alt

রাজনীতি

বিভক্ত বিএনপি : দলের সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে আইনজীবী সমিতির সভাপতির দায়িত্ব নিচ্ছেন মাহবুব উদ্দীন খোকন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : শুক্রবার, ০৫ এপ্রিল ২০২৪

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচন নিয়ে বিভক্ত বিএনপির আইনজীবীরা। দলের নির্দেশনা অমান্য করে আইনজীবী সমিতির সভাপতির দায়িত্ব নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন।

গতকাল বিকেলে এক মত বিনিময় সভায় তিনি এ কথা জানান। সুপ্রিম কোর্ট বারের নির্বাচিত চার জনকে দায়িত্ব গ্রহণ থেকে বিরত থাকতে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম নিষেধ করলেও দলীয় ফোরামের নিষেধ উপেক্ষা করে বারের সভাপতির দায়িত্ব নিচ্ছেন ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন। এর আগে দুপুরে দায়িত্ব গ্রহণ নাকি বর্জন করবেন এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্ট বারের জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য সমর্থিত ও সমমনা আইনজীবীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন নবনির্বাচিত সভাপতি ব্যারিস্টার খোকন।

জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের এক নেতা জানিয়েছেন, ‘দলের সিদ্ধান্ত লঙ্ঘন করায় আলোচনা করে আগামী সপ্তাহে খোকনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

গত বুধবার আইনজীবী ফোরাম এক চিঠি দিয়ে দায়িত্ব গ্রহণ থেকে ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকনকে বিরত থাকতে বলেন। ফোরামের সভাপতি এ জে মোহাম্মদ আলী ও মহাসচিব ব্যারিস্টার কায়সার কামাল এ চিঠি দেন। চিঠিতে বলা হয়, ‘বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সিনিয়র কেন্দ্রীয় নেতা, উপদেষ্টাম-লী ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও সম্পাদকদের এক যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বিগত ৬ ও ৭ মার্চ অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি নির্বাচনের পর গত ১০ মার্চ ঘোষিত ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে পুননির্বাচনের দাবিতে ন্যায়সঙ্গত যৌক্তিক আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে, আপনাকে বা আপনাদের এই মর্মে জানানো যাচ্ছে যে, আপনি বা আপনারা বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ২০২৪-২৫ এর মেয়াদকালের দায়িত্ব গ্রহণ থেকে বিরত থাকবেন। আপনি বা আপনারা দলের দায়িত্বশীল নেতা হিসেবে দলীয় এই সিদ্ধান্ত যথাযথভাবে পালন করবেন।

ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন দলীয় ফোরামের ওই চিঠি সম্পর্কে বলেন, ‘সংগঠনের দেয়া চিঠিতে সুপ্রিম কোর্ট বারে পুনঃনির্বাচনের দাবির সঙ্গে আমি এক মত। আমি কিন্তু ওই দিনই ভোট পুনর্গণনার দাবি করেছি। সেই আবেদন তখন কমিশন গ্রহণ করেনি। পুরো প্যানেলে আমরা কমপক্ষে ১২ জন এগিয়ে ছিলাম।’

তিনি বলেন, ‘পুননির্বাচনের দাবিতে আমরা এখনও অটল। আমার সভাপতি পদেও আমি পুনর্নিবাচন চাই। এটি হলে আমি খুশি হব। আইনজীবীরাও খুশি হবেন। আর পুনর্নিবাচন যদি না হয়, সভাপতি পদসহ চারটি পদে আমরা বিজয় হয়েছি। এখনতো আর পদত্যাগের সুযোগ নেই।’ তিনি জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের একজন শীর্ষ নেতার ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বলেন, ‘তার ভূমিকা রহস্যজনক। আওয়ামী লীগকে পুরো প্যানেল দিতে ওই নেতা ভোট গণনার সময় বিরত থাকতে অনুরোধ করেছিলেন। ভোট যাই হোক গণনা সুষ্ঠু হলে কম করে হলেও আমরা ১৩টি পদে জয়ী হতে পারতাম।’

এ সময় খোকন জানান, ‘নির্বাচন নিয়ে সরকারি দলের সঙ্গে ম্যাচ ফিক্সিং করেছিল দলের তিন আইনজীবী নেতা।’ ভোটের বাক্স সরানো, মারামারি নেপথ্যে যুবলীগ চেয়ারম্যান নাহিদ সুলতানা যুথীর সঙ্গে নিজ দলের সম্পাদক প্রার্থী ব্যারিস্টার কাজলও জড়িত থাকার ইঙ্গিত দেন খোকন।

ফোরামের চিঠি প্রসঙ্গে ব্যারিস্টার খোকন আরও বলেন, ‘কে কী বলল, সেটা দেখার বিষয় নয়। আমার পরাজয়ের কোনো ইতিহাস নেই। সে সময় তারা ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তা না হলে সংখ্যাগরিষ্ঠ হিসেবে জয়ী হতে পারতাম।’ দায়িত্ব না নেয়া সংক্রান্ত সংগঠনের সিদ্ধান্তের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি নির্বাচিত। দায়িত্ব নেয়া বা না নেয়ার কী আছে?’

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ২০২৪-২৫ সালের নির্বাচনে সভাপতি পদে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনসহ ৪টি পদে বিএনপি সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। অন্যদিকে সম্পাদক পদে শাহ মঞ্জুরুল হকসহ ১০টি পদে আওয়ামী লীগের প্যানেলের প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন।

ছবি

বৈশ্বিক উষ্ণতা রোধ ও পরিবেশের সুরক্ষা তরুণদের নৈতিক দায়িত্ব: বিএসপি চেয়ারম্যান

ছবি

সাবেক আইজিপি বা সেনাপ্রধান দোষী হলে সরকার বাঁচাতে যাবে না: কাদের

ছবি

আজীম কী ছিল বড় কথা নয়, জনপ্রিয়তা দেখে মনোনয়ন দেয়া হয়েছে : কাদের

বিএনপির বহিষ্কারের পাল্লা ভারি হচ্ছে

ছবি

মেয়াদোত্তীর্ণ জবি ছাত্রলীগের কমিটি, পূর্নাঙ্গ নিয়ে অনিশ্চয়তা

ছবি

আনোয়ারুল আজীম অপকর্মে জড়িত কি না তদন্তে বেরিয়ে আসবে: কাদের

সাবেক সেনাপ্রধান আজিজ আহমেদের ওপর নিষেধাজ্ঞা জাতির জন্য লজ্জাকর: মির্জা ফখরুল

ছবি

সোনারগাঁয়ে নতুন চেয়ারম্যান কালাম

ছবি

বন্ধুরাষ্ট্রের কাছে ‘কথিত’ এমপিরাও নিরাপদ নয়: ফখরুল

ভোটার উপস্থিতি কম হওয়ার জন্য রাজনীতিকে দুষলেন সিইসি

ছবি

দ্বিতীয় ধাপেও ভোটের খরা

ছবি

ব্রাহ্মণবাড়িয়া ব্যালট বক্স ছিনতাইয়ের পর পুকুরে ফেলল যুবক

ছবি

দ্বিতীয় ধাপে উপজেলা চেয়ারম্যান হলেন যারা

ছবি

উপজেলায় নির্বাচনে হারলেন সাবেক এমপি জাফর

ছবি

পেকুয়ায় চেয়ারম্যান পদে ‘বিএনপির’ রাজু বিজয়ী

ছবি

নোয়াখালীতে ৬ নির্বাচন কর্মকর্তা গ্রেপ্তার, যুবকের জরিমানা

ভোলায় ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে কেন্দ্র দখলের চেষ্টা,পুলিশের দুই রউন্ড গুলিবর্ষণ

মিঠাপুকুরে জাল ভোট দেবার সময় এরমপির ভাই সহ ৩ জন আটক

ছবি

হবিগঞ্জে জাল ভোট দেওয়ায় একজনের কারাদণ্ড, আটক ২

ছবি

অনিয়মের অভিযোগ তুলে দোয়াত কলম প্রার্থীর ভোট বর্জন

ছবি

আওয়ামী লীগ নেতাকে ৬ মাসের কারাদ, এক কেদ্রের প্রিজাইডিং অফিসার প্রত্যাহার

ছবি

আড়াইহাজার উপজেলা নির্বাচন: জাল ও প্রকাশ্যে ভোট, গোপন কক্ষে এজেন্ট

ছবি

প্রার্থিতা বর্জনের ঘোষণা দিলেন সালথা উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী অহিদুজ্জামান

সখীপুরে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে প্রার্থীদের মাঝে প্রতীক বরাদ্দ

সোনারগাঁয়ে হুমকি ধামকি আর বিষোদগারে শেষ হয়েছে নির্বাচনী প্রচারণা,কেন্দ্র দখলের শঙ্কা

রূপগঞ্জ উপজেলা: প্রার্থীর সমর্থকদের উপর হামলা ও আচরণবিধি লঙ্ঘনের ৩ অভিযোগ

ছবি

ভোটের হারেই চোখ

মৌলভীবাজার সদর উপজেলা পরিষদেরনির্বাচন স্থগিত

সোনারগাঁয়ে চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভোট কিনছেন আওয়ামী লীগ নেতা,টাকাসহ যুবক আটক

হাজীগঞ্জ উপজেলা সেক্রেটারীসহ বিএনপির ২ নেতা আটক

ছবি

বিএনপি নেতারা মানসিক ট্রমায় ভুগছেন : ওবায়দুল কাদের

ছবি

শরীয়তপুরের জীবন্ত ঘোড়া নিয়ে মিছিল, চেয়ারম্যান প্রার্থীকে কারন দর্শানো নোটিশ

ছবি

আমরা একটা শূন্য গহ্বরের ভেতর বাস করছি: রিজভী

ছবি

আওয়ামী লীগ এখন পরগাছা হয়ে গেছে : জিএম কাদের

ছবি

পাবনায় ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে অভিযোগ

ছবি

ঝিনাইদহ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী আওয়ামী লীগের নায়েব

tab

রাজনীতি

বিভক্ত বিএনপি : দলের সিদ্ধান্ত উপেক্ষা করে আইনজীবী সমিতির সভাপতির দায়িত্ব নিচ্ছেন মাহবুব উদ্দীন খোকন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

শুক্রবার, ০৫ এপ্রিল ২০২৪

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির নির্বাচন নিয়ে বিভক্ত বিএনপির আইনজীবীরা। দলের নির্দেশনা অমান্য করে আইনজীবী সমিতির সভাপতির দায়িত্ব নেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ব্যারিস্টার এ এম মাহবুব উদ্দিন খোকন।

গতকাল বিকেলে এক মত বিনিময় সভায় তিনি এ কথা জানান। সুপ্রিম কোর্ট বারের নির্বাচিত চার জনকে দায়িত্ব গ্রহণ থেকে বিরত থাকতে জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরাম নিষেধ করলেও দলীয় ফোরামের নিষেধ উপেক্ষা করে বারের সভাপতির দায়িত্ব নিচ্ছেন ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন। এর আগে দুপুরে দায়িত্ব গ্রহণ নাকি বর্জন করবেন এ বিষয়ে সুপ্রিম কোর্ট বারের জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ঐক্য সমর্থিত ও সমমনা আইনজীবীদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন নবনির্বাচিত সভাপতি ব্যারিস্টার খোকন।

জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের এক নেতা জানিয়েছেন, ‘দলের সিদ্ধান্ত লঙ্ঘন করায় আলোচনা করে আগামী সপ্তাহে খোকনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

গত বুধবার আইনজীবী ফোরাম এক চিঠি দিয়ে দায়িত্ব গ্রহণ থেকে ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকনকে বিরত থাকতে বলেন। ফোরামের সভাপতি এ জে মোহাম্মদ আলী ও মহাসচিব ব্যারিস্টার কায়সার কামাল এ চিঠি দেন। চিঠিতে বলা হয়, ‘বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের সিনিয়র কেন্দ্রীয় নেতা, উপদেষ্টাম-লী ও সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সাবেক সভাপতি ও সম্পাদকদের এক যৌথসভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বিগত ৬ ও ৭ মার্চ অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতি নির্বাচনের পর গত ১০ মার্চ ঘোষিত ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে পুননির্বাচনের দাবিতে ন্যায়সঙ্গত যৌক্তিক আন্দোলন চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে, আপনাকে বা আপনাদের এই মর্মে জানানো যাচ্ছে যে, আপনি বা আপনারা বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ২০২৪-২৫ এর মেয়াদকালের দায়িত্ব গ্রহণ থেকে বিরত থাকবেন। আপনি বা আপনারা দলের দায়িত্বশীল নেতা হিসেবে দলীয় এই সিদ্ধান্ত যথাযথভাবে পালন করবেন।

ব্যারিস্টার মাহবুবউদ্দিন খোকন দলীয় ফোরামের ওই চিঠি সম্পর্কে বলেন, ‘সংগঠনের দেয়া চিঠিতে সুপ্রিম কোর্ট বারে পুনঃনির্বাচনের দাবির সঙ্গে আমি এক মত। আমি কিন্তু ওই দিনই ভোট পুনর্গণনার দাবি করেছি। সেই আবেদন তখন কমিশন গ্রহণ করেনি। পুরো প্যানেলে আমরা কমপক্ষে ১২ জন এগিয়ে ছিলাম।’

তিনি বলেন, ‘পুননির্বাচনের দাবিতে আমরা এখনও অটল। আমার সভাপতি পদেও আমি পুনর্নিবাচন চাই। এটি হলে আমি খুশি হব। আইনজীবীরাও খুশি হবেন। আর পুনর্নিবাচন যদি না হয়, সভাপতি পদসহ চারটি পদে আমরা বিজয় হয়েছি। এখনতো আর পদত্যাগের সুযোগ নেই।’ তিনি জাতীয়তাবাদী আইনজীবী ফোরামের একজন শীর্ষ নেতার ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বলেন, ‘তার ভূমিকা রহস্যজনক। আওয়ামী লীগকে পুরো প্যানেল দিতে ওই নেতা ভোট গণনার সময় বিরত থাকতে অনুরোধ করেছিলেন। ভোট যাই হোক গণনা সুষ্ঠু হলে কম করে হলেও আমরা ১৩টি পদে জয়ী হতে পারতাম।’

এ সময় খোকন জানান, ‘নির্বাচন নিয়ে সরকারি দলের সঙ্গে ম্যাচ ফিক্সিং করেছিল দলের তিন আইনজীবী নেতা।’ ভোটের বাক্স সরানো, মারামারি নেপথ্যে যুবলীগ চেয়ারম্যান নাহিদ সুলতানা যুথীর সঙ্গে নিজ দলের সম্পাদক প্রার্থী ব্যারিস্টার কাজলও জড়িত থাকার ইঙ্গিত দেন খোকন।

ফোরামের চিঠি প্রসঙ্গে ব্যারিস্টার খোকন আরও বলেন, ‘কে কী বলল, সেটা দেখার বিষয় নয়। আমার পরাজয়ের কোনো ইতিহাস নেই। সে সময় তারা ভুল সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। তা না হলে সংখ্যাগরিষ্ঠ হিসেবে জয়ী হতে পারতাম।’ দায়িত্ব না নেয়া সংক্রান্ত সংগঠনের সিদ্ধান্তের বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ‘আমি নির্বাচিত। দায়িত্ব নেয়া বা না নেয়ার কী আছে?’

সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির ২০২৪-২৫ সালের নির্বাচনে সভাপতি পদে ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকনসহ ৪টি পদে বিএনপি সমর্থিত প্যানেলের প্রার্থীরা বিজয়ী হয়েছেন। অন্যদিকে সম্পাদক পদে শাহ মঞ্জুরুল হকসহ ১০টি পদে আওয়ামী লীগের প্যানেলের প্রার্থীরা জয়ী হয়েছেন।

back to top