ঞানী হওয়ার স্বপ্নভঙ্গ রেয়ার সাঈদের

বিএসটিআই কল্যাণপুরে পেট্রোল পাম্পে তেল চুরির প্রমাণ পেল

ছবি

মাদারীপুরে বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি ভাংচুর : বিচার দাবীতে বিক্ষোভ সমাবেশ

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

বগুড়ায় চাঁদাবাজীর অভিযোগ সোর্সসহ পুলিশ সদস্য ঘেরাও, পুলিশের এস আই ক্লোজড

বগুড়া প্রতিনিধি

শুক্রবার, ০৫ আগস্ট ২০২২

বগুড়ায় শহরের নাটাইপাড়া এলাকায় চাঁদাবাজী অভিযোগে পুলিশের সোর্সসহ এক এসআইকে স্থানীয় লোকজন আটক করে। এঘটনায় অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য বগুড়া সদর থানার এসআই মাসুদ রানাকে ক্লোজড করা হয়েছে। পুলিশের সোর্স ইকবাল নামে এক ব্যক্তিকে সদর থানা পুলিশ আটক করেছে।

বগুড়া পুলিশ সুপার সুদীপ কুমার চক্রবর্ত্তী তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার কথা জানিয়ে বলেন, বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। অভিযোগের সত্যতা পাওয়া গেলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পুলিশের একাধিক সুত্রসহ এলাকাবাসী জানায়, দুপুরে শহরের দক্ষিন নাপিত পাড়া এলাকার তরুণ চন্দ্রশীল নামে এক ব্যক্তির বাড়িতে এস আই মাসুদ ও তার সোর্স ইকবাল যান। সেখানে চাঁদাবাজীর টাকার দাবি নিয়ে দুপক্ষের মধ্যে হাতাহাতি হয়। এক পর্যায়ে বাড়ির লোকজনকে মারপিটও করা হয় বলে অভিযোগ করা হয়।

এক পর্যায়ে স্থানীয় লোকজন সোর্সসহ এসআই মাসুদকে আটক করে বিক্ষোভ করতে থাকে। বিষয়টি পুলিশের জরুরী সহায়তা ৯৯৯ এ জানান হয় বলেও সুত্র জানায়। পরে বগুড়া সদর থানা ও নারুলী থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে যায় এবং সেখান থেকে পুলিশ সদস্য এসআই মাসুদকে উদ্ধার ও সোর্স ইকবালকে আটক করে।

সুত্র জানায়, ক্রিকেট খেলার বেটিং চলছে এমন খবর এসআইকে দিয়েছিলো পুলিশের সোর্স। এতে পুলিশের এসআই মাসুদ রানা ও সোর্স ইকবাল সেখানে গিয়ে জুয়া চালানোর জন্য চাঁদা দাবি করলে বিপত্তি বাঁধে। পরে বিক্ষুদ্ধ লোকজন তাদের আটক করে।

তরুন শীলের পরিবারের সদস্য ভক্তি রানী জানান, তাদের বাড়িতে অবৈধভাবে প্রবেশ করে ভাংচুর ও টাকা দাবি করা হয়েছে। পুলিশ সদস্যের মারপিটে তরুন আহত হয়ে হাসপাতালে রয়েছেন। এ বিষয়ে তারা বিচার দাবি করে বলেন, তাদের বাড়িতে কোন বেটিং হয়না। তরুণ এধরনের কোন কর্মকান্ডের সঙ্গে জড়িত নন। একটি সেলুন ও সমিতি পরিচালনা করেন বলে জানান ভক্তি রানী।

এ ব্যাপারে বগুড়ার এসপি জানান, বিষয়টি সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শরাফত ইসলামকে তদন্তের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে এসআই মাসুদকে ক্লোজড করা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জানান, সোর্স হিসাবে অভিযুক্ত ইকবালকে আটক করা হয়েছে এবং এসআই মাসুদ রানাকে পুলিশ লাইন্সে ক্লোজড করা হয়েছে। ওই দু’জন কেন সেখানে গিয়েছিলো এবং মারপিটের বিষয়টি তদন্ত করা হবে।

back to top