alt

খেলা

ফ্রেঞ্চ ওপেন

চোটে পড়া আলকারাজকে হারিয়ে ফাইনালে জোকোভিচ

ক্রীড়া ডেস্ক : শনিবার, ১০ জুন ২০২৩

বলা হয়েছিল ফাইনালের আগে ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছেন নোভাক জোকোভিচ ও কার্লোস আলকারাজ। সেমিফাইনাল ম্যাচের মাঝপথেই আলকারাজ চোটে পড়ায় সেই উত্তাপ কমে যায়। যদিও তিনি পুরো ম্যাচই খেলেছেন, কিন্তু সেটি জোকোভিচকে চ্যালেঞ্জ জানানোর মতো যথেষ্ট ছিল না। ফলে ৬-৩, ৫-৭, ৬-১, ৬-১ জিতে ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপা জয়ের পথে এক পা দিয়ে রাখলেন ২২টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতা সার্বিয়ান তারকা।

অথচ অভিজ্ঞতায় পিছিয়ে থাকলেও ২০ বছর বয়সী আলকারাজের সঙ্গে ৩৬ বছর বয়সী জোকোভিচের লড়াইটা জমবে বলে মনে করেছিলেন টেনিস সংশ্লিষ্টরা। তরুণ টেনিস তারকা চোটে না পড়লে সেরকমটা হতেও পারতো। আলকারাজ এখন পর্যন্ত জিতেছেন একটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম।

ম্যাচের শুরুটা হয়েছিল দ্রুতগতিতে। প্রথম দুটি সার্ভ ধরে রেখে জোকোভিচ ২-১ গেমে এগিয়ে যান। এই গেমে জোকোভিচের একটি ক্রসকোর্ট ফোরহ্যান্ড উইনার দেখেই দর্শকরা বুঝতে পারেন, ম্যাচটা উত্তেজক হতে চলেছে। সেটা বোঝা গেল পরের গেমেই। আলকারাজকে ব্রেক করেন জোকোভিচ। কিন্তু ১৪ শটের যে র‌্যালি দেখা গেল, তা শেষ হওয়ার পর কেউই আর নিজের আসনে বসে থাকতে পারলেন না। দুই খেলোয়াড়ের র‌্যাকেট থেকেই বেরোল ড্রপ শট। শেষ হাসি জোকোভিচের।

প্রথম সেট শেষ হতে লাগল ৫৯ মিনিট। দ্বিতীয় সেটে আরও বেশি, ৭৭ মিনিট। অর্থাৎ দু’টি সেট শেষ হতে সময় লাগল প্রায় আড়াই ঘণ্টার কাছাকাছি। প্রতিটি পয়েন্টের জন্যে যেভাবে আলকারাজ লড়াই করছিলেন, যেভাবে অনায়াসে কোর্টজুড়ে ছুটে বেড়াচ্ছিলেন, তাতে ৩৬ বছরের জোকোভিচকে দেখে মনেই হচ্ছিল ম্যাচটা কঠিন হতে চলেছে। কে জানত তৃতীয় সেটে চোট পাবেন আলকারাজ!

ফলে প্রথম দু’টি সেটে যে রকম হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছিল, সেটি আর তৃতীয় সেটে দেখা যায়নি। গোটা কোর্ট দৌড়ানোর কারণে এমনিতেই বাড়তি পরিশ্রম করতে হচ্ছিল আলকারাজকে। তৃতীয় গেমের সময় তার ডান পায়ের পেশিতে টান ধরে। একটি শট রিটার্ন করতে গিয়ে ল্যান্ডিং ঠিক মতো হয়নি। শারীরিক ভাবে কিছুটা বিধ্বস্তও দেখাচ্ছিল। তার পুরোপুরি ফায়দা তুলে নিয়েছেন জোকোভিচ। ব্রেক করলেন স্প্যানিশ তারকাকে। এই সময় গোটা সেট জুড়েই শারীরিকভাবে বেশ অস্বস্তিতে দেখায় আলকারাজকে। জোকোভিচের ৬-১ জয়েই সেটা পরিষ্কার হয়ে ওঠে।

চতুর্থ সেটেও একই চিত্র। আলকারাজ ম্যাচটা ছেড়ে দেবেন কিনা, সেই শঙ্কা তৈরি হয়েছিল। কারণ যে কোর্ট কভারেজের জন্য তিনি সুখ্যাতি অর্জন করেছেন, সেই আলকারাজকেই দেখা যাচ্ছিল একের পর এক বল ছেড়ে দিতে। বলের ধারেকাছেই পৌঁছাতে পারছিলেন না তিনি। ফলে জোকোভিচের কাছে খেলাটা অনেক সহজ হয়ে যায়। পয়েন্টের জন্যে সেরকম কষ্টই করতে হচ্ছিল না তাকে।

এ নিয়ে সপ্তমবারের মতো ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফাইনালে উঠলেন জোকোভিচ। সেই ম্যাচে জিতলে এই সার্বিয়ান তারকা টেনিসে সর্বোচ্চ গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী হবেন। এর মাধ্যমে তিনি ছাড়িয়ে যাবেন যৌথভাবে সর্বোচ্চ গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী রাফায়েল নাদালকে।

ছবি

ইউরো ফাইনালে ইতিহাস গড়ার সুযোগ ‘নতুন’ ইংরেজদের

ছবি

সতর্ক থেকে শিরোপার ঘ্রাণ নিচ্ছে স্পেন

ছবি

বাংলাদেশের প্রথম লক্ষ্য সেমিফাইনাল : জাহানারা

ছবি

সৌভাগ্যের আকাশী-সাদা জার্সি পরেই ফাইনাল খেলবে আর্জেন্টিনা

ছবি

সাকিব-আফ্রিদিদের এলিট ক্লাবে নাম লেখালেন স্টোকস

ছবি

‘কঠিন’ ফাইনাল, আগের রাতে আরামে ঘুমোতে চান মেসি

ছবি

কোপায় আর্জেন্টিনা-কলম্বিয়া দ্বৈরথের ইতিহাস

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

শ্রীলঙ্কার টি-২০’র অধিনায়কত্ব ছাড়লেন হাসারাঙ্গা

ছবি

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির ম্যাচ পাকিস্তানে খেলবে না ভারত

ছবি

মেয়েদের এশিয়া কাপ ক্রিকেট : ভালো কিছু করার আসা বাংলাদেশি পেসার মারুফার

ছবি

১৫ বারের চ্যাম্পিয়ন উরুগুয়ের বিদায়, ফাইনালে আর্জেন্টিনার সামনে কলম্বিয়া

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

২০২৬ বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্ন মেসির

ছবি

ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ গৌতম গম্ভীর

ছবি

ফুটবল বিশ্বে আলো ছড়ানো শুরু ‘উদ্বাস্তু’ ইয়ামালের

ছবি

অস্ট্রেলিয়া সফরের এইচপি দল ঘোষণা

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

ডাচদের হারিয়ে শিরোপার মঞ্চে ইংলিশরা

ছবি

শেষ হলো ইনফিনিক্স ভিআর ক্রিকেট ক্যাম্পেইন

ছবি

টফিতে কোপা আমেরিকার সেমিফাইনাল ও ফাইনাল খেলা

ছবি

‘ব্রাজিল গ্রহের সবচেয়ে সফল দল, পরাজয়ও ইতিহাসের অংশ’

ছবি

ইউরোর দ্বিতীয় সেমিফাইনাল আজ, ইংল্যান্ডের সামনে এবার লড়াকু নেদারল্যান্ডস

ছবি

সেমিফাইনালের গোলে রেকর্ড বুকে লিওনেল মেসি

ছবি

কানাডাকে হারিয়ে শিরোপার মঞ্চে উঠলো আর্জেন্টিনা

টিভিতে আজকের খেলা

ছবি

ইউরো : ফ্রান্সকে বিদায় করে ফাইনালে স্পেন

ছবি

শতভাগ ফিট না থাকলেও মেসিকে খেলাবেন স্কালোনি

ছবি

টেস্ট ম্যাচের জন্য বছরে একটা সময় নির্দিষ্ট রাখা উচিত : কামিন্স

ছবি

বাবরদের প্রধান সমস্যা ধারাবাহিকতার অভাব : নতুন কোচ গিলেসপি

ছবি

মেজর লীগে সাকিব ব্যাটিংয়ে সফল হলেও বোলিংয়ে ব্যর্থ

ছবি

অবসর প্রসঙ্গে মুখ খুললেন ওয়ার্নার

বাফুফে নির্বাচনের তোড়জোড়

ছবি

ইউরোর প্রথম সেমিফাইনাল আজ, আত্মবিশ্বাসী স্পেনের বিপক্ষে ফ্রান্সের অগ্নিপরীক্ষা

ছবি

কোপার সেমিফাইনাল কাল সকালে, আর্জেন্টিনাকে হুঁশিয়ারি কানাডার

টিভিতে আজকের খেলা

tab

খেলা

ফ্রেঞ্চ ওপেন

চোটে পড়া আলকারাজকে হারিয়ে ফাইনালে জোকোভিচ

ক্রীড়া ডেস্ক

শনিবার, ১০ জুন ২০২৩

বলা হয়েছিল ফাইনালের আগে ফাইনালে মুখোমুখি হচ্ছেন নোভাক জোকোভিচ ও কার্লোস আলকারাজ। সেমিফাইনাল ম্যাচের মাঝপথেই আলকারাজ চোটে পড়ায় সেই উত্তাপ কমে যায়। যদিও তিনি পুরো ম্যাচই খেলেছেন, কিন্তু সেটি জোকোভিচকে চ্যালেঞ্জ জানানোর মতো যথেষ্ট ছিল না। ফলে ৬-৩, ৫-৭, ৬-১, ৬-১ জিতে ফ্রেঞ্চ ওপেনের শিরোপা জয়ের পথে এক পা দিয়ে রাখলেন ২২টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম জেতা সার্বিয়ান তারকা।

অথচ অভিজ্ঞতায় পিছিয়ে থাকলেও ২০ বছর বয়সী আলকারাজের সঙ্গে ৩৬ বছর বয়সী জোকোভিচের লড়াইটা জমবে বলে মনে করেছিলেন টেনিস সংশ্লিষ্টরা। তরুণ টেনিস তারকা চোটে না পড়লে সেরকমটা হতেও পারতো। আলকারাজ এখন পর্যন্ত জিতেছেন একটি গ্র্যান্ড স্ল্যাম।

ম্যাচের শুরুটা হয়েছিল দ্রুতগতিতে। প্রথম দুটি সার্ভ ধরে রেখে জোকোভিচ ২-১ গেমে এগিয়ে যান। এই গেমে জোকোভিচের একটি ক্রসকোর্ট ফোরহ্যান্ড উইনার দেখেই দর্শকরা বুঝতে পারেন, ম্যাচটা উত্তেজক হতে চলেছে। সেটা বোঝা গেল পরের গেমেই। আলকারাজকে ব্রেক করেন জোকোভিচ। কিন্তু ১৪ শটের যে র‌্যালি দেখা গেল, তা শেষ হওয়ার পর কেউই আর নিজের আসনে বসে থাকতে পারলেন না। দুই খেলোয়াড়ের র‌্যাকেট থেকেই বেরোল ড্রপ শট। শেষ হাসি জোকোভিচের।

প্রথম সেট শেষ হতে লাগল ৫৯ মিনিট। দ্বিতীয় সেটে আরও বেশি, ৭৭ মিনিট। অর্থাৎ দু’টি সেট শেষ হতে সময় লাগল প্রায় আড়াই ঘণ্টার কাছাকাছি। প্রতিটি পয়েন্টের জন্যে যেভাবে আলকারাজ লড়াই করছিলেন, যেভাবে অনায়াসে কোর্টজুড়ে ছুটে বেড়াচ্ছিলেন, তাতে ৩৬ বছরের জোকোভিচকে দেখে মনেই হচ্ছিল ম্যাচটা কঠিন হতে চলেছে। কে জানত তৃতীয় সেটে চোট পাবেন আলকারাজ!

ফলে প্রথম দু’টি সেটে যে রকম হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হয়েছিল, সেটি আর তৃতীয় সেটে দেখা যায়নি। গোটা কোর্ট দৌড়ানোর কারণে এমনিতেই বাড়তি পরিশ্রম করতে হচ্ছিল আলকারাজকে। তৃতীয় গেমের সময় তার ডান পায়ের পেশিতে টান ধরে। একটি শট রিটার্ন করতে গিয়ে ল্যান্ডিং ঠিক মতো হয়নি। শারীরিক ভাবে কিছুটা বিধ্বস্তও দেখাচ্ছিল। তার পুরোপুরি ফায়দা তুলে নিয়েছেন জোকোভিচ। ব্রেক করলেন স্প্যানিশ তারকাকে। এই সময় গোটা সেট জুড়েই শারীরিকভাবে বেশ অস্বস্তিতে দেখায় আলকারাজকে। জোকোভিচের ৬-১ জয়েই সেটা পরিষ্কার হয়ে ওঠে।

চতুর্থ সেটেও একই চিত্র। আলকারাজ ম্যাচটা ছেড়ে দেবেন কিনা, সেই শঙ্কা তৈরি হয়েছিল। কারণ যে কোর্ট কভারেজের জন্য তিনি সুখ্যাতি অর্জন করেছেন, সেই আলকারাজকেই দেখা যাচ্ছিল একের পর এক বল ছেড়ে দিতে। বলের ধারেকাছেই পৌঁছাতে পারছিলেন না তিনি। ফলে জোকোভিচের কাছে খেলাটা অনেক সহজ হয়ে যায়। পয়েন্টের জন্যে সেরকম কষ্টই করতে হচ্ছিল না তাকে।

এ নিয়ে সপ্তমবারের মতো ফ্রেঞ্চ ওপেনের ফাইনালে উঠলেন জোকোভিচ। সেই ম্যাচে জিতলে এই সার্বিয়ান তারকা টেনিসে সর্বোচ্চ গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী হবেন। এর মাধ্যমে তিনি ছাড়িয়ে যাবেন যৌথভাবে সর্বোচ্চ গ্র্যান্ড স্ল্যামজয়ী রাফায়েল নাদালকে।

back to top