alt

খেলা

এই ম্যাচ আমাদের জেতা উচিত ছিল : শান্ত

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪

এটি জয়ের খুব কাছে আবার অনেক দূরে- এমন বিষয় ছিল। কারন বাংলাদেশ এমন একটি লক্ষ্য তাড়া করতে ব্যর্থ হয়েছে, যা যেকোন দিন যেকোন উইকেটে স্পর্শ করা সম্ভব বলেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত।

সোমবার প্রথমে ব্যাট করা দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৬ উইকেটে ১১৩ রানের মধ্যে আটকে রাখে বাংলাদেশের বোলাররা। জবাব দিতে নেমে ১৭ ওভারে ৪ উইকেটে ৯৪ রান তুলে জয়ের সেরা সুযোগ তৈরি করে টাইগাররা। ক্রিজে দুই সেট ব্যাটার তাওহিদ হৃদয় ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ থাকায় ২০০৭ সালের প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর আবারও সুপার এইটে খেলার পথ সহজ করার স্বপ্ন দেখছিল বাংলাদেশ।

তবে নিজেদের পরিকল্পনা কাজে লাগিয়ে শেষ পর্যন্ত জয় তুলে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। হৃদয়কে আউট করার মধ্যে দিয়ে জয়ের পথ খুঁজে পায় প্রোটিয়ারা। পেসার কাগিসো রাবাদার বলে লেগ বিফোর আউট হন হৃদয়। এরপর ওটনিল বার্টম্যান এবং কেশব মহারাজের দুর্দান্ত দুই ওভারে বাংলাদেশের হাতের মুঠো থেকে ম্যাচ বের করে দক্ষিণ আফ্রিকা।

ম্যাচ শেষে বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত বলেন, ‘এই ম্যাচটা আমাদের জেতা উচিত ছিল, প্রায় জিতেই যাচ্ছিলাম। কিন্তু শেষ কয়েক ওভারে তারা ভালো বোলিং করেছে। এটা ক্রিকেটে হতেই পারে।’

গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শ্রীলংকাকে ২ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেছিলো বাংলাদেশ। টান-টান উত্তেজনাপূর্ণ দ্বিতীয় ম্যাচে শেষ ওভারে ১১ রানের দরকারে স্পিনার কেশব মহারাজের বোলিং নৈপুন্যের সামনে সমীকরণ মেলাতে পারেনি টাইগারার।

তারপরও সতীর্থদের লড়াইয়ের প্রশংসা করেছেন শান্ত, ‘সবাই নার্ভাস ছিল। কিন্তু জাকের থাকায় আমরা আত্মবিশ্বাসী ছিলাম। কিন্তু যখন হলোনা তখন আর করার কি আছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সত্যিই শেষ কয়েক ম্যাচে কঠোর পরিশ্রম করেছে তানজিদ। আমাদের নতুন বলে উইকেট দরকার ছিল এবং সে তার সামর্থ্য দেখিয়েছে। রিশাদ খুব ভালো ছিলো। গত দুই ম্যাচেও অনুশীলনে ভালো বোলিং করেছে সে।’

গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম তিন ম্যাচ জিতে টুর্নামেন্টের প্রথম দল হিসেবে সুপার এইট নিশ্চিত করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক আইডেন মার্করাম বলেন, ‘এমন খেলায় ফাইনাল ওভারে আপনি সবসময় বেশ নার্ভাস থাকবেন। কখনও কখনও আপনি সুবিধা পাবেন, আবার কখনও কখনও না। তবে ম্যাচটি খুব উত্তেজনাপূর্ণ ছিলো।’

তিনি আরও বলেন, ‘১৯ দশমিক ৫ ওভারের বলটি যে কোনো জায়গায় যেতে পারতো, আরও দুই মিটার যেতে পারতো। পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে, আপনি ম্যাচটি কতদূর নিতে চান। পেসাররা ভালো বোলিং করেছিল, শেষ ওভারে যে কোন কিছু হতে পারে। ক্লাসেন এবং মিলার বেশ চাপে ছিল, কিন্তু তারা দারুন করছে। ক্লাসেনের ফর্মে ফিরে আসাটা দারুণ।’

ছবি

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সুপার এইট-এ বাংলাদেশ

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

নেপালের বিদায়ে যেমন হলো বাংলাদেশের সুপার এইট সমীকরণ

ছবি

‘অন্যদের থেকে আলাদা’ হতে চেয়ে সফল ফারুকি

ছবি

ইংল্যান্ডকে বিদায় করতে কোনো কৌশলের আশ্রয় নিবে না অস্ট্রেলিয়া

ছবি

মেসি-মার্তিনেজের জোড়া গোলে আর্জেন্টিনার জয়

ছবি

জয়ে থাকতে চায় ভারত, অঘটনের লক্ষ্য কানাডার

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

মুস্তাফিজের প্রশংসায় ভারতের সাবেক ক্রিকেটার

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু

ছবি

আমেরিকাও বুকে কাঁপুনি ধরিয়ে দিয়েছিল : রোহিত

ছবি

ইউরো চ্যাম্পিয়নশীপ শুরু আজ : ফেবারিট ফ্রান্স-ইংল্যান্ড, আশাবাদী স্বাগতিকরাও

ছবি

ডাচদের বিপক্ষে জয় পেল বাংলাদেশ

ছবি

সাকিবের ফিফটিতে ডাচদের ১৬০ রানের লক্ষ্য দিলো বাংলাদেশ

ছবি

নিউজিল্যান্ডের বিদায় প্রায় নিশ্চিত করে সুপার এইটে ওয়েস্ট ইন্ডিজ

ছবি

ব্রাজিলকে ১-১ গোলে রুখে দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

পাঁচে নেমে গেলেন সাকিব

ছবি

নারীদের ক্রিকেট লীগে চ্যাম্পিয়ন মোহামেডান

ছবি

বাংলাদেশ-নেদারল্যান্ডস ম্যচ আজ, ডাচদের হারানোর লক্ষ্য টাইগারদের

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রকে হারিয়ে সুপার এইটে ভারত

বাংলাদেশের জালে লেবাননের এক হালি গোল

ছবি

পাওয়ার প্লেতেই ম্যাচ জিতে সুপার এইটে অস্ট্রেলিয়া

ছবি

বাংলাদেশ কোচকে বাস্তবতা শিক্ষা লেবাননের

ছবি

শ্রীলঙ্কা-নেপাল ম্যাচ পণ্ড, স্বস্তি বাড়ল বাংলাদেশের

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে প্রথমবার মুখোমুখি ভারত ও যুক্তরাষ্ট্র

ছবি

দুই ম্যাচেই জিতে পরের পর্বে যাব : তানজিম

ছবি

কখনো মনে হয়নি এই ম্যাচ হারতে পারি : হৃদয়

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ৪ রানে হারল বাংলাদেশ

ছবি

ডি মারিয়ার গোলে আর্জেন্টিনার জয়

ছবি

উগান্ডা ৩৯ রানে অলআউট, টি-২০ ইতিহাসে সবচেয়ে বড় জয় ক্যারিবীয়ানদের

‘সাকিব অবশ্যই ফর্মে ফিরবে’

ছবি

সুপার এইটের আশা জোরালো করতে চায় টাইগাররা

tab

খেলা

এই ম্যাচ আমাদের জেতা উচিত ছিল : শান্ত

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

মঙ্গলবার, ১১ জুন ২০২৪

এটি জয়ের খুব কাছে আবার অনেক দূরে- এমন বিষয় ছিল। কারন বাংলাদেশ এমন একটি লক্ষ্য তাড়া করতে ব্যর্থ হয়েছে, যা যেকোন দিন যেকোন উইকেটে স্পর্শ করা সম্ভব বলেছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত।

সোমবার প্রথমে ব্যাট করা দক্ষিণ আফ্রিকাকে ৬ উইকেটে ১১৩ রানের মধ্যে আটকে রাখে বাংলাদেশের বোলাররা। জবাব দিতে নেমে ১৭ ওভারে ৪ উইকেটে ৯৪ রান তুলে জয়ের সেরা সুযোগ তৈরি করে টাইগাররা। ক্রিজে দুই সেট ব্যাটার তাওহিদ হৃদয় ও মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ থাকায় ২০০৭ সালের প্রথম টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর আবারও সুপার এইটে খেলার পথ সহজ করার স্বপ্ন দেখছিল বাংলাদেশ।

তবে নিজেদের পরিকল্পনা কাজে লাগিয়ে শেষ পর্যন্ত জয় তুলে নেয় দক্ষিণ আফ্রিকা। হৃদয়কে আউট করার মধ্যে দিয়ে জয়ের পথ খুঁজে পায় প্রোটিয়ারা। পেসার কাগিসো রাবাদার বলে লেগ বিফোর আউট হন হৃদয়। এরপর ওটনিল বার্টম্যান এবং কেশব মহারাজের দুর্দান্ত দুই ওভারে বাংলাদেশের হাতের মুঠো থেকে ম্যাচ বের করে দক্ষিণ আফ্রিকা।

ম্যাচ শেষে বাংলাদেশ অধিনায়ক নাজমুল হোসেন শান্ত বলেন, ‘এই ম্যাচটা আমাদের জেতা উচিত ছিল, প্রায় জিতেই যাচ্ছিলাম। কিন্তু শেষ কয়েক ওভারে তারা ভালো বোলিং করেছে। এটা ক্রিকেটে হতেই পারে।’

গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম ম্যাচে শ্রীলংকাকে ২ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকাপ মিশন শুরু করেছিলো বাংলাদেশ। টান-টান উত্তেজনাপূর্ণ দ্বিতীয় ম্যাচে শেষ ওভারে ১১ রানের দরকারে স্পিনার কেশব মহারাজের বোলিং নৈপুন্যের সামনে সমীকরণ মেলাতে পারেনি টাইগারার।

তারপরও সতীর্থদের লড়াইয়ের প্রশংসা করেছেন শান্ত, ‘সবাই নার্ভাস ছিল। কিন্তু জাকের থাকায় আমরা আত্মবিশ্বাসী ছিলাম। কিন্তু যখন হলোনা তখন আর করার কি আছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘সত্যিই শেষ কয়েক ম্যাচে কঠোর পরিশ্রম করেছে তানজিদ। আমাদের নতুন বলে উইকেট দরকার ছিল এবং সে তার সামর্থ্য দেখিয়েছে। রিশাদ খুব ভালো ছিলো। গত দুই ম্যাচেও অনুশীলনে ভালো বোলিং করেছে সে।’

গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম তিন ম্যাচ জিতে টুর্নামেন্টের প্রথম দল হিসেবে সুপার এইট নিশ্চিত করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক আইডেন মার্করাম বলেন, ‘এমন খেলায় ফাইনাল ওভারে আপনি সবসময় বেশ নার্ভাস থাকবেন। কখনও কখনও আপনি সুবিধা পাবেন, আবার কখনও কখনও না। তবে ম্যাচটি খুব উত্তেজনাপূর্ণ ছিলো।’

তিনি আরও বলেন, ‘১৯ দশমিক ৫ ওভারের বলটি যে কোনো জায়গায় যেতে পারতো, আরও দুই মিটার যেতে পারতো। পরিস্থিতির উপর নির্ভর করে, আপনি ম্যাচটি কতদূর নিতে চান। পেসাররা ভালো বোলিং করেছিল, শেষ ওভারে যে কোন কিছু হতে পারে। ক্লাসেন এবং মিলার বেশ চাপে ছিল, কিন্তু তারা দারুন করছে। ক্লাসেনের ফর্মে ফিরে আসাটা দারুণ।’

back to top