alt

আন্তর্জাতিক

ফিলিস্তিনি অভিনেত্রীকে ইসরায়েলি সেনার গুলি

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক : রোববার, ১৬ মে ২০২১
image

ফিলিস্তিনি অভিনেত্রী মাইশা আবদ এলহাদির ওপর গুলি চালিয়েছে দখলদার ইসরাইলি সেনা। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন তিনি। ইসরায়েলের হাইফা নগরীতে একটি শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদে অংশ নেওয়ার পর দেশটির সামরিক বাহিনী তার ওপর গুলি চালায়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে দেওয়া এক পোস্টে তিনি হামলায় আহত হওয়ার খবর জানান।

‘অ্যাঞ্জেল’ মাইশা লেখেন- ‘রোববার আমি হাইফায় শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদে অংশ নিয়েছিলাম। আমরা স্লোগান দিচ্ছিলাম, গান করছিলাম, কণ্ঠ ব্যবহার করে ক্ষোভ প্রকাশ করছিলাম। ব্যক্তিগতভাবে আমি বিক্ষোভে স্লোগান দিচ্ছিলাম এবং ঘটনার ভিডিও করছিলাম। বিক্ষোভ শুরুর কিছুক্ষণ পর সৈন্যরা স্টেন ও গ্যাস গ্রেনেড চালানো শুরু করে এবং আমি অনুধাবন করলাম, কিছু সময়ের মধ্যে সেগুলোর মাত্রা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। আমি ফুটপাতে দাঁড়িয়েছিলাম, এমন জায়গায় যেটা আমার কাছে নিরাপদ বলে মনে হয়েছিল। আমি একা ছিলাম এবং আমি কারও জন্য হুমকির কারণ ছিলাম না। আমি আমার গাড়ির দিকে যেতে থাকি। এ সময় আমি আমার খুব কাছেই গুমোট আওয়াজ শুনতে পাই এবং আমি অনুভব করলাম, আমার জিনস ছিঁড়ে গেছে! এটাই আমার প্রথম অনুভূতি! এটাই আমার প্রথম অনুভূতি! আমি হাঁটার চেষ্টা করেছি কিন্তু পারিনি। আমি বুঝতে পারলাম, আমার পা থেকে প্রচুর পরিমাণে রক্তক্ষরণ ঘটছে। আমার পায়ের চামড়া চিঁড়ে গেছে।’

পোস্টের শেষে মাইশা ইসরাইলের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন, ‘পুলিশ ও দখলদার বাহিনী যেকোনো ফিলিস্তিনিকে নির্বিশেষে আক্রমণ কিংবা হত্যা করতে দ্বিধা করছে না। সে তাদের জন্য হুমকির কারণ হোক কিংবা না হোক। শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে ইসরায়েলি সেনাদের হামলা প্রথমবার নয়। একজন ফিলিস্তিনি হিসেবে আমার কোনো সন্দেহ নেই, আমি প্রতিনিয়ত হুমকির মুখোমুখি হচ্ছি। তবে এবার বিষয়টি আরও স্পষ্ট হয়ে গেছে। আমরা যুদ্ধের একেবারে সামনে রয়েছি। একমাত্র ভাগ্যই আমাদেরকে মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা করতে পারে।’

পূর্ব জেরুজালেমের আরব অধ্যুষিত এলাকা শেখ জাররাহ থেকে চারটি ফিলিস্তিনি পরিবারকে বাড়িছাড়া করার এক বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিয়ে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে ফিলিস্তিনি ও আরব ইসরায়েলিরা বিক্ষোভ শুরু করে। ওই ফিলিস্তিনি পরিবারগুলো গত প্রায় ৭০ বছর ধরে সেখানে বসবাস করছেন, হঠাৎ করে কয়েকজন কট্টরপন্থী ইহুদি তার মালিকানা দাবি করে।

জেরুজালেম নগর কর্তৃপক্ষ ও শহরের একটি নিম্ন-আদালত সেই দাবি মেনে নিয়ে রায় দেওয়ার পর বিক্ষোভ জোরালো হয়। এরই মধ্যে রোজার শুরুতে পুলিশ জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিদের ওপর কিছু বিধিনিষেধ বসালে পরিস্থিতির আরও ঘোলাটে হয়ে ওঠে।

ছবি

ভারতে সংক্রমণ বাড়লেও সামান্য কমেছে মৃত্যু

ছবি

বৈঠক ফলপ্রসূ ও গঠনমূলক, বললেন বাইডেন-পুতিন

ছবি

বিশ্বে করোনায় আরও ৯ হাজারের বেশি মৃত্যু

ছবি

দিল্লির এমস হাসপাতালে অগ্নিকাণ্ড

ছবি

শিয়া তরুণের মৃত্যুদণ্ড কার্যকর করলো সৌদি আবর

ছবি

ভারতে ২৪ ঘণ্টায় বেড়েছে আক্রান্ত, কমেছে মৃত্যু

ছবি

সোমালিয়ায় আত্মঘাতী বোমা হামলা, নিহত ১৫

ছবি

বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু ও শনাক্ত আবারও বেড়েছে

ছবি

দ্রুত ছড়াচ্ছে ডেল্টা ধরন, ৭৪ দেশে শনাক্ত

জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে ‘বঙ্গবন্ধু লাউঞ্জ’ উদ্বোধন

ছবি

সু চির বিচার শুরু হচ্ছে আজ

ছবি

সোমালিয়ায় সেনা অভিযানে ৫০ আল-শাবাব জঙ্গি নিহত

ছবি

ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে বেনেটের শপথ

ছবি

আক্রান্ত বেড়ে ১৭ কোটি ৬৭ লাখ

ছবি

ভারতে দুই মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন করোনা শনাক্ত

ছবি

মৃত্যু ৩৮ লাখ ১০ হাজার ছাড়াল

ছবি

নাইজেরিয়ায় বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ৫৩

ছবি

যে কারণে জনসনের ৬ কোটি করোনা টিকা ফেলে দিতে হবে

ছবি

চার বছর পর বিজেপি ছেড়ে ফের তৃণমূলে পুত্রসহ মুকুল রায়

ছবি

দুর্ভিক্ষের কবলে ইথিওপিয়ার উত্তরাঞ্চল

ছবি

ফাইজার, মডার্নার করোনার টিকায় তরুণদের হৃদযন্ত্রে প্রদাহ: সিডিসি

ছবি

দরিদ্র দেশগুলোকে ১০০ কোটি ডোজ টিকা দেবে জি-৭, আশা জনসনের

ছবি

ভারতে করোনায় একদিনে ৩৪০৩ জনের মৃত্যু

ছবি

মালালাকে হত্যার হুমকি, পাকিস্তানে ধর্মীয় নেতাকে গ্রেপ্তার

ছবি

ব্রাজিলিয়ানদের ‘জঙ্গল’ ডেকে বিপাকে আর্জেন্টাইন প্রেসিডেন্ট

ছবি

মুম্বাইয়ে ভবন ধসে ১১ জনের মৃত্যু

ছবি

মিয়ানমারে সামরিক বিমান বিধ্বস্ত, নিহত ১২

ছবি

সব রেকর্ড ছাড়িয়ে একদিনে ৬ হাজারের বেশি মৃত্যু ভারতে

ছবি

ডায়ানার সাক্ষাৎকার বিতর্ক : ঘটনা ও তদন্ত

ছবি

৮০ শতাংশ মানুষকে সেপ্টেম্বরের মধ্যে টিকা দেবে ইতালি

ছবি

কানাডা-যুক্তরাষ্ট্র সীমান্তের বিধিনিষেধ নিয়ে সিদ্ধান্ত শুক্রবার

ছবি

আমদানি-রপ্তানি শুরুর ব্যবস্থা নিতে দাবি দু’দেশের ব্যবসায়ীদের

ছবি

একদিনেই মৃত সাড়ে ১০ হাজার

ছবি

উত্তরপ্রদেশে বাস-অটোরিকশা সংঘর্ষে নিহত ১৭

ছবি

ভারতে ৬৬ দিন পর সর্বনিম্ন শনাক্ত, মৃত্যু ছাড়াল সাড়ে ৩ লাখ

ছবি

ভারতে নাগরিকত্ব প্রশ্নে দীর্ঘমেয়াদি ভিসা, দ্বন্দ্বে আসাম সরকার

tab

আন্তর্জাতিক

ফিলিস্তিনি অভিনেত্রীকে ইসরায়েলি সেনার গুলি

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক
image

রোববার, ১৬ মে ২০২১

ফিলিস্তিনি অভিনেত্রী মাইশা আবদ এলহাদির ওপর গুলি চালিয়েছে দখলদার ইসরাইলি সেনা। এতে গুরুতর আহত হয়েছেন তিনি। ইসরায়েলের হাইফা নগরীতে একটি শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদে অংশ নেওয়ার পর দেশটির সামরিক বাহিনী তার ওপর গুলি চালায়। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ইনস্টাগ্রামে দেওয়া এক পোস্টে তিনি হামলায় আহত হওয়ার খবর জানান।

‘অ্যাঞ্জেল’ মাইশা লেখেন- ‘রোববার আমি হাইফায় শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদে অংশ নিয়েছিলাম। আমরা স্লোগান দিচ্ছিলাম, গান করছিলাম, কণ্ঠ ব্যবহার করে ক্ষোভ প্রকাশ করছিলাম। ব্যক্তিগতভাবে আমি বিক্ষোভে স্লোগান দিচ্ছিলাম এবং ঘটনার ভিডিও করছিলাম। বিক্ষোভ শুরুর কিছুক্ষণ পর সৈন্যরা স্টেন ও গ্যাস গ্রেনেড চালানো শুরু করে এবং আমি অনুধাবন করলাম, কিছু সময়ের মধ্যে সেগুলোর মাত্রা ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পেয়েছে। আমি ফুটপাতে দাঁড়িয়েছিলাম, এমন জায়গায় যেটা আমার কাছে নিরাপদ বলে মনে হয়েছিল। আমি একা ছিলাম এবং আমি কারও জন্য হুমকির কারণ ছিলাম না। আমি আমার গাড়ির দিকে যেতে থাকি। এ সময় আমি আমার খুব কাছেই গুমোট আওয়াজ শুনতে পাই এবং আমি অনুভব করলাম, আমার জিনস ছিঁড়ে গেছে! এটাই আমার প্রথম অনুভূতি! এটাই আমার প্রথম অনুভূতি! আমি হাঁটার চেষ্টা করেছি কিন্তু পারিনি। আমি বুঝতে পারলাম, আমার পা থেকে প্রচুর পরিমাণে রক্তক্ষরণ ঘটছে। আমার পায়ের চামড়া চিঁড়ে গেছে।’

পোস্টের শেষে মাইশা ইসরাইলের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন, ‘পুলিশ ও দখলদার বাহিনী যেকোনো ফিলিস্তিনিকে নির্বিশেষে আক্রমণ কিংবা হত্যা করতে দ্বিধা করছে না। সে তাদের জন্য হুমকির কারণ হোক কিংবা না হোক। শান্তিপূর্ণ বিক্ষোভে ইসরায়েলি সেনাদের হামলা প্রথমবার নয়। একজন ফিলিস্তিনি হিসেবে আমার কোনো সন্দেহ নেই, আমি প্রতিনিয়ত হুমকির মুখোমুখি হচ্ছি। তবে এবার বিষয়টি আরও স্পষ্ট হয়ে গেছে। আমরা যুদ্ধের একেবারে সামনে রয়েছি। একমাত্র ভাগ্যই আমাদেরকে মৃত্যুর হাত থেকে রক্ষা করতে পারে।’

পূর্ব জেরুজালেমের আরব অধ্যুষিত এলাকা শেখ জাররাহ থেকে চারটি ফিলিস্তিনি পরিবারকে বাড়িছাড়া করার এক বিতর্কিত সিদ্ধান্ত নিয়ে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে ফিলিস্তিনি ও আরব ইসরায়েলিরা বিক্ষোভ শুরু করে। ওই ফিলিস্তিনি পরিবারগুলো গত প্রায় ৭০ বছর ধরে সেখানে বসবাস করছেন, হঠাৎ করে কয়েকজন কট্টরপন্থী ইহুদি তার মালিকানা দাবি করে।

জেরুজালেম নগর কর্তৃপক্ষ ও শহরের একটি নিম্ন-আদালত সেই দাবি মেনে নিয়ে রায় দেওয়ার পর বিক্ষোভ জোরালো হয়। এরই মধ্যে রোজার শুরুতে পুলিশ জেরুজালেমে ফিলিস্তিনিদের ওপর কিছু বিধিনিষেধ বসালে পরিস্থিতির আরও ঘোলাটে হয়ে ওঠে।

back to top