alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

যৌতুকের জন্য সারিকাকে অত্যাচার, স্বামীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক: : সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন মডেল ও অভিনেত্রী সারিকা সাবরিন এরপর ঘটা করে সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন। কিছুদিন সম্পর্ক ঠিক থাকলেও কদিন বাদেই তাদের মধ্যে সম্পর্কের ফাটল দেখা দেয়।

যৌতুকের টাকার জন্য সারিকার উপর শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার শুরু করেন তার স্বামী জিএস বদরুদ্দিন আহমেদ। এমন ঘটনায় অভিনেত্রী তার স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেন। ‘৫০ লাখ টাকা যৌতুকের জন্য’ মারধরের ঘটনায় করা মামলায় জিএস বদরুদ্দিন আহম্মেদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ফারাহ দিবা ছন্দার আদালতে সারিকা সাবরিন বাদী হয়ে মামলাটি করেন। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন। এরপর মামলাটি আমলে নিয়ে বদরুদ্দিন আহম্মেদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

গ্রেপ্তার সংক্রান্ত তামিল প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ২১ ডিসেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ২ ফেব্রুয়ারি পারিবারিকভাবে সারিকা ও বদরুদ্দিনের বিয়ে হয়। বিয়ের দেনমোহর ২০ লাখ টাকা। বিয়ের সময় সারিকার বাবা-মা বদরুদ্দিনকে ২৫ লাখ টাকার স্বর্ণালংকারসহ আসবাবপত্র দেন।

অভিযোগে আরও বলা হয়, বিয়ের কিছুদিন যেতে না যেতেই সারিকার পরিবারের কাছে ৫০ লাখ টাকা দাবি করে তাকে মারধর করেন বদরুদ্দিন। এরপর ৫ নভেম্বর সারিকাকে ৫০ লাখ টাকা এনে দিতে বলেন। টাকা না দেওয়ায় সারিকাকে চুল ধরে এক কাপড়ে তার বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেন বদরুদ্দিন। এরপর ১৯ নভেম্বর ধানমন্ডিতে এক সালিশি বৈঠক হয়। বৈঠকে বদরুদ্দিন বলেন, ব্যবসার জন্য তাকে ৫০ লাখ টাকা দিতে হবে। টাকা না দিলে সারিকার সঙ্গে সংসার করবে না।

এ বিষয়ে অভিনেত্রী সারিকা সাবরিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে বাংলাদেশ জার্নালকে তিনি বলেন, অবশ্যই কিছু না কিছু একটা তো হয়েছেই। তা নাহলে বিষয়টি তো আর মামলা পর্যন্ত গড়াতো না। তবে এ বিষয়ে এখনই কিছু বলতে চাই না। খুব শিগিগরই এসব বিষয় নিয়ে বিস্তারিত কথা বলবো।

ছবি

কক্সবাজার বিমানবন্দরে এসআই তাজের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ

ছবি

শিশু ধর্ষণের দায়ে দুই আসামির মৃত্যুদণ্ড

নোয়াখালীতে আগ্নেয়াস্ত্র ও ইয়াবাসহ গ্রেফতার ৪

ছবি

খালেদা জিয়ার গ্যাটকো মামলায় চার্জ শুনানি ১৪ মার্চ

ছবি

ফেনসিডিল রাখার দায়ে ২ ব্যক্তির যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

ছবি

জামিন জালিয়াতি মামলায় আইনজীবী-ক্লার্কসহ চারজনের বিরুদ্ধে অভিযোগপত্র

ছবি

জাপানি দুই শিশু কার জিম্মায় থাকবে জানা যাবে আজ

নারায়ণগঞ্জে ৪ বছরের শিশু ধর্ষণ

নিখোঁজের ৬দিন পর অটোরিকশা চালকের মরদেহ উদ্ধার

ছবি

গোলাপের নিউইয়র্কে ৯ বাড়ি: অনুসন্ধান চেয়ে দুদকে চিঠি, ব্যারিস্টার সুমনের

ছবি

শিবগঞ্জে ভূমিদস্যূকে ৫০হাজার টাকা জরিমানা!

সিলেটে ট্রান্সফরমার চুরির সময় চোর নিহত

সখীপুরে ভ্রাম্যমাণ আদালতে মাদকাসক্তকে এক বছরের কারাদণ্ড

১০ বছরের শিশু ধর্ষণের পর হত্যা, আসামির মৃত্যুদন্ড

ছবি

আলেশা মার্টের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

ছবি

আসিফকে ই-পাসপোর্ট দিতে নির্দেশ: হাইকোর্টের

ছবি

পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চলাচল নিয়ে রিট, শুনানি ২ মাস পর

ছবি

মাকে ৫ টুকরো করে হত্যা: ছেলেসহ ৭ জনের ফাঁসি

ছবি

জন্ম নিবন্ধন সার্ভার হ্যাক করে ৫৪৮ সনদ ইস্যু: আটক ৪

ছবি

হাইকোর্টে স্বাস্থ্যের ডিজির ক্ষমা প্রার্থনা

ছবি

পিতৃপরিচয়হীন সন্তানের অভিভাবক হবেন মা

ছবি

ঘাতক বাস ‘সুপ্রভাত’ রাতারাতি নাম, রং পাল্টে হয়ে যায় ‘ভিক্টর’

বদলগাছীতে নারী উদ্যোক্তাকে যৌন হয়রানির অভিযোগে ইউপি চেয়ারম্যান বরখাস্ত

ছবি

রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে যেভাবে ধরা পড়ল জঙ্গি দলের সামরিক প্রধান রনবীর

ছবি

খালেদা জিয়ার ১১ মামলার হাজিরা ১৫ মে

ছবি

সাংবাদিক রোজিনার মামলার তদন্ত করবে পিবিআই

ছবি

জাপানি দুই শিশু কার কাছে থাকবে, জানা যাবে ২৯ জানুয়ারি

ছবি

মানবতাবিরোধী অপরাধ: ময়মনসিংহের ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড

ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা আইনজীবী সমিতির সম্পাদকসহ ২১ আইনজীবীকে ১৯ ফেব্রুয়ারি হাজির হওয়ার নির্দেশ : হাইকোর্ট

ছবি

৭ বছর পর জানা গেল মেয়ের খুনি বাবা

ছবি

ইভ্যালির রাসেল-শামীমার বিরুদ্ধে অভিযোগ শুনানি পেছাল ২ মার্চ

ছবি

মানবতাবিরোধী অপরাধে ছয় জনের রায় সোমবার

নোয়াখালীতে ব্রাক্ষণের কাছে চাঁদা দাবি, গ্রেপ্তার ১

ছবি

মহাখালী ফ্লাইওভারে ছিনতাইয়ের সময় পুলিশের হাতে র‌্যাব সদস্য গ্রেপ্তার

ছবি

প্রবাসীর ওপর হামলার ঘটনায় দুইজন গ্রেপ্তার

ছবি

ভিসা জালিয়াতি: ভবিষ্যৎতে যুক্তরাষ্ট্রে ভ্রমণ অনিশ্চয়তাসহ সতর্ক করল দূতাবাস

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

যৌতুকের জন্য সারিকাকে অত্যাচার, স্বামীর বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক:

সোমবার, ২৮ নভেম্বর ২০২২

চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন মডেল ও অভিনেত্রী সারিকা সাবরিন এরপর ঘটা করে সেপ্টেম্বরের শেষের দিকে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন। কিছুদিন সম্পর্ক ঠিক থাকলেও কদিন বাদেই তাদের মধ্যে সম্পর্কের ফাটল দেখা দেয়।

যৌতুকের টাকার জন্য সারিকার উপর শারীরিক ও মানসিক অত্যাচার শুরু করেন তার স্বামী জিএস বদরুদ্দিন আহমেদ। এমন ঘটনায় অভিনেত্রী তার স্বামীর বিরুদ্ধে মামলা করেন। ‘৫০ লাখ টাকা যৌতুকের জন্য’ মারধরের ঘটনায় করা মামলায় জিএস বদরুদ্দিন আহম্মেদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন আদালত।

সোমবার (২৮ নভেম্বর) ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট ফারাহ দিবা ছন্দার আদালতে সারিকা সাবরিন বাদী হয়ে মামলাটি করেন। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ করেন। এরপর মামলাটি আমলে নিয়ে বদরুদ্দিন আহম্মেদের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

গ্রেপ্তার সংক্রান্ত তামিল প্রতিবেদন দাখিলের জন্য ২১ ডিসেম্বর দিন ধার্য করেছেন আদালত।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, গত ২ ফেব্রুয়ারি পারিবারিকভাবে সারিকা ও বদরুদ্দিনের বিয়ে হয়। বিয়ের দেনমোহর ২০ লাখ টাকা। বিয়ের সময় সারিকার বাবা-মা বদরুদ্দিনকে ২৫ লাখ টাকার স্বর্ণালংকারসহ আসবাবপত্র দেন।

অভিযোগে আরও বলা হয়, বিয়ের কিছুদিন যেতে না যেতেই সারিকার পরিবারের কাছে ৫০ লাখ টাকা দাবি করে তাকে মারধর করেন বদরুদ্দিন। এরপর ৫ নভেম্বর সারিকাকে ৫০ লাখ টাকা এনে দিতে বলেন। টাকা না দেওয়ায় সারিকাকে চুল ধরে এক কাপড়ে তার বাবার বাড়ি পাঠিয়ে দেন বদরুদ্দিন। এরপর ১৯ নভেম্বর ধানমন্ডিতে এক সালিশি বৈঠক হয়। বৈঠকে বদরুদ্দিন বলেন, ব্যবসার জন্য তাকে ৫০ লাখ টাকা দিতে হবে। টাকা না দিলে সারিকার সঙ্গে সংসার করবে না।

এ বিষয়ে অভিনেত্রী সারিকা সাবরিনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে বাংলাদেশ জার্নালকে তিনি বলেন, অবশ্যই কিছু না কিছু একটা তো হয়েছেই। তা নাহলে বিষয়টি তো আর মামলা পর্যন্ত গড়াতো না। তবে এ বিষয়ে এখনই কিছু বলতে চাই না। খুব শিগিগরই এসব বিষয় নিয়ে বিস্তারিত কথা বলবো।

back to top