alt

রাজনীতি

শ্রীলঙ্কার জাতীয় বীর, আজ জাতীয় ভিলেন : জাফরুল্লাহ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শুক্রবার, ১৩ মে ২০২২

পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী ভোজ্যতেলসহ দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদ। শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে হুইল চেয়ারে চেপে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

শুক্রবার (১৩ মে) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত সমাবেশে গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা বলেন, ‘পৃথিবীর কোনো বিশেষজ্ঞ ধারণা করতে পারেননি শ্রীলঙ্কার জনগণ যে তুষের আগুনে জ্বলছিল, তা বিস্ফোরণে পরিণত হবে। শ্রীলঙ্কার জাতীয় বীর, আজ জাতীয় ভিলেনে পরিণত হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ভোজ্যতেলের দাম বেড়েছে ৩৮ টাকা। তারা মনে করছে, দুই টাকা তো কমই রাখা হয়েছে। ২০০ টাকা তো আর করা হয়নি। এই জাতীয় উপহাস দেশবাসী আর কত দেখবে? আমাদের ঈশান কোণে মেঘ জমেছে, আপনারা রক্ষা পাবেন না। এখনও সময় আছে। খোদার কাছে যেভাবে মাফ চান, জনগণের কাছেও তেমনি মাফ চান।’

খাদ্য দ্রব্যের দাম নিয়ন্ত্রণ করা খুব কঠিন কাজ নয় উল্লেখ করে জাফরুল্লাহ বলেন, ‘বুদ্ধিজীবীরা আছেন, ভালো-ভালো কথা বলছেন। অনেক পরামর্শদাতা আছে, যারা সৎ পরামর্শ দিচ্ছেন। তাদের পরামর্শ শোনা হয় কিনা জানিনা। সৎ জনরা বলছেন, মেগা প্রজেক্টের মায়া ছাড়েন, জনগণের কথা বলেন।’

শ্রীলঙ্কার উদাহরণ টেনে তিনি আরও বলেন, ‘একটি সুন্দর-শিক্ষিত-শান্তির দেশে হঠাৎ জনগণ ফুঁসে উঠবে, এটি কেউ ভাবতে পারেনি। তাই যতই ঠাট্টা করেন না কেন, দেশে জনগণের এই তুষের আগুন কখন অগ্নি স্ফুলিঙ্গে পরিণত হবে তা টেরও পাবেন না। তখন কী করে দৌড়ে পালাবেন, কোথায় যাবেন? তখন ভারতও আপনাদের ঢুকতে দিবে না। সুতরাং আপনাদের জনগণের কাছে আসতে হবে, জনগণের কথা ভাবতে হবে।’

নিরপেক্ষ নির্বাচনে জোর দিয়ে জাফরুল্লাহ বলেন, ‘আমি আগেও বলেছি একটি নির্দলীয় নিরপেক্ষ সর্বজনীন সরকারের অধীনে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন এবং সুশাসন নিশ্চিত করতে হবে। আজ আমাদের সবার উদ্যোগ হতে হবে দেশের কল্যাণে, দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায়, দেশকে কল্যাণকর একটি রাষ্ট্রে পরিণত করার।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি জনগণের কথা ভাবুন। আমাদের সবাইকে নিয়ে বসুন, এক কাপ চা খাওয়ান। আমরা আপনাকে সৎ বুদ্ধি দেবো। সর্বদলীয় সরকারের নিয়ে চলুন আলোচনা করি। এমনও মানুষ আছে যারা দলকানা নয়, যারা দেশের জন্য সৎ পরামর্শ দেবে।’

তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘পরিশেষে একটি কথা বলতে চাই, আমি গরিবের হাসপাতাল চালাই। যেখানে সবচেয়ে কম খরচে গরিবরা চিকিৎসা পায়। সেই হাসপাতালে ৮০ লাখ টাকা ট্যাক্স ধরা হয়েছে। এর কারণ হলো হাসপাতালের জন্য বেড, ম্যাট্রেস আমরা আমদানি করেছি। নামিদামি কোনো হাসপাতাল যদি এগুলো আমদানি করত, তাহলে ট্যাক্সই দিতে হতো না। অথচ যেহেতু আমার গরিবের হাসপাতাল তারা ৮০ লাখ টাকা ট্যাক্স ধরেছে। এই টাকা কোথা থেকে আসবে এ বিষয়ে জানতে চেয়ে চিঠি দিয়েছিলাম। কিন্তু কোনো উত্তর আসেনি।

একটা ধাক্কা দেয়া বাকি আছে : ড. মোশাররফ

ক্ষমতার পরিবর্তন ২০২৩ সালের আগেই : নূর

ছবি

প্রেসক্লাবের সামনে যুবদলের বিক্ষোভ সমাবেশ

ছবি

প্রতীক নিয়ে প্রচারণায় সরগরম নগরী

ছবি

সম্মেলন ঠেকাতেই কী ছাত্রদল দমন ইস্যু তৈরী জয়-লেখকের?

ছবি

যুবদলের নতুন সভাপতি টুকু, মোনায়েম মুন্না সা. সম্পাদক

চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিএনপির ৬০ নেতার পদত্যাগ

ছবি

বিএনপি ঢাবিতে লাশ ফেলার ষড়যন্ত্র করছে : কাদের

ছবি

হোসেনপুর আওয়ামী লীগ সম্মেলনে সভাপতি নূরু সম্পাদক হলেন হালিম

ছবি

‘জনগণ বিএনপির উপর পরিপূর্ণ নির্ভরশীল নয়’

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে প্রার্থিতা প্রত্যাহারের ঘোষণা ইমরানের

নয়াপল্টনে হঠাৎ বিএনপির মশাল মিছিল, ১০ নেতা–কর্মী আটক

ছবি

বাম জোট ভাঙ্গলো: জোটে থাকছেনা বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টি ও গণসংহতি আন্দোলন

ছবি

আগামী ১ অক্টোবর চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগের সম্মেলন: হানিফ

বিএনপির যড়যন্ত্র রুখতে পাড়ায় পাড়ায় পাহারা বসান :কৃষিমন্ত্রী

ছবি

কুমিল্লায় ফিরে ‘বিদ্রোহী’ ইমরান বললেন ‘ভিন্ন কথা’

ছবি

পদ্মা সেতু হওয়ায় বিএনপি বুকে বড় জ্বালা: কাদের

ছবি

কুমিল্লার ‘বিদ্রোহী’ ইমরান ‘বসে যাবেন’, বলছে আ.লীগ

ছবি

‘মানুষের মুখে হাসি দেখলে বিএনপি নেতাদের মুখে কালো মেঘের ছায়া পড়ে’

ছবি

কুমিল্লা সিটি নির্বাচন: নৌকার বিদ্রোহীকে ডেকেছে আ.লীগ

ছবি

বিমানবন্দরে মির্জা আব্বাসকে হেনস্তার অভিযোগ

ছবি

প্রেস ক্লাবের সামনে বিএনপির বিক্ষোভ কর্মসূচি পালন

ছবি

সখীপুর জাতীয় পার্টির উপজেলা ও পৌর আহবায়ক কমিটি

ছাত্রদল সভাপতিসহ ২০ জনের বিরুদ্ধে মামলা : গ্রেপ্তার ২

খালেদাকে ‘টুস’ করে ফেলে দিতে চাওয়ায় ছাত্রদলের প্রতিবাদ

নৌকার বিরুদ্ধে নির্বাচন , হবিগঞ্জে আওয়ামী লীগের ৪ নেতা অব্যাহতি

ছবি

কুমিল্লায় বিএনপির নেতা-কর্মীদের নিবার্চনী প্রচারণায় অংশ না নিতে নির্দেশ

ছবি

সরকার বিএনপিকে এবার টোপে ফেলতে পারবে না: মোশাররফ

আগামী নির্বাচনে আ’লী এককভাবে ক্ষমতায় যাওয়ার চেষ্টা করছে : ফখরুল

ছবি

শেখ হাসিনার বক্তব্য নিয়ে বিএনপি বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে: কাদের

মেয়র পদে ৬, কাউন্সিলরে ১৪৮ প্রার্থী বৈধ

ছবি

বিএনপি থেকে সাক্কুকে আজীবন বহিষ্কার

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য নিয়ে যা বললেন মির্জা ফখরুল

ছবি

ফখরুলের প্রশ্ন : পদ্মা সেতু কি ওনাদের পৈতৃক সম্পত্তি দিয়ে বানানো হয়েছে

জামায়াত-শিবিরের ৪৯ নেতাকর্মী আটক

জাজিরার ৬ ইউনিয়নে চেয়ারম্যান পদে অর্ধশত, অন্য পদে ৩৬৮ জন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

tab

রাজনীতি

শ্রীলঙ্কার জাতীয় বীর, আজ জাতীয় ভিলেন : জাফরুল্লাহ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

শুক্রবার, ১৩ মে ২০২২

পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি অনুযায়ী ভোজ্যতেলসহ দ্রব্যমূল্যের লাগামহীন ঊর্ধ্বগতির প্রতিবাদে সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ যুব অধিকার পরিষদ। শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে হুইল চেয়ারে চেপে সমাবেশে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত হন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

শুক্রবার (১৩ মে) জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত সমাবেশে গণস্বাস্থ্যের প্রতিষ্ঠাতা বলেন, ‘পৃথিবীর কোনো বিশেষজ্ঞ ধারণা করতে পারেননি শ্রীলঙ্কার জনগণ যে তুষের আগুনে জ্বলছিল, তা বিস্ফোরণে পরিণত হবে। শ্রীলঙ্কার জাতীয় বীর, আজ জাতীয় ভিলেনে পরিণত হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ভোজ্যতেলের দাম বেড়েছে ৩৮ টাকা। তারা মনে করছে, দুই টাকা তো কমই রাখা হয়েছে। ২০০ টাকা তো আর করা হয়নি। এই জাতীয় উপহাস দেশবাসী আর কত দেখবে? আমাদের ঈশান কোণে মেঘ জমেছে, আপনারা রক্ষা পাবেন না। এখনও সময় আছে। খোদার কাছে যেভাবে মাফ চান, জনগণের কাছেও তেমনি মাফ চান।’

খাদ্য দ্রব্যের দাম নিয়ন্ত্রণ করা খুব কঠিন কাজ নয় উল্লেখ করে জাফরুল্লাহ বলেন, ‘বুদ্ধিজীবীরা আছেন, ভালো-ভালো কথা বলছেন। অনেক পরামর্শদাতা আছে, যারা সৎ পরামর্শ দিচ্ছেন। তাদের পরামর্শ শোনা হয় কিনা জানিনা। সৎ জনরা বলছেন, মেগা প্রজেক্টের মায়া ছাড়েন, জনগণের কথা বলেন।’

শ্রীলঙ্কার উদাহরণ টেনে তিনি আরও বলেন, ‘একটি সুন্দর-শিক্ষিত-শান্তির দেশে হঠাৎ জনগণ ফুঁসে উঠবে, এটি কেউ ভাবতে পারেনি। তাই যতই ঠাট্টা করেন না কেন, দেশে জনগণের এই তুষের আগুন কখন অগ্নি স্ফুলিঙ্গে পরিণত হবে তা টেরও পাবেন না। তখন কী করে দৌড়ে পালাবেন, কোথায় যাবেন? তখন ভারতও আপনাদের ঢুকতে দিবে না। সুতরাং আপনাদের জনগণের কাছে আসতে হবে, জনগণের কথা ভাবতে হবে।’

নিরপেক্ষ নির্বাচনে জোর দিয়ে জাফরুল্লাহ বলেন, ‘আমি আগেও বলেছি একটি নির্দলীয় নিরপেক্ষ সর্বজনীন সরকারের অধীনে অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন এবং সুশাসন নিশ্চিত করতে হবে। আজ আমাদের সবার উদ্যোগ হতে হবে দেশের কল্যাণে, দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষায়, দেশকে কল্যাণকর একটি রাষ্ট্রে পরিণত করার।’

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী আপনি জনগণের কথা ভাবুন। আমাদের সবাইকে নিয়ে বসুন, এক কাপ চা খাওয়ান। আমরা আপনাকে সৎ বুদ্ধি দেবো। সর্বদলীয় সরকারের নিয়ে চলুন আলোচনা করি। এমনও মানুষ আছে যারা দলকানা নয়, যারা দেশের জন্য সৎ পরামর্শ দেবে।’

তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘পরিশেষে একটি কথা বলতে চাই, আমি গরিবের হাসপাতাল চালাই। যেখানে সবচেয়ে কম খরচে গরিবরা চিকিৎসা পায়। সেই হাসপাতালে ৮০ লাখ টাকা ট্যাক্স ধরা হয়েছে। এর কারণ হলো হাসপাতালের জন্য বেড, ম্যাট্রেস আমরা আমদানি করেছি। নামিদামি কোনো হাসপাতাল যদি এগুলো আমদানি করত, তাহলে ট্যাক্সই দিতে হতো না। অথচ যেহেতু আমার গরিবের হাসপাতাল তারা ৮০ লাখ টাকা ট্যাক্স ধরেছে। এই টাকা কোথা থেকে আসবে এ বিষয়ে জানতে চেয়ে চিঠি দিয়েছিলাম। কিন্তু কোনো উত্তর আসেনি।

back to top