alt

শিক্ষা

বিয়ানীবাজারে নারী শিক্ষায় নীরব বিপ্লব, কর্মক্ষেত্রে পিছিয়ে

মুকিত মুহাম্মদ, বিয়ানীবাজার (সিলেট) : সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১

সবার জন্য শিক্ষা নিশ্চিত করা আর শিক্ষায় নারী-পুরুষের সমতা অর্জনের ক্ষেত্রে সিলেটের বিয়ানীবাজারে রীতিমতো বিপ্লব ঘটেছে। বিদ্যালয়ে ভর্তির হার শতভাগ, ছাত্রছাত্রীর সমতা, নারী শিক্ষায় অগ্রগতি, ঝরে পড়ার হার কমে যাওয়াসহ শিক্ষার অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেশের মধ্যে রোল মডেল এখন বিয়ানীবাজার উপজেলা। এখানে নারী শিক্ষায় গত দশ বছরে নীরব বিপ্লব ঘটেছে।

প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছাত্রদের চেয়ে ছাত্রী সংখ্যা বেশি। এক্ষেত্রে মেয়েদের প্রথম শ্রেণিতে ভর্তির হার তুলনামূলকভাবে বেশি এবং প্রাথমিকে ঝরে পড়ার হার ছেলেদের তুলনায় কম। তবে উচ্চশিক্ষায় ছাত্রছাত্রীদের এই হারে পরিবর্তন দেখা গেলেও মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে এই হার উর্দ্ধমুখি।

৮০’র দশকে বিয়ানীবাজার কলেজে প্রথম উচ্চশিক্ষা গ্রহণে ভর্তি হন কৃষ্ঞাপ্রিয়া চৌধুরানী। এখন এখানকার নারীরা শিক্ষায় যতেষ্ট এগিয়ে যাচ্ছে।

সূত্র জানায়, বিয়ানীবাজারের প্রায় ২শ’ ছাত্রী বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করছে। তাদের জন্য প্রয়োজন বিপুল কর্মসংস্থানের সুযোগ। উপজেলায় নারী শিক্ষায় ব্যাপক অগ্রগতি হলেও কর্মক্ষেত্রে তারা পিছিয়ে আছে। শিক্ষাবিদরা বলছেন, সাধারণ ধারার শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে চাকরি না পাওয়ার হতাশা অনৈককে গ্রাস করছে। আফরোজা বেগম নামের এক শিক্ষিকা জানান, অনার্স সম্পন্ন করেও তিনি শিক্ষকতা ছাড়া অন্যক্ষেত্রে প্রবেশ করতে পারেননি। তারমতে, বিয়ানীবাজারের নারীরা শিক্ষাগ্রহণ করলেও উচ্চপদস্থ সরকারি-বেসরকারি চাকুরীতে প্রবেশের আগেই সংসারে মনোযোগী হতে হয়। এক্ষেত্রে পরিবারের সিদ্ধান্তকেও গুরুত্ব দেয়া ছাড়া উপায় নেই।

বিভিন্ন সূত্র জানায়, বিয়ানীবাজারের কোন নারীই শিক্ষা গ্রহণ করে উচ্চপর্যায়ের চাকুরীতে নেই। ডাক্তার আর শিক্ষক পেশাই বেছে নিচ্ছেন তারা। এর বাইরে যাওয়ার সুযোগ খুব কমই পাচ্ছেন নারীরা। প্রযুক্তির ক্ষেত্রেও বেশ পিছিয়ে তারা।

জানা যায়, প্রাথমিক স্তর থেকে উচ্চশিক্ষা পর্যন্ত স্থানীয়ভাবে মোট শিক্ষার্থীর মধ্যে ৫০ দশমিক ৫৪ শতাংশই নারী। এর মধ্যে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষায় প্রায় শতভাগ ছাত্রী অংশ নিচ্ছে। এই দুই স্তরে ছাত্রের তুলনায় ছাত্রীর সংখ্যা বেশি। উচ্চ মাধ্যমিকে ছাত্রছাত্রীর সমতা সমান। উচ্চশিক্ষায়ও বিয়ানীবাজারের মেয়েদের অংশগ্রহণ দিন দিন বাড়ছে।

এ বিষয়ে বিয়ানীবাজারের প্রবীণ শিক্ষাবিদ আলী আহমদ জানান, শিক্ষাগ্রহণ করছে ঠিকই, তবে জড়তা পিছু ছাড়ছেনা বিয়ানীবাজারের অভিভাকদের। এজন্য মেয়েরা সফলতার চূড়ান্ত শিখরে পৌছতে পারছেনা।

একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা নাসিমা বেগম জানান, শিক্ষকতা-চিকিৎসা পেশা ছাড়া অন্য পেশায় যেতে কেমন যেন সাহস করতে পারছেনা বিয়ানীবাজারের নারীরা। এখানকার নারীদের কর্মসংস্থান বৃদ্ধি করলে তারা আরো এগিয়ে যেত।

ছবি

শাবির দুই সাবেক শিক্ষার্থীকে আটকের অভিযোগ

ছবি

‘বিভ্রান্তিকর ও অসত্য তথ্য’ ছড়ানো হচ্ছে, অভিযোগ শাবি শিক্ষার্থীদের

ছবি

সনদ বিক্রি করছে অনেক বিশ্ববিদ্যালয়: পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী

ছবি

শাবিপ্রবিতে অনশনরত ২০ শিক্ষার্থী হাসপাতালে

ছবি

শাবিপ্রবির আন্দোলনের সমর্থনে ঢাবিতে প্রতীকী অনশন করবে শিক্ষক নেটওয়ার্ক

ছবি

হাইস্কুলের মেয়েদের নিয়ে সপ্তাহব্যাপী প্রোগ্রামিং কোর্স অনুষ্ঠিত

ছবি

গভীর রাতে শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক, সমাধান না আসায় অনশন চলবে

ছবি

চলমান পরীক্ষা নেয়ার দাবিতে রাজশাহীতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

ছবি

অনশন ভেঙে আলোচনায় বসার আহ্বান শিক্ষামন্ত্রীর

ছবি

অনলাইনে ক্লাস নেওয়াসহ মাউশির ১১ দফা নির্দেশনা

ছবি

শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে শাবির পাঁচ শিক্ষক

ছবি

মেধাবীদের পথচলায় সহযোগী হল ঢাবির কলা অনুষদ

ছবি

শাবিপ্রবিতে চতুর্থ দিনের অনশন : ১৬ জন হাসপাতালে ভর্তি

ছবি

হঠাৎ পরীক্ষা স্থগিত, শিক্ষার্থীদের সড়ক অবরোধ

ছবি

বাধ্য হয়েই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের সিদ্ধান্ত: শিক্ষামন্ত্রী

ছবি

৩৪ হাজার শিক্ষক নিয়োগের চূড়ান্ত সুপারিশ

ছবি

সীমিত পরিসরে খোলা থাকবে ঢাবির অফিস

ছবি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের সব পরীক্ষা স্থগিত

ছবি

এসএসসির পুনর্নিরীক্ষার ফল প্রকাশ আজ

ছবি

ঢাবির ২২ শিক্ষার্থী করোনায় আক্রান্ত, স্বাস্থ‌্যবিধি জোরদার

ছবি

৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ স্কুল-কলেজ

ছবি

৪৩তম বিসিএসের প্রিলিতে উত্তীর্ণ ১৫২২৯ জন

ছবি

আজ প্রকাশ হতে পারে ৪৩তম বিসিএস প্রিলিমিনারির ফল

ছবি

শীতের সারা রাত ছিলেন উপাচার্যের বাসভবনের সামনে, হাসপাতালে দুজন

ছবি

এখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের পরিকল্পনা নেই: শিক্ষামন্ত্রী

ছবি

আবার রাস্তায় শাবিপ্রবি শিক্ষার্থীরা, উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে স্লোগান

ছবি

মেডিকেলে ভর্তি পরীক্ষা ১ এপ্রিল

পরীক্ষায় ফেল করায় রাজউক উত্তরা মডেল স্কুল এ্যান্ড কলেজের ২৩ শিক্ষার্থীকে ছাড়পত্র

ছবি

আন্দোলন অব্যাহত শাবিপ্রবির শিক্ষার্থীদের, এবার উপাচার্যের পদত্যাগ দাবি

ছবি

ইরাবের সভাপতি অভিজিৎ, সম্পাদক আকতারুজ্জামান

এডুকেশন রিপোটার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি অভিজিৎ সম্পাদক আকতারুজ্জামান

ছবি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের তথ্য গুজব: শিক্ষা মন্ত্রণালয়

ছবি

একাদশে ভর্তির আবেদন শেষ হচ্ছে আজ

ছবি

স্টেট ইউনিভার্সিটির প্রো-উপাচার্য হলেন অধ্যাপক নওজিয়া

ছবি

ঢাবির ডিন নির্বাচনে জয় পেল আ.লীগপন্থীরা

ছবি

জবিতে শ্রেনীকক্ষ সংকটে ব্যাহত শিক্ষা কার্যক্রম

tab

শিক্ষা

বিয়ানীবাজারে নারী শিক্ষায় নীরব বিপ্লব, কর্মক্ষেত্রে পিছিয়ে

মুকিত মুহাম্মদ, বিয়ানীবাজার (সিলেট)

সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১

সবার জন্য শিক্ষা নিশ্চিত করা আর শিক্ষায় নারী-পুরুষের সমতা অর্জনের ক্ষেত্রে সিলেটের বিয়ানীবাজারে রীতিমতো বিপ্লব ঘটেছে। বিদ্যালয়ে ভর্তির হার শতভাগ, ছাত্রছাত্রীর সমতা, নারী শিক্ষায় অগ্রগতি, ঝরে পড়ার হার কমে যাওয়াসহ শিক্ষার অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেশের মধ্যে রোল মডেল এখন বিয়ানীবাজার উপজেলা। এখানে নারী শিক্ষায় গত দশ বছরে নীরব বিপ্লব ঘটেছে।

প্রাথমিক ও মাধ্যমিক পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের মধ্যে ছাত্রদের চেয়ে ছাত্রী সংখ্যা বেশি। এক্ষেত্রে মেয়েদের প্রথম শ্রেণিতে ভর্তির হার তুলনামূলকভাবে বেশি এবং প্রাথমিকে ঝরে পড়ার হার ছেলেদের তুলনায় কম। তবে উচ্চশিক্ষায় ছাত্রছাত্রীদের এই হারে পরিবর্তন দেখা গেলেও মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক পর্যায়ে এই হার উর্দ্ধমুখি।

৮০’র দশকে বিয়ানীবাজার কলেজে প্রথম উচ্চশিক্ষা গ্রহণে ভর্তি হন কৃষ্ঞাপ্রিয়া চৌধুরানী। এখন এখানকার নারীরা শিক্ষায় যতেষ্ট এগিয়ে যাচ্ছে।

সূত্র জানায়, বিয়ানীবাজারের প্রায় ২শ’ ছাত্রী বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করছে। তাদের জন্য প্রয়োজন বিপুল কর্মসংস্থানের সুযোগ। উপজেলায় নারী শিক্ষায় ব্যাপক অগ্রগতি হলেও কর্মক্ষেত্রে তারা পিছিয়ে আছে। শিক্ষাবিদরা বলছেন, সাধারণ ধারার শিক্ষায় শিক্ষিত হয়ে চাকরি না পাওয়ার হতাশা অনৈককে গ্রাস করছে। আফরোজা বেগম নামের এক শিক্ষিকা জানান, অনার্স সম্পন্ন করেও তিনি শিক্ষকতা ছাড়া অন্যক্ষেত্রে প্রবেশ করতে পারেননি। তারমতে, বিয়ানীবাজারের নারীরা শিক্ষাগ্রহণ করলেও উচ্চপদস্থ সরকারি-বেসরকারি চাকুরীতে প্রবেশের আগেই সংসারে মনোযোগী হতে হয়। এক্ষেত্রে পরিবারের সিদ্ধান্তকেও গুরুত্ব দেয়া ছাড়া উপায় নেই।

বিভিন্ন সূত্র জানায়, বিয়ানীবাজারের কোন নারীই শিক্ষা গ্রহণ করে উচ্চপর্যায়ের চাকুরীতে নেই। ডাক্তার আর শিক্ষক পেশাই বেছে নিচ্ছেন তারা। এর বাইরে যাওয়ার সুযোগ খুব কমই পাচ্ছেন নারীরা। প্রযুক্তির ক্ষেত্রেও বেশ পিছিয়ে তারা।

জানা যায়, প্রাথমিক স্তর থেকে উচ্চশিক্ষা পর্যন্ত স্থানীয়ভাবে মোট শিক্ষার্থীর মধ্যে ৫০ দশমিক ৫৪ শতাংশই নারী। এর মধ্যে প্রাথমিক ও মাধ্যমিক শিক্ষায় প্রায় শতভাগ ছাত্রী অংশ নিচ্ছে। এই দুই স্তরে ছাত্রের তুলনায় ছাত্রীর সংখ্যা বেশি। উচ্চ মাধ্যমিকে ছাত্রছাত্রীর সমতা সমান। উচ্চশিক্ষায়ও বিয়ানীবাজারের মেয়েদের অংশগ্রহণ দিন দিন বাড়ছে।

এ বিষয়ে বিয়ানীবাজারের প্রবীণ শিক্ষাবিদ আলী আহমদ জানান, শিক্ষাগ্রহণ করছে ঠিকই, তবে জড়তা পিছু ছাড়ছেনা বিয়ানীবাজারের অভিভাকদের। এজন্য মেয়েরা সফলতার চূড়ান্ত শিখরে পৌছতে পারছেনা।

একটি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষিকা নাসিমা বেগম জানান, শিক্ষকতা-চিকিৎসা পেশা ছাড়া অন্য পেশায় যেতে কেমন যেন সাহস করতে পারছেনা বিয়ানীবাজারের নারীরা। এখানকার নারীদের কর্মসংস্থান বৃদ্ধি করলে তারা আরো এগিয়ে যেত।

back to top