alt

রাজনীতি

কেয়ারটেকার সিস্টেম মেনে নিলে চা খেতে অসুবিধা নেই: ফখরুল

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : রোববার, ২৪ জুলাই ২০২২

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে চায়ের নিমন্ত্রণে যাওয়ার আগে কেয়ারটেকার সরকারের ঘোষণা দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

‘প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় ঘেরাও করতে আসলে বাধা দেওয়া হবে না, চা খাওয়াব, কথা বলতে চাইলে শুনব’- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এমন বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে বিএনপি মহাসচিব এই প্রতিক্রিয়া জানান।

রোববার (২৪ জুলাই) জাতীয় প্রেসক্লাবে অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (অ্যাব) আয়োজিত ‘বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে অমানিশা: দুর্নীতি আর লুটপাটের খেসারত’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ প্রতিক্রিয়া জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে আগে বলতে হবে-কেয়ারটেকার সিস্টেম মেনে নিচ্ছি, ঘোষণা করুন কেয়ারটেকার সরকার ব্যবস্থা মেনে নেবেন। তাহলে চা খাওয়া যাবে অসুবিধা নেই। তা না করে এই সমস্ত হালকা কথা বলে লাভ নেই। আমাদের একটাই কথা- পদত্যাগ করুন, পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের হাতে ক্ষমতা দিন এবং একটি নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করে গ্রহণযোগ্য ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন।

বিদ্যুৎ খাতে ব্যাপক দুর্নীতির চিত্র তুলে ধরে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আজকে কারো কাছে কোথাও জবাব দিতে হয় না। শতকরা ৫১ ভাগ জ্বালানি আসে গ্যাস থেকে। সেই গ্যাসে উত্তোলনের ব্যবস্থা গত ১৫ বছর সরকার করেনি। তারা একটা জিনিসের দিকে গুরুত্ব দিয়েছে কি করে হাজার হাজার কোটি টাকা লুট করে পাচার করা যায়।

তিনি বলেন, কুইক রেন্টাল পাওয়ার প্ল্যান্টে এই সরকার ইনডেমনিটি দিয়েছে। তাহলে কি করে আশা করতে পারেন- এ খাতে দুর্নীতি হবে না, বিদ্যুতে লুট হবে না। একটা খনার বচন আছে-‘রাজার দোষে রাজ্য নষ্ট, প্রজা পায় কষ্ট’। আজকে আমাদের যারা শাসন করছে শাসনকর্তা - তাদের দুর্নীতি, তাদের লুটপাট, তাদের অশিক্ষা, ব্যর্থতা সব মিলিয়ে আমাদের বাংলাদেশের জনগণের জীবনটা দুর্বিষহ করে ফেলেছে। প্রতিটি ক্ষেত্রে তারা কষ্ট পাচ্ছে। অথচ সরকারের মুখের ভাষা কি, তারা সিঙ্গাপুর বানিয়ে দিচ্ছে, মালয়েশিয়া বানিয়ে দিচ্ছে, কানাডাও বানিয়ে দিতে চায়, সানফ্রান্সিসকো বানাতে চায়।

মির্জা ফখরুল বলেন, আজ ৪০ থেকে ৪২ ভাগ দারিদ্র্যের হার, দুই বেলা খেতে পারছে না। আজকে বাংলাদেশের কয়েকটা জেলা কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, সুনামগঞ্জ- এই জায়গাগুলোতে ২১ ভাগ লোক দুই বেলা খেতে পারে না। প্রবাসীদের রেমিট্যান্স কমে আসছে। চোখে সর্ষে ফুল দেখবেন, দেখা শুরু করেছেন। যার জন্য আবোল-তাবোল কথা বলতে শুরু করেছে সরকার।

বিদ্যুৎ সংকটে গ্রামাঞ্চলে লোডশেডিং বেশি হওয়ার কারণে ফসলাদি উৎপাদন মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণ নিয়েও প্রশ্ন তুলেন বিএনপি মহাসচিব।

অ্যাবের সহসভাপতি রিয়াজুল ইসলাম রিজুর সভাপতিত্বে ও প্রকৌশলী কেএম আসাদুজ্জামান চুন্ন’র সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হাছিন আহমেদ, কেন্দ্রীয় নেতা মুইদ রুমি, আবদুস সালাম, আশরাফ উদ্দিন বকুল, জহিরুল ইসলাম, আ. সালাম, নিয়াজ উদ্দিন, বিপ্লব, প্রকৌশলী মাহবুব, সুমায়েল, মোতাহার হোসেন, আসিফ রচিসহ অ্যাবের সিনিয় নেতারা বক্তব্য রাখেন।

ছবি

বিএনপি ক্ষমতায় গেলে সব দুর্নীতির বিচার করা হবে : ফখরুল

ছবি

ক্ষমতার দাপট দেখাবেন না, সংযত হন : নেতাকর্মীদের কাদের

যে কোন ষড়যন্ত্র মোকাবিলায় সব সময় প্রস্তুত আওয়ামী লীগ: নাছিম

ছবি

কিছু ব্যক্তির আপত্তিতে বাদ দেওয়া যায়নি রাষ্ট্রধর্ম : আমু

ছবি

প্রত্যেককে কথাবার্তা, আচার আচরণে দায়িত্বশীল হতে হবে : কাদের

ফেনীতে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতাকর্মীদের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া

ছবি

উন্নয়নের নৌকা এখন শ্রীলঙ্কার পথে: জিএম কাদের

ছবি

বিদেশি চাপে সমাবেশে ঝামেলা করছে না সরকার: মির্জা ফখরুল

ছবি

শ্রীলঙ্কা হওয়ার গুজব ভিত্তিহীন, দেশের মানুষ বেহেস্তে আছে : পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

সরকার ও শাসনব্যবস্থা বদলাতে জনগণের বৃহত্তর ঐক্য গড়ে তোলার ডাক

‘জিনিসপত্রের দাম বাড়ায় এখনো কেউ মারা যায়নি’

ছবি

আন্দোলনে থাকবে বিএনপি, তবে বড় কর্মসূচি এখনই নয়

ছবি

নতুন রাজনৈতিক জোট ‘গণতন্ত্র মঞ্চে’র আনুষ্ঠানিক আত্মপ্রকাশ

ছবি

আমরা রাজপথের পুরাতন খেলোয়াড় : ওবায়দুল কাদের

ছবি

জ্বালানী তেলের মূল্য বৃদ্ধির ঘোষণা পুনঃবিবেচনার দাবি গণতন্ত্রী পার্টির

ছবি

আন্তর্জাতিক বাজারে দাম কমলে দেশেও জ্বালানিমূল্য সমন্বয় করা হবে : সেতুমন্ত্রী

ছবি

আইএমএফের ঋণ পেতে জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধি: মির্জা ফখরুল

ছবি

দেশের মানুষের প্রতি সরকারের কোন দরদ নেই: জিএম কাদের

নারায়ণগঞ্জে আওয়ামী লীগ নেত্রী নীলাকে দল থেকে অব্যাহতি

ছাত্রলীগ : চিঠির ফাঁকা স্থানে নাম বসিয়ে দিলেই কেন্দ্রীয় কমিটির নেতা!

ছবি

বৃহস্পতিবার ভোলায় সকাল-সন্ধ্যা হরতাল বিএনপির

ছবি

ভোলায় সংঘর্ষে আহত ছাত্রদল নেতা নুরে আলম মারা গেছেন

ছবি

হারিকেন ধরার সময় এসেছে সরকারের: মির্জা ফখরুল

ছবি

বিএনপি’র শাসনামলে দৈনিক ১৩-১৪ ঘণ্টা লোডশেডিং ছিল: ওবায়দুল কাদের

কৌশলপত্র তৈরির পর বিশেষ সংলাপে বসবে ইসি

ছবি

আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রতিহিংসার রাজনীতির কারণে দেশে ভীতিকর পরিস্থিতি: জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান

ছবি

হাজি সেলিমের লিভ টু আপিলের শুনানি ২৩ অক্টোবর

ছবি

৩০০ আসনেই ইভিএমে ভোট চায় আওয়ামী লীগ

রাতে ভোটের কাজ হয়, আমরাও করিয়েছি : ইসিকে জাপা

বিএনপির সংলাপ নিয়ে শরিকদের ক্ষোভ

ছবি

২০১৪-২০১৮ সালের ভোট নিয়ে অতিমাত্রায় বিতর্ক হচ্ছে: সিইসি

ছবি

ইসির সঙ্গে সংলাপ: ৩০০ আসনেই ইভিএম চায় আ.লীগ

ছবি

আ.লীগের ব্যয়ের থেকে আয় তিনগুণ বেশি

ধাক্কা দিয়ে সরকারকে সরাতে পারবে না বিএনপি: কৃষিমন্ত্রী

ছবি

রেলপথের দুর্ঘটনাগুলো প্রমাণ করে কতটা পিছিয়ে আমরা : জিএম কাদের

ছবি

বিদ্যুৎ নিয়ে বিএনপির বিক্ষোভ হাস্যকর : আবদুস সবুর

tab

রাজনীতি

কেয়ারটেকার সিস্টেম মেনে নিলে চা খেতে অসুবিধা নেই: ফখরুল

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

রোববার, ২৪ জুলাই ২০২২

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে চায়ের নিমন্ত্রণে যাওয়ার আগে কেয়ারটেকার সরকারের ঘোষণা দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

‘প্রধানমন্ত্রী কার্যালয় ঘেরাও করতে আসলে বাধা দেওয়া হবে না, চা খাওয়াব, কথা বলতে চাইলে শুনব’- প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার এমন বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে বিএনপি মহাসচিব এই প্রতিক্রিয়া জানান।

রোববার (২৪ জুলাই) জাতীয় প্রেসক্লাবে অ্যাসোসিয়েশন অব ইঞ্জিনিয়ার্স বাংলাদেশ (অ্যাব) আয়োজিত ‘বিদ্যুৎ ও জ্বালানি খাতে অমানিশা: দুর্নীতি আর লুটপাটের খেসারত’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ প্রতিক্রিয়া জানান।

মির্জা ফখরুল বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে আগে বলতে হবে-কেয়ারটেকার সিস্টেম মেনে নিচ্ছি, ঘোষণা করুন কেয়ারটেকার সরকার ব্যবস্থা মেনে নেবেন। তাহলে চা খাওয়া যাবে অসুবিধা নেই। তা না করে এই সমস্ত হালকা কথা বলে লাভ নেই। আমাদের একটাই কথা- পদত্যাগ করুন, পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ নির্দলীয় সরকারের হাতে ক্ষমতা দিন এবং একটি নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করে গ্রহণযোগ্য ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন।

বিদ্যুৎ খাতে ব্যাপক দুর্নীতির চিত্র তুলে ধরে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আজকে কারো কাছে কোথাও জবাব দিতে হয় না। শতকরা ৫১ ভাগ জ্বালানি আসে গ্যাস থেকে। সেই গ্যাসে উত্তোলনের ব্যবস্থা গত ১৫ বছর সরকার করেনি। তারা একটা জিনিসের দিকে গুরুত্ব দিয়েছে কি করে হাজার হাজার কোটি টাকা লুট করে পাচার করা যায়।

তিনি বলেন, কুইক রেন্টাল পাওয়ার প্ল্যান্টে এই সরকার ইনডেমনিটি দিয়েছে। তাহলে কি করে আশা করতে পারেন- এ খাতে দুর্নীতি হবে না, বিদ্যুতে লুট হবে না। একটা খনার বচন আছে-‘রাজার দোষে রাজ্য নষ্ট, প্রজা পায় কষ্ট’। আজকে আমাদের যারা শাসন করছে শাসনকর্তা - তাদের দুর্নীতি, তাদের লুটপাট, তাদের অশিক্ষা, ব্যর্থতা সব মিলিয়ে আমাদের বাংলাদেশের জনগণের জীবনটা দুর্বিষহ করে ফেলেছে। প্রতিটি ক্ষেত্রে তারা কষ্ট পাচ্ছে। অথচ সরকারের মুখের ভাষা কি, তারা সিঙ্গাপুর বানিয়ে দিচ্ছে, মালয়েশিয়া বানিয়ে দিচ্ছে, কানাডাও বানিয়ে দিতে চায়, সানফ্রান্সিসকো বানাতে চায়।

মির্জা ফখরুল বলেন, আজ ৪০ থেকে ৪২ ভাগ দারিদ্র্যের হার, দুই বেলা খেতে পারছে না। আজকে বাংলাদেশের কয়েকটা জেলা কুড়িগ্রাম, গাইবান্ধা, সুনামগঞ্জ- এই জায়গাগুলোতে ২১ ভাগ লোক দুই বেলা খেতে পারে না। প্রবাসীদের রেমিট্যান্স কমে আসছে। চোখে সর্ষে ফুল দেখবেন, দেখা শুরু করেছেন। যার জন্য আবোল-তাবোল কথা বলতে শুরু করেছে সরকার।

বিদ্যুৎ সংকটে গ্রামাঞ্চলে লোডশেডিং বেশি হওয়ার কারণে ফসলাদি উৎপাদন মারাত্মকভাবে বিঘ্নিত হতে পারে বলে আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের তৃতীয় টার্মিনাল নির্মাণ নিয়েও প্রশ্ন তুলেন বিএনপি মহাসচিব।

অ্যাবের সহসভাপতি রিয়াজুল ইসলাম রিজুর সভাপতিত্বে ও প্রকৌশলী কেএম আসাদুজ্জামান চুন্ন’র সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হাছিন আহমেদ, কেন্দ্রীয় নেতা মুইদ রুমি, আবদুস সালাম, আশরাফ উদ্দিন বকুল, জহিরুল ইসলাম, আ. সালাম, নিয়াজ উদ্দিন, বিপ্লব, প্রকৌশলী মাহবুব, সুমায়েল, মোতাহার হোসেন, আসিফ রচিসহ অ্যাবের সিনিয় নেতারা বক্তব্য রাখেন।

back to top