alt

আন্তর্জাতিক

পবিত্র কোরআন পোড়ানো নিষিদ্ধ, ডেনমার্কে বিল পাস

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শুক্রবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩

ডেনমার্কে পবিত্র কোরআন পোড়ানো, ছেঁড়া বা অমর্যাদাকর কোনো কাজ করা যাবে না, করলেই হবে জরিমানা বা জেল। ডেনমার্কের পার্লামেন্টে এ নিয়ে একটি বিল পাস হয়েছে। ফলে এই উত্তর ইউরোপীয় দেশে পবিত্র কোরআন পড়ানো, ছেঁড়া বা অমর্যাদাকর আচরণ শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে গন্য হবে।

বিলের পক্ষে ৯৪ ও বিপক্ষে ৭৭টি ভোট পড়ে। বিলে বলা হয়েছে, “একটি স্বীকৃত ধর্মের গুরুত্বপূর্ণ বই বা লেখার প্রতি অন্যায্য আচরণ করা যাবে না। ধর্মগ্রন্থ পোড়ানো, ছেঁড়া বা অমর্যাদার জন্য জরিমানা বা দুই বছর পর্যন্ত কারাদ- হতে পারে। পবিত্র ধর্মগ্রন্থ পড়ানো নিয়ে যদি ভিডিও প্রচার করা হয়, তাহলে অপরাধীর কারাদ- হবে।”

ডেনমার্কের বিচার মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ডেনমার্কের বিরুদ্ধে জঙ্গি আক্রমণের সম্ভাবনা কম করার জন্য এই বিল পাস করা হয়েছে। এই আইন ধর্মগ্রন্থের বিদ্রুপ, অসম্মান বন্ধ করতে চেয়েছে। বিচারমন্ত্রী পিটার হুমেলগার্ড বলেছেন, ‘আমাদের দেশ ও দেশের বাসিন্দাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই হবে।

সেজন্যই আমাদের এই ব্যবস্থা নেয়া জরুরি ছিল।’

কয়েকমাস আগেই ডেনমার্ক ও সুইডেনে পবিত্র কোরআন পোড়ানো নিয়ে রীতিমতো আলোড়ন দেখা দেয়।

প্রচুর দেশ এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে। ইরাকে ডেনমার্কর দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ দেখানো হয়।

তবে এই বিল পাশ হওয়ায় দক্ষিণপন্থি ও অভিবাসী-বিরোধী ডেনমার্ক ডেমোক্র্যাটস পর্টির নেতা ইনগের স্টর্জবার্গ বেশ ক্ষুদ্ধ। তিনি বলেছেন, ‘ইতিহাস আমাদের কড়া পরীক্ষা নেবে এবং তার কারণও আছে।’ তার প্রশ্ন, ‘আমরা আমাদের মতপ্রকাশের অধিকার খর্ব করলাম, সেটাও কি বাইরের থেকে চাপের মুখে পড়ে?’ বামপন্থিরাও এই সিদ্ধান্তের বিরোধী।

বামপন্থি সোস্যালিস্ট পিপলস পার্টির নেতা কারিনা লোরেন্টজেন বলেছেন, “ইরানের কোনো নাগরিকের কোনো কাজে ডেনমার্ক যদি মর্মাহত হয়, তাহলে ইরান কি তাদের আইন বদল করবে? পাকিস্তান করবে? সৌদি আরব কি আইন পরিবর্তন করবে? উত্তর হলো, না।”

এই বিলটি প্রথমে অগাস্টে পেশ করা হয়। তারপর একবার তা সংশোধন করা হয়। বিল আইনে পরিণত হওয়ার আগে ডেনমার্কের রানির সই দরকার হয়। সেই সই এই মাসের শেষে হয়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

ছবি

হাইতিতে জেল ভেঙে ৪০০০ বন্দিকে মুক্ত করেছে অপরাধী দলগুলো

ছবি

পাকিস্তানে বৃষ্টি ও তুষারপাতজনিত ঘটনায় ১৮ শিশুসহ ২৭ জনের মৃত্যু

ছবি

মালয়েশিয়ায় ট্রেনের ধাক্কায় ৩ বাংলাদেশি নিহত

ছবি

গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলি বিমান হামলা, ২০ ফিলিস্তিনি নিহত

ছবি

দেশের মানুষ ভালো আছে : অর্থমন্ত্রী

ছবি

বাংলাদেশিকে ধরিয়ে দিতে ২০ হাজার ডলার পুরস্কার ঘোষণা এফবিআইয়ের

ছবি

পাকিস্তানের ২৪তম প্রধানমন্ত্রী হলেন শাহবাজ শরিফ

ছবি

ইউক্রেনের ওডেসায় রাশিয়ার ড্রোন হামলা, নিহত ৮

ছবি

মিশিগানসহ তিন অঙ্গরাজ্যের ককাশে জিতে দলের মনোনয়ন পাকাপোক্ত করলেন ট্রাম্প

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রে প্রবল তুষারঝড়, বিদ্যুৎহীন অর্ধলক্ষাধিক মানুষ

ছবি

প্রথমবারের মত গাজাবাসীর জন্য উড়োজাহাজ থেকে খাবার ফেলল যুক্তরাষ্ট্র

ছবি

রাফাহতে আশ্রয় শিবিরে ইসরায়েলের হামলা, নিহত ১১ ফিলিস্তিনি

ছবি

রাখাইনের রাজধানী থেকে পালাচ্ছেন হাজার হাজার মানুষ

ছবি

গাজায় ইসরায়েলি বাহিনীর বোমায় নিহত ৭ জিম্মি: হামাস

ছবি

পাকিস্তানের নতুন সরকারকে স্বীকৃতি না দিতে বাইডেনকে চিঠি

ছবি

সেনেগাল উপকূলে অভিবাসীবাহী নৌকাডুবি, মৃত ২০

ছবি

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বেইলি রোডের অগ্নিকাণ্ড

ছবি

রোজার আগে আরব আমিরাতে খেজুরের দাম কমলো ৪০ শতাংশ

ছবি

ইসরায়েলি তাণ্ডব: গাজায় নিহত প্রায় ৩০ হাজার

ছবি

মধ্যপ্রদেশে পিকআপ উল্টে নিহত ১৪, আহত ২১

ছবি

দক্ষিণ কোরিয়ায় নিম্ন জন্ম হারের নতুন রেকর্ড

ছবি

সন্ত্রাসবাদের অভিযোগে সৌদি আরবে এক দিনে সাতজনের শিরশ্ছেদ

ছবি

হামাস যুদ্ধবিরতিতে সায় দিলে হামলা থামাবে হিজবুল্লাহও

ছবি

আমি ইহুদিবাদী, ইসরায়েল না থাকলে কোনও ইহুদি নিরাপদ নয়: বাইডেন

ছবি

মালিতে সেতু থেকে নদীতে পড়ল বাস, নিহত ৩১

ছবি

“কে ডাকবে বাবা?”

আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে ইসরায়েলের দখলদারিত্বের অবসানে রায় প্রদানের আহ্বান

ছবি

সোমবারের মধ্যে গাজায় যুদ্ধবিরতি শুরুর আশা বাইডেনের

ছবি

তাপমাত্রা ক্রমেই বাড়তে পারে

ছবি

গাজায় আগামী সপ্তাহে যুদ্ধবিরতির আশা বাইডেনের

ছবি

বুরকিনা ফাসোতে ফজরের নামাজের সময় মসজিদে হামলা, বহু মুসল্লি নিহত

ছবি

বাংলাদেশকে যেসব বার্তা দিল যুক্তরাষ্ট্র

ছবি

পাকিস্তানের পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী হলেন মরিয়ম নওয়াজ

ছবি

চালক ছাড়াই ৭০ কি.মি. পাড়ি দিলো ভারতীয় ট্রেন

ছবি

ফিলিস্তিনের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ

ছবি

জ্ঞানবাপী মসজিদের বেজমেন্টে পূজা চলবে, রায় হাইকোর্টের

tab

আন্তর্জাতিক

পবিত্র কোরআন পোড়ানো নিষিদ্ধ, ডেনমার্কে বিল পাস

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শুক্রবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২৩

ডেনমার্কে পবিত্র কোরআন পোড়ানো, ছেঁড়া বা অমর্যাদাকর কোনো কাজ করা যাবে না, করলেই হবে জরিমানা বা জেল। ডেনমার্কের পার্লামেন্টে এ নিয়ে একটি বিল পাস হয়েছে। ফলে এই উত্তর ইউরোপীয় দেশে পবিত্র কোরআন পড়ানো, ছেঁড়া বা অমর্যাদাকর আচরণ শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে গন্য হবে।

বিলের পক্ষে ৯৪ ও বিপক্ষে ৭৭টি ভোট পড়ে। বিলে বলা হয়েছে, “একটি স্বীকৃত ধর্মের গুরুত্বপূর্ণ বই বা লেখার প্রতি অন্যায্য আচরণ করা যাবে না। ধর্মগ্রন্থ পোড়ানো, ছেঁড়া বা অমর্যাদার জন্য জরিমানা বা দুই বছর পর্যন্ত কারাদ- হতে পারে। পবিত্র ধর্মগ্রন্থ পড়ানো নিয়ে যদি ভিডিও প্রচার করা হয়, তাহলে অপরাধীর কারাদ- হবে।”

ডেনমার্কের বিচার মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ডেনমার্কের বিরুদ্ধে জঙ্গি আক্রমণের সম্ভাবনা কম করার জন্য এই বিল পাস করা হয়েছে। এই আইন ধর্মগ্রন্থের বিদ্রুপ, অসম্মান বন্ধ করতে চেয়েছে। বিচারমন্ত্রী পিটার হুমেলগার্ড বলেছেন, ‘আমাদের দেশ ও দেশের বাসিন্দাদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতেই হবে।

সেজন্যই আমাদের এই ব্যবস্থা নেয়া জরুরি ছিল।’

কয়েকমাস আগেই ডেনমার্ক ও সুইডেনে পবিত্র কোরআন পোড়ানো নিয়ে রীতিমতো আলোড়ন দেখা দেয়।

প্রচুর দেশ এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করে। ইরাকে ডেনমার্কর দূতাবাসের সামনে বিক্ষোভ দেখানো হয়।

তবে এই বিল পাশ হওয়ায় দক্ষিণপন্থি ও অভিবাসী-বিরোধী ডেনমার্ক ডেমোক্র্যাটস পর্টির নেতা ইনগের স্টর্জবার্গ বেশ ক্ষুদ্ধ। তিনি বলেছেন, ‘ইতিহাস আমাদের কড়া পরীক্ষা নেবে এবং তার কারণও আছে।’ তার প্রশ্ন, ‘আমরা আমাদের মতপ্রকাশের অধিকার খর্ব করলাম, সেটাও কি বাইরের থেকে চাপের মুখে পড়ে?’ বামপন্থিরাও এই সিদ্ধান্তের বিরোধী।

বামপন্থি সোস্যালিস্ট পিপলস পার্টির নেতা কারিনা লোরেন্টজেন বলেছেন, “ইরানের কোনো নাগরিকের কোনো কাজে ডেনমার্ক যদি মর্মাহত হয়, তাহলে ইরান কি তাদের আইন বদল করবে? পাকিস্তান করবে? সৌদি আরব কি আইন পরিবর্তন করবে? উত্তর হলো, না।”

এই বিলটি প্রথমে অগাস্টে পেশ করা হয়। তারপর একবার তা সংশোধন করা হয়। বিল আইনে পরিণত হওয়ার আগে ডেনমার্কের রানির সই দরকার হয়। সেই সই এই মাসের শেষে হয়ে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

back to top