alt

শিক্ষা

স্কুলে ভর্তি কার্যক্রম এগিয়ে নেয়ায় বিপাকে অভিভাবকরা

রাকিব উদ্দিন : বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩

সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে স্কুলে ভর্তি কার্যক্রম একমাস এগিয়ে নেয়া হয়েছে। এতে বিপাকে পড়েছে অসংখ্য অভিভাবক। কারণ আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে যেসব শিশুর বয়স ছয় বছরের বেশি হচ্ছে এদের প্রথম শ্রেণীতে ভর্তির আবেদন করা যাচ্ছে না।

গত বছর ৩১ ডিসেম্বরে যেসব শিশুর বয়স ছয় বছর পূর্ণ হয়েছিল এদের চলতি শিক্ষাবর্ষে প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি নেয়া হয়েছে।

এবারের ভর্তি নীতিমালায়ও বলা হয়েছে, ২০২৪ শিক্ষাবর্ষ বিবেচিত হবে ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এ হিসেবেও আগামী ৩১ ডিসেম্বরে যাদের বয়স ছয় বছর পূর্ণ হচ্ছে তাদের ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি নেয়া যাবে।

গত ২৪ অক্টোবর সরকারি ও বেসরকারি স্কুলে ভর্তির আবেদন শুরু হয়েছে। ভর্তির আবেদন শুধু অনলাইনে করতে হবে। আবেদন ১৪ নভেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে। ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির আবেদন ফি ১১০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। শুধু টেলিটক প্রি-পেইড মোবাইল থেকে এসএমএসের মাধ্যমে এই ফি প্রদান করা যাবে।

শরিফুল ইসলাম নামের একজন বেসরকারি চাকরিজীবী বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) সংবাদকে বলেন, ‘আমার ছেলের বয়স আগামী ৩০ ডিসেম্বর ছয় বছর পূর্ণ হচ্ছে। ১ জানুয়ারিতে ৬+ হচ্ছে। কিন্তু আমি টেলিটকে একাধিকবার আবেদনের চেষ্টা করেছি...আবেদন নিচ্ছে না।’

আরেক অভিভাবক নাসরিন জাহান জানান, ‘আগামী ২৩ ডিসেম্বর আমার মেয়ের বয়স ছয় বছর পূর্ণ হচ্ছে। আগামী ১ জানুয়ারি মেয়ের বয়স ছয় বছর ৯ দিন হবে। আমি মেয়েকে প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি করাব। কিন্তু অনলাইনে আমার আবেদন নিচ্ছে না।’

ওই অভিভাবক জানান, অনলাইনে মেয়ের ভর্তির আবেদন ফরম পূরণ করতে গেলে টেলিটক থেকে বার্তা দেয়া হচ্ছে বাচ্চার বয়স ছয় বছর পূর্ণ হয়নি। এই জটিলতা নিরসনের জন্য সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন নাসরিন জাহান।

শিক্ষার্থী ভর্তির জন্য অনলাইন আবেদন ও লটারির তারিখ নির্ধারণ করবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ। আর সারাদেশের স্কুলের ভর্তি কার্যক্রম সমন্বয় করছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মাউশির পরিচালক (মাধ্যমিক) অধ্যাপক মোহাম্মদ বেলাল হোসাইন বৃহস্পতিবার সংবাদকে বলেছেন, ‘ভর্তি কার্যক্রম একমাস এগিয়ে আনায় এই সমস্যা হতে পারে। এখন আমাদের কিছু করার নেই। ভর্তি নীতিমালা শিক্ষা মন্ত্রণালয় করেছে। এখন পর্যন্ত যেসব শিশুর বয়স ছয় বছর পূর্ণ হয়েছে তারাই প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি হতে পারবে।’

যেসব শিশুর বয়স ডিসেম্বরে ছয় বছর পূর্ণ হচ্ছে তাদের কেন ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি নেয়া হবে না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘ওই বিষয়টি আসলে আমরা সেভাবে চিন্তা (নীতিমালা প্রণয়নের সময়) করিনি।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাজধানীর কালশী ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল হোসেন সংবাদকে বলেন, ‘আমি যতটুকু জানি, আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে শিশুর বয়স ছয় বছর পূর্ণ হলেই তাকে প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি নিতে হবে। আমরা যেভাবেই ভর্তি নেবো।’

এবার যেহেতু ভর্তি কার্যক্রম একমাস এগিয়ে নেয়া হয়েছে; সেজন্য বয়সও সেভাবে ‘শিথিল’ বা নির্ধারণ করা উচিত ছিল জানিয়ে তিনি বলেন, ‘পাশাপাশি সেভাবে সফটওয়্যারও তৈরি করা উচিত ছিল। এই সফটওয়্যারের ভুলের কারণে শিশুরা ক্ষতিগ্রস্ত হবে কেন?’

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে শিক্ষা প্রশাসন ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে প্রথম থেকে নবম শ্রেণী পর্যন্ত ভর্তি কার্যক্রম নভেম্বরের মধ্যে শেষ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অনলাইনে আবেদন ফরম পূরণের সুযোগ দিয়ে এবার লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি নেয়া হবে।

জানতে চাইলে মাউশির ঢাকা আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক এএসএম আবদুল খালেক সংবাদকে বলেন, ‘জাতীয় শিক্ষানীতি-২০১০’ অনুযায়ী প্রথম শ্রেণীতে ভর্তির সময় শিশুর বয়স ছয় বছর পূর্ণ হতে হবে। এবারের ভর্তি নীতিমালায়ও একই কথা বলা হয়েছে। কিন্তু ভর্তি কার্যক্রম একমাস এগিয়ে নেয়ায় ‘অনলাইন আবেদনে’ বয়স সংক্রান্ত একটু ‘সমস্যা’ হচ্ছে। এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের ‘সিদ্ধান্ত’ (ভর্তি নীতিমালা সংশোধন) হতে বলে জানান আবদুল খালেক।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ‘জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০’ প্রণয়ন কমিটির সদস্য সচিব ও ‘জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমির’ (নায়েম) সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক শেখ ইকরামুল কবির সংবাদকে বলেন, ‘সরকার ভর্তি কার্যক্রম এগিয়ে এনেছে কার প্রয়োজনে...শিক্ষার্থী নাকি অভিভাবকদের প্রয়োজনে? এটি করা হয়েছে; কারণ সামনে নির্বাচন। ওই সময় যাতে অভিভাবকদের স্কুলে দৌড়াতে না হয়। কিন্তু এজন্য ভর্তি শিক্ষার্থীর বয়স বাড়াতে হবে কেন?’

প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি জন্য ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত যদি শিশুর বয়স ৬+ নির্ধারণ করা হয় তাহলে ডিসেম্বরে যাদের জন্ম তাদের প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি হতে সাত বছর লাগবে জানিয়ে শেখ ইকরামুল কবির বলেন, ‘১ জানুয়ারি ক্লাস শুরু হয়। অর্থাৎ শিক্ষাবর্ষ শুরু হয়। আরেকটু পরিষ্কার করে বললে, ২০২৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ছয় বছর পূর্ণ হলেই ওই শিশু প্রথম শ্রেণীতে ভর্তিযোগ্য হবে। সে ২০২৪ সালের ১ জানুয়ারি প্রথম শ্রেণীতে ক্লাস করতে পারবে।’

এবারের ভর্তি নীতিমালার সমালোচনা করে নায়েমের সাবেক মহাপরিচালক আরো বলেন, ‘নভেম্বরের মধ্যে ভর্তি কার্যক্রম শেষ করার যুক্তিকতা কী? যেহেতু নভেম্বরের মধ্যে ভর্তি কার্যক্রম শেষ করতেই হচ্ছে, সেজন্য নীতিমালায় বয়স সংক্রান্ত জটিলতার বিষয়টি রিলাক্স ও পরিষ্কার করা উচিত ছিল। কারা এ জাতীয় নীতিমালা তৈরি করছেন তা বোধগম্য নয়।’

ছবি

যৌন নির্যাতন ও হয়রানির অভিযোগ আমলে নেওয়ার আহ্বান: ইউজিসি

ছবি

প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের ফল প্রকাশ, উত্তীর্ণ ২০ হাজার প্রার্থী

ছবি

দ্বিতীয় ধাপের প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার ফল প্রকাশ, উত্তীর্ণ ২০ হাজার ৬৪৭

ছবি

নতুন শিক্ষাক্রমে শিক্ষক প্রশিক্ষণের ব্যয় নিয়ে জটিলতা

ছবি

এমবিবিএস ভর্তি পরীক্ষা, ওএমআর শিট ছেড়ার অভিযোগ মিথ্যা: তদন্ত কমিটির মহাপরিচালক

ছবি

সংক্ষিপ্ত সিলেবাসে ২০২৫ সালের এইচএসসি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে

ছবি

খুবির শিক্ষার্থীদের ‘মারধর’, প্রতিবাদে সড়কে বিক্ষোভ

ছবি

৪৬তম বিসিএস: পরীক্ষা হতে পারে এপ্রিলের শেষে

ছবি

পদোন্নতিতে বিসিএস শিক্ষা ক্যাডারে ‘বঞ্চনা ও অসন্তোষ’

ছবি

বঙ্গবন্ধুর সমাধিসৌধে ইইডি প্রধান প্রকৌশলীর শ্রদ্ধা

ছবি

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার প্রথম দিনই অনুপস্থিত ১৯ হাজার ৩৫৯ জন শিক্ষার্থী

ছবি

এসএসসি পরীক্ষার্থীদের জন্য ডিএমপির কুইক রেসপন্স টিম

ছবি

ইইডির প্রধান প্রকৌশলীর মেয়াদ ২ বছর বাড়ল

ছবি

মায়ানমারে সংঘর্ষের কারণে ঘুমধুমের এসএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র পরিবর্তন

ছবি

রাবিতে ছাত্রীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগ ও শিক্ষকের বিচার চেয়ে বিক্ষোভ

নতুন শিক্ষাক্রম মূল্যায়ন কমিটির প্রধানই তদন্তের আওতায়

ছবি

মেডিকেলে ভর্তির ফল প্রকাশ হতে পারে কাল বা পরশু

ছবি

প্রশ্ন ফাঁস বন্ধের লক্ষ্যে এমবিবিএস ভর্তি প্রক্রিয়া ডিজিটালাইজ করা হয়েছে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ডাক্তার হতে চাওয়া লাখো শিক্ষার্থী পরীক্ষায় বসেছেন

নতুন শিক্ষাক্রমে এসএসসি পরীক্ষা কীভাবে হবে সেই বিষয়ে উদ্বেগ

ছবি

চলতি শিক্ষাবর্ষের ছুটির তালিকায় রোজায় চলবে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুলের ক্লাস

ছবি

‘দ্বন্ধ-সংঘাতমুক্ত’ সমাজ নির্মাণে শিক্ষকদের ভূমিকা অনস্বীকার্য

ছবি

জাবিতে ধর্ষণকাণ্ডে জড়িতদের শাস্তি চেয়ে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের প্রতিবাদ, মিছিল

ছবি

চবিতে ধর্ষণচেষ্টার অভিযোগ, শিক্ষকের বহিষ্কার দাবিতে আন্দোলন

ছবি

রাবিতে ধর্ষণবিরোধী বিক্ষোভ-মিছিলে ছাত্রলীগের বাধা

ছবি

এসএসসি পরীক্ষায় কেন্দ্র পরিদর্শনে যাবেন না শিক্ষামন্ত্রী

ছবি

ধর্ষণের ঘটনায় বিক্ষোভে উত্তাল জাবি

ছবি

উপবৃত্তি, প্রতিষ্ঠান ও প্রকল্প দ্রুত বাড়লেও শিক্ষার্থী এনরোলমেন্টে ধীরগতি

ছবি

২২ জেলায় প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষা কাল

ছবি

নতুন শিক্ষাক্রমের বই বিতরণে অনীহা, শ্রেণীকক্ষে মূল্যায়নে জটিলতার শঙ্কা

ছবি

গুচ্ছ ভর্তি পরীক্ষার তারিখ পরিবর্তন

ছবি

মায়ানমার সীমান্তে গোলাগুলি, নাইক্ষ্যংছড়ির ৫ স্কুলে ‘ছুটি’

ছবি

বদলি না করলে শিক্ষার্থীদের বিদ্যালয়ে না পাঠানোর সিদ্ধান্ত

ছবি

এসএসসি পরীক্ষা জন্য এক মাস কোচিং সেন্টার বন্ধ

ছবি

রাবি ভর্তি পরীক্ষার চূড়ান্ত আবেদন শুরু

ছবি

গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৮ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার

tab

শিক্ষা

স্কুলে ভর্তি কার্যক্রম এগিয়ে নেয়ায় বিপাকে অভিভাবকরা

রাকিব উদ্দিন

বৃহস্পতিবার, ২৬ অক্টোবর ২০২৩

সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে স্কুলে ভর্তি কার্যক্রম একমাস এগিয়ে নেয়া হয়েছে। এতে বিপাকে পড়েছে অসংখ্য অভিভাবক। কারণ আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে যেসব শিশুর বয়স ছয় বছরের বেশি হচ্ছে এদের প্রথম শ্রেণীতে ভর্তির আবেদন করা যাচ্ছে না।

গত বছর ৩১ ডিসেম্বরে যেসব শিশুর বয়স ছয় বছর পূর্ণ হয়েছিল এদের চলতি শিক্ষাবর্ষে প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি নেয়া হয়েছে।

এবারের ভর্তি নীতিমালায়ও বলা হয়েছে, ২০২৪ শিক্ষাবর্ষ বিবেচিত হবে ১ জানুয়ারি থেকে ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত। এ হিসেবেও আগামী ৩১ ডিসেম্বরে যাদের বয়স ছয় বছর পূর্ণ হচ্ছে তাদের ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি নেয়া যাবে।

গত ২৪ অক্টোবর সরকারি ও বেসরকারি স্কুলে ভর্তির আবেদন শুরু হয়েছে। ভর্তির আবেদন শুধু অনলাইনে করতে হবে। আবেদন ১৪ নভেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে। ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে ভর্তির আবেদন ফি ১১০ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। শুধু টেলিটক প্রি-পেইড মোবাইল থেকে এসএমএসের মাধ্যমে এই ফি প্রদান করা যাবে।

শরিফুল ইসলাম নামের একজন বেসরকারি চাকরিজীবী বৃহস্পতিবার (২৬ অক্টোবর) সংবাদকে বলেন, ‘আমার ছেলের বয়স আগামী ৩০ ডিসেম্বর ছয় বছর পূর্ণ হচ্ছে। ১ জানুয়ারিতে ৬+ হচ্ছে। কিন্তু আমি টেলিটকে একাধিকবার আবেদনের চেষ্টা করেছি...আবেদন নিচ্ছে না।’

আরেক অভিভাবক নাসরিন জাহান জানান, ‘আগামী ২৩ ডিসেম্বর আমার মেয়ের বয়স ছয় বছর পূর্ণ হচ্ছে। আগামী ১ জানুয়ারি মেয়ের বয়স ছয় বছর ৯ দিন হবে। আমি মেয়েকে প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি করাব। কিন্তু অনলাইনে আমার আবেদন নিচ্ছে না।’

ওই অভিভাবক জানান, অনলাইনে মেয়ের ভর্তির আবেদন ফরম পূরণ করতে গেলে টেলিটক থেকে বার্তা দেয়া হচ্ছে বাচ্চার বয়স ছয় বছর পূর্ণ হয়নি। এই জটিলতা নিরসনের জন্য সরকারের কাছে অনুরোধ জানিয়েছেন নাসরিন জাহান।

শিক্ষার্থী ভর্তির জন্য অনলাইন আবেদন ও লটারির তারিখ নির্ধারণ করবে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগ। আর সারাদেশের স্কুলের ভর্তি কার্যক্রম সমন্বয় করছে মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি)।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মাউশির পরিচালক (মাধ্যমিক) অধ্যাপক মোহাম্মদ বেলাল হোসাইন বৃহস্পতিবার সংবাদকে বলেছেন, ‘ভর্তি কার্যক্রম একমাস এগিয়ে আনায় এই সমস্যা হতে পারে। এখন আমাদের কিছু করার নেই। ভর্তি নীতিমালা শিক্ষা মন্ত্রণালয় করেছে। এখন পর্যন্ত যেসব শিশুর বয়স ছয় বছর পূর্ণ হয়েছে তারাই প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি হতে পারবে।’

যেসব শিশুর বয়স ডিসেম্বরে ছয় বছর পূর্ণ হচ্ছে তাদের কেন ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে ভর্তি নেয়া হবে না- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘ওই বিষয়টি আসলে আমরা সেভাবে চিন্তা (নীতিমালা প্রণয়নের সময়) করিনি।’

এ বিষয়ে জানতে চাইলে রাজধানীর কালশী ইসলামিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবুল হোসেন সংবাদকে বলেন, ‘আমি যতটুকু জানি, আগামী ৩১ ডিসেম্বরের মধ্যে শিশুর বয়স ছয় বছর পূর্ণ হলেই তাকে প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি নিতে হবে। আমরা যেভাবেই ভর্তি নেবো।’

এবার যেহেতু ভর্তি কার্যক্রম একমাস এগিয়ে নেয়া হয়েছে; সেজন্য বয়সও সেভাবে ‘শিথিল’ বা নির্ধারণ করা উচিত ছিল জানিয়ে তিনি বলেন, ‘পাশাপাশি সেভাবে সফটওয়্যারও তৈরি করা উচিত ছিল। এই সফটওয়্যারের ভুলের কারণে শিশুরা ক্ষতিগ্রস্ত হবে কেন?’

আসন্ন জাতীয় সংসদ নির্বাচনকে সামনে রেখে শিক্ষা প্রশাসন ২০২৪ শিক্ষাবর্ষে প্রথম থেকে নবম শ্রেণী পর্যন্ত ভর্তি কার্যক্রম নভেম্বরের মধ্যে শেষ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। অনলাইনে আবেদন ফরম পূরণের সুযোগ দিয়ে এবার লটারির মাধ্যমে শিক্ষার্থী ভর্তি নেয়া হবে।

জানতে চাইলে মাউশির ঢাকা আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-পরিচালক এএসএম আবদুল খালেক সংবাদকে বলেন, ‘জাতীয় শিক্ষানীতি-২০১০’ অনুযায়ী প্রথম শ্রেণীতে ভর্তির সময় শিশুর বয়স ছয় বছর পূর্ণ হতে হবে। এবারের ভর্তি নীতিমালায়ও একই কথা বলা হয়েছে। কিন্তু ভর্তি কার্যক্রম একমাস এগিয়ে নেয়ায় ‘অনলাইন আবেদনে’ বয়স সংক্রান্ত একটু ‘সমস্যা’ হচ্ছে। এ বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের ‘সিদ্ধান্ত’ (ভর্তি নীতিমালা সংশোধন) হতে বলে জানান আবদুল খালেক।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ‘জাতীয় শিক্ষানীতি ২০১০’ প্রণয়ন কমিটির সদস্য সচিব ও ‘জাতীয় শিক্ষা ব্যবস্থাপনা একাডেমির’ (নায়েম) সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক শেখ ইকরামুল কবির সংবাদকে বলেন, ‘সরকার ভর্তি কার্যক্রম এগিয়ে এনেছে কার প্রয়োজনে...শিক্ষার্থী নাকি অভিভাবকদের প্রয়োজনে? এটি করা হয়েছে; কারণ সামনে নির্বাচন। ওই সময় যাতে অভিভাবকদের স্কুলে দৌড়াতে না হয়। কিন্তু এজন্য ভর্তি শিক্ষার্থীর বয়স বাড়াতে হবে কেন?’

প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি জন্য ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত যদি শিশুর বয়স ৬+ নির্ধারণ করা হয় তাহলে ডিসেম্বরে যাদের জন্ম তাদের প্রথম শ্রেণীতে ভর্তি হতে সাত বছর লাগবে জানিয়ে শেখ ইকরামুল কবির বলেন, ‘১ জানুয়ারি ক্লাস শুরু হয়। অর্থাৎ শিক্ষাবর্ষ শুরু হয়। আরেকটু পরিষ্কার করে বললে, ২০২৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ছয় বছর পূর্ণ হলেই ওই শিশু প্রথম শ্রেণীতে ভর্তিযোগ্য হবে। সে ২০২৪ সালের ১ জানুয়ারি প্রথম শ্রেণীতে ক্লাস করতে পারবে।’

এবারের ভর্তি নীতিমালার সমালোচনা করে নায়েমের সাবেক মহাপরিচালক আরো বলেন, ‘নভেম্বরের মধ্যে ভর্তি কার্যক্রম শেষ করার যুক্তিকতা কী? যেহেতু নভেম্বরের মধ্যে ভর্তি কার্যক্রম শেষ করতেই হচ্ছে, সেজন্য নীতিমালায় বয়স সংক্রান্ত জটিলতার বিষয়টি রিলাক্স ও পরিষ্কার করা উচিত ছিল। কারা এ জাতীয় নীতিমালা তৈরি করছেন তা বোধগম্য নয়।’

back to top