alt

শিক্ষা

শিক্ষকদের জন্য জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১ বিষয়ক অনলাইন প্রশিক্ষণের উদ্বোধন

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদেরকে জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখার বিষয়ে প্রশিক্ষিত করার লক্ষ্যে প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হচ্ছে। গত ১৩ সেপ্টেম্বর ঢাকার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইন্সটিটিউট অডিটোরিয়ামে ‘জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১ অনলাইন প্রশিক্ষণ’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রী দীপু মনি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ আবু বকর ছিদ্দীক এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ কামাল হোসেন উপস্থিত ছিলেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি), জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) এবং এটুআই-এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) প্রণীত নতুন ‘জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১’-এর দর্শন, রূপকল্প, অভিলক্ষ্য এবং যোগ্যতাভিত্তিক শিক্ষাক্রম সম্পর্কে সকল শিক্ষক, প্রশিক্ষক ও কর্মকর্তাদের অবহিত করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এর অংশ হিসেবে এনসিটিবি ও মাউশি কর্তৃক সকল শিক্ষককে সরাসরি প্রশিক্ষণ প্রদানের পাশাপাশি মুক্তপাঠের মাধ্যমে অনলাইন প্রশিক্ষণের যাবতীয় কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। শিগগিরই বাংলা ভাষার সবচেয়ে বড় ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্ম ‘মুক্তপাঠ’ (www.muktopaath.gov.bd) প্ল্যাটফর্মে ‘জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১ অনলাইন প্রশিক্ষণ’ শীর্ষক কোর্সটি সংশ্লিষ্ট সকল শিক্ষকদের জন্য উন্মুক্ত করা হবে। এছাড়াও শিক্ষাক্রম সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় ও ইস্যুভিত্তিক এনসিটিবি ও মাউশি-এর নতুন নতুন অনলাইন প্রশিক্ষণ কোর্স মুক্তপাঠ প্ল্যাটফর্মে চালু করা হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, ‘দেশের শিক্ষাব্যবস্থার জন্য জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা-২০২১ এ বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ গুণগত পরিবর্তন আনা হয়েছে, যেগুলো সম্পর্কে সকল অংশীজনকে পরিপূর্ণ ও সঠিক ধারণা প্রদান করা হবে। সকল পর্যায়ে একই ধারণা প্রদানের লক্ষ্যে শিক্ষাক্রম কাঠামো, শিক্ষাক্রমের ধারণার ব্যাপক বিস্তরণে প্রশিক্ষণ পদ্ধতিতেও অনেক নতুনত্ব আনা হচ্ছে। শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সবাইকে সাথে নিয়েই দেশের শিক্ষাখাতের উন্নয়নে জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১ বাস্তবায়ন করা হবে।’

প্রস্তাবিত শিক্ষাক্রম মাঠপর্যায়ে বাস্তবায়নে শিক্ষকদের সঠিকভাবে তৈরি করার ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণের কোনো বিকল্প নেই উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষাক্রম বিস্তরণে একদিকে যেমন সরাসরি বিভিন্ন প্রশিক্ষণ ও প্রচারের ব্যবস্থা করা হবে, একইসাথে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে বিভিন্ন মাধ্যমে বিস্তরণের পরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করা হবে। এরই অংশ হিসেবে জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১-এর দর্শন, রূপকল্প, অভিলক্ষ্য, যোগ্যতাভিত্তিক শিক্ষাক্রম এবং এর পরিমার্জন সম্পর্কে সকল শিক্ষক, প্রশিক্ষক এবং কর্মকর্তাদের অবহিত করা এবং তাদেরকে মানসিকভাবে প্রস্তুত করার লক্ষ্যেই মাউশি এই অনলাইন প্রশিক্ষণ কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। এর মাধ্যমে শিক্ষকরা নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে তাদের ভূমিকা সম্পর্কে জানতে পারবেন।

শিক্ষাক্ষেত্রে সারাবিশ্বেই রূপান্তরের কথা বলা হচ্ছে জানিয়ে দীপু মনি বলেন, ‘মুখস্ত নির্ভর পাঠ্যক্রমের পরিবর্তে অভিজ্ঞতা ও কার্যক্রমভিত্তিক শিখণে অগ্রাধিকার প্রদান করে ২০২৩ সালের শুরুতে শিক্ষার্থীদের হাতে যে বই পোঁছে দেওয়া হবে তা জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১ এর আলোকেই প্রস্তুত করা হয়েছে। পরবর্তীতে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভবকদের মতামতের উপর ভিত্তি করে এগুলোকে আরো বেশি যুগোপযোগী করে তুলতে এতে প্রয়োজনীয় পরিমার্জন ও পরিবর্তন আনা হবে।’

সভাপতির বক্তব্যে মাউশি’র মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, ‘সারা পৃথিবী বদলাচ্ছে আমাদেরেকেও বদলাতে হবে। এখনকার শিক্ষার্থীরা পুরনোদের চেয়ে অনেক সহজে নতুন নতুন বিষয়কে গ্রহণ করে নিতে পারে। জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১ প্রণয়নের মাধ্যমে আমরা যে নতুন যাত্রা শুরু করেছি তা সর্বস্তরে বাস্তবায়নের জন্য সমাজের বিভিন্ন পর্যায়ে জড়িত সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা জরুরি। নতুন পরিবর্তনকে সাদরে গ্রহণ করার জন্য আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনে কাজ করতে হবে। তাহলেই আমরা জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা এর পরিপূর্ণ বাস্তবায়নের মাধ্যমে ভবিষ্যতের সমৃদ্ধ, দক্ষতাসম্পন্ন ও আধুনিক বাংলাদেশ গড়ে তুলতে পারবো।’

অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা প্রসঙ্গে বিস্তারিত আলোচনা করেন এনসিটিবি-এর চেয়ারম্যান প্রফেসর মোঃ ফরহাদুল ইসলাম। এছাড়াও মাউশি’র পরিচালক (প্রশিক্ষণ উইং) ড. প্রবীর কুমার ভট্টাচার্য্য, মাউশি’র পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন উইং) প্রফেসর ড. একিউএম শফিউল আজম, এটুআই-এর ফিউচার অব এডুকেশন টিম হেড মো. আফজাল হোসেন সারওয়ার এবং শিক্ষক প্রতিনিধিরা স্ব স্ব অবস্থান থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে বক্তব্য প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, এটুআই, ইউনিসেফ, সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরসমূহের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, ও সম্মানিত শিক্ষক প্রতিনিধিবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

ডিপিইর সঙ্গে ছাপাখানা মালিকদের দ্বন্ধ প্রাথমিকের বই ছাপা এখনও শুরু হয়নি

ছবি

‘এসএসসিতে উত্তীর্ণ শিক্ষার্থীর চেয়ে ৭ লাখ আসন বেশি রয়েছে’

ছবি

ক্যাম্পাসে কুকুর নিয়ে উদ্বেগে শাবি প্রশাসন

ছবি

সখীপুরে যমজ দুই বোনের এসএসসিতে জিপিএ-৫

সখীপুরে জিপিএ-৫ পেয়েছেন ৪২০ জন, পাশে হার ৮৮.২৯

ছবি

মেয়েরা এগিয়ে, পাসের হার কমেছে

ছবি

৫০ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কেউ পাস করেনি

ছবি

এসএসসি ও সমমান পরীক্ষার ফল প্রকাশ

এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফল প্রকাশ আজ

দশ বছরেও তৃতীয় বর্ষের গণ্ডি ফেরোতে পারেননি ছাত্রলীগ নেত্রী তিলোত্তমা শিকদার

পাঠ্যপুস্তকের বদলে এবার সহায়ক বই কেনা প্রকল্পের উদ্যোগ

নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের বসনিয়ার ও বুলগেরিয়ার দুই বিশ্ববিদ্যালয়ে সমঝোতা স্মারক

ছবি

হলের ভবন থেকে পড়ে ঢাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ছবি

প্রাথমিকের বার্ষিক মূল্যায়নপদ্ধতি নিয়ে ছড়ানো তথ্য অসত্য: প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর

ছবি

চবির চারুকলায় ৯ ঘণ্টা পর মুক্ত হলেন চবির ১০ শিক্ষক

ছবি

এসএসসির ফল ২৮ নভেম্বর

ছবি

আজ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৩তম সমাবর্তন

ছবি

এসএসসির ফল ৩০ নভেম্বরের মধ্যে

ছবি

ইবিতে ৭২ শতাংশ আসন ফাঁকা

ছবি

হাফেজ সংবর্ধনা পেল ঢাবির ২০০ শিক্ষার্থী 

ছবি

স্কুলে ভর্তির আবেদন শুরু, এবারও লটারিতে নির্বাচন

ছবি

সংকটে বিনামূল্যের পাঠ্যবই ছাপার কাজ

সারাদেশে শ্রেণী কার্যক্রমে অনুপস্থিত ৩১ শতাংশ শিক্ষার্থী

ছবি

মাদারীপুরে জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তার বিদায় অনুষ্ঠান

অনিয়মে বাধা দেয়ায় এক প্রকৌশলীকে মারধর

ছবি

৪১তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষায় পাস ১৩ হাজার

ছবি

৪১তম বিসিএসের লিখিত পরীক্ষার ফল প্রকাশ

ইবির ডি ইউনিটের ২য় মেধা তালিকা প্রকাশ

ছবি

প্রশ্নে সাম্প্রদায়িক উস্কানি, জড়িত শিক্ষকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে : শিক্ষামন্ত্রী

ছবি

জাবির সাবেক ও বর্তমান ভিসির দুর্নীতির তদন্ত চেয়ে আইনি নোটিশ

এইচএসসি পরীক্ষা : বিতর্কিত প্রশ্ন প্রণয়নকারী ও চার মডারেটর যশোর বোর্ডের

ছবি

অনির্দিষ্টকালের কর্মবিরতে জামালপুরে বশেফমুবিপ্রবির শিক্ষকরা

ছবি

এইচএসসি’র প্রশ্নে সাম্প্রদায়িক উসকানির ঘটনায় জড়িতদের চিহ্নিত করেছে

ছবি

আইসিপিসি এর ৪৫তম আয়োজন অনুষ্ঠিত হচ্ছে ঢাকায়

প্রাথমিকের শিক্ষক নিয়োগ পরীক্ষার চূড়ান্ত ফল প্রকাশ পিছিয়েছে

ছবি

প্রথম দিন ২০ হাজারের বেশি অনুপস্থিত

tab

শিক্ষা

শিক্ষকদের জন্য জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১ বিষয়ক অনলাইন প্রশিক্ষণের উদ্বোধন

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বুধবার, ১৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

দেশের বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদেরকে জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখার বিষয়ে প্রশিক্ষিত করার লক্ষ্যে প্রশিক্ষণের আয়োজন করা হচ্ছে। গত ১৩ সেপ্টেম্বর ঢাকার আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা ইন্সটিটিউট অডিটোরিয়ামে ‘জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১ অনলাইন প্রশিক্ষণ’ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রী দীপু মনি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ আবু বকর ছিদ্দীক এবং কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগের সচিব মোঃ কামাল হোসেন উপস্থিত ছিলেন। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনায় মাধ্যমিক ও উচ্চশিক্ষা অধিদপ্তর (মাউশি), জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) এবং এটুআই-এর যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এক বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে জাতীয় শিক্ষাক্রম ও পাঠ্যপুস্তক বোর্ড (এনসিটিবি) প্রণীত নতুন ‘জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১’-এর দর্শন, রূপকল্প, অভিলক্ষ্য এবং যোগ্যতাভিত্তিক শিক্ষাক্রম সম্পর্কে সকল শিক্ষক, প্রশিক্ষক ও কর্মকর্তাদের অবহিত করার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। এর অংশ হিসেবে এনসিটিবি ও মাউশি কর্তৃক সকল শিক্ষককে সরাসরি প্রশিক্ষণ প্রদানের পাশাপাশি মুক্তপাঠের মাধ্যমে অনলাইন প্রশিক্ষণের যাবতীয় কার্যক্রম সম্পন্ন হয়েছে। শিগগিরই বাংলা ভাষার সবচেয়ে বড় ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্ম ‘মুক্তপাঠ’ (www.muktopaath.gov.bd) প্ল্যাটফর্মে ‘জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১ অনলাইন প্রশিক্ষণ’ শীর্ষক কোর্সটি সংশ্লিষ্ট সকল শিক্ষকদের জন্য উন্মুক্ত করা হবে। এছাড়াও শিক্ষাক্রম সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয় ও ইস্যুভিত্তিক এনসিটিবি ও মাউশি-এর নতুন নতুন অনলাইন প্রশিক্ষণ কোর্স মুক্তপাঠ প্ল্যাটফর্মে চালু করা হবে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি বলেন, ‘দেশের শিক্ষাব্যবস্থার জন্য জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা-২০২১ এ বেশকিছু গুরুত্বপূর্ণ গুণগত পরিবর্তন আনা হয়েছে, যেগুলো সম্পর্কে সকল অংশীজনকে পরিপূর্ণ ও সঠিক ধারণা প্রদান করা হবে। সকল পর্যায়ে একই ধারণা প্রদানের লক্ষ্যে শিক্ষাক্রম কাঠামো, শিক্ষাক্রমের ধারণার ব্যাপক বিস্তরণে প্রশিক্ষণ পদ্ধতিতেও অনেক নতুনত্ব আনা হচ্ছে। শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের সবাইকে সাথে নিয়েই দেশের শিক্ষাখাতের উন্নয়নে জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১ বাস্তবায়ন করা হবে।’

প্রস্তাবিত শিক্ষাক্রম মাঠপর্যায়ে বাস্তবায়নে শিক্ষকদের সঠিকভাবে তৈরি করার ক্ষেত্রে প্রশিক্ষণের কোনো বিকল্প নেই উল্লেখ করে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষাক্রম বিস্তরণে একদিকে যেমন সরাসরি বিভিন্ন প্রশিক্ষণ ও প্রচারের ব্যবস্থা করা হবে, একইসাথে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহার করে বিভিন্ন মাধ্যমে বিস্তরণের পরিকল্পনা গ্রহণ ও বাস্তবায়ন করা হবে। এরই অংশ হিসেবে জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১-এর দর্শন, রূপকল্প, অভিলক্ষ্য, যোগ্যতাভিত্তিক শিক্ষাক্রম এবং এর পরিমার্জন সম্পর্কে সকল শিক্ষক, প্রশিক্ষক এবং কর্মকর্তাদের অবহিত করা এবং তাদেরকে মানসিকভাবে প্রস্তুত করার লক্ষ্যেই মাউশি এই অনলাইন প্রশিক্ষণ কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। এর মাধ্যমে শিক্ষকরা নতুন শিক্ষাক্রম বাস্তবায়নে তাদের ভূমিকা সম্পর্কে জানতে পারবেন।

শিক্ষাক্ষেত্রে সারাবিশ্বেই রূপান্তরের কথা বলা হচ্ছে জানিয়ে দীপু মনি বলেন, ‘মুখস্ত নির্ভর পাঠ্যক্রমের পরিবর্তে অভিজ্ঞতা ও কার্যক্রমভিত্তিক শিখণে অগ্রাধিকার প্রদান করে ২০২৩ সালের শুরুতে শিক্ষার্থীদের হাতে যে বই পোঁছে দেওয়া হবে তা জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১ এর আলোকেই প্রস্তুত করা হয়েছে। পরবর্তীতে শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভবকদের মতামতের উপর ভিত্তি করে এগুলোকে আরো বেশি যুগোপযোগী করে তুলতে এতে প্রয়োজনীয় পরিমার্জন ও পরিবর্তন আনা হবে।’

সভাপতির বক্তব্যে মাউশি’র মহাপরিচালক অধ্যাপক নেহাল আহমেদ বলেন, ‘সারা পৃথিবী বদলাচ্ছে আমাদেরেকেও বদলাতে হবে। এখনকার শিক্ষার্থীরা পুরনোদের চেয়ে অনেক সহজে নতুন নতুন বিষয়কে গ্রহণ করে নিতে পারে। জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা ২০২১ প্রণয়নের মাধ্যমে আমরা যে নতুন যাত্রা শুরু করেছি তা সর্বস্তরে বাস্তবায়নের জন্য সমাজের বিভিন্ন পর্যায়ে জড়িত সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা জরুরি। নতুন পরিবর্তনকে সাদরে গ্রহণ করার জন্য আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি পরিবর্তনে কাজ করতে হবে। তাহলেই আমরা জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা এর পরিপূর্ণ বাস্তবায়নের মাধ্যমে ভবিষ্যতের সমৃদ্ধ, দক্ষতাসম্পন্ন ও আধুনিক বাংলাদেশ গড়ে তুলতে পারবো।’

অনুষ্ঠানের শুরুতে জাতীয় শিক্ষাক্রম রূপরেখা প্রসঙ্গে বিস্তারিত আলোচনা করেন এনসিটিবি-এর চেয়ারম্যান প্রফেসর মোঃ ফরহাদুল ইসলাম। এছাড়াও মাউশি’র পরিচালক (প্রশিক্ষণ উইং) ড. প্রবীর কুমার ভট্টাচার্য্য, মাউশি’র পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন উইং) প্রফেসর ড. একিউএম শফিউল আজম, এটুআই-এর ফিউচার অব এডুকেশন টিম হেড মো. আফজাল হোসেন সারওয়ার এবং শিক্ষক প্রতিনিধিরা স্ব স্ব অবস্থান থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে বক্তব্য প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে শিক্ষা মন্ত্রণালয়, এটুআই, ইউনিসেফ, সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরসমূহের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, ও সম্মানিত শিক্ষক প্রতিনিধিবৃন্দ অংশগ্রহণ করেন।

back to top