alt

শিক্ষা

এইচএসসি পরীক্ষা

মুন্সিগঞ্জে মামাতো বোনের ‘প্রক্সি’ পরীক্ষা দিতে এসে ধরা পড়লেন ফুফাতো বোন

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট ২০২৩

মুন্সিগঞ্জে চলমান এইচএসসি পরীক্ষার ইংরেজি প্রথম পত্র পরীক্ষায় মামাতো বোনের হয়ে ‘প্রক্সি’ দিতে এসে ধরা পড়েছেন ফুফাতো বোন। আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে শহরের সরকারি হরগঙ্গা কলেজ কেন্দ্রে ওই ‘প্রক্সি’ পরীক্ষার্থীকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় মূল পরীক্ষার্থী জেসিয়া আক্তারকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

আটক ‘প্রক্সি’ পরীক্ষার্থীর নাম সাদিয়া আক্তার (২২)। তিনি মুন্সিগঞ্জ পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের হাওলাদারপাড়া এলাকার আওলাদ হোসেনের মেয়ে এবং মূল পরীক্ষার্থী জেসিয়ার ফুফাতো বোন। জেসিয়া সরকারি মহিলা কলেজের মানবিক বিভাগের অনিয়মিত শিক্ষার্থী ছিলেন।

সরকারি হরগঙ্গা কলেজ পরীক্ষাকেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত হল সুপার মো. নুরুল ইসলাম বলেন, সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী জেসিয়া আক্তার মূল পরীক্ষার্থী। আজ ইংরেজি প্রথম পত্রের পরীক্ষা চলছিল। ৭৫০১ নম্বর কক্ষে জেসিয়ার আসনে বসে সাদিয়া আক্তার পরীক্ষা দিচ্ছিলেন। বেলা পৌনে ১১টার দিকে শিক্ষার্থীদের প্রবেশপত্রের সঙ্গে চেহারা মিলিয়ে স্বাক্ষর নেওয়া হচ্ছিল। জেসিয়ার আসনে বসা পরীক্ষার্থী বোরকা পরে ছিলেন। কিন্তু তিনি বোরকার নিকাব খুলে চেহারা দেখাতে চাইছিলেন না। তাঁর কথাবার্তাও অসংলগ্ন ছিল। পরে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি স্বীকার করেন, জেসিয়ার হয়ে তিনি ‘প্রক্সি’ পরীক্ষা দিতে আসেন। পরে ওই ভুয়া পরীক্ষার্থীকে আটক করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে সোপর্দ করা হয় এবং মূল পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আফিফা খান বলেন, বেলা পৌনে ১১টায় খবর পেয়ে তিনি ওই কলেজে যান। ওই ‘প্রক্সি’ পরীক্ষার্থী মেয়েটিকে কলেজ থেকে উপজেলা পরিষদে নিয়ে আসেন। সেখানে মূল পরীক্ষার্থী জেসিয়া ও ‘প্রক্সি’ পরীক্ষার্থী সাদিয়ার অভিভাবকদেরও ডাকা হয়। এ বিষয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত, নাকি অন্য কোনো আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে, সেটি নিয়ে আলোচনা চলছে।

আফিফা খান আরও বলেন, আটক সাদিয়া ও মূল পরীক্ষার্থীর বাবার সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছেন, মূল পরীক্ষার্থী জেসিয়া গতবার ভূগোল ও ইংরেজিতে অকৃতকার্য হন। এবার শরীরে টিউমারজনিত অসুস্থতা। তাই তাঁর হয়ে সাদিয়া ইংরেজি পরীক্ষা দিতে এসেছিলেন।

ছবি

এইচএসসি পরীক্ষার নতুন তারিখ ঘোষণা

ছবি

ডিজিটালাইজিং ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড বিষয়ে আইসিসি’র কর্মশালা

ছবি

গোপালগঞ্জে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের জন্য স্ক্র্যাচ প্রোগ্রামিং প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

ছবি

শেষ ধাপেও কলেজ পায়নি ১২ হাজার শিক্ষার্থী, আবার থাকবে আবেদনের সুযোগ

ছবি

বেসিসে সেন্ট্রাল লজিস্টিকস ট্র্যাকিং প্ল্যাটফর্ম (সিএলটিপি) বাস্তবায়ন সম্পর্কিত কর্মশালা

ছবি

পাঁচ হাজার প্রতিষ্ঠানে মাল্টিমিডিয়া ক্লাসরুম নেই

ছবি

নবম দিনের মতো সর্বাত্মক কর্মবিরতিতে জবি শিক্ষকরা

ছবি

এনার্জিপ্যাক ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্ক পরিদর্শনে এইউএসটি’র শিক্ষার্থীরা

ছবি

গোপালগঞ্জে স্ক্র্যাচ প্রোগ্রামিং ভাষার উপর ২ দিনব্যাপী প্রশিক্ষণ কর্মশালা অনুষ্ঠিত

ছবি

ড্যাফোডিল ইউনিভার্সিটি পরিদর্শন করলেন ব্রুনাই দারুস সালামের হাইকমিশনার

ছবি

‘স্মার্ট শিক্ষা ও স্মার্ট গবেষণার মাধ্যমে স্মার্ট সিটিজেন গড়ে তুলতে হবে’

ছবি

প্রাথমিক বিদ্যালয় হবে শুদ্ধাচার চর্চার আঁতুড়ঘর : প্রাথমিক শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী

ছবি

নারী, প্রতিবন্ধী ও নৃগোষ্ঠীর জন্য কোটা চায় গণতান্ত্রিক ছাত্র জোট

ছবি

সপ্তাহ পেরোলো জবি শিক্ষকদের সর্বাত্মক কর্মবিরতি 

ছবি

কুমিল্লায় বৃত্তি প্রদান ও পুরস্কার বিতরণ, প্রাথমিকে সেরা সাহস স্কুল

ছবি

বারি ও ডিআইইউ এর মধ্যে সমঝোতা চুক্তি

ছবি

মোবাইল ও ডিজিটাল স্টোরিটেলিং ফেস্টিভ্যালে অংশ নিতে বাংলাদেশে অষ্ট্রেলিয়ার ২২ শিক্ষার্থী

প্রত্যয় স্কিম নিয়ে পেনশন কর্তৃপক্ষের ব্যাখা শুভঙ্করের ফাঁকি : জবি শিক্ষক সমিতি

ছবি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক স্বর্ণপদক পেলেন

ছবি

শাহরাস্তিতে মোবাইল ফোনে নকল করার দায়ে শিক্ষার্থী বহিষ্কার

ছবি

এইচএসসি পরীক্ষার দিনে বৃষ্টি হলে সময় বাড়ানোর নির্দেশ

ছবি

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু

ছবি

জামালপুরে একটি সংস্থার কার্যালয় থেকে এইচএসসি পরীক্ষার প্রবেশপত্র প্রদান

এইচ এসসি পরীক্ষা শুরু আগামীকাল

ছবি

পেনশন স্কিম বাতিলের দাবিতে এবার কর্মবিরতিতে যাচ্ছে জবির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

ছবি

ঢাবিতে দুদিনব্যাপী সিনেট অধিবেশন অনুষ্ঠিত

ছবি

স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে বাজারমুখী দক্ষ জনশক্তি প্রস্তুত করতে হবে -শিক্ষামন্ত্রী

ছবি

পেনশন নয়, এটা তো ইন্স্যুরেন্স!

ছবি

গবেষণায় বাজেট বরাদ্দে বৈষম্যের শিকার জবি

ছবি

২০ কোটি টাকা ঢাবির বাজেট গবেষণায় বরাদ্দ

ছবি

বৃষ্টি উপেক্ষা করে জবি শিক্ষকদের কর্মবিরতি ও অবস্থান কর্মসূচি

ছবি

যবিপ্রবি ছাত্রলীগ সভাপতিসহ ৯ শিক্ষার্থী আজীবন বহিষ্কার

ছবি

প্রত্যয় স্কিম বাতিলের দাবিতে জবি শিক্ষককদের কর্মবিরতি ও অবস্থান কর্মসূচি

প্রথম ধাপে কলেজ পায়নি ৪৮ হাজার শিক্ষার্থী

ছবি

১০-১৯ বছর বয়সের ৬৫ লাখ ছাত্রীকে ‘আয়রন ফলিক অ্যাসিড ট্যাবলেট’ খাওয়ানো হচ্ছে

ছবি

একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির আবেদনে প্রথম ধাপে কলেজ পায়নি ৪৮ হাজার শিক্ষার্থী

tab

শিক্ষা

এইচএসসি পরীক্ষা

মুন্সিগঞ্জে মামাতো বোনের ‘প্রক্সি’ পরীক্ষা দিতে এসে ধরা পড়লেন ফুফাতো বোন

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

মঙ্গলবার, ২২ আগস্ট ২০২৩

মুন্সিগঞ্জে চলমান এইচএসসি পরীক্ষার ইংরেজি প্রথম পত্র পরীক্ষায় মামাতো বোনের হয়ে ‘প্রক্সি’ দিতে এসে ধরা পড়েছেন ফুফাতো বোন। আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে শহরের সরকারি হরগঙ্গা কলেজ কেন্দ্রে ওই ‘প্রক্সি’ পরীক্ষার্থীকে আটক করা হয়। এ ঘটনায় মূল পরীক্ষার্থী জেসিয়া আক্তারকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

আটক ‘প্রক্সি’ পরীক্ষার্থীর নাম সাদিয়া আক্তার (২২)। তিনি মুন্সিগঞ্জ পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের হাওলাদারপাড়া এলাকার আওলাদ হোসেনের মেয়ে এবং মূল পরীক্ষার্থী জেসিয়ার ফুফাতো বোন। জেসিয়া সরকারি মহিলা কলেজের মানবিক বিভাগের অনিয়মিত শিক্ষার্থী ছিলেন।

সরকারি হরগঙ্গা কলেজ পরীক্ষাকেন্দ্রের ভারপ্রাপ্ত হল সুপার মো. নুরুল ইসলাম বলেন, সরকারি মহিলা কলেজের শিক্ষার্থী জেসিয়া আক্তার মূল পরীক্ষার্থী। আজ ইংরেজি প্রথম পত্রের পরীক্ষা চলছিল। ৭৫০১ নম্বর কক্ষে জেসিয়ার আসনে বসে সাদিয়া আক্তার পরীক্ষা দিচ্ছিলেন। বেলা পৌনে ১১টার দিকে শিক্ষার্থীদের প্রবেশপত্রের সঙ্গে চেহারা মিলিয়ে স্বাক্ষর নেওয়া হচ্ছিল। জেসিয়ার আসনে বসা পরীক্ষার্থী বোরকা পরে ছিলেন। কিন্তু তিনি বোরকার নিকাব খুলে চেহারা দেখাতে চাইছিলেন না। তাঁর কথাবার্তাও অসংলগ্ন ছিল। পরে তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি স্বীকার করেন, জেসিয়ার হয়ে তিনি ‘প্রক্সি’ পরীক্ষা দিতে আসেন। পরে ওই ভুয়া পরীক্ষার্থীকে আটক করে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর হাতে সোপর্দ করা হয় এবং মূল পরীক্ষার্থীকে বহিষ্কার করা হয়।

সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আফিফা খান বলেন, বেলা পৌনে ১১টায় খবর পেয়ে তিনি ওই কলেজে যান। ওই ‘প্রক্সি’ পরীক্ষার্থী মেয়েটিকে কলেজ থেকে উপজেলা পরিষদে নিয়ে আসেন। সেখানে মূল পরীক্ষার্থী জেসিয়া ও ‘প্রক্সি’ পরীক্ষার্থী সাদিয়ার অভিভাবকদেরও ডাকা হয়। এ বিষয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত, নাকি অন্য কোনো আইনে ব্যবস্থা নেওয়া হবে, সেটি নিয়ে আলোচনা চলছে।

আফিফা খান আরও বলেন, আটক সাদিয়া ও মূল পরীক্ষার্থীর বাবার সঙ্গে কথা বলে জানতে পেরেছেন, মূল পরীক্ষার্থী জেসিয়া গতবার ভূগোল ও ইংরেজিতে অকৃতকার্য হন। এবার শরীরে টিউমারজনিত অসুস্থতা। তাই তাঁর হয়ে সাদিয়া ইংরেজি পরীক্ষা দিতে এসেছিলেন।

back to top