alt

আন্তর্জাতিক

গাজায় বিপুল হত্যাযজ্ঞ মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের সামিল: জাতিসংঘ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বুধবার, ১২ জুন ২০২৪

গাজায় যুদ্ধের শুরুর দিনগুলোতে ইসরায়েল এবং হামাস উভয়ই যুদ্ধাপরাধ করেছে। জাতিসংঘের এক তদন্তে এমনটি দেখা গেছে। বলা হয়েছে, বেসামরিক মানুষের বিপুল প্রাণহানির কারণে ইসরায়েলের তৎপরতাও মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের সামিল।

জাতিসংঘ ইনকোয়ারি কমিশন (সিওআই) দুটো তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। একটি গতবছর ৭ অক্টোবরে ইসরায়েলে ঢুকে ফিলিস্তিনের মুক্তিকামী সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের হামলা নিয়ে এবং আরেকটি এর জবাবে গাজায় ইসরায়েলের সামরিক হামলা নিয়ে।

ইসরায়েল এ তদন্ত কমিটিকে সহযোগিতা করেনি। এই কমিশন ইসরায়েল-বিরোধী পক্ষপাতদুষ্ট বলে ইসরায়েল অভিযোগ করেছে। সিওআই বলছে, ইসরায়েল তাদের কাজে বাধা দিয়েছে। ইসরায়েল এবং অধিকৃত ফিলিস্তিন অঞ্চলগুলোতে তারা জাতিসংঘ তদন্তকারীদের ঢুকতে দেয়নি।

জেনিভায় জাতিসংঘের কূটনৈতিক মিশন সিওআই এর প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে। ওদিকে, হামাস প্রতিবেদনের বিষয়ে তাৎক্ষণিক কোনও মন্তব্য করেনি।

ইসরায়েলের ভাষ্যমতে, গতবছর ৭ অক্টোবরের হামলায় ১২০০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছিল এবং হামাস যোদ্ধারা ২৫০ জনকে জিম্মি করে গাজায় নিয়ে গিয়েছিল।

আর হামাসের ওই হামলার পরই গাজায় ইসরায়েলের শুরু করা সামরিক অভিযানে ফিলিস্তিনের ভাষ্যমতে, এ পর্যন্ত নিহত হয়েছে ৩৭ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি।

জাতিসংঘের তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, উভয়পক্ষই নির্যাতন, ইচ্ছাকৃতভাবে হত্যা, অমানবিক এবং নিষ্ঠুর আচরণ করে যুদ্ধাপরাধ করেছে।

তাছাড়া, গাজায় মানুষজনকে অনাহারে রেখে ইসরায়েল আরেকটি যুদ্ধাপরাধ করেছে। তারা কেবল গাজাবাসীদের জন্য প্রয়োজনীয় খাবার, পানি, আশ্রয়, চিকিৎসা দিতেই ব্যর্থ হয়নি বরং এইসব প্রয়োজনীয় জিনিসের সরবরাহও আটকে দিয়েছে।

হত্যার মতো ইসরায়েলের কিছু যুদ্ধাপরাধ মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধেরও সামিল হয়েছে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে সিওআই।

এতে বলা হয়েছে, “গাজায় বিপুল সংখ্যক মানুষ হতাহতের ঘটনাসহ বেসামরিক অবকাঠামো ব্যাপকভাবে ধ্বংস হয়েছে। ইসরায়েল গাজায় সর্বোচ্চ ক্ষয়ক্ষতি করার অভিপ্রায় নিয়ে সেখানে হামলা চালিয়েছে। এক্ষেত্রে, সুনির্দিষ্ট নিশানায় হামলা, পর্যাপ্ত পূর্ব সতর্কতা এবং আনুপাতিকতার দিকটি বিবেচনায় নেওয়া হয়নি।”

যুদ্ধের শিকার ব্যক্তি, প্রত্যক্ষদর্শীদের সাক্ষাৎকার, স্যাটেলাইট ছবি, মেডিকেল রিপোর্ট এবং যাচাই করা অন্যান্য তথ্যের ভিত্তিতে সিওআই এই প্রতিদেন তৈরি করেছে।

ছবি

বিক্ষোভকারী শিক্ষার্থীদের বিরুদ্ধে বেআইনি শক্তি প্রয়োগ করেছে পুলিশ: অ্যামনেস্টি

ছবি

পরিস্থিতি বুঝে মোবাইল ইন্টারনেট বন্ধ করা হয়েছে : পলক

ছবি

চীনে শপিং সেন্টারে অগ্নিকাণ্ডে নিহত ১৬

ছবি

গাজায় ২৪ ঘণ্টায় ইসরায়েলি হামলায় নিহত ৮১

ছবি

ছাত্রলীগকে সন্ত্রাসী সংগঠন বিবেচনার প্রশ্নে যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র

ছবি

সারা দেশে আ. লীগ নেতাকর্মীদের শক্ত অবস্থান নেওয়ার নির্দেশ

ছবি

কোটা আন্দোলনে হামলা-সংঘর্ষ-হত্যা : যা বলছে জাতিসংঘ

ছবি

ওমান উপকূলে ট্যাংকারডুবি, ১৩ ভারতীয়সহ সমুদ্রে নিখোঁজ ১৬ ক্রু

ছবি

বিশ্ব গণমাধ্যমে বাংলাদেশের কোটা সংস্কার আন্দোলন

ছবি

কোটা আন্দোলনকারীদের ওপর হামলায় অ্যামনেস্টির নিন্দা

ছবি

আসন্ন নির্বাচনে ভাইস প্রেসিডেন্ট প্রার্থীর নাম ঘোষণা ট্রাম্পের

ছবি

ইসরায়েলের ৫ নাগরিক, তিন সংস্থার ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি ইইউর

ছবি

নুসেইরাত-খান ইউনিসে ইসরায়েলের বর্বর হামলা, ৫ শিশুসহ নিহত ১৫

ছবি

কোটা আন্দোলনে শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা, যা বলছে যুক্তরাষ্ট্র

ছবি

রিপাবলিকান সম্মেলনে যোগ দিতে উইসকন্সিনে পৌঁছেছেন ট্রাম্প

ছবি

গাজায় ইসরায়েলি বর্বরতা চলছেই, নিহত আরও ১৪১ ফিলিস্তিনি

ছবি

ট্রাম্পের ওপর হামলা

ছবি

ট্রাম্পের ওপর হামলাকারী ছিলেন রিপাবলিকান পার্টির নিবন্ধিত ভোটার

ছবি

ট্রাম্পকে হত্যার চেষ্টা করা হয়েছে: এফবিআই

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রে এ ধরনের সহিংসতার কোনো জায়গা নেই: বাইডেন

ছবি

ট্রাম্পের ওপর হামলা

ছবি

গাজায় ইসরায়েলের ক্ষেপণাস্ত্র হামলায় ৭১ জন নিহত

ছবি

গাজায় হেপাটাইটিসে আক্রান্ত ৭০ হাজারের বেশি মানুষ

ছবি

নাইজেরিয়ায় ধসে পড়েছে স্কুল, নিহত ২১

ছবি

কুকুর লেলিয়ে প্রতিবন্ধী ফিলিস্তিনিকে হত্যা করল ইসরায়েলি সেনারা

ছবি

নির্বাচনে আমি থাকছি, আর আমিই জিতবো : বাইডেন

ছবি

নাইজেরিয়ায় স্কুলভবনে ধস, ২২ শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ছবি

পাকিস্তানের পার্লামেন্টে সংরক্ষিত আসন পেতে যাচ্ছে ইমরানের পিটিআই দল

ছবি

বাইডেনের পরপর ভুল মন্তব্যে উদ্বেগ, তবুও নির্বাচনী প্রচারণায় অটল

ছবি

নেপালে ভূমিধসে নদীতে ছিটকে পড়ল দুই বাস, নিখোঁজ অন্তত ৬৩

ছবি

অরুণাচলে বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে ভারতের পদক্ষেপ, চীনের তীব্র প্রতিক্রিয়া

ছবি

যুক্তরাজ্যের নতুন সরকারে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত রুশনারা আলীও

ছবি

গাজায় বাস্তুচ্যুতদের ক্যাম্পে ইসরায়েলের বর্বর হামলা, নিহত ২৯

ছবি

ভারতে এক্সপ্রেসওয়েতে ভয়াবহ দুর্ঘটনা, নিহত অন্তত ১৮

ছবি

শিশু হাসপাতালসহ ইউক্রেনজুড়ে রাশিয়ার ব্যাপক হামলা, নিহত ৪১

ছবি

উরুগুয়েতে নার্সিং হোমে অগ্নিকাণ্ডে ১০ বয়স্ক নাগরিক নিহত

tab

আন্তর্জাতিক

গাজায় বিপুল হত্যাযজ্ঞ মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের সামিল: জাতিসংঘ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বুধবার, ১২ জুন ২০২৪

গাজায় যুদ্ধের শুরুর দিনগুলোতে ইসরায়েল এবং হামাস উভয়ই যুদ্ধাপরাধ করেছে। জাতিসংঘের এক তদন্তে এমনটি দেখা গেছে। বলা হয়েছে, বেসামরিক মানুষের বিপুল প্রাণহানির কারণে ইসরায়েলের তৎপরতাও মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধের সামিল।

জাতিসংঘ ইনকোয়ারি কমিশন (সিওআই) দুটো তদন্ত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। একটি গতবছর ৭ অক্টোবরে ইসরায়েলে ঢুকে ফিলিস্তিনের মুক্তিকামী সশস্ত্র গোষ্ঠী হামাসের হামলা নিয়ে এবং আরেকটি এর জবাবে গাজায় ইসরায়েলের সামরিক হামলা নিয়ে।

ইসরায়েল এ তদন্ত কমিটিকে সহযোগিতা করেনি। এই কমিশন ইসরায়েল-বিরোধী পক্ষপাতদুষ্ট বলে ইসরায়েল অভিযোগ করেছে। সিওআই বলছে, ইসরায়েল তাদের কাজে বাধা দিয়েছে। ইসরায়েল এবং অধিকৃত ফিলিস্তিন অঞ্চলগুলোতে তারা জাতিসংঘ তদন্তকারীদের ঢুকতে দেয়নি।

জেনিভায় জাতিসংঘের কূটনৈতিক মিশন সিওআই এর প্রতিবেদন প্রত্যাখ্যান করেছে। ওদিকে, হামাস প্রতিবেদনের বিষয়ে তাৎক্ষণিক কোনও মন্তব্য করেনি।

ইসরায়েলের ভাষ্যমতে, গতবছর ৭ অক্টোবরের হামলায় ১২০০ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছিল এবং হামাস যোদ্ধারা ২৫০ জনকে জিম্মি করে গাজায় নিয়ে গিয়েছিল।

আর হামাসের ওই হামলার পরই গাজায় ইসরায়েলের শুরু করা সামরিক অভিযানে ফিলিস্তিনের ভাষ্যমতে, এ পর্যন্ত নিহত হয়েছে ৩৭ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি।

জাতিসংঘের তদন্ত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, উভয়পক্ষই নির্যাতন, ইচ্ছাকৃতভাবে হত্যা, অমানবিক এবং নিষ্ঠুর আচরণ করে যুদ্ধাপরাধ করেছে।

তাছাড়া, গাজায় মানুষজনকে অনাহারে রেখে ইসরায়েল আরেকটি যুদ্ধাপরাধ করেছে। তারা কেবল গাজাবাসীদের জন্য প্রয়োজনীয় খাবার, পানি, আশ্রয়, চিকিৎসা দিতেই ব্যর্থ হয়নি বরং এইসব প্রয়োজনীয় জিনিসের সরবরাহও আটকে দিয়েছে।

হত্যার মতো ইসরায়েলের কিছু যুদ্ধাপরাধ মানবতার বিরুদ্ধে অপরাধেরও সামিল হয়েছে বলে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে সিওআই।

এতে বলা হয়েছে, “গাজায় বিপুল সংখ্যক মানুষ হতাহতের ঘটনাসহ বেসামরিক অবকাঠামো ব্যাপকভাবে ধ্বংস হয়েছে। ইসরায়েল গাজায় সর্বোচ্চ ক্ষয়ক্ষতি করার অভিপ্রায় নিয়ে সেখানে হামলা চালিয়েছে। এক্ষেত্রে, সুনির্দিষ্ট নিশানায় হামলা, পর্যাপ্ত পূর্ব সতর্কতা এবং আনুপাতিকতার দিকটি বিবেচনায় নেওয়া হয়নি।”

যুদ্ধের শিকার ব্যক্তি, প্রত্যক্ষদর্শীদের সাক্ষাৎকার, স্যাটেলাইট ছবি, মেডিকেল রিপোর্ট এবং যাচাই করা অন্যান্য তথ্যের ভিত্তিতে সিওআই এই প্রতিদেন তৈরি করেছে।

back to top