alt

মিডিয়া

বিচারহীন ১১ বছর

হতাশার সুরে ‘মা-বাবা’ হত্যার বিচার চাইলেন মাহির

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শনিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

বাবা-মা সাংবাদিক সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনি হত্যাকান্ডের বিচার চাইলেন ছেলে মাহির সরওয়ার মেঘ। ১১টি বছরে বিচার না পাওয়ায় বড়ই হতাসার সুবে বলেছেন, তিনি খুবই ক্লান্ত। বিচারহীনতার এ দেশে বাবা-মায়ের ছবির সাথেই কাটছে ছেলের প্রতিটি মুহূর্ত।

সিঁড়ি দিয়ে দোতলার কক্ষে ঢুকতেই হাতের ডান পাশের দেয়ালে ঝুলছে সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনির একমাত্র ছেলে মাহির সরওয়ার মেঘের একটি পাঞ্জাবি। সেই দেয়ালজুড়েই তিনজনের একসঙ্গে নানা ছবি, ব্যবহারের কাপড় ও নানান জিনিস সাজানো। আরেকটি দেয়ালে ছোট ছোট কাগজে বিভিন্ন রং দিয়ে লেখা—বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট। লেখাগুলোর সামনে সুতা দিয়ে ঝোলানো সাগর–রুনির ছবি। আরেকটি দেয়ালে সাঁটানো সাগর–রুনির একটি কাগজের ছবিতে হাত দিয়ে আদর করছিলেন ছেলে মাহির। মা–বাবাকে নিয়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দিচ্ছিল সে। কথা বলতে বলতে একসময় কিশোর মাহির বলে উঠল—‘আমি খুব টায়ার্ড (ক্লান্ত)।’

রাজধানীর ফার্মগেটের ইন্দিরা রোডের ‘কালিন্দী’ নামের বাড়ির একটি ভবনের দোতলায় আজ শনিবার চলছে ‘সাগর–রুনি ক্রাইম সিন ডু নট ক্রস’ শীর্ষক প্রদর্শনী। সাগর-রুনি পরিবারের সদস্য ও বন্ধুবান্ধব এ প্রদর্শনীর আয়োজন করেন। ইমরান হোসেন পিপলুর তত্ত্বাবধানে (কিউরেটর) এ প্রদর্শনীতে শিল্পী এ এইচ ঢালী তমাল, ফারহানা রহমান, ইমরান সোহেল, সৈয়দ মোহাম্মদ জাকির, সানজিদ মাহমুদ, আমিনুল হাসান লিটু, সুলেখা চৌধুরী, তাহমিনা হাফিজ লিসা ও ফাইজুল ইসলাম তাঁদের শিল্পকর্ম প্রদর্শন করেন।

২০১২ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি খুন হন এই সাংবাদিক দম্পতি। ঘটনার সময় বাসায় ছিল তাঁদের সাড়ে চার বছরের ছেলে মাহির সরওয়ার মেঘ। সাগর মাছরাঙা টিভিতে আর রুনি এটিএন বাংলায় কর্মরত ছিলেন।

রুনির ভাই নওশের আলম বলেন, ‘দেশে বিচারহীনতার সংস্কৃতি এত শক্ত যে আমাদের এই প্রতিবাদী আয়োজন কিছুই করতে পারব না। কিন্তু রাষ্ট্র যে আমাদের সঙ্গে অন্যায় করেছে, সেটা বলতে পারব।’ তিনি বলেন, ‘বিচার না পেতে পেতে একসময় সব চুপ হয়ে যায়, খুনি চক্র সেটাই চায়। কিন্তু আমাদের উচিত সেটা সব সময় বাঁচিয়ে রাখা।’

যে তিনটি কক্ষে প্রদর্শনী চলছে, তার একটিতে প্রদর্শন করা হয় এই দম্পতি খুন হওয়ার পর বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়া খবর। সেই সময়কার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, পুলিশ প্রধানের বক্তব্য টিভি স্ক্রিনে প্রচার করা হয়। সেদিন তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন (প্রয়াত) বলেছিলেন, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে খুনিদের গ্রেপ্তার করা হবে। খুনের দুই দিন পর পুলিশের তৎকালীন মহাপরিদর্শক (আইজিপি) হাসান মাহামুদ খন্দকারও বলেছিলেন, তদন্তের ইতিবাচক অগ্রগতি হয়েছে।

কক্ষটির এক কোণে রাখা পারিবারিক অনেক ছবি। আরও রয়েছে সাগরের লেখা কয়েকটি বই। সেখানে একটি ফ্রেমে বাঁধাই করা মাকে নিয়ে মাহিরের আঁকা একটি ছবি। সেখানে মাহির লিখেছে, ‘আই লাভ ইউ মা’।

মাহির সরওয়ার মেঘ বলেন, ‘সব সময় বাবা–মাকে মনে পড়ে। সপ্তাহে একবার তাঁদের কবরের পাশে যাওয়ার চেষ্টা করি। আমি বাবা-মা হত্যার বিচার চাই।’

‘সাগর-রুনি ক্রাইম সিন ডু নট ক্রস’ প্রদর্শনী দেখতে এসেছিলেন বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) নির্বাহী প্রধান আইনজীবী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান, দৃক গ্যালারির প্রতিষ্ঠাতা আলোকচিত্রী শহিদুল আলম প্রমুখ। প্রদর্শনী দেখতে এসে সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান মন্তব্য খাতায় লিখেছেন, ‘বিচার চাই , মেঘের কাছে দায়মুক্ত হতে চাই।’

ছবি

সপ্তম বর্ষে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় প্রেস ক্লাব

ছবি

গাজীপুর প্রেসক্লাবে দোয়া মাহফিল ও ইফতার অনুষ্ঠিত

ছবি

টাঙ্গাইল জেলা সাংবাদিক ফোরামের ইফতার-দোয়া মাহফিল

দেশকে এগিয়ে নিতে সাংবাদিকরা বড় ভূমিকা পালন করেন : তোফায়েল আহমেদ

ছবি

“এপেক্স ইন্টারন্যাশনাল জার্নালিস্ট কাউন্সিল”এর বাংলাদেশ চ্যাপ্টারের কমিটি গঠিত

ছবি

সাংবাদিক সাব্বিরের ওপর হামলাকারীদের অবিলম্বে গ্রেপ্তার দাবি

ছবি

ডিইউজে নির্বাচন, সভাপতি পদে সমান ভোট সোহেল-তপুর, সাধারণ সম্পাদক আকতার

সাংবাদিক শফিউজ্জামানকে কারাগারে পাঠানোয় সম্পাদক পরিষদের নিন্দা

ছবি

স্টামফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক ফোরামের নেতৃত্বে সাব্বির-ইকা

ছবি

১০৬ বারের মতো পেছালো সাগর-রুনি হত্যা মামলার প্রতিবেদন

ছবি

মুক্তিযোদ্ধা সাংবাদিক কমান্ডের নির্বাচন

ছবি

নোয়াবের নতুন কমিটি, আবারও সভাপতি এ.কে.আজাদ

‘সরকারকে জবাবদিহির আওতায় আনতে ৭০ অনুচ্ছেদ বাধা হবে না’

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় প্রেসক্লাবের এক যুগপূর্তি

মানিক সাহাসহ সাংবাদিক হত্যাকা-ে জড়িতদের চিহ্নিত করতে গণতদন্ত কমিশন গঠনের দাবি

ছবি

উৎসবমুখর পরিবেশে চলছে ক্র্যাবের ভোটগ্রহণ

ছবি

চারণসাংবাদিক মোনাজাতউদ্দিনের মৃত্যুবার্ষিকী কাল

ছবি

নগর উন্নয়ন সাংবাদিক ফোরামের নেতৃত্বে মতিন-ফয়সাল

ছবি

অর্থনীতিবিদদের সঙ্গে নোয়াবের মতবিনিময় সভা

ছবি

শিশুবিষয়ক খবরে গণমাধ্যমকে বেশী গুরুত্ব দেয়ার আহবান

ছবি

নরসিংদী প্রেস ক্লাবের নব নির্বাচিত কার্যনির্বাহী পরিষদের শপথ গ্রহণ

ছবি

আহমদুল কবির কখনো প্রাসঙ্গিকতা হারাবেন না

চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবের প্রয়াত সাংবাদিকদের স্মরণে সভা

ছবি

গুজব রোধে গণমাধ্যমকর্মীদের কর্মশালা অনুষ্ঠিত

ছবি

সাংবাদিকরা ভুল করলে ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা হবে - প্রেস কাউন্সিল চেয়ারম্যান

ছবি

ক্ষমা না চাইলে বিএনপির সংবাদ পরিহারের ডাক ডিইউজের

মাহেলা বেগম

ছবি

বর্ণাঢ্য আয়োজনে জাতীয় প্রেস ক্লাবের ৬৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

ছবি

সাগর-রুনি হত্যা : ১০২ বার পেছাল তদন্ত প্রতিবেদন

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র গণমাধ্যমের স্বাধীনতাকে সমর্থন করে

ছবি

ভিসা নীতিঃ সম্পাদক পরিষদের উদ্বেগ ও মার্কিন রাষ্ট্রদূতের ব্যাখ্যা

বর্ণাঢ্য আয়োজনে ঢাবি সাংবাদিক সমিতির প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

ছবি

কপিরাইট বিল পাস

ছবি

ওয়ার্ল্ড ভিশন মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড পেলেন সংবাদ প্রতিবেদকসহ ৬ সাংবাদিক

ছবি

ওয়ার্ল্ড ভিশন মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড পেলেন সংবাদ প্রতিবেদকসহ ৬ সাংবাদিক

ছবি

র‍্যামন ম্যাগসাইসাই পুরস্কার পেলেন করভি রাখসান্দ

tab

মিডিয়া

বিচারহীন ১১ বছর

হতাশার সুরে ‘মা-বাবা’ হত্যার বিচার চাইলেন মাহির

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শনিবার, ১১ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

বাবা-মা সাংবাদিক সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনি হত্যাকান্ডের বিচার চাইলেন ছেলে মাহির সরওয়ার মেঘ। ১১টি বছরে বিচার না পাওয়ায় বড়ই হতাসার সুবে বলেছেন, তিনি খুবই ক্লান্ত। বিচারহীনতার এ দেশে বাবা-মায়ের ছবির সাথেই কাটছে ছেলের প্রতিটি মুহূর্ত।

সিঁড়ি দিয়ে দোতলার কক্ষে ঢুকতেই হাতের ডান পাশের দেয়ালে ঝুলছে সাগর সরওয়ার ও মেহেরুন রুনির একমাত্র ছেলে মাহির সরওয়ার মেঘের একটি পাঞ্জাবি। সেই দেয়ালজুড়েই তিনজনের একসঙ্গে নানা ছবি, ব্যবহারের কাপড় ও নানান জিনিস সাজানো। আরেকটি দেয়ালে ছোট ছোট কাগজে বিভিন্ন রং দিয়ে লেখা—বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট। লেখাগুলোর সামনে সুতা দিয়ে ঝোলানো সাগর–রুনির ছবি। আরেকটি দেয়ালে সাঁটানো সাগর–রুনির একটি কাগজের ছবিতে হাত দিয়ে আদর করছিলেন ছেলে মাহির। মা–বাবাকে নিয়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দিচ্ছিল সে। কথা বলতে বলতে একসময় কিশোর মাহির বলে উঠল—‘আমি খুব টায়ার্ড (ক্লান্ত)।’

রাজধানীর ফার্মগেটের ইন্দিরা রোডের ‘কালিন্দী’ নামের বাড়ির একটি ভবনের দোতলায় আজ শনিবার চলছে ‘সাগর–রুনি ক্রাইম সিন ডু নট ক্রস’ শীর্ষক প্রদর্শনী। সাগর-রুনি পরিবারের সদস্য ও বন্ধুবান্ধব এ প্রদর্শনীর আয়োজন করেন। ইমরান হোসেন পিপলুর তত্ত্বাবধানে (কিউরেটর) এ প্রদর্শনীতে শিল্পী এ এইচ ঢালী তমাল, ফারহানা রহমান, ইমরান সোহেল, সৈয়দ মোহাম্মদ জাকির, সানজিদ মাহমুদ, আমিনুল হাসান লিটু, সুলেখা চৌধুরী, তাহমিনা হাফিজ লিসা ও ফাইজুল ইসলাম তাঁদের শিল্পকর্ম প্রদর্শন করেন।

২০১২ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি খুন হন এই সাংবাদিক দম্পতি। ঘটনার সময় বাসায় ছিল তাঁদের সাড়ে চার বছরের ছেলে মাহির সরওয়ার মেঘ। সাগর মাছরাঙা টিভিতে আর রুনি এটিএন বাংলায় কর্মরত ছিলেন।

রুনির ভাই নওশের আলম বলেন, ‘দেশে বিচারহীনতার সংস্কৃতি এত শক্ত যে আমাদের এই প্রতিবাদী আয়োজন কিছুই করতে পারব না। কিন্তু রাষ্ট্র যে আমাদের সঙ্গে অন্যায় করেছে, সেটা বলতে পারব।’ তিনি বলেন, ‘বিচার না পেতে পেতে একসময় সব চুপ হয়ে যায়, খুনি চক্র সেটাই চায়। কিন্তু আমাদের উচিত সেটা সব সময় বাঁচিয়ে রাখা।’

যে তিনটি কক্ষে প্রদর্শনী চলছে, তার একটিতে প্রদর্শন করা হয় এই দম্পতি খুন হওয়ার পর বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত হওয়া খবর। সেই সময়কার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী, পুলিশ প্রধানের বক্তব্য টিভি স্ক্রিনে প্রচার করা হয়। সেদিন তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সাহারা খাতুন (প্রয়াত) বলেছিলেন, ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে খুনিদের গ্রেপ্তার করা হবে। খুনের দুই দিন পর পুলিশের তৎকালীন মহাপরিদর্শক (আইজিপি) হাসান মাহামুদ খন্দকারও বলেছিলেন, তদন্তের ইতিবাচক অগ্রগতি হয়েছে।

কক্ষটির এক কোণে রাখা পারিবারিক অনেক ছবি। আরও রয়েছে সাগরের লেখা কয়েকটি বই। সেখানে একটি ফ্রেমে বাঁধাই করা মাকে নিয়ে মাহিরের আঁকা একটি ছবি। সেখানে মাহির লিখেছে, ‘আই লাভ ইউ মা’।

মাহির সরওয়ার মেঘ বলেন, ‘সব সময় বাবা–মাকে মনে পড়ে। সপ্তাহে একবার তাঁদের কবরের পাশে যাওয়ার চেষ্টা করি। আমি বাবা-মা হত্যার বিচার চাই।’

‘সাগর-রুনি ক্রাইম সিন ডু নট ক্রস’ প্রদর্শনী দেখতে এসেছিলেন বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) নির্বাহী প্রধান আইনজীবী সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান, দৃক গ্যালারির প্রতিষ্ঠাতা আলোকচিত্রী শহিদুল আলম প্রমুখ। প্রদর্শনী দেখতে এসে সৈয়দা রিজওয়ানা হাসান মন্তব্য খাতায় লিখেছেন, ‘বিচার চাই , মেঘের কাছে দায়মুক্ত হতে চাই।’

back to top