alt

মিডিয়া

ওয়ার্ল্ড ভিশন মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড পেলেন সংবাদ প্রতিবেদকসহ ৬ সাংবাদিক

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : রোববার, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

সংবাদ প্রতিবেদক জাহিদা পারভেজ ছন্দাসহ অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্তরা অতিথিদের সঙ্গে-সংবাদ

প্রথমবারের মতো ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘মিডিয়া কম্পিটিশন ২০২৩’। প্রিন্ট ও অনলাইন এবং ইলেকট্রনিক মিডিয়া ক্যাটাগরিতে ৬ সাংবাদিককে এই পুরস্কার দেয়া হয়। প্রিন্ট মিডিয়া ক্যাটাগরিতে প্রথম হয়েছেন দৈনিক প্রথম আলোর সাংবাদিক নাজনীন আকতার, প্রথম রানার আপ দৈনিক সংবাদের জাহিদা পারভেজ ছন্দা ও ২য় রানার আপ হয়েছেন ও দৈনিক প্রতিদিনের বাংলাদেশের নিজস্ব প্রতিবেদক ফয়সাল খান।

ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া বিভাগে প্রথম হয়েছেন এটিএন বাংলার মো. শরফুল আলম এবং প্রথম ও দ্বিতীয় রানার আপ হয়েছেন চ্যানেল আইয়ের নিজস্ব প্রতিবেদক জাকিয়া আকতার ও চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জিনিয়া কবির সূচনা।

গতকাল রাজধানীর লেক শোর হোটেলের লা ভিটা ব্যাঙ্কোয়েট হলে আয়োজিত সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে অর্থ, সম্মাননা স্মারক ও প্রশংসাপত্র তুলে দেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান। পুরস্কার প্রদানের পুরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে সহযোগিতা করে ব্রান্ড কার্ট।

প্রতিযোগিতার বিচারক ম-লীর সদস্য হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, গ্লোবাল টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, নেক্সাস টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী সালাউদ্দিন লাভলু ও যোগাযোগ বিশেষজ্ঞ শাহানা হুদা রঞ্জনা। তাদের বিবেচনায় ‘স্কুলে অভুক্ত শিশুদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষার ক্ষতি’ বিষয়ক রিপোর্টের জন্য শ্রেষ্ঠ নির্বাচিত হয়েছেন প্রথম আলোর নাজনীন আকতার। এ ছাড়া দুই রানার আপ হয়েছেন ‘হারিয়ে যাচ্ছে মাঠ, চার দেয়ালে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম’ প্রতিবেদনের জন্য ছন্দা ও ‘দখলমুক্ত মাঠেও খেলতে মানা’ প্রতিবেদনের জন্য ফয়সাল।

অন্যদিকে ‘ভ্রান্ত ধারণা ও প্রয়োজনীয় উপকরণেরর অভাবে ব্যাহত হচ্ছে প্রজনন স্বাস্থ্যসেবা’ শিরোনামের রিপোর্ট মো. শরফুল আলমকে শ্রেষ্ঠত্বের সম্মান এনে দিয়েছে। অন্যদিকে দুই রানার আপ নির্বাচিত হন জাকিয়া ও জিনিয়া যথাক্রমে ‘বায়ুদূষণ’ ও ‘দেশে বাড়ছে বাল্যবিবাহ’ রিপোর্টের জন্য।

ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের এই উদ্যোগের প্রশংসা করে এবং বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘আমাদের সরকার ক্ষুধা, নিরক্ষরতা দূরীকরণে কাজ করেছে আগামীতেও করবে। আর এই ক্ষুধা, নিরক্ষরতা দূরীকরণে আমাদের অর্জন দৃশ্যমান। কোথায় ছিলাম আমরা আর এখন কোথায় আছি এটি পরিষ্কার।’

মন্ত্রী বলেন, ‘পূর্বের তুলনায় আমরা অনেক ভালো আছি। বিশেষ করে গত দেড় দশকে আমরা অনেক এগিয়েছি। শিক্ষা, স্বাস্থ্য অনেক উন্নয়ন হয়েছে। গ্রামে গ্রামে আমাদের উন্নয়ন পৌঁছে গেছে।’

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘পূর্বের যেকোন সময়ের চেয়ে আমরা ভালো আছি। সরকার দারিদ্র্যতা দূরীকরণে কাজ করছে। গ্রামে গ্রামে আশ্রয়ণ প্রকল্প করে দিয়েছে। সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির মাধ্যমে দরিদ্রদের সহায়তা দিচ্ছে। যার প্রভাব আমরা দেখতে পাচ্ছি। এখন আমাদের মূল কাজ হলো দরিদ্র অবস্থা থেকে সরে আসা, কাজ করা। না খেয়ে শুয়ে থাকা থেকে আমাদের সরে আসতে হবে।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘দারিদ্র্য দূর করতে হবে। কারণ দারিদ্র্য থাকলে অনেক কিছুই করা সম্ভব নয়। আমরা এখন অনেক ভালো সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি।’

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. আতিউর রহমান বলেন, উন্নয়ন শুধু কোন কাঠামো পরিবর্তন নয়, উন্নয়নের জন্য দরকার মনের পরিবর্তন। যত বেশি মনের পরিবর্তন করতে পারব তত বেশি উন্নত হব।

ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের সিনিয়র ডিরেক্টর (অপারেশন্স) চন্দন জেড গোমেজ বলেন, জনগণ যখন স্মার্ট হবে দেশ তখন স্মার্ট হবে। এই প্রতিষ্ঠান সেই লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, এ বছর ২৩ হাজার যুবক-যুবতীকে তাদের স্বপ্নের জায়গায় যেতে সহযোগিতা করছেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক, অতিরিক্ত সচিব মো. মনোয়ার হোসেন, পিআইবির মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ ও শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ড. মোহাম্মদ আবদুল কাদের, ফিল্ড অপারেশনের উপ-পরিচালক মঞ্জু মারিয়া পালমা এবং ব্রান্ড কার্ট -এর প্রকল্প সমন্বয়ক শেখ সাইফুর রহমান।

এ বছর ১৪ মে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে ‘মিডিয়া কম্পিটিশন ২০২৩’ -এর ঘোষণা দেয় ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ। রিপোর্ট জমা দেয়ার শেষ সময় ছিল ২০ জুলাই, ২০২৩।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রান্তিক শিশুদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

ছবি

মুক্তিযোদ্ধা সাংবাদিক কমান্ডের নির্বাচন

ছবি

নোয়াবের নতুন কমিটি, আবারও সভাপতি এ.কে.আজাদ

‘সরকারকে জবাবদিহির আওতায় আনতে ৭০ অনুচ্ছেদ বাধা হবে না’

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের এক যুগপূর্তি

মানিক সাহাসহ সাংবাদিক হত্যাকা-ে জড়িতদের চিহ্নিত করতে গণতদন্ত কমিশন গঠনের দাবি

ছবি

উৎসবমুখর পরিবেশে চলছে ক্র্যাবের ভোটগ্রহণ

ছবি

চারণসাংবাদিক মোনাজাতউদ্দিনের মৃত্যুবার্ষিকী কাল

ছবি

নগর উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরামের নেতৃত্বে মতিন-ফয়সাল

ছবি

অর্থনীতিবিদদের সঙ্গে নোয়াবের মতবিনিময় সভা

ছবি

শিশুবিষয়ক খবরে গণমাধ্যমকে বেশী গুরুত্ব দেয়ার আহবান

ছবি

নরসিংদী প্রেস ক্লাবের নব নির্বাচিত কার্যনির্বাহী পরিষদের শপথ গ্রহণ

ছবি

আহমদুল কবির কখনো প্রাসঙ্গিকতা হারাবেন না

চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের প্রয়াত সাংবাদিকদের স্মরণে সভা

ছবি

গুজব রোধে গণমাধ্যমকর্মীদের কর্মশালা অনুষ্ঠিত

ছবি

সাংবাদিকরা ভুল করলে ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা হবে - প্রেস কাউন্সিল চেয়ারম্যান

ছবি

ক্ষমা না চাইলে বিএনপির সংবাদ পরিহারের ডাক ডিইউজের

মাহেলা বেগম

ছবি

বর্ণাঢ্য আয়োজনে জাতীয় প্রেস ক্লাবের ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

ছবি

সাগর-রুনি হত্যা : ১০২ বার পেছাল তদন্ত প্রতিবেদন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গণমাধ্যমের স্বাধীনতাকে সমর্থন করে

ছবি

ভিসা নীতিঃ সম্পাদক পরিষদের উদ্বেগ ও মার্কিন রাষ্ট্রদূতের ব্যাখ্যা

বর্ণাঢ্য আয়োজনে ঢাবি সাংবাদিক সমিতির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

ছবি

কপিরাইট বিল পাস

ছবি

ওয়ার্ল্ড ভিশন মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড পেলেন সংবাদ প্রতিবেদকসহ ৬ সাংবাদিক

ছবি

র‍্যামন ম্যাগসাইসাই পুরস্কার পেলেন করভি রাখসান্দ

ছবি

সাংবাদিক হাববিুর রহমান খান মারা গেছেন

ছবি

কক্সবাজার কণ্ঠ হোক গণমানুষের কন্ঠ: মতবিনিময় সভায় বক্তারা

ছবি

সাগর-রুনি হত্যা মামলার প্রতিবেদন পেছানোর সেঞ্চুরি

ছবি

জাতীয় প্রেস ক্লাবের স্থায়ী সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা এম. শাহজাহান মিয়া আর নেই

ছবি

কার্টুনিস্ট এমএ কুদ্দুস আর নেই

ছবি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন পেশাগত দায়িত্ব পালনে হুমকি তৈরি করছে

ছবি

পি কে হালদারের বান্ধবী নাহিদা রুনাইয়ের জামিন স্থগিত

ছবি

৯৯ বার পেছাল সাগর-রুনি হত্যা মামলার প্রতিবেদন

ছবি

ঢাবি সাংবাদিক সমিতির সভাপতি সাদী, সাধারণ সম্পাদক মাহী

ছবি

কলকাতার ইন্দো-বাংলা প্রেসক্লাবে বাংলাদেশের আম উৎসব

ছবি

সাংবাদিক নাদিম হত্যা: জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি সম্পাদক পরিষদের

tab

মিডিয়া

ওয়ার্ল্ড ভিশন মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড পেলেন সংবাদ প্রতিবেদকসহ ৬ সাংবাদিক

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

সংবাদ প্রতিবেদক জাহিদা পারভেজ ছন্দাসহ অ্যাওয়ার্ডপ্রাপ্তরা অতিথিদের সঙ্গে-সংবাদ

রোববার, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২৩

প্রথমবারের মতো ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল ‘মিডিয়া কম্পিটিশন ২০২৩’। প্রিন্ট ও অনলাইন এবং ইলেকট্রনিক মিডিয়া ক্যাটাগরিতে ৬ সাংবাদিককে এই পুরস্কার দেয়া হয়। প্রিন্ট মিডিয়া ক্যাটাগরিতে প্রথম হয়েছেন দৈনিক প্রথম আলোর সাংবাদিক নাজনীন আকতার, প্রথম রানার আপ দৈনিক সংবাদের জাহিদা পারভেজ ছন্দা ও ২য় রানার আপ হয়েছেন ও দৈনিক প্রতিদিনের বাংলাদেশের নিজস্ব প্রতিবেদক ফয়সাল খান।

ইলেক্ট্রনিক মিডিয়া বিভাগে প্রথম হয়েছেন এটিএন বাংলার মো. শরফুল আলম এবং প্রথম ও দ্বিতীয় রানার আপ হয়েছেন চ্যানেল আইয়ের নিজস্ব প্রতিবেদক জাকিয়া আকতার ও চ্যানেল টোয়েন্টিফোরের জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক জিনিয়া কবির সূচনা।

গতকাল রাজধানীর লেক শোর হোটেলের লা ভিটা ব্যাঙ্কোয়েট হলে আয়োজিত সম্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে বিজয়ীদের হাতে অর্থ, সম্মাননা স্মারক ও প্রশংসাপত্র তুলে দেন পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান। পুরস্কার প্রদানের পুরো প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে সহযোগিতা করে ব্রান্ড কার্ট।

প্রতিযোগিতার বিচারক ম-লীর সদস্য হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, গ্লোবাল টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা, নেক্সাস টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী সালাউদ্দিন লাভলু ও যোগাযোগ বিশেষজ্ঞ শাহানা হুদা রঞ্জনা। তাদের বিবেচনায় ‘স্কুলে অভুক্ত শিশুদের স্বাস্থ্য ও শিক্ষার ক্ষতি’ বিষয়ক রিপোর্টের জন্য শ্রেষ্ঠ নির্বাচিত হয়েছেন প্রথম আলোর নাজনীন আকতার। এ ছাড়া দুই রানার আপ হয়েছেন ‘হারিয়ে যাচ্ছে মাঠ, চার দেয়ালে ভবিষ্যৎ প্রজন্ম’ প্রতিবেদনের জন্য ছন্দা ও ‘দখলমুক্ত মাঠেও খেলতে মানা’ প্রতিবেদনের জন্য ফয়সাল।

অন্যদিকে ‘ভ্রান্ত ধারণা ও প্রয়োজনীয় উপকরণেরর অভাবে ব্যাহত হচ্ছে প্রজনন স্বাস্থ্যসেবা’ শিরোনামের রিপোর্ট মো. শরফুল আলমকে শ্রেষ্ঠত্বের সম্মান এনে দিয়েছে। অন্যদিকে দুই রানার আপ নির্বাচিত হন জাকিয়া ও জিনিয়া যথাক্রমে ‘বায়ুদূষণ’ ও ‘দেশে বাড়ছে বাল্যবিবাহ’ রিপোর্টের জন্য।

ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের এই উদ্যোগের প্রশংসা করে এবং বিজয়ীদের অভিনন্দন জানিয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান বলেন, ‘আমাদের সরকার ক্ষুধা, নিরক্ষরতা দূরীকরণে কাজ করেছে আগামীতেও করবে। আর এই ক্ষুধা, নিরক্ষরতা দূরীকরণে আমাদের অর্জন দৃশ্যমান। কোথায় ছিলাম আমরা আর এখন কোথায় আছি এটি পরিষ্কার।’

মন্ত্রী বলেন, ‘পূর্বের তুলনায় আমরা অনেক ভালো আছি। বিশেষ করে গত দেড় দশকে আমরা অনেক এগিয়েছি। শিক্ষা, স্বাস্থ্য অনেক উন্নয়ন হয়েছে। গ্রামে গ্রামে আমাদের উন্নয়ন পৌঁছে গেছে।’

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘পূর্বের যেকোন সময়ের চেয়ে আমরা ভালো আছি। সরকার দারিদ্র্যতা দূরীকরণে কাজ করছে। গ্রামে গ্রামে আশ্রয়ণ প্রকল্প করে দিয়েছে। সামাজিক নিরাপত্তা কর্মসূচির মাধ্যমে দরিদ্রদের সহায়তা দিচ্ছে। যার প্রভাব আমরা দেখতে পাচ্ছি। এখন আমাদের মূল কাজ হলো দরিদ্র অবস্থা থেকে সরে আসা, কাজ করা। না খেয়ে শুয়ে থাকা থেকে আমাদের সরে আসতে হবে।’

মন্ত্রী আরও বলেন, ‘দারিদ্র্য দূর করতে হবে। কারণ দারিদ্র্য থাকলে অনেক কিছুই করা সম্ভব নয়। আমরা এখন অনেক ভালো সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি।’

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ইমেরিটাস অধ্যাপক ড. আতিউর রহমান বলেন, উন্নয়ন শুধু কোন কাঠামো পরিবর্তন নয়, উন্নয়নের জন্য দরকার মনের পরিবর্তন। যত বেশি মনের পরিবর্তন করতে পারব তত বেশি উন্নত হব।

ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশের সিনিয়র ডিরেক্টর (অপারেশন্স) চন্দন জেড গোমেজ বলেন, জনগণ যখন স্মার্ট হবে দেশ তখন স্মার্ট হবে। এই প্রতিষ্ঠান সেই লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছে জানিয়ে তিনি বলেন, এ বছর ২৩ হাজার যুবক-যুবতীকে তাদের স্বপ্নের জায়গায় যেতে সহযোগিতা করছেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন ঝুঁকিপূর্ণ শিশুশ্রম নিরসন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক, অতিরিক্ত সচিব মো. মনোয়ার হোসেন, পিআইবির মহাপরিচালক জাফর ওয়াজেদ ও শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের উপসচিব ড. মোহাম্মদ আবদুল কাদের, ফিল্ড অপারেশনের উপ-পরিচালক মঞ্জু মারিয়া পালমা এবং ব্রান্ড কার্ট -এর প্রকল্প সমন্বয়ক শেখ সাইফুর রহমান।

এ বছর ১৪ মে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় অনুষ্ঠানে ‘মিডিয়া কম্পিটিশন ২০২৩’ -এর ঘোষণা দেয় ওয়ার্ল্ড ভিশন বাংলাদেশ। রিপোর্ট জমা দেয়ার শেষ সময় ছিল ২০ জুলাই, ২০২৩।

অনুষ্ঠানের শুরুতে প্রান্তিক শিশুদের পরিবেশনায় অনুষ্ঠিত হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

back to top