alt

আন্তর্জাতিক

ডলার সংকট : পাকিস্তানে হুমকির মুখে বিমান চলাচল

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শনিবার, ১৮ মার্চ ২০২৩

ডলার সংকটে ভোগা দক্ষিণ এশিয়ার দেশ পাকিস্তানে হুমকির মুখে পড়েছে বিমান চলাচল। পর্যাপ্ত ডলার না থাকায় আন্তর্জাতিক এয়ারলাইন্সগুলোর পাওনা মেটাতে পারছে না দেশটি।

শুক্রবার (১৭ মার্চ) সংবাদমাধ্যম ফিন্যান্সিয়াল টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, আন্তর্জাতিক বিমান পরিবহন অ্যাসোসিয়েশন (আইএটিএ) সম্প্রতি জানিয়েছে, পাকিস্তানে তাদের জন্য বিমান সেবা দেওয়া কঠিন হয়ে যাচ্ছে। কারণ ইসলামাবাদের কাছে বিশ্বের বিভিন্ন এয়ারলাইন্সের ২৯০ মিলিয়ন ডলার আটকে আছে। এ অর্থ ডলারে পরিশোধ করা হয়।

দ্রুত কমতে থাকা পাকিস্তানের বৈদশিক রিজার্ভের পরিমাণ এখন ৪ দশমিক ৩ বিলিয়ন ডলারে ঠেকেছে। রিজার্ভ কমে যাওয়ায় পণ্য আমদানিসহ পাকিস্তানের বিভিন্ন কার্যক্রম থমকে গেছে।

পাকিস্তান বেসামরিক পরিবহন সংস্থা জানিয়েছে, তারা এয়ারলাইন্সগুলোকে যথাসময়ে পাওনা পরিশোধ করার চেষ্টা করছে এবং এ সমস্যা সমাধানে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে।

আইএটিএ বিশ্বের ৩০০টিরও বেশি এয়ারলাইন্সের প্রতিনিধিত্ব করে (বিশ্বের পুরো এয়ার ট্রাফিকের ৮৩ শতাংশ)। এ সংস্থাটি জানিয়েছে, ২০২৩ সালের জানুয়ারি পর্যন্তই পাকিস্তানে এয়ারলাইন্সগুলোর ২৯০ মিলিয়ন ডলার আটকে গেছে। বৈশ্বিক এ বিমান সংস্থাটি জানিয়েছে, ২০২২ সালের ডিসেম্বরে এয়ারলাইন্সগুলোর পাওনা ২২৫ মিলিয়ন ডলার আটকে দেয় পাকিস্তান।

আইএটিএ-এর এশিয়া প্রশান্ত অঞ্চলের প্রধান ফিলিপ গোহ বলেছেন, ‘এয়ারলাইন্সগুলোকে তাদের পাওনা পেতে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হচ্ছে। কিছু এয়ারলাইন্সের ২০২২ সালের বিক্রিত অর্থও আটকে আছে।‘

তিনি জানিয়েছেন, যদি পাকিস্তানে অর্থনৈতিক অস্থিতিশীলতা চলতে থাকে তাহলে এয়ারলাইন্সগুলো তাদের বিমান অন্য কোথাও ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

গত মাসে ভার্জিন আটলান্টিক ঘোষণা দেয়, পাকিস্তানে নিজেদের কার্যক্রম বন্ধ করে দেবে তারা। যদিও এয়ারলাইন্সটি জানিয়েছিল, নিজেদের নতুন করে গড়ে তোলার অংশের পরিকল্পনা এটি। তবে বিশেষজ্ঞদের ধারণা, পাকিস্তানে অর্থনৈতিক অস্থিতিশীলতার কারণেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভার্জিন আটলান্টিক এয়ারলাইন্স।

বিমান পরিবহন প্রতিষ্ঠানের বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ২০২৩ সালের মার্চে পাকিস্তানে যে ক’টি বিমান চলাচল করার কথা রয়েছে, ২০১৯ সালের মার্চ মাসের তুলনায় এটি অনেক কম।

সূত্র: দ্য ডন

ছবি

ইরান-ইয়েমেনের ৮৬ ড্রোন-ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংসের দাবি যুক্তরাষ্ট্রের

ছবি

৬.৫ মাত্রার শক্তিশালী ভূমিকম্পে কাঁপল পাপুয়া নিউগিনি

ছবি

হামলার আগে সতর্ক করেছিল ইরান, অস্বীকার যুক্তরাষ্ট্রের

ছবি

ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিধসে ১৫ জনের মৃত্যু

ছবি

ইরান-ইসরায়েল উত্তেজনা নিয়ে সর্বশেষ যা জানা যাচ্ছে

ছবি

রাতভর বন্ধ থাকা পর আকাশসীমা খুলে দিয়েছে ইসরায়েল ও জর্ডান

ছবি

ইসরায়েলে ইরানের হামলা, বাইডেনের সঙ্গে নেতানিয়াহুর ফোনালাপ

ছবি

অস্ট্রেলিয়ার শপিং মলে হামলাকারী শনাক্ত

ছবি

ইসরায়েলে হামলা ইরানের

ছবি

উত্তেজনার মধ্যে হরমুজ প্রণালিতে ইসরায়েলি মালবাহী জাহাজ জব্দ করল ইরান

ছবি

ভারতের আসন্ন নির্বাচনে ক্ষমতায় আবার মোদী: জরিপ

ছবি

অস্ট্রেলিয়ায় শপিংমলে হামলা, নিহত ৬

রমনা বটমূলে পুলিশ কমিশনারের ব্রিফিং, পয়লা বৈশাখে হামলার আশঙ্কা নেই

ছবি

ইরানকে বাইডেনের একশব্দের বার্তা, ইসরায়েলকে রক্ষায় ‘সবকিছু’ করবেন

ছবি

ইসরায়েলে ইরানের হামলার হুমকি বাস্তব: যুক্তরাষ্ট্র

গৃহযুদ্ধে মায়ানমারের অর্ধেক মানুষই দারিদ্র্যপীড়িত: জাতিসংঘ

মায়ানমারের সীমান্ত শহরের বাসিন্দারা থাইল্যান্ডে পালাচ্ছে

পুতিন সমালোচক নাভালনির স্মৃতিকথা প্রকাশিত হবে অক্টোবরে

ছবি

পেঁয়াজের দাম নিয়ে মন্তব্য করে ক্ষমতা হারালেন প্রেসিডেন্ট!

ছবি

আমরা ভালো নেই, বললো গাজার শিশুরা

ছবি

নোবেলবিজয়ী পদার্থবিজ্ঞানী পিটার হিগস মারা গেছেন

ছবি

ফিলিস্তিনকে রাষ্ট্রের স্বীকৃতি দেয়ার ইঙ্গিত অস্ট্রেলিয়ার

ছবি

জলবায়ু পরিবর্তন রোধে নিস্ক্রিয়তা মানবাধিকার লঙ্ঘন: ইউরোপীয় মানবাধিকার আদালত

ছবি

জিবুতি উপকূলে নৌকাডুবি, নিহত ৩৮

যুক্তরাজ্যে সন্তানের সামনে স্ত্রীকে খুন করা সেই বাংলাদেশি হা‌বিবুর রহমান মাসুম গ্রেপ্তার

ছবি

পিটার হাসের গা ঢাকা দেওয়ার অভিযোগ সঠিক নয় বলছে যুক্তরাষ্ট্র

ছবি

ইসরায়েলের কাছে যুদ্ধ সরঞ্জাম বিক্রি, জার্মানির বিরুদ্ধে গণহত্যা মামলা

ছবি

সৌদি আরব ও আশপাশের দেশে কবে ঈদ, কী বলছেন জ্যোতির্বিদরা

ছবি

বাড়ি ফিরতে শুরু করেছেন খান ইউনিসের বাসিন্দারা

ছবি

কঙ্গোতে মিলিশিয়াদের হামলায় ২৫ বেসামরিক নিহত

ছবি

কলেরা থেকে বাঁচতে যাত্রা, নৌকা ডুবে প্রাণ গেল ৯০ জনের

‘কর্তৃত্ববাদী’ জোটের মুখে আছে পশ্চিমা দেশগুলো: ন্যাটোপ্রধান

ছবি

থাইল্যান্ড সীমান্তে গুরুত্বপূর্ণ শহর হারালো মায়ানমার সেনাবাহিনী

ছবি

ইসরায়েল জুড়ে আবারও সরকারবিরোধী বিক্ষোভ

ছবি

ফের বড় পরাজয়, গুরুত্বপূর্ণ সীমান্ত শহর হারাল মায়ানমার সেনাবাহিনী

ছবি

গাজায় ইসরায়েলি বর্বরতা চলছেই, নিহত বেড়ে ৩৩১৩৭

tab

আন্তর্জাতিক

ডলার সংকট : পাকিস্তানে হুমকির মুখে বিমান চলাচল

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শনিবার, ১৮ মার্চ ২০২৩

ডলার সংকটে ভোগা দক্ষিণ এশিয়ার দেশ পাকিস্তানে হুমকির মুখে পড়েছে বিমান চলাচল। পর্যাপ্ত ডলার না থাকায় আন্তর্জাতিক এয়ারলাইন্সগুলোর পাওনা মেটাতে পারছে না দেশটি।

শুক্রবার (১৭ মার্চ) সংবাদমাধ্যম ফিন্যান্সিয়াল টাইমস এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, আন্তর্জাতিক বিমান পরিবহন অ্যাসোসিয়েশন (আইএটিএ) সম্প্রতি জানিয়েছে, পাকিস্তানে তাদের জন্য বিমান সেবা দেওয়া কঠিন হয়ে যাচ্ছে। কারণ ইসলামাবাদের কাছে বিশ্বের বিভিন্ন এয়ারলাইন্সের ২৯০ মিলিয়ন ডলার আটকে আছে। এ অর্থ ডলারে পরিশোধ করা হয়।

দ্রুত কমতে থাকা পাকিস্তানের বৈদশিক রিজার্ভের পরিমাণ এখন ৪ দশমিক ৩ বিলিয়ন ডলারে ঠেকেছে। রিজার্ভ কমে যাওয়ায় পণ্য আমদানিসহ পাকিস্তানের বিভিন্ন কার্যক্রম থমকে গেছে।

পাকিস্তান বেসামরিক পরিবহন সংস্থা জানিয়েছে, তারা এয়ারলাইন্সগুলোকে যথাসময়ে পাওনা পরিশোধ করার চেষ্টা করছে এবং এ সমস্যা সমাধানে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করেছে।

আইএটিএ বিশ্বের ৩০০টিরও বেশি এয়ারলাইন্সের প্রতিনিধিত্ব করে (বিশ্বের পুরো এয়ার ট্রাফিকের ৮৩ শতাংশ)। এ সংস্থাটি জানিয়েছে, ২০২৩ সালের জানুয়ারি পর্যন্তই পাকিস্তানে এয়ারলাইন্সগুলোর ২৯০ মিলিয়ন ডলার আটকে গেছে। বৈশ্বিক এ বিমান সংস্থাটি জানিয়েছে, ২০২২ সালের ডিসেম্বরে এয়ারলাইন্সগুলোর পাওনা ২২৫ মিলিয়ন ডলার আটকে দেয় পাকিস্তান।

আইএটিএ-এর এশিয়া প্রশান্ত অঞ্চলের প্রধান ফিলিপ গোহ বলেছেন, ‘এয়ারলাইন্সগুলোকে তাদের পাওনা পেতে দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হচ্ছে। কিছু এয়ারলাইন্সের ২০২২ সালের বিক্রিত অর্থও আটকে আছে।‘

তিনি জানিয়েছেন, যদি পাকিস্তানে অর্থনৈতিক অস্থিতিশীলতা চলতে থাকে তাহলে এয়ারলাইন্সগুলো তাদের বিমান অন্য কোথাও ব্যবহারের সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

গত মাসে ভার্জিন আটলান্টিক ঘোষণা দেয়, পাকিস্তানে নিজেদের কার্যক্রম বন্ধ করে দেবে তারা। যদিও এয়ারলাইন্সটি জানিয়েছিল, নিজেদের নতুন করে গড়ে তোলার অংশের পরিকল্পনা এটি। তবে বিশেষজ্ঞদের ধারণা, পাকিস্তানে অর্থনৈতিক অস্থিতিশীলতার কারণেই এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে ভার্জিন আটলান্টিক এয়ারলাইন্স।

বিমান পরিবহন প্রতিষ্ঠানের বিশ্লেষণে দেখা গেছে, ২০২৩ সালের মার্চে পাকিস্তানে যে ক’টি বিমান চলাচল করার কথা রয়েছে, ২০১৯ সালের মার্চ মাসের তুলনায় এটি অনেক কম।

সূত্র: দ্য ডন

back to top