alt

আন্তর্জাতিক

ইংলিশ চ্যানেলে নৌকাডুবি, অন্তত ২৭ শরণার্থীর মৃত্যু

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক: : বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর ২০২১

যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সকে বিভক্ত করা ইংলিশ চ্যানেলে অভিবাসী ও আশ্রয় প্রার্থীদের বহনকারী একটি নৌকা ডুবে অন্তত ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফরাসি কর্মকর্তারা প্রথমে ৩১ জনের মৃত্যুর কথা জানালেও পরে তারা ২৭ জনের মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করেছেন।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) সমুদ্র তুলনামূলকভাবে শান্ত থাকার সুবিধা নিয়ে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি মানুষ ফ্রান্সের উত্তরাঞ্চলীয় উপকূল থেকে যুক্তরাজ্যের উদ্দেশে রওনা দেয় বলে স্থানীয় মাছ ধরা জেলের বরাত দিয়ে জানিয়েছে রয়টার্স। তবে সমুদ্র শান্ত থাকলেও পানি হিমশীতল ছিল।

এক ব্যক্তি সমুদ্রে একটি খালি নৌকা এবং আশেপাশে নিথর মানুষ ভাসতে দেখে উদ্ধারকারী সংস্থাকে খবর দেয়। পরে যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের একটি যৌথ দল তিনটি জাহাজ এবং তিনটি হেলিকপ্টার নিয়ে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে।

মৃতদের মধ্যে ৫ জন নারী এবং একটি ছোট্ট মেয়েও আছে। চুপসে যাওয়া ডিঙ্গির দুই শরণার্থীকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় রাজনীতিবিদরা।

ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেরাল্ড ডারমানিন জানিয়েছেন, নৌকাডুবির ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার সন্দেহে চার জনকে গ্রেফতার করেছে ফরাসি পুলিশ। তিনি এই ঘটনাকে তার দেখা সবচেয়ে বড় অভিবাসী ট্রাজেডি বলে বর্ণনা করেছেন। তিনি জানান, মারাত্মত ঠান্ডায় অসুস্থ হয়ে পড়া দুই ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে নৌকায় আরোহীদের জাতীয়তা কিংবা পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

লন্ডনভিত্তিক টাইমস সংবাদপত্র জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে একজন আফগান সেনা রয়েছেন। তিনি ব্রিটিশ সশস্ত্র বাহিনীর হয়ে কাজ করতেন। ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে সহায়তা পেতে দীর্ঘদিন অপেক্ষার পর তারা ঝুঁকি নিয়ে ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইংলিশ চ্যানেল বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত জাহাজ চলাচল পথ আর এখানে স্রোতও বেশ প্রবল। মানব পাচারকারীরা সাধারণত অতিরিক্ত শরণার্থী বোঝাই ডিঙ্গিগুলোকে পানিতে ভাসিয়ে দিয়ে ঢেউয়ের মর্জির ওপর ছেড়ে দেয়, আর এভাবেই ওই অভিবাসন প্রত্যাশীরা ব্রিটিশ উপকূলে পৌঁছানোর চেষ্টা করে।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) এই ঘটনাকে ২০১৪ সালের পর ইংলিশ চ্যানেলে সবচেয়ে বড় একক প্রাণহানির ঘটনা বলে অভিহিত করেছে।

ছবি

সিরিয়া উপকূলে নৌকাডুবির ঘটনায় নিহতের সংখ্যা বেড়ে ৯৪

ছবি

শাহবাজ শরিফের অডিও ফাঁস করলেন পিটিআই নেতা

ছবি

নাইজেরিয়ায় মসজিদে ডাকাতের হামলা, নিহত ১৫

ছবি

প্রতিরক্ষা ব্যয় বাড়াচ্ছে রাশিয়া

জলবায়ু ইস্যুতে ধনী দেশগুলোর অবদান ‘দুঃখজনক’

ছবি

বিক্ষোভে উত্তাল ইরান, চ্যালেঞ্জের মুখে ক্ষমতাসীনরা

ছবি

জাপানের মধ্যাঞ্চলে টাইফুনের আঘাত, নিহত ২

ছবি

মায়ানমার সংকটে জাতিসংঘের ভূমিকায় ক্ষুব্ধ মালয়েশিয়া

ছবি

ভারতে মুসলিম নিপীড়নের প্রচারণায় সরকারি পৃষ্ঠপোষকতার অভিযোগ শাহবাজের

ছবি

বিশ্ববাজারে তেলের দাম আট মাসের মধ্যে সর্বনিম্ন

ছবি

সহজে শেষ হচ্ছে না ইউক্রেন যুদ্ধ, প্রতিরক্ষা ব্যয় বাড়াচ্ছেন পুতিন

ছবি

ইরানে ইন্টারনেট সেবা দিতে ইচ্ছুক ইলন মাস্ক

ছবি

বিক্ষোভের সময় ইরানকে ‘অতিরিক্ত’ শক্তি ব্যবহার থেকে বিরত থাকতে আহ্বান জাতিসংঘের

ছবি

অস্ত্র প্রতিযোগিতা, যুদ্ধ ও নিষেধাজ্ঞা বন্ধ করতে বিশ্ব সম্প্রদায়ের প্রতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আহ্বান

ছবি

দেশজুড়ে বিক্ষোভ : অনেকে ঘোমটা ফেলে পুড়িয়ে দিয়েছে হিজাব

মায়ানমার জান্তার ওপর চাপ প্রয়োগে জাতিসংঘের প্রতি যুক্তরাষ্ট্রের আহ্বান

ছবি

অক্টোবরে থেকে ভিসা ছাড়াই জাপানে ঢুকতে পারবে বিদেশীরা

ছবি

ফিলিস্তিন: দ্বি-রাষ্ট্র সমাধানের পক্ষে সমর্থন লাপিদের

ছবি

সিরিয়ার উপকূলে অভিবাসীবাহী নৌকাডুবি, নিহত ৩৪

কানাডার আন্তর্জাতিক সম্মেলনে বাংলাদেশে একাত্তরের জেনোসাইডের স্বীকৃতি দাবি

ছবি

লন্ডনে বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যে অ্যাটর্নি জেনারেলের শ্রদ্ধা

ছবি

পাকিস্তানে নিয়ন্ত্রণ হারাতে চলেছে, ম্যালেরিয়াসহ অন্যান্য রোগ

ছবি

ইরান: হিজাব-বিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল সারা দেশ, নিহত ৯

ছবি

রাশিয়ার শাস্তি চান জেলেনস্কি, ভেটো ক্ষমতা কেড়ে নেওয়ার দাবি

ছবি

রাশিয়ায় যুদ্ধবিরোধী বিক্ষোভ, গ্রেফতার কয়েকশ

ছবি

ইউক্রেন-রাশিয়া বন্দী বিনিময়: মুক্তি ১০ বিদেশির

ছবি

ভারতে সুপ্রিম কোর্টের শুনানি মামলা সরাসরি সম্প্রচারিত হবে

ছবি

ভারতীয় নৌপ্রধান: চীন এখনও আমাদের জন্য ভয়ানক চ্যালেঞ্জ

ছবি

বিদেশি পর্যটক প্রবেশে বিধিনিষেধ শিথিল করতে যাচ্ছে চীন

ছবি

মায়ানমারে জান্তাবিরোধী পোস্টে লাইক দিলেই ১০ বছরের জেল!

ছবি

ইউক্রেন-রাশিয়া যুদ্ধে যেসব ড্রোন ব্যবহার করছে

ছবি

ব্রাজিলে গুদাম ধসে নিহত ৯

ছবি

পুতিনের ‘সাম্রাজ্যবাদী উচ্চাকাঙ্ক্ষা’র সমালোচনায় জার্মানি

ছবি

হিজাবকাণ্ডে উত্তাল ইরান, সংঘর্ষে নিহত ৫

ছবি

পুলিশ হেফাজতে তরুণীর মৃত্যু: ইরানে বিক্ষোভ, গুলিতে নিহত ৫

ছবি

মায়ানমারে সেনা হেলিকপ্টার থেকে স্কুলে গুলি, শিশুসহ নিহত ১৩

tab

আন্তর্জাতিক

ইংলিশ চ্যানেলে নৌকাডুবি, অন্তত ২৭ শরণার্থীর মৃত্যু

সংবাদ অনলাইন ডেস্ক:

বৃহস্পতিবার, ২৫ নভেম্বর ২০২১

যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সকে বিভক্ত করা ইংলিশ চ্যানেলে অভিবাসী ও আশ্রয় প্রার্থীদের বহনকারী একটি নৌকা ডুবে অন্তত ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফরাসি কর্মকর্তারা প্রথমে ৩১ জনের মৃত্যুর কথা জানালেও পরে তারা ২৭ জনের মৃত্যুর কথা নিশ্চিত করেছেন।

বুধবার (২৪ নভেম্বর) সমুদ্র তুলনামূলকভাবে শান্ত থাকার সুবিধা নিয়ে স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি মানুষ ফ্রান্সের উত্তরাঞ্চলীয় উপকূল থেকে যুক্তরাজ্যের উদ্দেশে রওনা দেয় বলে স্থানীয় মাছ ধরা জেলের বরাত দিয়ে জানিয়েছে রয়টার্স। তবে সমুদ্র শান্ত থাকলেও পানি হিমশীতল ছিল।

এক ব্যক্তি সমুদ্রে একটি খালি নৌকা এবং আশেপাশে নিথর মানুষ ভাসতে দেখে উদ্ধারকারী সংস্থাকে খবর দেয়। পরে যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সের একটি যৌথ দল তিনটি জাহাজ এবং তিনটি হেলিকপ্টার নিয়ে উদ্ধার তৎপরতা শুরু করে।

মৃতদের মধ্যে ৫ জন নারী এবং একটি ছোট্ট মেয়েও আছে। চুপসে যাওয়া ডিঙ্গির দুই শরণার্থীকে উদ্ধার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় রাজনীতিবিদরা।

ফ্রান্সের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী জেরাল্ড ডারমানিন জানিয়েছেন, নৌকাডুবির ঘটনায় সংশ্লিষ্টতার সন্দেহে চার জনকে গ্রেফতার করেছে ফরাসি পুলিশ। তিনি এই ঘটনাকে তার দেখা সবচেয়ে বড় অভিবাসী ট্রাজেডি বলে বর্ণনা করেছেন। তিনি জানান, মারাত্মত ঠান্ডায় অসুস্থ হয়ে পড়া দুই ব্যক্তিকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে নৌকায় আরোহীদের জাতীয়তা কিংবা পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

লন্ডনভিত্তিক টাইমস সংবাদপত্র জানিয়েছে, নিহতদের মধ্যে একজন আফগান সেনা রয়েছেন। তিনি ব্রিটিশ সশস্ত্র বাহিনীর হয়ে কাজ করতেন। ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষের কাছ থেকে সহায়তা পেতে দীর্ঘদিন অপেক্ষার পর তারা ঝুঁকি নিয়ে ইংলিশ চ্যানেল পাড়ি দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইংলিশ চ্যানেল বিশ্বের অন্যতম ব্যস্ত জাহাজ চলাচল পথ আর এখানে স্রোতও বেশ প্রবল। মানব পাচারকারীরা সাধারণত অতিরিক্ত শরণার্থী বোঝাই ডিঙ্গিগুলোকে পানিতে ভাসিয়ে দিয়ে ঢেউয়ের মর্জির ওপর ছেড়ে দেয়, আর এভাবেই ওই অভিবাসন প্রত্যাশীরা ব্রিটিশ উপকূলে পৌঁছানোর চেষ্টা করে।

আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থা (আইওএম) এই ঘটনাকে ২০১৪ সালের পর ইংলিশ চ্যানেলে সবচেয়ে বড় একক প্রাণহানির ঘটনা বলে অভিহিত করেছে।

back to top