alt

জাতীয়

এ বছর মেলার সময় ছিল ৩১ দিন, নতুন বই ৩ হাজার ৭৫১টি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪

এ যাবৎকালের দীর্ঘতম বইমেলার পর্দা নেমেছে গত শনিবার। ৩১ দিনের এ মেলায় নতুন বইয়ের সংখ্যা গেলো বছরকেও ছাড়িয়ে গেছে। বাংলা একাডেমির হিসাবে, এবার মোট ৩ হাজার ৭৫১টি নতুন বই প্রকাশিত হয়েছে। বই বিক্রি হয়েছে প্রায় ৬০ কোটি টাকার যা গতবছরের তুলনায় ১৩ কোটি টাকার বেশি। আর মেলায় দর্শনার্থী এসেছিলেন ৬০ লাখ।

এবার মোট ৩,৭৫১টি নতুন বই প্রকাশিত হলেও করোনার আগে অর্থাৎ ২০১৯ সালের বইমেলা থেকে নতুন বই প্রকাশিত হয় মোট ৪,৮৩৪টি। সেই হিসেবে বলাই যায় করোনা মহামারীর পূর্বের অবস্থায় বইমেলায় এখনও ফেরেনি নতুন বইয়ের সংখ্যা।

তবে এবার বইয়ের সংখ্য যা জানা গেছে তার চেয়েও বেশি হওয়ার কথা জানিয়ে বাংলা একাডেমির উপ-পরিচালক শাহেদ মমতাজ বলেন, অনেক প্রকাশক তাদের নতুন সব বইয়ের তথ্য না দেয়ায় মেলায় সঠিক কত নতুন বই এসেছে এই তথ্য পাওয়া যায়নি। আমাদের ধারণা যে হিসাব পাওয়া গেছে এর বাইরেও আরও কিছু নতুন বই ও মোড়ক উন্মোচনের তথ্য আমাদের কাছে আসে নাই। আরও কিছু নতুন বই ও মোড়ক উন্মোচনের তথ্য উল্লিখিত পরিসংখ্যানের বাইরে ছিল।

গতবারের মতো এবারও বাংলা একাডেমির একটি কমিটিকে দিয়ে প্রাপ্ত সব বইয়ের মান প্রাথমিকভাবে নিরূপণের চেষ্টা করা হয়েছে। আসলে এত স্বল্প সময়ে সঠিকভাবে মানসম্মত বই বাছাই বা নিরূপণ করা বাস্তবসম্মত নয় বলেও জানান শাহেদ মমতাজ।

এবার বই প্রকাশ ও বই বিক্রি বাড়লেও বাংলা একাডেমি থেকে নেয়া তথ্য-উপাত্তে দেখা যায়, কোভিড-১৯ মহামারীর আগের তুলনায় নতুন বই প্রকাশনার সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস পেয়েছে এবং গত বছরের তুলনায় এ বছর বাড়লেও তা এখনও করোনা মহামারীর আগের পর্যায়ে ফিরে যায়নি।

দেখা যায়, ২০১৯ সালের বইমেলা থেকে নতুন বই প্রকাশিত হয় মোট ৪ হাজার ৮৩৪টি। ২০২০ সালে নতুন বই প্রকাশনার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৪ হাজার ৯১৯টিতে। এরপর মহামারির সময় ২০২১ সালের বইমেলায় নতুন বই প্রকাশের সংখ্যা কমে দাঁড়ায় ২ হাজার ৬৪০টিতে। তবে ২০২১ সালের পর থেকে নতুন বই প্রকাশনার সংখ্যা ধীরে হলেও বাড়তে শুরু করে।

২০২২ সালে বইমেলায় নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয় ৩ হাজার ৪১৬টি এবং ২০২৩ সালের নতুন বইয়ের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৩ হাজার ৭৩০টিতে। সংগৃহীত তথ্য থেকে দেখা যায়, ২০২০ সালের বইমেলায় বঙ্গবন্ধু সম্পর্কিত ১৪৪টি নতুন বই প্রকাশিত হয়। ২০২১ সালে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কিত বই হ্রাস পেয়ে ৫১টিতে পৌঁছায় এবং ২০২২ সালে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কিত ৭৭টি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। ২০২৩ সালে আবার সংখ্যা কমে ৩৫-এ নামে এবং এ বছর অমর একুশে বইমেলার বই উন্মোচন মঞ্চ থেকে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কিত মাত্র ২৭টি বই প্রকাশিত হয়।

কবিতা বিভাগে ২০২০ সালে ১ হাজার ৫৮৫টি নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়, যা ২০২১ সালে কমে দাঁড়ায় ৮৯৮টিতে। ২০২১ সালে এই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ১ হাজার ৬০টিতে। এরপর ২০২৩ সালে তা বেড়ে দাঁড়ায় ১ হাজার ২৫৭ এবং এ বছর তা কমে ১ হাজার ১৯২টিতে নেমে আসে।

এছাড়া বইমেলা থেকে নতুন গবেষণা কর্ম প্রকাশের সংখ্যাও গত ৫ বছরে কমেছে। ২০২০ সালে বইমেলার প্রাঙ্গণ থেকে গবেষণা বিষয়ক মোট ১১২টি বই প্রকাশিত হয়। ২০২১ সালে এ সংখ্যা কমে দাঁড়ায় ৪৭-এ। তবে ২০২২ সালে নতুন গবেষণা সংক্রান্ত প্রকাশনার সংখ্যা ছিল ১০২টি। কিন্তু গবেষণাভিত্তিক বই প্রকাশনার সংখ্যা আবার ৭৫-এ নেমে এসেছে এবং ২০২৩ সাল থেকে একই রয়েছে।

মুক্তিযুদ্ধ বিভাগে ২০২০ সালে মোড়ক উন্মোচন মঞ্চ থেকে মোট ১৫২টি নতুন বই উন্মোচিত হয়। ২০২১ সালে বইয়ের সংখ্যা ছিল ৮৪টি। ২০২২ সালে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক বইয়ের সংখ্যা ছিল ১০২টি। এরপর এই ক্যাটাগরির নতুন বইয়ের সংখ্যা ৭৫ এ পৌঁছায়।

তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, গল্পের বই, উপন্যাস, স্বাস্থ্য বিষয়ক বই, অনূদিত বই, নাটক, বিজ্ঞান বিভাগের বইয়ের মতো নতুন বই প্রকাশের সংখ্যার পার্থক্য লক্ষ্য করা গেছে।

বাঙালির প্রাণের উৎসব অমর একুশে বইমেলায় এবছর ৬০ কোটি টাকার বেশি বই বিক্রি হয়েছে। প্রকাশিত হয়েছে ৩ হাজার ৭৫১টি নতুন বই। যেখানে আর গতবছর বিক্রি হয়েছিল ৪৭ কোটি টাকার বেশি বই আর প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা ছিল ৩ হাজার ৭৩০টি।

তবে বই প্রকাশ কম না বেশি, বই বিক্রি কম না বেশি এসব কিছুকে ছাপিয়ে আবারও বইমেলাকে ঘিরে অপেক্ষা শুরু লেখক-পাঠক ও প্রকাশকদের। নতুন লেখা নিয়ে পাঠকের সামনে আসতে দিন গুনতে থাকবেন লেখকরা। আর নতুন বই ছাপাবেন প্রকাশকরা। সব মিলেয়ে লেখক প্রকাশক ও পাঠকদের মধ্যে একটা মেলবন্ধ তৈরিতে আবারও সাজবে অমর একুশে বই মেলা।

সোমবার থেকে ৪ দিনব্যাপী ন্যাপ এক্সপো, উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী

ছবি

অনিবন্ধিত অনলাইন নিউজ পোর্টাল বন্ধ করে দেয়া হবে:প্রতিমন্ত্রী

ছবি

গরমের কারণে সব সরকারি স্কুল, কলেজ আরও ৭ দিন বন্ধ

ছবি

ট্রাফিক সদস্যদের ছাতা-স্যালাইন-জুস-শরবত দিলেন আইজিপি

ছবি

ঈদযাত্রায় ৪১৯ দুর্ঘটনায় নিহত ৪৩৮ : যাত্রী কল্যাণ সমিতি

ছবি

ফুলেল শ্রদ্ধায় শিব নারায়ণ দাশকে বিদায়

ছবি

দেশে ইন্টারনেট সেবায় ব্যাঘাত

ছবি

তীব্র দাবদাহ : প্রাথমিক স্কুলে অ্যাসেম্বলি বন্ধ রাখার নির্দেশ

ছবি

শিব নারায়ণের কর্নিয়ায় আলো ফুটবে দুই অন্ধের চোখে

ছবি

একদিনে করোনায় আক্রান্ত ১৬ জন

ছবি

তাপপ্রবাহ নিয়ে ৭২ ঘণ্টার সতর্ক বার্তা আবহাওয়া অধিদপ্তরের

ছবি

বঙ্গবন্ধু টানেলে টোল ফ্রি সুবিধা পেল যেসব গাড়ি

ছবি

সারাদেশে তিন দিনের হিট অ্যালার্ট জারি

ছবি

জাতীয় পতাকার নকশাকার শিবনারায়ণ দাস আর নেই

ছবি

বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা ও অভিজ্ঞতা বিনিময় করা হবে : আরাফাত

স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র এবং মুজিবনগর দিবস সম্পর্কে নতুন প্রজন্মেকে জানাতে হবে

ছবি

স্থানীয় সরকার নির্বাচ‌নে ভোটার উপ‌স্থি‌তি সংসদ নির্বাচ‌নের ‌চে‌য়ে বে‌শি থাকবে

ছবি

প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনীর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী

ছবি

থাইল্যান্ড সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী

জুন-জুলাইয়ে দেশে ইনফ্লুয়েঞ্জার হার বেশি

মধ্যপ্রাচ্য পরিস্থিতির ওপর নজর রাখতে বললেন প্রধানমন্ত্রী

এথেন্স সম্মেলনে দায়িত্বশীল ও টেকসই সমুদ্র ব্যবস্থাপনায় সম্মিলিত প্রয়াসের আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর

ছবি

কৃষকরাই অর্থনীতির মূল চালিকাশক্তি: স্পিকার

ছবি

মধ্যপ্রাচ্য পরিস্থিতির ওপর নজর রাখার তাগিদ প্রধানমন্ত্রীর

ছবি

লালমনিরহাট সীমান্তে বিএসএফের গুলিতে সাবেক ইউপি সদস্য গুলিবিদ্ধ

ছবি

তৃতীয় ধাপে ১১২ উপজেলায় ভোট ২৯ মে

ছবি

এমভি আবদুল্লাহ : ২১ নাবিক দেশে ফিরবেন জাহাজে, বাকি দুজন বিমানে

ছবি

৯৬ হাজার ৭৩৬ শিক্ষক নিয়োগে প্রক্রিয়া শুরু, আবেদনের নিয়ম

ছবি

ঢাকায় গ্রিসের দূতাবাস স্থাপন ও জনশক্তি রপ্তানি বৃদ্ধি নিয়ে আলোচনা

ছবি

টিসিবির তালিকা হালনাগাদ করতে চাই:বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রী

ছবি

লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে গমের আবাদ কম

ছবি

ভোজ্য তেলের দাম বাড়াতে চায় ব্যবসায়ীরা আপত্তি বাণিজ্য প্রতিমন্ত্রীর

ছবি

অনিবন্ধিত অনলাইনের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেবো : তথ্য প্রতিমন্ত্রী

ছবি

জলবায়ু পরিবর্তনে দেশে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে কৃষিখাত : মন্ত্রী

ছবি

দেশে ফিরতে আরও ১০ দিন সময় লাগবে নাবিকদের

ছবি

মুক্ত এমভি আবদুল্লাহর ৩ ছবি প্রকাশ

tab

জাতীয়

এ বছর মেলার সময় ছিল ৩১ দিন, নতুন বই ৩ হাজার ৭৫১টি

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

সোমবার, ০৪ মার্চ ২০২৪

এ যাবৎকালের দীর্ঘতম বইমেলার পর্দা নেমেছে গত শনিবার। ৩১ দিনের এ মেলায় নতুন বইয়ের সংখ্যা গেলো বছরকেও ছাড়িয়ে গেছে। বাংলা একাডেমির হিসাবে, এবার মোট ৩ হাজার ৭৫১টি নতুন বই প্রকাশিত হয়েছে। বই বিক্রি হয়েছে প্রায় ৬০ কোটি টাকার যা গতবছরের তুলনায় ১৩ কোটি টাকার বেশি। আর মেলায় দর্শনার্থী এসেছিলেন ৬০ লাখ।

এবার মোট ৩,৭৫১টি নতুন বই প্রকাশিত হলেও করোনার আগে অর্থাৎ ২০১৯ সালের বইমেলা থেকে নতুন বই প্রকাশিত হয় মোট ৪,৮৩৪টি। সেই হিসেবে বলাই যায় করোনা মহামারীর পূর্বের অবস্থায় বইমেলায় এখনও ফেরেনি নতুন বইয়ের সংখ্যা।

তবে এবার বইয়ের সংখ্য যা জানা গেছে তার চেয়েও বেশি হওয়ার কথা জানিয়ে বাংলা একাডেমির উপ-পরিচালক শাহেদ মমতাজ বলেন, অনেক প্রকাশক তাদের নতুন সব বইয়ের তথ্য না দেয়ায় মেলায় সঠিক কত নতুন বই এসেছে এই তথ্য পাওয়া যায়নি। আমাদের ধারণা যে হিসাব পাওয়া গেছে এর বাইরেও আরও কিছু নতুন বই ও মোড়ক উন্মোচনের তথ্য আমাদের কাছে আসে নাই। আরও কিছু নতুন বই ও মোড়ক উন্মোচনের তথ্য উল্লিখিত পরিসংখ্যানের বাইরে ছিল।

গতবারের মতো এবারও বাংলা একাডেমির একটি কমিটিকে দিয়ে প্রাপ্ত সব বইয়ের মান প্রাথমিকভাবে নিরূপণের চেষ্টা করা হয়েছে। আসলে এত স্বল্প সময়ে সঠিকভাবে মানসম্মত বই বাছাই বা নিরূপণ করা বাস্তবসম্মত নয় বলেও জানান শাহেদ মমতাজ।

এবার বই প্রকাশ ও বই বিক্রি বাড়লেও বাংলা একাডেমি থেকে নেয়া তথ্য-উপাত্তে দেখা যায়, কোভিড-১৯ মহামারীর আগের তুলনায় নতুন বই প্রকাশনার সংখ্যা উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস পেয়েছে এবং গত বছরের তুলনায় এ বছর বাড়লেও তা এখনও করোনা মহামারীর আগের পর্যায়ে ফিরে যায়নি।

দেখা যায়, ২০১৯ সালের বইমেলা থেকে নতুন বই প্রকাশিত হয় মোট ৪ হাজার ৮৩৪টি। ২০২০ সালে নতুন বই প্রকাশনার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৪ হাজার ৯১৯টিতে। এরপর মহামারির সময় ২০২১ সালের বইমেলায় নতুন বই প্রকাশের সংখ্যা কমে দাঁড়ায় ২ হাজার ৬৪০টিতে। তবে ২০২১ সালের পর থেকে নতুন বই প্রকাশনার সংখ্যা ধীরে হলেও বাড়তে শুরু করে।

২০২২ সালে বইমেলায় নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয় ৩ হাজার ৪১৬টি এবং ২০২৩ সালের নতুন বইয়ের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ৩ হাজার ৭৩০টিতে। সংগৃহীত তথ্য থেকে দেখা যায়, ২০২০ সালের বইমেলায় বঙ্গবন্ধু সম্পর্কিত ১৪৪টি নতুন বই প্রকাশিত হয়। ২০২১ সালে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কিত বই হ্রাস পেয়ে ৫১টিতে পৌঁছায় এবং ২০২২ সালে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কিত ৭৭টি বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়। ২০২৩ সালে আবার সংখ্যা কমে ৩৫-এ নামে এবং এ বছর অমর একুশে বইমেলার বই উন্মোচন মঞ্চ থেকে বঙ্গবন্ধু সম্পর্কিত মাত্র ২৭টি বই প্রকাশিত হয়।

কবিতা বিভাগে ২০২০ সালে ১ হাজার ৫৮৫টি নতুন বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করা হয়, যা ২০২১ সালে কমে দাঁড়ায় ৮৯৮টিতে। ২০২১ সালে এই সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ায় ১ হাজার ৬০টিতে। এরপর ২০২৩ সালে তা বেড়ে দাঁড়ায় ১ হাজার ২৫৭ এবং এ বছর তা কমে ১ হাজার ১৯২টিতে নেমে আসে।

এছাড়া বইমেলা থেকে নতুন গবেষণা কর্ম প্রকাশের সংখ্যাও গত ৫ বছরে কমেছে। ২০২০ সালে বইমেলার প্রাঙ্গণ থেকে গবেষণা বিষয়ক মোট ১১২টি বই প্রকাশিত হয়। ২০২১ সালে এ সংখ্যা কমে দাঁড়ায় ৪৭-এ। তবে ২০২২ সালে নতুন গবেষণা সংক্রান্ত প্রকাশনার সংখ্যা ছিল ১০২টি। কিন্তু গবেষণাভিত্তিক বই প্রকাশনার সংখ্যা আবার ৭৫-এ নেমে এসেছে এবং ২০২৩ সাল থেকে একই রয়েছে।

মুক্তিযুদ্ধ বিভাগে ২০২০ সালে মোড়ক উন্মোচন মঞ্চ থেকে মোট ১৫২টি নতুন বই উন্মোচিত হয়। ২০২১ সালে বইয়ের সংখ্যা ছিল ৮৪টি। ২০২২ সালে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক বইয়ের সংখ্যা ছিল ১০২টি। এরপর এই ক্যাটাগরির নতুন বইয়ের সংখ্যা ৭৫ এ পৌঁছায়।

তথ্য বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, গল্পের বই, উপন্যাস, স্বাস্থ্য বিষয়ক বই, অনূদিত বই, নাটক, বিজ্ঞান বিভাগের বইয়ের মতো নতুন বই প্রকাশের সংখ্যার পার্থক্য লক্ষ্য করা গেছে।

বাঙালির প্রাণের উৎসব অমর একুশে বইমেলায় এবছর ৬০ কোটি টাকার বেশি বই বিক্রি হয়েছে। প্রকাশিত হয়েছে ৩ হাজার ৭৫১টি নতুন বই। যেখানে আর গতবছর বিক্রি হয়েছিল ৪৭ কোটি টাকার বেশি বই আর প্রকাশিত বইয়ের সংখ্যা ছিল ৩ হাজার ৭৩০টি।

তবে বই প্রকাশ কম না বেশি, বই বিক্রি কম না বেশি এসব কিছুকে ছাপিয়ে আবারও বইমেলাকে ঘিরে অপেক্ষা শুরু লেখক-পাঠক ও প্রকাশকদের। নতুন লেখা নিয়ে পাঠকের সামনে আসতে দিন গুনতে থাকবেন লেখকরা। আর নতুন বই ছাপাবেন প্রকাশকরা। সব মিলেয়ে লেখক প্রকাশক ও পাঠকদের মধ্যে একটা মেলবন্ধ তৈরিতে আবারও সাজবে অমর একুশে বই মেলা।

back to top