alt

রাজনীতি

সরকারের ব্যর্থতায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে : রিজভী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : রোববার, ১৯ জুন ২০২২

সরকারের চরম ব্যর্থতা, লুটপাট, উদাসীনতা, অদূরদর্শিতা আর খামখেয়ালিপনার কারণে দেশের বন্যা পরিস্থিতির ভয়াবহ অবনতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেছেন, সিলেট, সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ, নেত্রকোনা, কুড়িগ্রাম- এসব জেলার বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। সিলেট প্রায় পুরোটাই পানিতে তলিয়ে গেছে। বানের পানিতে ভাসছে সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ জেলার ৯০ ভাগের বেশি অঞ্চল।

রোববার (১৯ জুন) দুপুরে নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন।

বিএনপি নেতা দাবি করেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান গতকাল স্বীকার করেছেন- ‘দেশের উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলে ১০ জেলার ৬৪টি উপজেলা বন্যাকবলিত। ১২২ বছরের ইতিহাসে সিলেট ও সুনামগঞ্জে এমন ভয়ংকর বন্যা হয়নি’। মৌলভীবাজার, কিশোরগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অনেক এলাকা পানিতে একাকার। উপায় না দেখে মা তার সন্তানদের পাতিলে ভাসিয়ে দিচ্ছেন এমন সংবাদও গণমাধ্যমে দেখতে পাচ্ছি। সবকিছু হারিয়ে মানুষ এখন সর্বস্বান্ত। ত্রাণের জন্য গোটা বন্যাদুর্গত এলাকা হাহাকার করছে।

মেঘালয়-আসাম থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে জনপদ আজ বিধ্বস্ত ও বিপর্যস্ত উল্লেখ করে তিনি বলেন, সেই সঙ্গে টানা বৃষ্টিপাত। এই বন্যার আরও কারণ আছে। হাওর ও নদীগুলো বাঁধ এবং সেতু দেওয়া হয়েছে অপরিকল্পিতভাবে। সেখানে এত দুর্নীতি হয়েছে, সব বাঁধ ভেঙে যাচ্ছে। নতুন করে যেসব রাস্তা তৈরি করা হয়েছে- সেগুলোও ভেঙে যাচ্ছে।

রিজভী দাবি করেন, ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধনের নামে শত শত কোটি টাকা খরচ করে সারাদেশে উৎসবের আয়োজন নিয়ে শেখ হাসিনা এবং তার মন্ত্রী-এমপিরা ঝাঁপিয়ে পড়েছেন। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সব জেলা প্রশাসককে লিখিত নির্দেশ দিয়েছে, টানা পাঁচ দিন সারাদেশে আনন্দ উৎসব করতে হবে। পদ্মা সেতুর মূল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সারাদেশে একযোগে বড় পর্দায় দেখাতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ৩০০ লঞ্চ রিকুইজিশন করা হয়েছে। জনসভাস্থলে ৫০০ টয়লেট স্থাপন করা হয়েছে। মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তে ৪০ ফুট উচ্চতার দুটি ম্যুরাল নির্মাণ করা হচ্ছে। যারা উৎসবে অংশ নিতে অনীহা দেখাবে, তাদের চিহ্নিত করতে বলা হয়েছে। দুই প্রান্তে থানা করা হচ্ছে। শেখ হাসিনার নিরাপত্তার জন্য হাজার হাজার আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে।

পদ্মা সেতু উদ্বোধন উৎসবের নামে শত শত কোটি টাকা উড়ানো হচ্ছে উল্লেখ করে রিজভী বলেন, অথচ বন্যাকবলিত এলাকায় কোটি পানিবন্দি মানুষ সাহায্যের জন্য তাকিয়ে আছে। সেখানে সরকারি বরাদ্দ একেবারেই অপ্রতুল।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, সিলেটে ২০০ টন চাল, নগদ ৩০ লাখ টাকা, ৮ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার পাঠানো হয়েছে। ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী বলেছেন বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ৪০ লাখ মানুষ। বরাদ্দ ৬০ লাখ টাকার কথা বলা হলেও মূলত, ৩০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। তার মানে জনপ্রতি দেড় টাকা। পদ্মা সেতু উদ্বোধনের জনসভাস্থলে অস্থায়ী ৫০০ টয়লেট স্থাপন করতে যে খরচ হবে তার দশ ভাগের এক ভাগও বরাদ্দ পায়নি বন্যার্তরা।

রিজভী বলেন, আমাদের দাবী পদ্মা সেতু নিয়ে উৎসব বন্ধ করুন। বন্যাকবলিত অঞ্চলগুলোকে দুর্গত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করা হোক। কোনো বিলম্ব ছাড়া এই অঞ্চলগুলোর জনগণের জন্য ত্রাণের ব্যবস্থা করা হোক।

ছবি

ভালো আছেন খালেদা জিয়া ও মির্জা ফখরুল

ছবি

বিকালে বসছে আ’লীগের স্থানীয় সরকার মনোনয়ন বোর্ড

ছবি

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে ফিরলেন আবুল হোসেন

ছবি

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে এসে নিজেকে ‘সৌভাগ্যবান’ মনে করছেন জাফরুল্লাহ

ছবি

হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছেন খালেদা জিয়া

ছবি

বিএনপি দুর্গতদের নিয়ে রাজনীতি করে, পাশে দাঁড়ায় না

ছবি

সন্ধ্যায় বাসায় ফিরবেন খালেদা জিয়া

রাজশাহীতে আওয়ামী লীগের এক নেতার বিরুদ্ধে দলের আরেক নেতাকে মারধরের অভিযোগ

ছবি

বাঙালি জাতির সব অর্জন আওয়ামী লীগের হাত ধরে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

আওয়ামী লীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী: বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

ছবি

পদ্মা সেতুর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে যাবে না বিএনপি

ছবি

অভিযোগ পাওয়ায় চাঁদপুরে ছাত্রলীগের সদ্য ঘোষিত তিন কমিটি স্থগিত

ছবি

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনে আমন্ত্রণ পেলেন বিএনপির ৭ নেতা

ছবি

সরকারের তামাকমুক্ত দেশ গড়ার রোডম্যাপ নেই : হারুন

ছবি

মির্জা ফখরুলসহ ৫১ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন ২৮ আগস্ট

বাহার প্রসঙ্গ : সিইসির ‘ভিন্ন সুর’

ছবি

যেখানে আর্তমানবতা সেখানেই আওয়ামীলীগ-মতিয়া চৌধুরী

ছবি

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ: বৃক্ষরোপণ কর্মসূচিতে যুবলীগ

ছবি

চলতি মাসেই দেশে ফিরতে পারেন রওশন এরশাদ

ছবি

নির্বাচন কমিশনের ব্যাখ্যা প্রত্যাখ্যান করলেন মনিরুল হক

ছবি

বিকেলে বিএনপির ত্রাণ কমিটির যৌথসভা

ছবি

সুনামগঞ্জে বন্যার্তদের জন্য ৬০০ আশ্রয় কেন্দ্র খোলা হয়েছে: ওবায়দুল কাদের

বিদেশে আমাদের কোন প্রভু নেই : আমু

আ’লীগ-বিএনপি কোন জোটে যাবে না বাম গণতান্ত্রিক জোট : কমরেড শাহ আলম

ছবি

জনগণের কষ্টের সময় সরকার উৎসব নিয়ে ব্যস্ত: ফখরুল

কুমিল্লা নির্বাচনের ফল কি হবে আগেই জানতাম : ফখরুল

ফল নিয়ে বিতর্ক এবং ভোটের সমীকরণ

মনোহরদীর ৩ ইউপিতেই নৌকার ভরাডুবি বিদ্রোহীদের জয় জয়কার

নারায়ণগঞ্জে বিএনপি নেতা দুই কাউন্সিলর কারাগারে

৭ম ধাপের ইউপি নির্বাচনে জাজিরা উপজেলার ৬ চেয়ারম্যান নির্বাচিত

ছবি

“ আমাকে পরিকল্পিতভাবে হারানো হয়েছে, আইনের আশ্রয় নেবো ”

নির্বাচন শেষ, সংসদ সদস্য বাহারের বিষয়ে কোন মন্তব্য করবেন না সিইসি

ছবি

কুমিল্লা সিটির নতুন মেয়র আরফানুল হক রিফাত

ছবি

কুমিল্লা সিটি ভোট: ১০১ কেন্দ্রের ফলাফলে এগিয়ে সাক্কু

ছবি

আঙুলের ছাপ না মেলায় ফিরে গেছেন ভোটাররা

ছবি

কুমিল্লার নির্বাচন সুষ্ঠু, ভোট পড়েছে ৬০ শতাংশ: সিইসি

tab

রাজনীতি

সরকারের ব্যর্থতায় বন্যা পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে : রিজভী

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

রোববার, ১৯ জুন ২০২২

সরকারের চরম ব্যর্থতা, লুটপাট, উদাসীনতা, অদূরদর্শিতা আর খামখেয়ালিপনার কারণে দেশের বন্যা পরিস্থিতির ভয়াবহ অবনতি হয়েছে বলে দাবি করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

তিনি বলেছেন, সিলেট, সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ, নেত্রকোনা, কুড়িগ্রাম- এসব জেলার বন্যা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। সিলেট প্রায় পুরোটাই পানিতে তলিয়ে গেছে। বানের পানিতে ভাসছে সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ জেলার ৯০ ভাগের বেশি অঞ্চল।

রোববার (১৯ জুন) দুপুরে নয়াপল্টন বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন।

বিএনপি নেতা দাবি করেন, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান গতকাল স্বীকার করেছেন- ‘দেশের উত্তর ও দক্ষিণাঞ্চলে ১০ জেলার ৬৪টি উপজেলা বন্যাকবলিত। ১২২ বছরের ইতিহাসে সিলেট ও সুনামগঞ্জে এমন ভয়ংকর বন্যা হয়নি’। মৌলভীবাজার, কিশোরগঞ্জ, ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অনেক এলাকা পানিতে একাকার। উপায় না দেখে মা তার সন্তানদের পাতিলে ভাসিয়ে দিচ্ছেন এমন সংবাদও গণমাধ্যমে দেখতে পাচ্ছি। সবকিছু হারিয়ে মানুষ এখন সর্বস্বান্ত। ত্রাণের জন্য গোটা বন্যাদুর্গত এলাকা হাহাকার করছে।

মেঘালয়-আসাম থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে জনপদ আজ বিধ্বস্ত ও বিপর্যস্ত উল্লেখ করে তিনি বলেন, সেই সঙ্গে টানা বৃষ্টিপাত। এই বন্যার আরও কারণ আছে। হাওর ও নদীগুলো বাঁধ এবং সেতু দেওয়া হয়েছে অপরিকল্পিতভাবে। সেখানে এত দুর্নীতি হয়েছে, সব বাঁধ ভেঙে যাচ্ছে। নতুন করে যেসব রাস্তা তৈরি করা হয়েছে- সেগুলোও ভেঙে যাচ্ছে।

রিজভী দাবি করেন, ২৫ জুন পদ্মা সেতু উদ্বোধনের নামে শত শত কোটি টাকা খরচ করে সারাদেশে উৎসবের আয়োজন নিয়ে শেখ হাসিনা এবং তার মন্ত্রী-এমপিরা ঝাঁপিয়ে পড়েছেন। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ সব জেলা প্রশাসককে লিখিত নির্দেশ দিয়েছে, টানা পাঁচ দিন সারাদেশে আনন্দ উৎসব করতে হবে। পদ্মা সেতুর মূল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সারাদেশে একযোগে বড় পর্দায় দেখাতে হবে।

তিনি আরও বলেন, ৩০০ লঞ্চ রিকুইজিশন করা হয়েছে। জনসভাস্থলে ৫০০ টয়লেট স্থাপন করা হয়েছে। মাওয়া ও জাজিরা প্রান্তে ৪০ ফুট উচ্চতার দুটি ম্যুরাল নির্মাণ করা হচ্ছে। যারা উৎসবে অংশ নিতে অনীহা দেখাবে, তাদের চিহ্নিত করতে বলা হয়েছে। দুই প্রান্তে থানা করা হচ্ছে। শেখ হাসিনার নিরাপত্তার জন্য হাজার হাজার আইনশৃঙ্খলা বাহিনী মোতায়েন করা হচ্ছে।

পদ্মা সেতু উদ্বোধন উৎসবের নামে শত শত কোটি টাকা উড়ানো হচ্ছে উল্লেখ করে রিজভী বলেন, অথচ বন্যাকবলিত এলাকায় কোটি পানিবন্দি মানুষ সাহায্যের জন্য তাকিয়ে আছে। সেখানে সরকারি বরাদ্দ একেবারেই অপ্রতুল।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, সিলেটে ২০০ টন চাল, নগদ ৩০ লাখ টাকা, ৮ হাজার প্যাকেট শুকনো খাবার পাঠানো হয়েছে। ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী বলেছেন বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত ৪০ লাখ মানুষ। বরাদ্দ ৬০ লাখ টাকার কথা বলা হলেও মূলত, ৩০ লাখ টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। তার মানে জনপ্রতি দেড় টাকা। পদ্মা সেতু উদ্বোধনের জনসভাস্থলে অস্থায়ী ৫০০ টয়লেট স্থাপন করতে যে খরচ হবে তার দশ ভাগের এক ভাগও বরাদ্দ পায়নি বন্যার্তরা।

রিজভী বলেন, আমাদের দাবী পদ্মা সেতু নিয়ে উৎসব বন্ধ করুন। বন্যাকবলিত অঞ্চলগুলোকে দুর্গত অঞ্চল হিসেবে ঘোষণা করা হোক। কোনো বিলম্ব ছাড়া এই অঞ্চলগুলোর জনগণের জন্য ত্রাণের ব্যবস্থা করা হোক।

back to top