alt

রাজনীতি

জনগণের উত্তাল তরঙ্গে আওয়ামী লীগ সরকার ভেসে যাবে : ফখরুল

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : সোমবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২৩

জনগণের উত্তাল তরঙ্গে আওয়ামী লীগ সরকার ভেসে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, দেশে চলছে এক ব্যক্তির শাসন। কিসের ভোট! তোমাদের ভোটও আমরা দেব। কথায় কথায় বলে, গণতন্ত্র হবে আমাদের মতো করে। অথচ তাদের গণতন্ত্র তো বহুদলীয় গণতন্ত্র থেকে একদলীয় বাকশাল প্রতিষ্ঠা করা।

সোমবার (২৩ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপির ‘রাষ্ট্র কাঠামো মেরামতের রূপরেখা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানটি আয়োজন করে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ (বিএসপিপি)।

ফখরুল বলেন, অনির্বাচিত আওয়ামী লীগ সরকার মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বলতে বলতে অজ্ঞান হয়ে যায়। অথচ ৭২-৭৫ সালে গণতন্ত্র হরণ করে কেন বাকশাল করতে হয়েছে, জিজ্ঞাসা করলেই তাদের গায়ে আগুন লেগে যায়।

‘আমরা স্বাধীনভাবে কথা বলতে চাই। মতপ্রকাশের স্বাধীনতা চাই। ভোটাধিকার চাই। গণতন্ত্র ফিরে পেতে চাই। নির্বাচন ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে। এখন কেউ ভোট দিতে যেতে চায় না। আজকে যে সংসদ আছে, সেটা হলো একদলীয় ক্লাব অব আওয়ামী লীগ। তাই আজকে স্বাধীনতার ৫০ বছর পরও আমাদেরকে গণতন্ত্র, ভোটাধিকার ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতার জন্য রাজপথে রক্ত দিতে হচ্ছে, প্রাণ দিতে হচ্ছে। তারপরও আমরা আমাদের অস্তিত্ব রক্ষা করতে চাই। দেশের মানুষকে বাঁচাতে চাই।

তিনি বলেন, আমরা একটি অসম যুদ্ধ সংগ্রাম করছি। যেখানে আমাদের প্রতিপক্ষ অত্যন্ত প্রভাবশালী। যাদের হাতে রয়েছে রাষ্ট্রশক্তিসহ বন্দুক পিস্তল গ্রেনেড, যা তারা ছুঁড়ে মারে আর আমাদের নামে মামলা দেয়।

অনুষ্ঠানে আমান উল্লাহ আমান বলেন, বিএনপি প্রতিহিংসা ও প্রতিশোধের রাজনীতি করবে না। আজকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ারকে কারাগারে রেখে যে প্রতিহিংসার রাজনীতি করা হচ্ছে, এটা বিএনপি করবে না। আজকে প্রশাসন যে দমন-পীড়ন চালিয়েছে, তারা এমন করতে বাধ্য হচ্ছে। সেজন্য বিএনপি এরও কোন পরিশোধ নেবে না।

বিএসপিপির আহ্বায়ক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেনের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব কাদের গণি চৌধুরীর পরিচালনায় আরও বক্তব্য রাখেন জিয়া পরিষদের অধ্যাপক ডা. আবদুল কুদ্দুস, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের অধ্যাপক ড. বোরহান উদ্দিন খান, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. শামসুল আলম সেলিম, অধ্যাপক ড. কামরুল আহসান, সাংবাদিক নেতা কামাল উদ্দিন সবুজ, শহীদুল ইসলাম, প্রকৌশলী মো. হানিফ প্রমুখ।

ছবি

অনৈতিক কাজের বিরুদ্ধে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহবান : ফখরুল

ছবি

আজকে উড়াল থেকে আমরা পাতালে নামলাম : ওবায়দুল কাদের

ছবি

অনাগ্রহের নির্বাচনে উত্তাপ

ছবি

বিদ্যুৎ খাতে সরকারের লুটপাটের মাশুল দিচ্ছে জনগণ : ফখরুল

ছবি

উপনির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে, গণতন্ত্রের বিজয় হয়েছে : ওবায়দুল কাদের

ছবি

পুলিশ মাইকিং করে ভোট দিতে ডাকছে, জীবনেও শুনিনি: মির্জা আব্বাস

ছবি

টাকা পাচার করে অর্থনীতি ধ্বংস করছে আ’লীগ : মোশাররফ

ছবি

বিএনপির পদযাত্রা দেখে মৃত্যুর পরের ‘নীরব’ শোভাযাত্রার মত লেগেছে কাদেরের

ছবি

গাবতলীতে জড়ো হচ্ছেন নেতাকর্মীরা

সময় আছে, দাবি মেনে পদত্যাগ করুন : ফখরুল

বিএনপি পথ হারিয়ে পদযাত্রা শুরু করেছে : কাদের

ছবি

স্বতন্ত্র প্রার্থী আসিফ নিখোঁজ নাকি আত্মগোপনে?

ছবি

সমন্বয়হীন কমিটি প্রত্যাখ্যান করে উপজেলা আ.লীগের সংবাদ সম্মেলন, সাতদিনের আল্টিমেটাম

ছবি

জাতীয় নির্বাচনে ২০০ আসনে প্রার্থী বাছাই প্রস্তুত বিএনপি

ছবি

পালায় কে? আ’লীগ না : শেখ হাসিনা

তত্ত্বাবধায়ক সরকার ফেরাতে বিশিষ্টজনদের কথা বলার আহ্বান ফখরুলের

ছবি

আওয়ামী লীগ নেতারা মুখে এক, কাজে আরেকঃ ফখরুল

ছবি

খণ্ড খণ্ড মিছিল নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় আসছেন নেতাকর্মীরা

ছবি

ক্ষমতাসীনেরা পালানোর পথ পাবে না: ফখরুল

ছবি

একটি মৃত ইস্যু নিয়ে বিএনপি মাঠে নামার চেষ্টা করছে : শিক্ষামন্ত্রী

ছবি

বিএনপির পদযাত্রা নয়, মরণযাত্রা শুরু হয়ে গেছে : কাদের

ছবি

ধর্ম যার যার দেশটা আমাদের সবার-চীফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী

ছবি

বিএনপি পিছনের দরজা দিয়ে ক্ষমতায় আসার দিবাস্বপ্ন দেখছে : এনামুল হক শামীম

ছবি

চলমান আন্দোলনের যৌথ রূপরেখার ঘোষণা আসছে

ছবি

বিএনপির আন্দোলন চলে রিমোট কন্ট্রোলে অদৃশ্য নির্দেশে : কাদের

ছবি

আন্দোলন নস্যাৎ করতে বিভিন্ন কৌশল অবলম্বন করবে সরকার: ফখরুল

ছবি

বিএনপিকে অচল গাড়ির সঙ্গে তুলনা করলেন হাছান মাহমুদ

ছবি

বিএনপি ও তার দোসররা আজগুবি যত খবর ছড়াচ্ছে: কাদের

ছবি

কিবরিয়া হত্যার ১৮ বছর : বারবার পেছায় মামলার তারিখ

ছবি

টাঙ্গাইলে একটি ভোটও চুরি করতে পারবেন না, প্রধান মন্ত্রীকে কাদের সিদ্দিকী

ছবি

হারিছ চৌধুরীর মেয়েকে ‘গলা টিপে হত্যার’ হুমকি, থানায় অভিযোগ

ছবি

বিএনপির নতুন কর্মসূচি ঘোষণা

ছবি

আ’লীগ বাঙালির সংস্কৃতিকে ধ্বংস করে দিয়েছে : ফখরুল

ছবি

এবার সরকারকে যেতে হবে: মির্জা ফখরুল

আগামী এক মাসের মধ্যে এই সরকার বিদায় হবে: শামসুজ্জামান দুদু

জামালপুরে `গণতন্ত্র হত্যা দিবস’ উপলক্ষ্যে বিএনপির সমাবেশ অনুষ্ঠিত

tab

রাজনীতি

জনগণের উত্তাল তরঙ্গে আওয়ামী লীগ সরকার ভেসে যাবে : ফখরুল

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

সোমবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২৩

জনগণের উত্তাল তরঙ্গে আওয়ামী লীগ সরকার ভেসে যাবে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, দেশে চলছে এক ব্যক্তির শাসন। কিসের ভোট! তোমাদের ভোটও আমরা দেব। কথায় কথায় বলে, গণতন্ত্র হবে আমাদের মতো করে। অথচ তাদের গণতন্ত্র তো বহুদলীয় গণতন্ত্র থেকে একদলীয় বাকশাল প্রতিষ্ঠা করা।

সোমবার (২৩ জানুয়ারি) জাতীয় প্রেসক্লাবে বিএনপির ‘রাষ্ট্র কাঠামো মেরামতের রূপরেখা’ শীর্ষক অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। অনুষ্ঠানটি আয়োজন করে বাংলাদেশ সম্মিলিত পেশাজীবী পরিষদ (বিএসপিপি)।

ফখরুল বলেন, অনির্বাচিত আওয়ামী লীগ সরকার মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা বলতে বলতে অজ্ঞান হয়ে যায়। অথচ ৭২-৭৫ সালে গণতন্ত্র হরণ করে কেন বাকশাল করতে হয়েছে, জিজ্ঞাসা করলেই তাদের গায়ে আগুন লেগে যায়।

‘আমরা স্বাধীনভাবে কথা বলতে চাই। মতপ্রকাশের স্বাধীনতা চাই। ভোটাধিকার চাই। গণতন্ত্র ফিরে পেতে চাই। নির্বাচন ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দেয়া হয়েছে। এখন কেউ ভোট দিতে যেতে চায় না। আজকে যে সংসদ আছে, সেটা হলো একদলীয় ক্লাব অব আওয়ামী লীগ। তাই আজকে স্বাধীনতার ৫০ বছর পরও আমাদেরকে গণতন্ত্র, ভোটাধিকার ও মতপ্রকাশের স্বাধীনতার জন্য রাজপথে রক্ত দিতে হচ্ছে, প্রাণ দিতে হচ্ছে। তারপরও আমরা আমাদের অস্তিত্ব রক্ষা করতে চাই। দেশের মানুষকে বাঁচাতে চাই।

তিনি বলেন, আমরা একটি অসম যুদ্ধ সংগ্রাম করছি। যেখানে আমাদের প্রতিপক্ষ অত্যন্ত প্রভাবশালী। যাদের হাতে রয়েছে রাষ্ট্রশক্তিসহ বন্দুক পিস্তল গ্রেনেড, যা তারা ছুঁড়ে মারে আর আমাদের নামে মামলা দেয়।

অনুষ্ঠানে আমান উল্লাহ আমান বলেন, বিএনপি প্রতিহিংসা ও প্রতিশোধের রাজনীতি করবে না। আজকে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ারকে কারাগারে রেখে যে প্রতিহিংসার রাজনীতি করা হচ্ছে, এটা বিএনপি করবে না। আজকে প্রশাসন যে দমন-পীড়ন চালিয়েছে, তারা এমন করতে বাধ্য হচ্ছে। সেজন্য বিএনপি এরও কোন পরিশোধ নেবে না।

বিএসপিপির আহ্বায়ক ডা. এ জেড এম জাহিদ হোসেনের সভাপতিত্বে ও সদস্য সচিব কাদের গণি চৌধুরীর পরিচালনায় আরও বক্তব্য রাখেন জিয়া পরিষদের অধ্যাপক ডা. আবদুল কুদ্দুস, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইনের অধ্যাপক ড. বোরহান উদ্দিন খান, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. শামসুল আলম সেলিম, অধ্যাপক ড. কামরুল আহসান, সাংবাদিক নেতা কামাল উদ্দিন সবুজ, শহীদুল ইসলাম, প্রকৌশলী মো. হানিফ প্রমুখ।

back to top