alt

রাজনীতি

এবার দুই সপ্তাহের ‘প্যাকেজ’ কর্মসূচি দেবে বিএনপি

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : রোববার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

সরকার পদত্যাগে ‘একদফা’ আন্দোলনের অংশ হিসেবে এবার দুই সপ্তাহের ‘প্যাকেজ’ কর্মসূচি দিতে যাচ্ছে বিএনপি। নতুন কর্মসূচির মধ্যে ঢাকা ও আশপাশে ‘বড়’ সমাবেশ করার ঘোষণা থাকবে। একই সঙ্গে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে রোডমার্চসহ বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা হতে পারে। এসব কর্মসূচি আগামীকাল থেকে শুরু হয়ে আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে বলে বিএনপির একাধিক সূত্রে জানা গেছে। আজ এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নতুন কমর্সূচি ঘোষণার কথা রয়েছে।

গত ১২ জুলাই ‘একদফা’ আন্দোলনের ঘোষণার পর এখন পর্যন্ত বিএনপিসহ সমমনা জোট ও দলগুলো যুগপৎভাবে ঢাকায় পদযাত্রা, মহাসমাবেশ, ঢাকার প্রবেশমুখে অবস্থান, গণমিছিল ও কালো পতাকা মিছিলের কর্মসূচি পালন করে। সবশেষ ‘একদফা’ দাবিতে চলমান আন্দোলনের অংশ হিসেবে গত দুই দিন রংপুর ও রাজশাহী বিভাগে ‘তারুণ্যের রোডমার্চ’ করেছে বিএনপির তিনটি অঙ্গ-সংগঠন যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক ও ছাত্রদল।

বিএনপির একাধিক সূত্র বলছে, আগামী জাতীয় নির্বাচনের তফসিল নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ঘোষণার পূর্বাভাস রয়েছে নির্বাচন কমিশনের। এ তফসিল ঘোষণার আগেই ‘একদফা’ আন্দোলনের চূড়ান্ত ‘ফল’ পেতে চায় বিএনপি ও সমমনারা। সেই লক্ষ্যে নতুন কর্মসূচি দিতে চাচ্ছে তারা। তবে নতুন যে ‘প্যাকেজ’ কর্মসূচি ঘোষণা হবে, সেটি আন্দোলনের ‘চূড়ান্ত ধাপে’ যাওয়ার প্রস্তুতি হিসেবেই দেখা হচ্ছে। এর মধ্য দিয়ে সারাদেশে শেষ ‘জনসংযোগ’ সেরে নিতে চায় তারা।

বিএনপির দায়িত্বশীল নেতারা জানিয়েছেন, নতুন ‘প্যাকেজ’ কর্মসূচি ‘শান্তিপূর্ণভাবে’ করতে চায় তারা। এসব কর্মসূচিতে ‘বড় জনসমাবেশ’ ঘটিয়ে সরকারকে ‘শান্তিপূর্ণ উপায়ে’ পদত্যাগ করে নির্দলীয় সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করার চূড়ান্ত ‘বার্তা’ দিতে চায়। তবে সরকার ‘শান্তিপূর্ণ’ সমাধানের পথে না গেলে পরবর্তীতে ‘কঠোর’ কর্মসূচিতে যাবে তারা।

বিএনপির সূত্রগুলোর ভাষ্য অনুযায়ী, আগামী অক্টোরের শুরু থেকে ‘একদফা’র আন্দোলন চূড়ান্ত ধাপে নিয়ে যেতে চায়। এক্ষেত্রে ‘প্যাকেজ’ কর্মসূচি শেষেই ‘ঘেরাও’, ‘অবরোধ’ নতুন ধারাবাহিক কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। সেটি ‘অক্টোবর’ মাসজুড়ে চলবে। ওই কর্মসূচি হবে কেবল ঢাকাকেন্দ্রিক। যার মধ্যে দিয়েই আন্দোলনের ‘সফল’ সমাপ্তি চায় প্রায় ১৭ বছর ক্ষমতার বাইরে থাকা বিএনপি।

জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান সংবাদকে বলেন, ‘আমরা একদফা দাবিতে শান্তপূর্ণ কর্মসূচি পালন করে আসছি। জনগণকে নিয়ে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির মধ্যে দিয়েই এই সরকারের পদত্যাগে বাধ্য করবো।’

‘প্যাকেজ’ কর্মসূচিতে যা থাকতে পারে

বিএনপির একাধিক সূত্রে জানা গেছে, দুই সপ্তাহের প্যাকেজ কর্মসূচিতে ঢাকা ও আশপাশ এলাকায় একাধিক ‘বড়’ সমাবেশের পরিকল্পনা রয়েছে। এর মধ্যে ঢাকার কেরানীগঞ্জে সমাবেশের মধ্য দিয়ে এই কর্মসূচির সূচনা হতে পারে। এই সমাবেশ আগামীকাল করার ঘোষণা আসতে পারে। একইভাবে নারায়ণগঞ্জেও একটি সমাবেশের পরিকল্পনা রয়েছে। পাশাপাশি ঢাকায় তিনটি সমাবেশ করার ঘোষণা আসতে পারে। এর মধ্যে ঢাকায় একটি পেশাজীবী সমাবেশ, একটি নারী ও একটি শ্রমিক সমাবেশ করা হবে।

দলটির সূত্র আরও জানায়, সমাবেশের বাইরে ‘প্যাকেজ’ কর্মসূচির মধ্যে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ‘রোডমার্চ’ কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। এরই মধ্যে রংপুর ও রাজশাহীতে রোডমার্চ করেছে যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক ও ছাত্রদল। এবার সিলেট, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম অঞ্চলে চারটি রোডমার্চ কর্মসূচি কারার ঘোষণা আসতে পারে। যদিও রংপুর ও রাজশাহীতে রোডমার্চে মূল দল ও সমমনাদলগুলোর আয়োজন ছিল না। তবে এবার যেসব রোডমার্চ হবে সেগুলোতে যুগপৎভাবে অনুষ্ঠিত হবে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, এবারের প্রথম রোডমার্চ হতে পারে সিলেট অঞ্চলে। একটি কিশোরগঞ্জ ভৈরব বাজার থেকে শুরু করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজার হয়ে সিলেট নগরে গিয়ে শেষ হতে পারে। এরপর খুলনার উদ্দেশে আরেকটি রোডমার্চ হবে, এটি ঝিনাইদহ থেকে শুরু হয়ে যশোর, নওয়াপাড়া হয়ে খুলনা শহরে যাবে। এরপর বরিশাল-পটুয়াখালী ও পিরোজপুর অঞ্চলে রোডমার্চ হবে। সর্বশেষ রোডমার্চ হবে চট্টগ্রামের পথে। এটি কুমিল্লা থেকে শুরু হয়ে ফেনী, মিরসরাই হয়ে চট্টগ্রাম নগরে গিয়ে শেষ হতে পারে।

ছবি

বিএনপি কার্যালয়ে অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় সাতজনের রিমান্ড মঞ্জুর

ছবি

কোটা সংস্কার আন্দোলনের সঙ্গে বিএনপি জড়িত নয় : মির্জা ফখরুল

ছবি

নয়া পল্টনে বিএনপি অফিসে তালা, চারপাশে পুলিশের অবস্থান

আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীরা কারো শেখানো বুলি বলছেন : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

দুই দফা বৈঠক করেও আন্দোলনের দিনক্ষণ নির্ধারণ করতে পারেনি বিএনপির হাইকমান্ড

ছবি

যৌক্তিক দাবি কখনোই উপেক্ষিত হয়নি: ওবায়দুল কাদের

ছবি

জঙ্গীবাদ ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ লড়াই সংগ্রাম চালিয়ে যাবে গণতন্ত্রী পার্টি: ডা. শাহাদাত

ছবি

শেখ হাসিনার বিরুদ্ধে কোন ষড়যন্ত্রই বরদাশত করা হবে নাঃ মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রী

ছবি

শেখ হাসিনা চীন হতে শূন্য হাতে ফিরেছেন : রিজভী

ছবি

কোটাবিরোধী আন্দোলনকারীদের দাবি ও বক্তব্য সংবিধান ও রাষ্ট্র পরিচালনার মূলনীতির বিরোধী: ওবায়দুল কাদের

ছবি

ওবায়দুল কাদেরের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকরা

ছবি

স্বাধীনতাবিরোধীরা এ আন্দোলনের সঙ্গে মিশে গেছে বলে আমি আপনি সবাই বুঝে গেছি : আিইনমন্ত্রী

ছবি

কোটা সংস্কারের নামে বিএনপি জামায়াতের সন্তানেরা মাঠে নেমেছে - মাইনুল হোসেন নিখিল

ছবি

সরকার মেধাবী জাতি গঠনে অনাগ্রহী: আমির খসরু

ছয় বছর আগের মামলায় ছয় যুবদল নেতার কারাদণ্ড

ছবি

জবি : অভিযুক্তদের প্রটোকলেই ক্যাম্পাসে ছাত্রলীগের তদন্ত কমিটি

ছবি

আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সতর্ক থাকতে বললেন ওবায়দুল কাদের

ছবি

জবি ছাত্রলীগের সভাপতি ইব্রাহীমের চাঁদাবাজির মামলা তদন্তে সিআইডি, প্রতিবেদন ২২ জুলাই

ছবি

কোটার সিদ্ধান্ত সরকারের নয়, আদালতের: ওবায়দুল কাদের

ছবি

রাজধানীতে ট্রেনের ধাক্কায় নিহত ১

ছবি

প্রশ্নফাঁস ও টেন্ডার বাণিজ্যের অভিযোগ : জবি শাখার বিরুদ্ধে কাল তদন্তে নামছে কেন্দ্রীয় তদন্ত কমিটি

ছবি

কোটা এবং পেনশনবিরোধী আন্দোলনে বিএনপির সমর্থন আছে: ফখরুল

ছবি

এখন কারো গায়ে চুলকায়, কারো অন্তরে জ্বালা: কাদের

ছবি

দেশের পক্ষে কথা বলার কোনও সরকার এখানে নেই : গণতন্ত্র মঞ্চ

ছবি

প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগ, জবি শাখার তদন্তে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ

ছবি

অচল হয়ে পড়েছে দেশের পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়গুলো

ছবি

কোটা পুনর্বহালের প্রতিবাদে জাবি শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক অবরোধ

ছবি

যারা সহিংসতাকে উস্কে দেবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ: কাদের

ছবি

অবস্থান কর্মসূচির ডাক দিয়ে শাহবাগ ছেড়েছে বিক্ষোভকারীরা

ছবি

"জাহাঙ্গীর আলমকে ছাড়া গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের নতুন কমিটি ঘোষণা"

ছবি

দশ দিন পর চিকিৎসা থেকে বাসায় ফিরলেন খালেদা জিয়া

ছবি

ছাত্রলীগ নেতা আকতারের বিরুদ্ধে প্রশ্নফাঁসের অভিযোগটি তদন্ত করা হবে: জবি উপাচার্য

ছবি

সরকার জনগণের দৃষ্টি অন্যদিকে সরাতে ছাগলকাণ্ড করেছে : ফারুক

শাহরিয়ারকে ‘ষড়যন্ত্রকারী’ বলল রাজশাহী মহানগর আওয়ামী লীগ

ছবি

খালেদা জিয়াকে বিদেশে চিকিৎসার সুযোগ দেয়ার আহবান

ছবি

প্রশ্নফাঁসসহ নানা অপকর্মে জড়িত জবি ছাত্রলীগ নেতা আকতার

tab

রাজনীতি

এবার দুই সপ্তাহের ‘প্যাকেজ’ কর্মসূচি দেবে বিএনপি

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

রোববার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩

সরকার পদত্যাগে ‘একদফা’ আন্দোলনের অংশ হিসেবে এবার দুই সপ্তাহের ‘প্যাকেজ’ কর্মসূচি দিতে যাচ্ছে বিএনপি। নতুন কর্মসূচির মধ্যে ঢাকা ও আশপাশে ‘বড়’ সমাবেশ করার ঘোষণা থাকবে। একই সঙ্গে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে রোডমার্চসহ বিভিন্ন কর্মসূচি ঘোষণা হতে পারে। এসব কর্মসূচি আগামীকাল থেকে শুরু হয়ে আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে বলে বিএনপির একাধিক সূত্রে জানা গেছে। আজ এক সংবাদ সম্মেলনে দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নতুন কমর্সূচি ঘোষণার কথা রয়েছে।

গত ১২ জুলাই ‘একদফা’ আন্দোলনের ঘোষণার পর এখন পর্যন্ত বিএনপিসহ সমমনা জোট ও দলগুলো যুগপৎভাবে ঢাকায় পদযাত্রা, মহাসমাবেশ, ঢাকার প্রবেশমুখে অবস্থান, গণমিছিল ও কালো পতাকা মিছিলের কর্মসূচি পালন করে। সবশেষ ‘একদফা’ দাবিতে চলমান আন্দোলনের অংশ হিসেবে গত দুই দিন রংপুর ও রাজশাহী বিভাগে ‘তারুণ্যের রোডমার্চ’ করেছে বিএনপির তিনটি অঙ্গ-সংগঠন যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক ও ছাত্রদল।

বিএনপির একাধিক সূত্র বলছে, আগামী জাতীয় নির্বাচনের তফসিল নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ঘোষণার পূর্বাভাস রয়েছে নির্বাচন কমিশনের। এ তফসিল ঘোষণার আগেই ‘একদফা’ আন্দোলনের চূড়ান্ত ‘ফল’ পেতে চায় বিএনপি ও সমমনারা। সেই লক্ষ্যে নতুন কর্মসূচি দিতে চাচ্ছে তারা। তবে নতুন যে ‘প্যাকেজ’ কর্মসূচি ঘোষণা হবে, সেটি আন্দোলনের ‘চূড়ান্ত ধাপে’ যাওয়ার প্রস্তুতি হিসেবেই দেখা হচ্ছে। এর মধ্য দিয়ে সারাদেশে শেষ ‘জনসংযোগ’ সেরে নিতে চায় তারা।

বিএনপির দায়িত্বশীল নেতারা জানিয়েছেন, নতুন ‘প্যাকেজ’ কর্মসূচি ‘শান্তিপূর্ণভাবে’ করতে চায় তারা। এসব কর্মসূচিতে ‘বড় জনসমাবেশ’ ঘটিয়ে সরকারকে ‘শান্তিপূর্ণ উপায়ে’ পদত্যাগ করে নির্দলীয় সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর করার চূড়ান্ত ‘বার্তা’ দিতে চায়। তবে সরকার ‘শান্তিপূর্ণ’ সমাধানের পথে না গেলে পরবর্তীতে ‘কঠোর’ কর্মসূচিতে যাবে তারা।

বিএনপির সূত্রগুলোর ভাষ্য অনুযায়ী, আগামী অক্টোরের শুরু থেকে ‘একদফা’র আন্দোলন চূড়ান্ত ধাপে নিয়ে যেতে চায়। এক্ষেত্রে ‘প্যাকেজ’ কর্মসূচি শেষেই ‘ঘেরাও’, ‘অবরোধ’ নতুন ধারাবাহিক কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। সেটি ‘অক্টোবর’ মাসজুড়ে চলবে। ওই কর্মসূচি হবে কেবল ঢাকাকেন্দ্রিক। যার মধ্যে দিয়েই আন্দোলনের ‘সফল’ সমাপ্তি চায় প্রায় ১৭ বছর ক্ষমতার বাইরে থাকা বিএনপি।

জানতে চাইলে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান সংবাদকে বলেন, ‘আমরা একদফা দাবিতে শান্তপূর্ণ কর্মসূচি পালন করে আসছি। জনগণকে নিয়ে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির মধ্যে দিয়েই এই সরকারের পদত্যাগে বাধ্য করবো।’

‘প্যাকেজ’ কর্মসূচিতে যা থাকতে পারে

বিএনপির একাধিক সূত্রে জানা গেছে, দুই সপ্তাহের প্যাকেজ কর্মসূচিতে ঢাকা ও আশপাশ এলাকায় একাধিক ‘বড়’ সমাবেশের পরিকল্পনা রয়েছে। এর মধ্যে ঢাকার কেরানীগঞ্জে সমাবেশের মধ্য দিয়ে এই কর্মসূচির সূচনা হতে পারে। এই সমাবেশ আগামীকাল করার ঘোষণা আসতে পারে। একইভাবে নারায়ণগঞ্জেও একটি সমাবেশের পরিকল্পনা রয়েছে। পাশাপাশি ঢাকায় তিনটি সমাবেশ করার ঘোষণা আসতে পারে। এর মধ্যে ঢাকায় একটি পেশাজীবী সমাবেশ, একটি নারী ও একটি শ্রমিক সমাবেশ করা হবে।

দলটির সূত্র আরও জানায়, সমাবেশের বাইরে ‘প্যাকেজ’ কর্মসূচির মধ্যে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ‘রোডমার্চ’ কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। এরই মধ্যে রংপুর ও রাজশাহীতে রোডমার্চ করেছে যুবদল, স্বেচ্ছাসেবক ও ছাত্রদল। এবার সিলেট, খুলনা, বরিশাল ও চট্টগ্রাম অঞ্চলে চারটি রোডমার্চ কর্মসূচি কারার ঘোষণা আসতে পারে। যদিও রংপুর ও রাজশাহীতে রোডমার্চে মূল দল ও সমমনাদলগুলোর আয়োজন ছিল না। তবে এবার যেসব রোডমার্চ হবে সেগুলোতে যুগপৎভাবে অনুষ্ঠিত হবে।

একাধিক সূত্রে জানা গেছে, এবারের প্রথম রোডমার্চ হতে পারে সিলেট অঞ্চলে। একটি কিশোরগঞ্জ ভৈরব বাজার থেকে শুরু করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া, হবিগঞ্জ ও মৌলভীবাজার হয়ে সিলেট নগরে গিয়ে শেষ হতে পারে। এরপর খুলনার উদ্দেশে আরেকটি রোডমার্চ হবে, এটি ঝিনাইদহ থেকে শুরু হয়ে যশোর, নওয়াপাড়া হয়ে খুলনা শহরে যাবে। এরপর বরিশাল-পটুয়াখালী ও পিরোজপুর অঞ্চলে রোডমার্চ হবে। সর্বশেষ রোডমার্চ হবে চট্টগ্রামের পথে। এটি কুমিল্লা থেকে শুরু হয়ে ফেনী, মিরসরাই হয়ে চট্টগ্রাম নগরে গিয়ে শেষ হতে পারে।

back to top