alt

জাতীয়

মালয়েশিয়ায় পাঠাতে পর্যাপ্ত কর্মী পাচ্ছি না: কর্মসংস্থান মন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : বৃহস্পতিবার, ০৪ আগস্ট ২০২২

উভয় দেশের প্রস্তুতি থাকলেও মালয়েশিয়ায় পাঠানোর জন্য পর্যাপ্ত কর্মী পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদ।

তিনি বলেছেন, মালয়েশিয়া প্রস্তুত, আমরাও প্রস্তুত। কিন্তু সেদেশে পাঠানোর মতো পর্যাপ্ত কর্মী পাচ্ছি না। আমরা ১৩টি এজেন্টের মাধ্যমে এরইমধ্যে দুই হাজার ২০০ জনকে অনুমতি দিয়েছি। কিন্তু আমরা আরও বেশি বেশি করে কর্মী মালয়েশিয়ায় পাঠাতে চাই।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) নগরীর প্রবাসী কল্যাণ ভবনের বিজয় ৭১ মিলনায়তনে ‘প্রবাসী কর্মীর মেধাবী সন্তানদের শিক্ষাবৃত্তির চেক বিতরণ’ অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

পর্যাপ্ত কর্মী না পাওয়ার জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, যারা লোক পাঠায় এটা তাদের জিজ্ঞেস করুন। তবে আমরাও এ বিষয়ে জানাতে চাইবো, কেন তারা পর্যাপ্ত কর্মী প্রস্তুত করতে পারছেন না। আমরা খবর নেবো এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও নেবো।

তিনি আরও বলেন, মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার আমাদের তরফ থেকে পুরোপুরি খোলা। তারপরও সেদেশে পাঠানোর কর্মী সংকট দেখা যাচ্ছে। মানুষ যাচ্ছে না, কারণ অন্য তরফ থেকে জিনিসটা এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে না। যাহোক, এখানে কোনো সমস্যা থাকলে আমরা দেখবো। যেন মানুষ মালয়েশিয়ায় যেতে আগ্রহী হয়। মালয়েশিয়া সরকারের কিন্তু বিভিন্ন খাতে শ্রমিক দরকার।

মন্ত্রী বলেন, অনেকে উচ্চতর ডিগ্রি নিয়েও বেকার বসে আছেন, চাকরি নেই। অথচ তারাই যদি নার্সিংয়ে ঢুকতো তবে চাকরির অভাব হতো না। ভোকেশনাল পাস করে স্ক্রু ড্রাইভার কিভাবে চালাতে হয় এটা শিখলেও কিন্তু চাকরির অভাব নেই। আজকে জাপানে ছেলেমেয়েরা বয়স্কদের সেবক হিসেবে চাকরি করছে। তাদের বেতনও কিন্তু দুই থেকে আড়াই লাখ টাকা। কিন্তু আমরা এভাবে চিন্তা করি না। আমরা আগে চাকরিটা পেয়ে যেতে চাই।

ইমরান আহমেদ বলেন, সৌদি আরবে কাজের বিরাট সুযোগ আছে। দেশে লাখ লাখ মাদরাসা আছে, কিন্তু আরবি ভাষা শেখানো হয় না। কেউ আরবি ভাষা শেখায় না। অথচ সবাইকে কোরআন শরিফের হাফেজ বানিয় দেয়। এটা কিন্তু সৌদিতে চলে না।

মাদরাসাগুলোর দায়িত্ব আরবি ভাষা শেখানো, কিন্তু এটা হয় না। মাদরাসাছাত্ররা সৌদি ভাষা জানলে চাকরি ছেড়ে দেশে ফিরে আসতো না। সৌদিতে যিনি ৮০০-৯০০ রিয়াল বেতন পান, আরবি জানা থাকলে তার বেতন হতো ১২০০-১৪০০ রিয়াল। এখানে ভাষাগত কমিউনিকেশনের একটা বিরাট গ্যাপ আছে।

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন- মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এবং প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন প্রমুখ।

ছবি

উদ্বোধনের অপেক্ষায় ‘কঁচা’ নদীর সেতু

বিদ্যুৎ-জ্বালানি পরিস্থিতিতে ‘বিব্রত’ আওয়ামী লীগ

ছবি

আইটিইউ নির্বাচন: ভোট কাকে দিবে, ‘সিদ্ধান্ত নেয়নি’ বাংলাদেশ

ছবি

করোনা: শনাক্ত ৫ শতাংশের নিচে, মৃত্যু ৩

ছবি

আইজিপি যুক্তরাষ্ট্রে যেতে পারবেন, আশা পররাষ্ট্র সচিবের

ছবি

বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন নেছা মুজিব পদক পেলেন ৫ বিশিষ্ট নারী

ছবি

বাড়ি-গাড়ির মালিকের তথ্য জানতে ৩ সংস্থার সঙ্গে এনবিআরের চুক্তি

ছবি

বঙ্গমাতার জীবন থেকে সারাবিশ্বের নারীরা শিক্ষা নিতে পারে : প্রধানমন্ত্রী

ছবি

বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছা মুজিবের জন্মবার্ষিকী আজ

‘বাধ্যতামূলক প্রাথমিক শিক্ষা ও পরিবীক্ষণ ইউনিট’ গুটানোর উদ্যোগ

একেক দিন একেক এলাকায় শিল্প-কারখানা বন্ধ

জ্বালানি তেলের দামের প্রভাব : জীবনযাত্রার ব্যয়ে চাপ, ক্ষুব্ধ সাধারণ মানুষ

ছবি

পদ্মা সেতুর টোল আদায় ১০০ কোটি টাকা ছাড়াল

ছবি

বাংলাদেশ ‘এক চীন নীতিতে’ বিশ্বাসী: প্রধানমন্ত্রী

ছবি

করোনা: ৫ সপ্তাহ পর মৃত্যুহীন দিন, শনাক্ত ২১৬

ছবি

লঞ্চভাড়া দ্বিগুণ করার প্রস্তাব

ছবি

দেশেই তৈরি হলো করোনার কিট, পরীক্ষা হবে ২৫০ টাকায়

এনআইডিতে থ্যালাসেমিয়ার তথ্য সংযুক্ত করতে হাইকোর্টের রুল

ছবি

শিল্পাঞ্চলে আলাদা সাপ্তাহিক ছুটির ভাবনা সরকারের

ট্রেনের কালোবাজারি বন্ধে মনিটরিং সেল গঠন

ছবি

তাজিয়া মিছিলে ছোরা-বল্লম-তরবারি-আতশবাজি নিষিদ্ধ

ছবি

বঙ্গমাতার সাহস ও ত্যাগ অনুসরণীয় দৃষ্টান্ত : প্রধানমন্ত্রী

ছবি

পাঁচ বছর বয়সী শিশুদের পরীক্ষামূলক টিকাদান ১১ আগস্ট

ছবি

বাড়তি ভাড়া কার্যকর, মানুষের দুর্ভোগ ও ক্ষোভ

বাংলাদেশের ৯৯ শতাংশ পণ্যে শুল্কমুক্ত সুবিধা দেবে চীন

ছবি

বাংলাদেশ-চীন দ্বিপক্ষীয় সহযোগিতা বিষয়ে ৪ স্মারক সই

ছবি

আবার বাড়লো বাস ভাড়া

সরকারের যুক্তির সঙ্গে একমত নন বিশেষজ্ঞরা

ছবি

‘জটিল অঙ্কের’ হিসাব মেলাতেই জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি

ছবি

বঙ্গবন্ধু রেল সেতুর পণ্যের প্রথম চালান দেশে পৌঁছেছে

ছবি

মার্কিন সহকারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী মিশেল সিসন ঢাকায়

ছবি

করোনা: শনাক্ত ২২০, মৃত্যু ২ জনের

ছবি

মূল্যবৃদ্ধির পরও অনেক দেশের তুলনায় দেশে জ্বালানির দাম কম: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

চীনা পররাষ্ট্রমন্ত্রী ওয়াং ই ঢাকায়

ছবি

ভাড়া সমন্বয়ে পরিবহন নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বিআরটিএ

ছবি

জুলাইয়ে সড়কে ঝরেছে ৭৩৯ প্রাণ

tab

জাতীয়

মালয়েশিয়ায় পাঠাতে পর্যাপ্ত কর্মী পাচ্ছি না: কর্মসংস্থান মন্ত্রী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

বৃহস্পতিবার, ০৪ আগস্ট ২০২২

উভয় দেশের প্রস্তুতি থাকলেও মালয়েশিয়ায় পাঠানোর জন্য পর্যাপ্ত কর্মী পাওয়া যাচ্ছে না বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদ।

তিনি বলেছেন, মালয়েশিয়া প্রস্তুত, আমরাও প্রস্তুত। কিন্তু সেদেশে পাঠানোর মতো পর্যাপ্ত কর্মী পাচ্ছি না। আমরা ১৩টি এজেন্টের মাধ্যমে এরইমধ্যে দুই হাজার ২০০ জনকে অনুমতি দিয়েছি। কিন্তু আমরা আরও বেশি বেশি করে কর্মী মালয়েশিয়ায় পাঠাতে চাই।

বৃহস্পতিবার (৪ আগস্ট) নগরীর প্রবাসী কল্যাণ ভবনের বিজয় ৭১ মিলনায়তনে ‘প্রবাসী কর্মীর মেধাবী সন্তানদের শিক্ষাবৃত্তির চেক বিতরণ’ অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

পর্যাপ্ত কর্মী না পাওয়ার জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, যারা লোক পাঠায় এটা তাদের জিজ্ঞেস করুন। তবে আমরাও এ বিষয়ে জানাতে চাইবো, কেন তারা পর্যাপ্ত কর্মী প্রস্তুত করতে পারছেন না। আমরা খবর নেবো এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও নেবো।

তিনি আরও বলেন, মালয়েশিয়ার শ্রমবাজার আমাদের তরফ থেকে পুরোপুরি খোলা। তারপরও সেদেশে পাঠানোর কর্মী সংকট দেখা যাচ্ছে। মানুষ যাচ্ছে না, কারণ অন্য তরফ থেকে জিনিসটা এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে না। যাহোক, এখানে কোনো সমস্যা থাকলে আমরা দেখবো। যেন মানুষ মালয়েশিয়ায় যেতে আগ্রহী হয়। মালয়েশিয়া সরকারের কিন্তু বিভিন্ন খাতে শ্রমিক দরকার।

মন্ত্রী বলেন, অনেকে উচ্চতর ডিগ্রি নিয়েও বেকার বসে আছেন, চাকরি নেই। অথচ তারাই যদি নার্সিংয়ে ঢুকতো তবে চাকরির অভাব হতো না। ভোকেশনাল পাস করে স্ক্রু ড্রাইভার কিভাবে চালাতে হয় এটা শিখলেও কিন্তু চাকরির অভাব নেই। আজকে জাপানে ছেলেমেয়েরা বয়স্কদের সেবক হিসেবে চাকরি করছে। তাদের বেতনও কিন্তু দুই থেকে আড়াই লাখ টাকা। কিন্তু আমরা এভাবে চিন্তা করি না। আমরা আগে চাকরিটা পেয়ে যেতে চাই।

ইমরান আহমেদ বলেন, সৌদি আরবে কাজের বিরাট সুযোগ আছে। দেশে লাখ লাখ মাদরাসা আছে, কিন্তু আরবি ভাষা শেখানো হয় না। কেউ আরবি ভাষা শেখায় না। অথচ সবাইকে কোরআন শরিফের হাফেজ বানিয় দেয়। এটা কিন্তু সৌদিতে চলে না।

মাদরাসাগুলোর দায়িত্ব আরবি ভাষা শেখানো, কিন্তু এটা হয় না। মাদরাসাছাত্ররা সৌদি ভাষা জানলে চাকরি ছেড়ে দেশে ফিরে আসতো না। সৌদিতে যিনি ৮০০-৯০০ রিয়াল বেতন পান, আরবি জানা থাকলে তার বেতন হতো ১২০০-১৪০০ রিয়াল। এখানে ভাষাগত কমিউনিকেশনের একটা বিরাট গ্যাপ আছে।

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন- মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম এবং প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব ড. আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন প্রমুখ।

back to top