alt

আন্তর্জাতিক

অমিক্রন ডেলটার মতো গুরুতর নয়, বলছে গবেষণা

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন অমিক্রন ডেলটার মতো অতটা গুরুতর নয়। ডেলটা আক্রান্তদের থেকে অমিক্রন আক্রান্তদের হাসপাতালে ভর্তি, নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসা ও মৃত্যুর হার বেশ কম। যুক্তরাষ্ট্রে নতুন এক গবেষণায় উঠে এসেছে এমন তথ্য। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

তবে অমিক্রন দ্রুত সংক্রমণ ছড়ানোয় রেকর্ডসংখ্যক রোগী শনাক্ত ও হাসপাতালে ভর্তিতে রেকর্ড হওয়ার কারণে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্যব্যবস্থা পড়েছে চাপের মুখে।

যুক্তরাষ্ট্রের রোগনিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংস্থার (সিডিসি) এক সাপ্তাহিক প্রতিবেদনে গতকাল মঙ্গলবার নতুন এ গবেষণা নিবন্ধটি প্রকাশিত হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, করোনা শনাক্তের ঊর্ধ্বগতি সত্ত্বেও অমিক্রন ধরনের কারণে দেখা দেওয়া করোনার চলমান ঢেউয়ে হাসপাতালে ও আইসিইউতে ভর্তির হার গত শীতের চেয়ে ২৯ শতাংশ এবং এর আগে অতি সংক্রামক আরেক ধরন ডেলটার কারণে দেখা দেওয়া করোনার ঢেউয়ের সময়ের তুলনায় ২৬ শতাংশ কম।

গবেষণায় বলা হচ্ছে, অমিক্রন আক্রান্ত রোগীদের অবস্থা গুরুতর না হওয়ার পেছনে বেশ কিছু কারণ থাকতে পারে। এর মধ্যে যেমন রয়েছে টিকাদানের গড় হার বেশি, ঝুঁকিতে থাকা ও বয়োজ্যেষ্ঠদের বুস্টার ডোজ দেওয়া এবং এর আগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কারণে শরীরে তৈরি হওয়া রোগ প্রতিরোধব্যবস্থা।

গত বছরের ১৯ ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্র অমিক্রন সংক্রমণ চূড়া দেখেছে। গবেষণায় এ সময়ে মৃত্যুর হিসাব করে দেখা গেছে, প্রতি এক হাজার আক্রান্তে গড়ে ৯ জন মারা গেছেন। অথচ এর আগের শীতে গড়ে এক হাজার আক্রান্তে ১৬ জন ও ডেলটার ঢেউয়ে হাজারে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

সিডিসি বলেছে, গবেষণায় পাওয়া এসব তথ্য যুক্তরাষ্ট্রের আগে অমিক্রনের প্রকোপ দেখা দেওয়া দক্ষিণ আফ্রিকা ও যুক্তরাজ্যে হওয়া গবেষণার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ।

সিডিসি আরও জানিয়েছে, অমিক্রনে তুলনামূলকভাবে শিশুদের হাসপাতালে ভর্তির হার বেশি হওয়ার কারণ সম্ভবত প্রাপ্তবয়স্কদের তুলনায় শিশুদের টিকাদানের হার কম। যুক্তরাষ্ট্রে পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের এখনো টিকা দেওয়া শুরু হয়নি। এ ছাড়া প্রাপ্তবয়স্কদের তুলনায় শিশু-কিশোরদের টিকাদানের হার বেশ কম।

ছবি

নাইজেরিয়ায় চার্চে পদদলিত হয়ে নিহত ৩১

ছবি

ইউক্রেনের আগে যুক্তরাষ্ট্রের উচিৎ স্কুলের নিরাপত্তায় অর্থ ঢালা: ট্রাম্প

ছবি

ভারতীয় অর্থনীতির জন্য ক্ষতিকর বিভাজনের রাজনীতি : কৌশিক বসু

ছবি

সময় বাড়ল মার্কিন ফুলব্রাইট বৃত্তির আবেদনের

ছবি

টেক্সাসে হামলা : গায়ে রক্ত মেখে মৃতের ভান করে শুয়ে ছিল ১১ বছরের সেরিলো

ছবি

মানুষের চেয়ে অস্ত্রের সংখ্যা বেশি যুক্তরাষ্ট্রে

ছবি

‘যুক্তরাষ্ট্রের উচিত আগে নিজেদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা’

ছবি

ইউক্রেনের আরেক শহরের দখল নিল রাশিয়া

ছবি

মাঙ্কিপক্সের গণটিকা দরকার নেই: ডব্লিউএইচও

ছবি

পিকে হালদারের জিজ্ঞাসাবাদে বাংলাদেশী এক প্রভাবশালী ব্যবসায়ীর নাম

ছবি

ভারতে পি কে হালদারসহ ৬ জনের বিচার বিভাগীয় রিমান্ড

ছবি

বাংলাদেশে ৬ লাখ টন গম পাঠাবে ভারত

ছবি

পাকিস্তানে নির্বাচনে ইভিএম বাতিল করে পার্লামেন্টে বিল পাশ

ছবি

রাশিয়া কৃষ্ণ সাগরে ৫০০ মাইন পেতে রেখেছে: ইউক্রেইন

ছবি

প্রথম ভারতীয় হিসেবে আন্তর্জাতিক বুকার পেলেন গীতাঞ্জলী শ্রী

ছবি

সেভেরোদোনেৎস্কে ১,৫০০ মানুষ নিহত হয়েছেন: মেয়র

ছবি

টেক্সাসে স্কুলে হামলায় নিহত স্ত্রীর শোকে চলে গেলেন স্বামীও

একদিনে মৃত্যুতে শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র, সংক্রমণ বেশি উ. কোরিয়ায়

ছবি

সাংবাদিক শিরিনকে ‘ঠান্ডা মাথায়’ গুলি করে ইসরায়েলি বাহিনী

ছবি

পাকিস্তানে পেট্রল-ডিজেলের দাম বাড়ার রেকর্ড

ছবি

ভারতের সর্বোচ্চ আদালত স্বীকৃতি দিলো যৌন পেশাকে

ছবি

আল-আকসায় ইহুদিদের প্রার্থনার ওপর নিষেধাজ্ঞা বহাল

ছবি

এবার চাল রফতানিতে লাগাম টানছে ভারত

ছবি

ফোর্বসের তালিকায় স্থান পেলেন ৭ বাংলাদেশি

ছবি

আসামে বন্যায় ২৮ জনের মৃত্যু, ক্ষতিগ্রস্ত প্রায় ১০ লাখ

ছবি

ভারতীয় এয়ারলাইনে সাইবার হামলা

ছবি

সেনেগালের হাসপাতালে আগুনে প্রাণ গেলে ১১ নবজাতকের

ছবি

কাবুলে মসজিদে ভয়াবহ বিস্ফোরণে নিহত ৫

ছবি

চলন্ত বাসে পোশাককর্মীকে ধর্ষণচেষ্টা মামলায় চালক ও সহকারী গ্রেপ্তার

ছবি

গ্রে’র রিপোর্ট: এবার স্বীকার করে ক্ষমা চাইলেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী

ছবি

বিশ্বব্যাপী মাঙ্কিপক্স আক্রান্তের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়েছে

ছবি

২২ বারের চেষ্টায় মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষায় পাস!

ছবি

লিবিয়ার বন্দিশালা থেকে দেশে ফিরলো ১৬০ বাংলাদেশি

ছবি

ফেসবুকে একের পর এক বার্তায় হামলার পরিকল্পনা জানান বন্দুকধারী

ছবি

ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রীর বাবার নামে বিদ্যুৎ বিল আসে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায়

ছবি

রেড জোনে বিক্ষোভকারীরা, শেহবাজ সরকারকে ইমরানের আল্টিমেটাম

tab

আন্তর্জাতিক

অমিক্রন ডেলটার মতো গুরুতর নয়, বলছে গবেষণা

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বুধবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২২

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন অমিক্রন ডেলটার মতো অতটা গুরুতর নয়। ডেলটা আক্রান্তদের থেকে অমিক্রন আক্রান্তদের হাসপাতালে ভর্তি, নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসা ও মৃত্যুর হার বেশ কম। যুক্তরাষ্ট্রে নতুন এক গবেষণায় উঠে এসেছে এমন তথ্য। খবর বার্তা সংস্থা রয়টার্সের।

তবে অমিক্রন দ্রুত সংক্রমণ ছড়ানোয় রেকর্ডসংখ্যক রোগী শনাক্ত ও হাসপাতালে ভর্তিতে রেকর্ড হওয়ার কারণে যুক্তরাষ্ট্রের স্বাস্থ্যব্যবস্থা পড়েছে চাপের মুখে।

যুক্তরাষ্ট্রের রোগনিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ সংস্থার (সিডিসি) এক সাপ্তাহিক প্রতিবেদনে গতকাল মঙ্গলবার নতুন এ গবেষণা নিবন্ধটি প্রকাশিত হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, করোনা শনাক্তের ঊর্ধ্বগতি সত্ত্বেও অমিক্রন ধরনের কারণে দেখা দেওয়া করোনার চলমান ঢেউয়ে হাসপাতালে ও আইসিইউতে ভর্তির হার গত শীতের চেয়ে ২৯ শতাংশ এবং এর আগে অতি সংক্রামক আরেক ধরন ডেলটার কারণে দেখা দেওয়া করোনার ঢেউয়ের সময়ের তুলনায় ২৬ শতাংশ কম।

গবেষণায় বলা হচ্ছে, অমিক্রন আক্রান্ত রোগীদের অবস্থা গুরুতর না হওয়ার পেছনে বেশ কিছু কারণ থাকতে পারে। এর মধ্যে যেমন রয়েছে টিকাদানের গড় হার বেশি, ঝুঁকিতে থাকা ও বয়োজ্যেষ্ঠদের বুস্টার ডোজ দেওয়া এবং এর আগে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার কারণে শরীরে তৈরি হওয়া রোগ প্রতিরোধব্যবস্থা।

গত বছরের ১৯ ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের ১৫ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্র অমিক্রন সংক্রমণ চূড়া দেখেছে। গবেষণায় এ সময়ে মৃত্যুর হিসাব করে দেখা গেছে, প্রতি এক হাজার আক্রান্তে গড়ে ৯ জন মারা গেছেন। অথচ এর আগের শীতে গড়ে এক হাজার আক্রান্তে ১৬ জন ও ডেলটার ঢেউয়ে হাজারে ১৩ জনের মৃত্যু হয়েছিল।

সিডিসি বলেছে, গবেষণায় পাওয়া এসব তথ্য যুক্তরাষ্ট্রের আগে অমিক্রনের প্রকোপ দেখা দেওয়া দক্ষিণ আফ্রিকা ও যুক্তরাজ্যে হওয়া গবেষণার সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ।

সিডিসি আরও জানিয়েছে, অমিক্রনে তুলনামূলকভাবে শিশুদের হাসপাতালে ভর্তির হার বেশি হওয়ার কারণ সম্ভবত প্রাপ্তবয়স্কদের তুলনায় শিশুদের টিকাদানের হার কম। যুক্তরাষ্ট্রে পাঁচ বছরের কম বয়সী শিশুদের এখনো টিকা দেওয়া শুরু হয়নি। এ ছাড়া প্রাপ্তবয়স্কদের তুলনায় শিশু-কিশোরদের টিকাদানের হার বেশ কম।

back to top