alt

শিক্ষা

ডাক্তার নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস, তদন্ত কমিটি গঠন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : রোববার, ১২ মে ২০২৪

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে ডাক্তার নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস নিয়ে নানা আলোচনা চলছে। ঘটনায় ফেঁসে যেতে পারেন প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে জড়িত ২ ডাক্তার ও কর্মকতারা।

ফাঁসকৃত প্রশ্ন একজন চাকরী প্রার্থীর কাছে ৩০ লাখ থেকে ৪০ লাখ টাকা করে বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে। প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে সম্প্রতি উচ্চ পর্যায়ের ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ভার্সিটির প্রক্টর ডাঃ হাবিবুর রহমান সংবাদকে মুঠোফোনে জানান, প্রশ্নফাঁসের ঘটনা ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি কাজ করছেন। এখনো তদন্ত পর্যায়ে আছে। তদন্ত শেষ করে আগামী ৭ কর্ম দিবসে (শিগগিরই) রিপোর্ট দেয়া হবে। সিসি টিভি ও ভিডিও ফুটেজ দেখে পেনড্রাইভে যারা প্রশ্ন ফাঁস করেছে। তাদেরকে চিহ্নিত করে শাস্তি মুলক ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করা হবে। প্রশাসন হার্ডলাইনে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। এই লক্ষ্যে কাজ চলছে।

ভার্সিটি ও শিক্ষকদের সূত্র জানায়,২০২৩ সালে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে মেডিকেল অফিসার নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন মডারেশন রুমে একজন ডাক্তার ব্যক্তিগত পেনড্রাইভে প্রশ্ন নিয়ে যান। ওই সময় গোপন কক্ষে কেউ ছিল না। এই সুযোগে কম্পিউটার খুলে পেনড্রাইভে করে প্রশ্ন নিয়ে যান বলে অভিযোগ উঠেছে। পরে এই সব প্রশ্ন প্রভাবশালী কয়েকজন ডাক্তার ৩০ থেকে ৪০ লাখ টাকার বিনিময়ে বিক্রি করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। সাবেক ভিসি ডাঃ শারফুদ্দিনের সমর্থক কয়েক চিকিৎসক এই ধরনের অপকর্মে জড়িত বলে ভার্সিটি জুড়ে আলোচনা চলছে।

সূত্র জানায়,গেল বছর মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে ৬৮জন মেডিকেল অফিসার নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের এই অভিযোগ উঠেছিল আগেই। এইবার প্রশাসন পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে সিসি ক্যামরার ফুটেজ দেখে কয়েকজনকে চিহ্নিত করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বলেন,আমরা ঘটনা নিয়ে কাজ করছি। ওই নিয়োগ পরীক্ষায় পাস করা অনেকেই ফাঁস হওয়া প্রশ্ন পেয়েছেন। আবার অনেকের টাকার বিনিময়ে প্রশ্ন পেয়েছেন। ইতোমদ্যে ২জনকে প্রাথমিক ভাবে শনাক্ত করা হয়েছে। আরও কারা জড়িত তাদেরকে শনাক্তের চেষ্টা চলছে। তবে কত টাকায় প্রশ্ন বিক্রি করা হয়েছে তা এখনো নিশ্চিত করা হয়নি।

গতকাল রাত পৌনে ৯টার দিকে ভার্সিটির প্রক্টর সংবাদকে বলেন,ঘটনা তদন্তে মোট ২টি কমিটি গঠন করা হয়েছে। একটি সাবেক ভিসির আমলে। আরেকটি বর্তমান প্রশাসনের সময়। তদন্তে অনেক আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। আরও তদন্ত করে রিপোর্ট দেয়া হবে।

সূত্র জানায়, ভার্সিটিতে নিয়োগ পদোন্নতি নিয়ে গেল কয়েক বছর দূনীতির নানা অভিযোগ উঠেছে। এই নিয়ে ভার্সিটি জুড়ে নানা অফালোচনা হয়েছে। অনেকেই বলছেন টাকা ছাড়া কোন চাকরী হয় না। টাকার বিনিময়ে চাকরী ও পদোন্নতি নিয়ে সিনিয়র শিক্ষকদের মধ্যে এখনো নানা আলোচনা চলছে। দূনীতি দমন কমিশন বা অন্য কোন সংস্থা দিয়ে নিররেপক্ষ তদন্ত করলে প্রকৃত দোষীরা চিহ্নিত হবে। কমবে অপরাধ।

একজন সাবেক ভিসি বলেন,প্রতিটি অনিমের ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা না নিয়ে ভার্সিটি শিক্ষা ব্যবস্থা সুষ্ঠ ভাবে চালানো কষ্টকর হবে। র্দূনীতিবাজ চিহ্নিত করা উচিত বলে তারা মন্তব্য করেন।

ছবি

কারিগরি বোর্ড : সিস্টেম এনালিস্ট চুরি করেন ৫ হাজার পিস বিশেষ কাগজ

ছবি

শিক্ষার্থী সংকট, একীভূত হচ্ছে খুলনার ৪৬টি প্রাথমিক বিদ্যালয়

ছবি

ওয়াইল্ড লাইফ অলিম্পিয়াডের নিবন্ধন চলছে

ছবি

১৫-২৫ জুলাই একাদশে ভর্তি, ৩০ জুলাই ক্লাস শুরু

একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির আবেদন আগামী ২৬ মে শুরু হচ্ছে

ছবি

শুরু হচ্ছে এ এস ইসলাম স্কুল অব লাইফ ২০২৪ এর অফলাইন পর্ব

ছবি

শতভাগ ফেল স্কুল-মাদ্রাসা বাতিলের উদ্যোগ

ছবি

নতুন শিক্ষাক্রমে মূল্যায়নের নতুন প্রস্তাব

ছবি

পাসের হারে ধারাবাহিক এগিয়ে যাচ্ছে মেয়েরা

ছবি

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা: ৫১ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শতভাগ ফেল

ছবি

এবার জিপিএ-৫ পেয়েছে ১ লাখ ৮২ হাজার ১২৯ জন

ছবি

গুচ্ছের ‘সি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, পাসের হার ৬০. ৪২

ছবি

মাধ্যমিকের ফল জানা যাবে আগামীকাল

ছবি

দাবিতে স্মার্ট কার্ড পাঞ্চ করে ঢুকতে হবে ঢুকতে হবে

ছবি

দেরি করে আসা পরীক্ষার্থীদের প্রবেশ করতে দেয়া হয়নি জবি কেন্দ্রে

আড়াই হাজার পদ শূন্য রেখেই নতুন ৮ শতাধিক পদ সৃষ্টির উদ্যোগ

‘অতি ঝুঁকিপূর্ণ’ ৪৪টি শিক্ষা ভবন আপাতত ভাঙা হচ্ছে না

ছবি

মঙ্গলবার আগের সূচিতে ফিরছে প্রাথমিকের ক্লাস

ছবি

কেমব্রিজ পরীক্ষায় ডিপিএস শিক্ষার্থীদের সাফল্য

ছবি

গুচ্ছের ‘বি’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, পাসের হার ৩৬.৩৩

ছবি

প্রয়োজনে শুক্রবারও ক্লাস নেওয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী

ছবি

সারা দেশে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলছে আজ

ছবি

২০২৪-এ জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার শিক্ষক প্রশিক্ষণ: উপাচার্য

ছবি

আইডিইবি শিক্ষা কোর্সকে বিএসসি(পাস)সমমান মর্যাদা দেওয়ার সিদ্ধান্ত দ্রুত বাস্তবায়ন চায়

নর্থইস্ট ইউনিভার্সিটির পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক হলেন লিয়াকত শাহ ফরিদী

ছবি

এসএসসি পরীক্ষার ফল প্রকাশ ১২ মে

টাইমস হায়ার এডুকেশন র‌্যাঙ্কিংয়ে দেশসেরা জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

ছবি

এসএসসি পরীক্ষার ফল ঘোষণা ৯ থেকে ১১ মে’র মধ্যেই

ছবি

ঢাকাসহ ৫ জেলার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে বন্ধ

ছবি

সর্বোচ্চ ফি’ নিয়ে আণুবীক্ষণিক প্রশ্নে পরীক্ষা নিলো ’গুচ্ছ’ কর্তৃপক্ষ

ছবি

৯০% উপস্থিতি গুচ্ছ ভর্তি ‘এ’ ইউনিট পরীক্ষায়

জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি পরীক্ষায় আসন বেড়েছে ৫০টি, থাকবে ভ্রাম্যমাণ পানির ট্যাংক ও চিকিৎসক

পরীক্ষার আগেই হবু শিক্ষকদের হাতে পৌঁছে যায় উত্তরপত্র:ডিবি

ছবি

৪৬তম বিসিএসের প্রিলিমিনারি পরীক্ষা শুরু

তীব্র গরমেও বাড়ছে না ছুটি, রবিবার খুলছে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান

৫০ শতাংশ লিখিত ও ৫০ শতাংশ কার্যক্রমভিত্তিক মূল্যায়ন

tab

শিক্ষা

ডাক্তার নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁস, তদন্ত কমিটি গঠন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

রোববার, ১২ মে ২০২৪

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে ডাক্তার নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁস নিয়ে নানা আলোচনা চলছে। ঘটনায় ফেঁসে যেতে পারেন প্রশ্ন ফাঁসের সঙ্গে জড়িত ২ ডাক্তার ও কর্মকতারা।

ফাঁসকৃত প্রশ্ন একজন চাকরী প্রার্থীর কাছে ৩০ লাখ থেকে ৪০ লাখ টাকা করে বিক্রি করার অভিযোগ উঠেছে। প্রশ্ন ফাঁসের ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করে আইনের আওতায় আনতে সম্প্রতি উচ্চ পর্যায়ের ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

ভার্সিটির প্রক্টর ডাঃ হাবিবুর রহমান সংবাদকে মুঠোফোনে জানান, প্রশ্নফাঁসের ঘটনা ৪ সদস্যের তদন্ত কমিটি কাজ করছেন। এখনো তদন্ত পর্যায়ে আছে। তদন্ত শেষ করে আগামী ৭ কর্ম দিবসে (শিগগিরই) রিপোর্ট দেয়া হবে। সিসি টিভি ও ভিডিও ফুটেজ দেখে পেনড্রাইভে যারা প্রশ্ন ফাঁস করেছে। তাদেরকে চিহ্নিত করে শাস্তি মুলক ব্যবস্থা নেয়ার সুপারিশ করা হবে। প্রশাসন হার্ডলাইনে কাউকে ছাড় দেয়া হবে না। এই লক্ষ্যে কাজ চলছে।

ভার্সিটি ও শিক্ষকদের সূত্র জানায়,২০২৩ সালে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে মেডিকেল অফিসার নিয়োগ পরীক্ষার প্রশ্ন মডারেশন রুমে একজন ডাক্তার ব্যক্তিগত পেনড্রাইভে প্রশ্ন নিয়ে যান। ওই সময় গোপন কক্ষে কেউ ছিল না। এই সুযোগে কম্পিউটার খুলে পেনড্রাইভে করে প্রশ্ন নিয়ে যান বলে অভিযোগ উঠেছে। পরে এই সব প্রশ্ন প্রভাবশালী কয়েকজন ডাক্তার ৩০ থেকে ৪০ লাখ টাকার বিনিময়ে বিক্রি করেন বলে অভিযোগ রয়েছে। সাবেক ভিসি ডাঃ শারফুদ্দিনের সমর্থক কয়েক চিকিৎসক এই ধরনের অপকর্মে জড়িত বলে ভার্সিটি জুড়ে আলোচনা চলছে।

সূত্র জানায়,গেল বছর মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের সুপার স্পেশালাইজড হাসপাতালে ৬৮জন মেডিকেল অফিসার নিয়োগ পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের এই অভিযোগ উঠেছিল আগেই। এইবার প্রশাসন পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে সিসি ক্যামরার ফুটেজ দেখে কয়েকজনকে চিহ্নিত করা হয়েছে।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বলেন,আমরা ঘটনা নিয়ে কাজ করছি। ওই নিয়োগ পরীক্ষায় পাস করা অনেকেই ফাঁস হওয়া প্রশ্ন পেয়েছেন। আবার অনেকের টাকার বিনিময়ে প্রশ্ন পেয়েছেন। ইতোমদ্যে ২জনকে প্রাথমিক ভাবে শনাক্ত করা হয়েছে। আরও কারা জড়িত তাদেরকে শনাক্তের চেষ্টা চলছে। তবে কত টাকায় প্রশ্ন বিক্রি করা হয়েছে তা এখনো নিশ্চিত করা হয়নি।

গতকাল রাত পৌনে ৯টার দিকে ভার্সিটির প্রক্টর সংবাদকে বলেন,ঘটনা তদন্তে মোট ২টি কমিটি গঠন করা হয়েছে। একটি সাবেক ভিসির আমলে। আরেকটি বর্তমান প্রশাসনের সময়। তদন্তে অনেক আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। আরও তদন্ত করে রিপোর্ট দেয়া হবে।

সূত্র জানায়, ভার্সিটিতে নিয়োগ পদোন্নতি নিয়ে গেল কয়েক বছর দূনীতির নানা অভিযোগ উঠেছে। এই নিয়ে ভার্সিটি জুড়ে নানা অফালোচনা হয়েছে। অনেকেই বলছেন টাকা ছাড়া কোন চাকরী হয় না। টাকার বিনিময়ে চাকরী ও পদোন্নতি নিয়ে সিনিয়র শিক্ষকদের মধ্যে এখনো নানা আলোচনা চলছে। দূনীতি দমন কমিশন বা অন্য কোন সংস্থা দিয়ে নিররেপক্ষ তদন্ত করলে প্রকৃত দোষীরা চিহ্নিত হবে। কমবে অপরাধ।

একজন সাবেক ভিসি বলেন,প্রতিটি অনিমের ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা না নিয়ে ভার্সিটি শিক্ষা ব্যবস্থা সুষ্ঠ ভাবে চালানো কষ্টকর হবে। র্দূনীতিবাজ চিহ্নিত করা উচিত বলে তারা মন্তব্য করেন।

back to top