alt

খেলা

কাতার বিশ্বকাপ ফুটবল

দারুন জয়ে অভিযান শুরু ব্রাজিলের

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর ২০২২

দ্বিতীয় গোলটি করছেন রিশার্লিসন

টপ ফেবারিট ব্রাজিল দারুন এক জয় দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করেছে। রাতে অনুষ্ঠিত জি গ্রুপের ম্যাচে ব্রাজিল ২-০ গোলে পরাজিত করেছে সার্বিয়াকে। প্রথমার্ধ খুব একটা ভাল করতে না পারলেও দ্বিতীয়ার্ধে ফেবারিটদের মতো খেলে জয় করায়াত্ব করে। ব্রাজিল ম্যাচে প্রচুর সুযোগ সৃষ্টি করলেও দুটির বেশী গোল করতে পারেনি। এছাড়া দুইবার পোস্ট বাধা হয়ে দাড়ায়। ব্রাজিলের গোল সংখ্যা বেশী না হওয়ার পেছনে বিশেষ অবদান ছিল সার্বিয়ার গোলরক্ষক মিলিনকোভিচ স্যাভিচের। বেশ কয়েকবার তিনি দারুন দক্ষতায় দলকে গোল খাওয়া থেকে বাচিয়েছেন।

এ ম্যাচ জেতায় ব্রাজিল জি গ্রুপের শীর্ষে উঠে গেছে। তাদের সমান তিন পয়েন্ট অর্জণ করেছে সুইজারল্যান্ড। তারা ১-০ গোলে পরাজিত কেেছ ক্যামেরুনকে। আর্জেন্টিনা এবং জার্মানি তাদের প্রথম ম্যাচে পরাজিত হওয়ায় সমর্থকদের মনে শঙ্কা ছিল ব্রাজিলকে নিয়েও। কিন্তু খেলোয়াড়রা দারুন খেলে জয়ী হয়েছে।

ব্রাজিল ম্যাচ শুরু করে বেশ সতর্কতার সাথে। তারা বেশ ভালভাবেই জানতো যে সার্বিয়ার সক্ষমতা আছে অঘটন ঘটিয়ে দেয়ার। বিশেষ করে তাদের খেলোয়াড়দের ফিটনেস এবং গতি ভয়ের কারণ হতে পারে। তাছাড়া ব্রাজিলের এবারের বড় দুর্বলতা রক্ষণভাগই। তাই তাদের বিশেষ ভাবে সতর্কতা অবলম্বন করতে হয়েছে। সার্বিয়াও নিজেদের দুর্গ অক্ষত রেখে আক্রমনে উঠেছে। অবশ্য ব্রাজিল বল দখলের হিসেবে এগিয়ে থাকে শুরু থেকেই। ২৭ মিনিটের সময় ভিনিসিয়ুস বল নিয়ে পেনাল্টি বক্সে ঢুকে পড়েছিলেন। কিন্তু তিনি শট মারার আগেই গোলরক্ষক ঝাপিয়ে পড়ে সেটি রুখে দেন। খেলা আধ ঘন্টা হওয়ার পর ব্রাজিল বেশ চেপে ধরে সার্বিয়াকে। ৩৪ মিনিটে সুযোগ পেয়েছিলেন রাফিনিয়া। তিনি শটও মেরেছিলেন, কিন্তু তাতে গতি না থাকায় গোলরক্ষক সাভিচ সহজেই ধরে নেন। খেলার ৪০ মিনিটে দারুন একটি সুযোগ পেয়েছিলেন ভিনিসিয়ুস, কিন্তু তিনি ঠিকমতো শট মারতে না পারায় সুযোগের অপচয় ঘটে। পারফরমেন্সের হিসেবে ব্রাজিল এগিয়ে থাকলেও কোন গোল করতে না পারায় বিরতি পর্যন্ত ম্যাচে সমতা বিরাজ করে। প্রথমার্ধে ব্রাজিল তাদের পরিচিত ছন্দময় ফুটবল খেলতে পারেনি। সার্বিয়া চেষ্টা করেছে তাদের খেলায় বাধা সৃষ্টি করতে এবং তাতে প্রথম ৪৫ মিনিট বেশ ভালভাবেই সফল হয়।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে গোলের সুন্দর একটি সুযোগ নষ্ট করেন রাফিনিয়া। গোলরক্ষককে একা পেয়েও তিনি তার কাছেই বল তুলে দেন। তবে এ অর্ধের শুরু থেকেই ব্রাজিলকে গোলের জন্য অনেক বেশী চেষ্টা করতে দেখা যায়। যে কারণে বল প্রায়ই থাকে সার্বিয়ার সীমানায়। ৫৫ মিনিটে নেইমার গোলমুখে ভলি মারেন। কিন্তু বল ঠিকমতো মারতে না পারায় সেটি বাইরে গেলে সুযোগ নষ্ট হয়। ৫৯ মিনিটে অ্যালেক্স স্যান্ড্রোর দূরপাল্লার শট পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। ব্রাজিল অবশেষে সফল হয় ৬২ মিনিটে। ভিনিসিয়ুসের শট গোলরক্ষক ফিরিয়ে দিলে সেটি ট্যাপ করে ব্রাজিলকে এগিয়ে দেন রিশার্লিসন। এ গোলের আগ পর্যন্ত রিচার্লিসন তেমন ভাল কিছু করতে পারেননি। তবে সময়মতো তিনি কাজের কাজটি করে দিয়েছেন। এ গোলের পর ব্রাজিল ব্যবধান বাড়ানোর চেষ্টা অব্যাহত রাখে। ৬৭ মিনিটে সুযোগও পেয়েছিল তারা। কিন্তু ভিনিসিয়ুস গোলরক্ষককে একা পেয়েও ঠিক মতো শট মারতে ব্যর্থ হন। ৭০ মিনিটে কর্নার কিক থেকে ব্রাজিলের গোলমুখে জটলার সৃষ্টি হয়েছিল। মার্কিনিয়োস হেডে দলকে বিপদ থেকে রক্ষা করেন। ৭৩ মিনিটে ব্রাজিল দ্বিতীয় গোল করে। এটিও করেন রিশার্লিসন। গোলটি ছিল এক কথায় অসাধারণ। ভিনিসিয়ুসের ক্রস নিয়ন্ত্রনে নিতে গেলে বল একটু উপরে উঠে যায় রিচার্লিসন তখন ঘুরে বাইসাইকেল কিকে বল জালে পাঠান। এবারের বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত এটা সেরা গোল। ব্রাজিল তাদের আক্রমণের ধারা বজায় রেখে একেবারে চেপে ধরে সার্বিয়াকে। ৮১ মিনিটে ক্রসবার গোল বঞ্চিত করে ক্যাসেমিরোকে। পরের মিনিটে ফ্রেডের শট বাচিয়ে দেন গোলরক্ষক। তবে ব্রাজিল গোল বাড়ানোর চেষ্টা অব্যাহত রাখে শেষ বাশি বাজার আগ পর্যন্ত।

ছবি

রেকর্ড রানের নাটকীয় ম্যাচে ইংল্যান্ডের স্মরণীয় জয়

ছবি

গোল উদযাপন : ব্রাজিলিয়ানদের নাচ ঘিরে বিতর্ক ও কোচের জবাব

ছবি

দি মারিয়া ফেরেননি অনুশীলনে

ছবি

মরক্কোকে যে কারণে কঠিন প্রতিপক্ষ ভাবছে স্পেন

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

কোরিয়াকে এক হালি গোল দিয়ে শেষ আটে ব্রাজিল

ছবি

জাপানকে টাইব্রেকারে হারিয়ে ক্রোয়েশিয়া কোয়ার্টার ফাইনালে

ছবি

এমবাপ্পের জোড়া গোলে শেষ আটে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা

ছবি

বিশ্বকাপের লড়াইয়ে সমান আর্জেন্টিনা-নেদারল্যান্ডস

ছবি

ইংল্যান্ড দলের জন্য আর্থিক পুরস্কার ঘোষণা

ছবি

কো.ফাইনালে ফ্রান্সের মুখোমুখি ইংল্যান্ড

ছবি

মরক্কোর বিপক্ষে কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে স্পেনকে

ছবি

লন্ডনের বাড়িতে ডাকাতি, ফিরে গেলেন স্টার্লিং

ছবি

দল বিদায় নিতেই অবসরের ইঙ্গিত লিওনডস্কির

ছবি

বিশ্বকাপে কেন সংবাদমাধ্যম এড়িয়ে চলছিলেন, জানালেন এমবাপ্পে

ছবি

জাপানের কাছে হার, চোখ খুলেছে স্পেনের

ছবি

পথচারীকে বাঁচাতে গিয়ে শিক্ষক-কাউন্সিলর হাসপাতালে

ছবি

সেনেগালকে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে ইংল্যান্ড

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

কোরিয়ার স্বপ্নযাত্রা থামিয়ে এগিয়ে যেতে চায় ব্রাজিল

ছবি

মেসির হাজারতম ম্যাচে প্রত্যাশিত জয়ে শেষ আটে আর্জেন্টিনা

ছবি

আরও একটি অঘটনের আশায় জায়ান্ট কিলার জাপান

ছবি

আমরা যে ফুটবল খেলতে পারি, বিশ্ববাসীকে দেখানোর লক্ষ্য পূরণ হয়েছে : মার্কিন কোচ

ছবি

বিশ্বকাপে জার্মানিকে নিয়ে ফুটবল ওয়েব সিরিজ হচ্ছে

ছবি

তিনটি করে গোল মেসিসহ ছয় ফুটবলারের

ছবি

কোরিয়ার স্বপ্ন যাত্রা থামিয়ে এগিয়ে যেতে চায় ব্রাজিল

ছবি

পোল্যান্ডের বিপক্ষে সহজেই জিতে শেষ আটে ফ্রান্স

ছবি

চাপ সামলে দেশকে উল্লাসে ভাসালো টাইগাররা

ছবি

অর্ধশত রানের জুটি গড়ে ভারতের বিপক্ষে জয় এনে দিলো মিরাজ-মুস্তাফিজ

ছবি

রোহিত-কোহলিকে ফেরালেন সাকিব

ছবি

কোরিয়ার বিপক্ষেই ফিরছেন নেইমার ও দানিলো

টিভিতে আজকের খেলার সূচি

ছবি

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে প্রত্যাশিত জয়ে শেষ আটে আর্জেন্টিনা

ছবি

সেনেগালকে হারিয়ে এগিয়ে যাওয়া লক্ষ্য ইংল্যান্ডের

ছবি

ইনজুরিতে ব্রাজিলের আরও দুই ফুটবলার

ছবি

গোল পার্থক্যে ছিটকে যাওয়ায় হতাশ সুয়ারেজ

tab

খেলা

কাতার বিশ্বকাপ ফুটবল

দারুন জয়ে অভিযান শুরু ব্রাজিলের

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

দ্বিতীয় গোলটি করছেন রিশার্লিসন

শুক্রবার, ২৫ নভেম্বর ২০২২

টপ ফেবারিট ব্রাজিল দারুন এক জয় দিয়ে বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করেছে। রাতে অনুষ্ঠিত জি গ্রুপের ম্যাচে ব্রাজিল ২-০ গোলে পরাজিত করেছে সার্বিয়াকে। প্রথমার্ধ খুব একটা ভাল করতে না পারলেও দ্বিতীয়ার্ধে ফেবারিটদের মতো খেলে জয় করায়াত্ব করে। ব্রাজিল ম্যাচে প্রচুর সুযোগ সৃষ্টি করলেও দুটির বেশী গোল করতে পারেনি। এছাড়া দুইবার পোস্ট বাধা হয়ে দাড়ায়। ব্রাজিলের গোল সংখ্যা বেশী না হওয়ার পেছনে বিশেষ অবদান ছিল সার্বিয়ার গোলরক্ষক মিলিনকোভিচ স্যাভিচের। বেশ কয়েকবার তিনি দারুন দক্ষতায় দলকে গোল খাওয়া থেকে বাচিয়েছেন।

এ ম্যাচ জেতায় ব্রাজিল জি গ্রুপের শীর্ষে উঠে গেছে। তাদের সমান তিন পয়েন্ট অর্জণ করেছে সুইজারল্যান্ড। তারা ১-০ গোলে পরাজিত কেেছ ক্যামেরুনকে। আর্জেন্টিনা এবং জার্মানি তাদের প্রথম ম্যাচে পরাজিত হওয়ায় সমর্থকদের মনে শঙ্কা ছিল ব্রাজিলকে নিয়েও। কিন্তু খেলোয়াড়রা দারুন খেলে জয়ী হয়েছে।

ব্রাজিল ম্যাচ শুরু করে বেশ সতর্কতার সাথে। তারা বেশ ভালভাবেই জানতো যে সার্বিয়ার সক্ষমতা আছে অঘটন ঘটিয়ে দেয়ার। বিশেষ করে তাদের খেলোয়াড়দের ফিটনেস এবং গতি ভয়ের কারণ হতে পারে। তাছাড়া ব্রাজিলের এবারের বড় দুর্বলতা রক্ষণভাগই। তাই তাদের বিশেষ ভাবে সতর্কতা অবলম্বন করতে হয়েছে। সার্বিয়াও নিজেদের দুর্গ অক্ষত রেখে আক্রমনে উঠেছে। অবশ্য ব্রাজিল বল দখলের হিসেবে এগিয়ে থাকে শুরু থেকেই। ২৭ মিনিটের সময় ভিনিসিয়ুস বল নিয়ে পেনাল্টি বক্সে ঢুকে পড়েছিলেন। কিন্তু তিনি শট মারার আগেই গোলরক্ষক ঝাপিয়ে পড়ে সেটি রুখে দেন। খেলা আধ ঘন্টা হওয়ার পর ব্রাজিল বেশ চেপে ধরে সার্বিয়াকে। ৩৪ মিনিটে সুযোগ পেয়েছিলেন রাফিনিয়া। তিনি শটও মেরেছিলেন, কিন্তু তাতে গতি না থাকায় গোলরক্ষক সাভিচ সহজেই ধরে নেন। খেলার ৪০ মিনিটে দারুন একটি সুযোগ পেয়েছিলেন ভিনিসিয়ুস, কিন্তু তিনি ঠিকমতো শট মারতে না পারায় সুযোগের অপচয় ঘটে। পারফরমেন্সের হিসেবে ব্রাজিল এগিয়ে থাকলেও কোন গোল করতে না পারায় বিরতি পর্যন্ত ম্যাচে সমতা বিরাজ করে। প্রথমার্ধে ব্রাজিল তাদের পরিচিত ছন্দময় ফুটবল খেলতে পারেনি। সার্বিয়া চেষ্টা করেছে তাদের খেলায় বাধা সৃষ্টি করতে এবং তাতে প্রথম ৪৫ মিনিট বেশ ভালভাবেই সফল হয়।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে গোলের সুন্দর একটি সুযোগ নষ্ট করেন রাফিনিয়া। গোলরক্ষককে একা পেয়েও তিনি তার কাছেই বল তুলে দেন। তবে এ অর্ধের শুরু থেকেই ব্রাজিলকে গোলের জন্য অনেক বেশী চেষ্টা করতে দেখা যায়। যে কারণে বল প্রায়ই থাকে সার্বিয়ার সীমানায়। ৫৫ মিনিটে নেইমার গোলমুখে ভলি মারেন। কিন্তু বল ঠিকমতো মারতে না পারায় সেটি বাইরে গেলে সুযোগ নষ্ট হয়। ৫৯ মিনিটে অ্যালেক্স স্যান্ড্রোর দূরপাল্লার শট পোস্টে লেগে প্রতিহত হয়। ব্রাজিল অবশেষে সফল হয় ৬২ মিনিটে। ভিনিসিয়ুসের শট গোলরক্ষক ফিরিয়ে দিলে সেটি ট্যাপ করে ব্রাজিলকে এগিয়ে দেন রিশার্লিসন। এ গোলের আগ পর্যন্ত রিচার্লিসন তেমন ভাল কিছু করতে পারেননি। তবে সময়মতো তিনি কাজের কাজটি করে দিয়েছেন। এ গোলের পর ব্রাজিল ব্যবধান বাড়ানোর চেষ্টা অব্যাহত রাখে। ৬৭ মিনিটে সুযোগও পেয়েছিল তারা। কিন্তু ভিনিসিয়ুস গোলরক্ষককে একা পেয়েও ঠিক মতো শট মারতে ব্যর্থ হন। ৭০ মিনিটে কর্নার কিক থেকে ব্রাজিলের গোলমুখে জটলার সৃষ্টি হয়েছিল। মার্কিনিয়োস হেডে দলকে বিপদ থেকে রক্ষা করেন। ৭৩ মিনিটে ব্রাজিল দ্বিতীয় গোল করে। এটিও করেন রিশার্লিসন। গোলটি ছিল এক কথায় অসাধারণ। ভিনিসিয়ুসের ক্রস নিয়ন্ত্রনে নিতে গেলে বল একটু উপরে উঠে যায় রিচার্লিসন তখন ঘুরে বাইসাইকেল কিকে বল জালে পাঠান। এবারের বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত এটা সেরা গোল। ব্রাজিল তাদের আক্রমণের ধারা বজায় রেখে একেবারে চেপে ধরে সার্বিয়াকে। ৮১ মিনিটে ক্রসবার গোল বঞ্চিত করে ক্যাসেমিরোকে। পরের মিনিটে ফ্রেডের শট বাচিয়ে দেন গোলরক্ষক। তবে ব্রাজিল গোল বাড়ানোর চেষ্টা অব্যাহত রাখে শেষ বাশি বাজার আগ পর্যন্ত।

back to top