alt

জাতীয়

স্বেচ্ছায় ফিরতে আগ্রহী রোহিঙ্গাদের তালিকা করে প্রত্যাবাসন শুরু হবে

জেলা বার্তা পরিবেশেক, কক্সবাজার : বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩

যারা স্বেচ্ছায় নিজ মাতৃভূমিতে ফেরত যেতে আগ্রহী এমন রোহিঙ্গাদের তালিকা করে প্রত্যাবাসন করা হবে। কাউকে জোর করে মায়ানমারে ফেরত পাঠানো হবে না। রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন সম্পর্কে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মতামতকেও গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার। প্রত্যাবাসন ইস্যুর সব বিষয়ে জাতিসংঘসহ সব আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অবহিত করা হচ্ছে। এমনই আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক ও শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কার্যালয়ের কর্মকর্তারা।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক জানান রোহিঙ্গা সমস্যার একমাত্র সমাধান রোহিঙ্গাদের টেকসই এবং ভলান্টারি প্রত্যাবাসন। বৃহস্পতিবার (২৫ মে) বিকেলে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক মায়ানমার উইং মাইনুল কবির এবং শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাশন কমিশনার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

প্রত্যাবাসনের জন্য রোহিঙ্গাদের সঙ্গে আলোচনা শেষে মায়ানমার সরকারের প্রতিনিধি দল দেশে ফিরে গেলে গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে ব্রিফিংয়ে অংশ নেন তারা। তবে মায়ানমারের প্রতিনিধি দল গণমাধ্যমে কোন কথা বলেনি।

ব্রিফিংয়ে শরণার্থী কমিশনার মিজানুর রহমান জানান, মায়ানমার প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলোচনাকালে রোহিঙ্গারা তাদের নাগরিকত্ব ভিটে মাটি ফেরতসহ তাদের বেশ কিছু চিরাচরিত দাবি জানিয়েছে। আলোচনাকালে রোহিঙ্গারা রাখাইনে কোন ক্যাম্পে নয় নিজেদের ভিটে মাটিতেই ফেরত যেতে চান বলে মায়ানমার প্রতিনিধি দলের কাছে উত্থাপন করেন।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে টেকনাফ পৌরসভার জালিয়াপাড়ায় বাংলাদেশ-মায়ানমার ট্রানজিট জেটি দিয়ে ১৪ সদস্যর প্রতিনিধি দল বাংলাদেশ আসেন। এ সময় শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশন কার্যালয়ের কর্মকর্তারা তাদের স্বাগত জানান। মায়ানমার প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন মায়ানমারের রাখাইন স্টেটের সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার মিনিস্টার অং মাইউ। শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, প্রত্যাবাসনকে সামনে রেখে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে আলোচনা করতে মায়ানমারের একটি প্রতিনিধি দল বাংলাদেশে এসেছেন। ঢাকায় মায়ানমার দূতাবাসের দুজন সদস্যও প্রতিনিধি দলের সঙ্গে ছিলেন। তারা টেকনাফে ২৬ নাম্বার ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন। মায়ানমারের প্রতিনিধি দল এবার ২৮০ রোহিঙ্গা পরিবারের প্রধানের সঙ্গে কথা বলেন।

মায়ানমারের প্রতিনিধি দলটি মূলত কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে থাকা রোহিঙ্গাদের মূল আবাস মায়ানমারের রাখাইনের সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন এবং স্বদেশে ফেরত গেলে তাদের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধার বিষয়ের দীর্ঘ বর্ণনা দেন। রোহিঙ্গাদের সঙ্গে আলোচনাকালে নাগরিকত্ব শিক্ষা চিকিৎসা এবং অবাধ চলাফেরার স্বাধীনতাসহ বিভিন্ন দাবি তুলে ধরেন রোহিঙ্গারা।

এ সময় মায়ানমারের প্রতিনিধি দল পর্যায়ক্রমে রোহিঙ্গাদের দাবি পূরণ করা হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বলে প্রেস ব্রিফিংয়ে উল্লেখ করেন শরণার্থী কমিশনার। এর আগে গত ৫ মে রোহিঙ্গাদের ২০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল মায়ানমারের রাখাইনে মংডু শহরের আশপাশে পরিদর্শন করে এসেছেন। পরিদর্শন করে আসা রোহিঙ্গা নেতারা তখন জানিয়েছিলেন রাখাইনে এখনও প্রত্যাবাসনের পরিবেশ সৃষ্টি হয়নি। রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, ক্যাম্পে মায়ানমারের প্রতিনিধিরা এসেছেন। অনেক রোহিঙ্গা দাবি তুলছেন, নিরাপদ ও স্থায়ী প্রত্যাবাসনের। রোহিঙ্গারা নিরাপদ ও স্থায়ী প্রত্যাবাসন চায়।

এর আগেও, ১৫ মার্চ মায়ানমার প্রতিনিধি দল বাংলাদেশে আসে। সে সময় প্রায় ৫০০ রোহিঙ্গাদের তথ্য যাচাই-বাছাই শেষে মায়ানমার ফিরে যায় দলটি।

ছবি

লোডশেডিং কতদিন থাকবে, জানালেন বিদ্যুৎ প্রতিমন্ত্রী

ছবি

আমরা চাই না কোনো রোগী বিদেশ যাক: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

ছবি

আরও ১৩০ ইমিগ্রেশন পুলিশ চায় শাহজালাল বিমানবন্দর

ছবি

রেল দুর্ঘটনা রোধে সবাইকে সতর্ক থাকার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

ছবি

আহত সেই সদস্যকে দেখতে শেখ হাসিনা বার্নে র‌্যাব ডিজি

ছবি

দা‌য়িত্ব পালনে ত্রিপলিতে বাংলাদেশের নব‌নিযুক্ত রাষ্ট্রদূত

ছবি

বঙ্গোপসাগরে ঘূর্ণিঝড় সৃষ্টির আশঙ্কা

ছবি

সৌদি পৌঁছেছেন ৫০ হাজার হজযাত্রী, মৃত্যু ৪

ছবি

চা শিল্পের উন্নয়নে শ্রমিকবান্ধব কর্মপরিবেশের প্রত্যাশা প্রধানমন্ত্রীর

ছবি

ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে ১৪১ রোগী হাসপাতালে ভর্তি

ছবি

অনেক মহাদেশ আছে, আমেরিকা না গেলে কিচ্ছু যায় আসে না : প্রধানমন্ত্রী

ছবি

১০টি সংসদীয় আসনের সীমানায় পরিবর্তন

ছবি

মক্কায় আরও এক বাংলাদেশি হজযাত্রীর মৃত্যু

ছবি

কয়েকটি পাওয়ার প্ল্যান্ট কাজ না করায় লোডশেডিং বেড়েছে : নসরুল হামিদ

ছবি

বিশ্ববিদ্যালয়গুলো বরাদ্দ কাজে লাগাতে পারেনি : শিক্ষামন্ত্রী

ছবি

৩০০ আসনের সীমানা চূড়ান্ত করে গেজেট প্রকাশ

ছবি

চলমান তাপপ্রবাহ অব্যাহত থাকবে আরও তিন দিন

ছবি

ভারতে ট্রেন দুর্ঘটনায় হতাহতের ঘটনায় প্রধানমন্ত্রীর শোক

ছবি

ফিলিস্তিনি শরণার্থীদের ৫০ হাজার ডলার সহায়তা দেবে বাংলাদেশ

ছবি

পাঁচ অঞ্চলে ৬০ কি.মি. বেগে ঝড়ের আভাস

ছবি

অস্ট্রেলিয়ায় বাংলাদেশ হাইকমিশনে ই-পাসপোর্ট চালু

ছবি

ভারতে রেল দুর্ঘটনার তথ্য পেতে বাংলাদেশিদের জন্য হটলাইন নম্বর

ছবি

ভারতে কারাভোগ শেষে ৫০ কিশোর-কিশোরীকে বেনাপোলে হস্তান্তর

ছবি

করোনা: দুই মাস পর ২ জনের মৃত্যু

ছবি

দেশে ১৪ বছরে একজন মানুষও না খেয়ে মারা যাননি: কৃষিমন্ত্রী

ছবি

বাজেট নিয়ে আওয়ামী লীগের সংবাদ সম্মেলন শনিবার

ছবি

রাশিয়া থেকে ১ লাখ ৮০ হাজার টন সার আমদানি করবে সরকার

ছবি

‘স্বাভাবিক’ পরিস্থিতির আশায় ‘নতুন’ লক্ষ্যের বাজেট

ছবি

উন্নয়ন বাজেট: এবারও সর্বোচ্চ পরিবহন ও যোগাযোগ খাতে

ছবি

২০২৩-২৪ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে রাষ্ট্রপতির সম্মতি

ছবি

মে মাসে ৩০১ নারী ও কন্যা নির্যাতনের শিকার

ছবি

প্রায় ৫ লাখ পদ শূন্য সরকারি চাকরিতে

ছবি

বাজেটে সিগারেটের দাম বাড়ছে

ছবি

কমছে ইন্টারনেটের দাম

ছবি

নির্বাচন পর্যবেক্ষক পাঠাতে জাপানকে সিইসির অনুরোধ

ছবি

একের বেশি গাড়ি থাকলে সিসি অনুযায়ী কর

tab

জাতীয়

স্বেচ্ছায় ফিরতে আগ্রহী রোহিঙ্গাদের তালিকা করে প্রত্যাবাসন শুরু হবে

জেলা বার্তা পরিবেশেক, কক্সবাজার

বৃহস্পতিবার, ২৫ মে ২০২৩

যারা স্বেচ্ছায় নিজ মাতৃভূমিতে ফেরত যেতে আগ্রহী এমন রোহিঙ্গাদের তালিকা করে প্রত্যাবাসন করা হবে। কাউকে জোর করে মায়ানমারে ফেরত পাঠানো হবে না। রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন সম্পর্কে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের মতামতকেও গুরুত্ব দিচ্ছে সরকার। প্রত্যাবাসন ইস্যুর সব বিষয়ে জাতিসংঘসহ সব আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে অবহিত করা হচ্ছে। এমনই আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক ও শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কার্যালয়ের কর্মকর্তারা।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক জানান রোহিঙ্গা সমস্যার একমাত্র সমাধান রোহিঙ্গাদের টেকসই এবং ভলান্টারি প্রত্যাবাসন। বৃহস্পতিবার (২৫ মে) বিকেলে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা জানান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মহাপরিচালক মায়ানমার উইং মাইনুল কবির এবং শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাশন কমিশনার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান।

প্রত্যাবাসনের জন্য রোহিঙ্গাদের সঙ্গে আলোচনা শেষে মায়ানমার সরকারের প্রতিনিধি দল দেশে ফিরে গেলে গণমাধ্যম কর্মীদের সঙ্গে ব্রিফিংয়ে অংশ নেন তারা। তবে মায়ানমারের প্রতিনিধি দল গণমাধ্যমে কোন কথা বলেনি।

ব্রিফিংয়ে শরণার্থী কমিশনার মিজানুর রহমান জানান, মায়ানমার প্রতিনিধি দলের সঙ্গে আলোচনাকালে রোহিঙ্গারা তাদের নাগরিকত্ব ভিটে মাটি ফেরতসহ তাদের বেশ কিছু চিরাচরিত দাবি জানিয়েছে। আলোচনাকালে রোহিঙ্গারা রাখাইনে কোন ক্যাম্পে নয় নিজেদের ভিটে মাটিতেই ফেরত যেতে চান বলে মায়ানমার প্রতিনিধি দলের কাছে উত্থাপন করেন।

বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে টেকনাফ পৌরসভার জালিয়াপাড়ায় বাংলাদেশ-মায়ানমার ট্রানজিট জেটি দিয়ে ১৪ সদস্যর প্রতিনিধি দল বাংলাদেশ আসেন। এ সময় শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশন কার্যালয়ের কর্মকর্তারা তাদের স্বাগত জানান। মায়ানমার প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দেন মায়ানমারের রাখাইন স্টেটের সোশ্যাল ওয়েলফেয়ার মিনিস্টার অং মাইউ। শরণার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার মোহাম্মদ মিজানুর রহমান জানান, প্রত্যাবাসনকে সামনে রেখে রোহিঙ্গাদের সঙ্গে আলোচনা করতে মায়ানমারের একটি প্রতিনিধি দল বাংলাদেশে এসেছেন। ঢাকায় মায়ানমার দূতাবাসের দুজন সদস্যও প্রতিনিধি দলের সঙ্গে ছিলেন। তারা টেকনাফে ২৬ নাম্বার ক্যাম্পে রোহিঙ্গাদের প্রতিনিধিদের সঙ্গে বৈঠক করেন। মায়ানমারের প্রতিনিধি দল এবার ২৮০ রোহিঙ্গা পরিবারের প্রধানের সঙ্গে কথা বলেন।

মায়ানমারের প্রতিনিধি দলটি মূলত কক্সবাজারের রোহিঙ্গা ক্যাম্পে থাকা রোহিঙ্গাদের মূল আবাস মায়ানমারের রাখাইনের সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন এবং স্বদেশে ফেরত গেলে তাদের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধার বিষয়ের দীর্ঘ বর্ণনা দেন। রোহিঙ্গাদের সঙ্গে আলোচনাকালে নাগরিকত্ব শিক্ষা চিকিৎসা এবং অবাধ চলাফেরার স্বাধীনতাসহ বিভিন্ন দাবি তুলে ধরেন রোহিঙ্গারা।

এ সময় মায়ানমারের প্রতিনিধি দল পর্যায়ক্রমে রোহিঙ্গাদের দাবি পূরণ করা হবে বলে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন বলে প্রেস ব্রিফিংয়ে উল্লেখ করেন শরণার্থী কমিশনার। এর আগে গত ৫ মে রোহিঙ্গাদের ২০ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল মায়ানমারের রাখাইনে মংডু শহরের আশপাশে পরিদর্শন করে এসেছেন। পরিদর্শন করে আসা রোহিঙ্গা নেতারা তখন জানিয়েছিলেন রাখাইনে এখনও প্রত্যাবাসনের পরিবেশ সৃষ্টি হয়নি। রোহিঙ্গারা জানিয়েছেন, ক্যাম্পে মায়ানমারের প্রতিনিধিরা এসেছেন। অনেক রোহিঙ্গা দাবি তুলছেন, নিরাপদ ও স্থায়ী প্রত্যাবাসনের। রোহিঙ্গারা নিরাপদ ও স্থায়ী প্রত্যাবাসন চায়।

এর আগেও, ১৫ মার্চ মায়ানমার প্রতিনিধি দল বাংলাদেশে আসে। সে সময় প্রায় ৫০০ রোহিঙ্গাদের তথ্য যাচাই-বাছাই শেষে মায়ানমার ফিরে যায় দলটি।

back to top