alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

বাঘাইছড়িতে প্রতিপক্ষের গুলিতে সন্তুলারমা দলের নেতা নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, পার্বত্যাঞ্চল : শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার বঙ্গলতলী ইউনিয়নের মধ্যম বঙ্গলতলী এলাকায় প্রতিপক্ষের গুলিতে সন্তু লারমা নেতৃত্বাধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির এক নেতা নিহত হয়েছেন। তার নাম সুরেশ চাকমা ওরফে দীনেশ (৫৬)। শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ভোরের দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে এ ঘটনার জন্য সন্তু লারমা গ্রুপের পক্ষ থেকে প্রতিপক্ষ এমএন লারমা গ্রুপকে দায়ী করেছে। তবে এমএন লারমা গ্রুপের পক্ষ থেকে জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করা হয়েছে।

জানা গেছে, শুক্রবার উপজেলার বঙ্গলতলী ইউনিয়নের মধ্যম বঙ্গলতলী এলাকায় সুপ্পে চাকমার বাড়িতে অবস্থান করে ঘুমাচ্ছিলেন নিহত সুরেশ চাকমা। ভোর ৪টার দিকে একদল দুর্বৃত্ত বাড়ি ঘেরাও করে। এতে প্রাণের ভয়ে সুরেশ চাকমা খাটের নিচে লুকালেও সেখানে দুর্বৃত্তরা গুলি করে মৃত্যুর নিশ্চিত করে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে সকালের দিকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করতে গেলেও ঘটনাস্থলে লাশ খুঁজে পায়নি। ধারণা করা হচ্ছে স্থানীয়রা লাশ অন্যত্র সরিয়ে ফেলেছে। তবে পুলিশ স্থানীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ করার পর বিকালের দিকে লাশ পুলিশের হাতে হস্তান্তর করেছে। নিহত দীনেশ চাকমা জনসংহতি সমিতির সন্তু লারমা গ্রুপের উপজেলা শাখার বিচার বিভাগের প্রধান দায়িত্বে ছিলেন।

এদিকে, সন্তু লারমা দলের বাঘাইছড়ি উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ত্রিদিপ চাকমা ওরপেফ দীপের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ ঘটনার জন্য এমএন লারমা দলকে দায়ী করে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন। তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করে এমএন লারমা দলের উপজেলা শাখার সভাপতি জ্ঞানজীব চাকমা বলেন তাদের দলে কোন সন্ত্রাসী কার্যক্রম নেই। তারা পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নের কাজ করছেন। তাদের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে তারা নিজেদের গুলিতে নিজেরাই নিহত হয়েছেন।

বাঘাইছড়ি থানার ওসি আনোয়ার হোসেন খানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল গেলেও প্রথমে স্থানীয়রা লাশ না দিলেও পরে লাশ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

ছবি

সাবেক মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফের এপিএস আরও দুই দিনের রিমান্ডে

ছবি

ঘরের মেঝে খুঁড়ে বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার, আটক ১

ছবি

কুবিতে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের মারামারির ঘটনায় আহত ১০

কুমিল্লায় সোশাল মিডিয়ায় অপপ্রচারের অভিযোগে আরও একজন গ্রেপ্তার

জবির চার শিক্ষার্থীসহ পাঁচ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট

বোয়ালমারীতে পুলিশের ওপর হামলা : আটক ৩

চাকরির বিজ্ঞাপনে প্রতারিত ১২শ’ যুবক : আটক ৩

ছবি

মিতু হত্যা : নারাজি আবেদনে বলা হয়, ‘বাবুল ষড়যন্ত্রের শিকার’

ছবি

কুমিল্লায় ‘উসকানি’ দিয়ে মন্দিরে হামলা : আটক ৪৩

ছবি

এহসান গ্রুপ, কিউকমসহ ১০ প্রতিষ্ঠানের ব্যাংক হিসাব স্থগিত

ছবি

বিতর্কিত কাউন্সিলর চিত্তরঞ্জন দাস কারাগারে

ছবি

তসলিমা নাসরিনসহ ৩ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট

ছবি

রাজধানীতে মাদক বিরোধী অভিযানে আটক ৪২

বিয়ের পাঁচ দিনের মাথায় স্বামীকে অচেতন করে নববধূ উধাও

মুদি দোকানি থেকে মানব পাচারকারী

ছবি

রাজউকের সাবেক গাড়ি চালক ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

যৌতুক, পরকীয়ায় বাধা দেয়াই কাল হয় স্বর্ণার

খিলগাঁওয়ে সিআইডি ইন্সপেক্টর শামসুদ্দিনের অত্যাচার, আতঙ্কে ১০ পরিবার

ছবি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় নুরকে অব্যাহতি

লক্ষ্মীপুরে তাস খেলা বিবাদে জেলেকে হত্যার অভিযোগ

ছবি

ভান্ডারিয়ায় ফুটপাত দখল করে দোকান : যানজট

পাথরঘাটায় ছাত্রীকে উত্যক্তের প্রতিবাদী ৩ ছাত্রকে মারধর

প্রতিবাদী বৃদ্ধাকে মারধর

চেয়ারম্যানের প্রতারণায় হিন্দু পরিবার নিঃস্ব : তদন্তের নির্দেশ

ফরিদপুরে সাবেক মন্ত্রীর এপিএস ফুয়াদ আটক

ছবি

সাবেক মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফের এপিএস ফুয়াদ গ্রেপ্তার

ছবি

মধ্যপ্রাচ্যে মানবপাচারকারী চক্রের প্রধানসহ আটক ৮

কিডনি বেচাকেনায় প্রতারণা, প্রতি কিডনি ২০ লাখ টাকা

শতাধিক ইউপি চেয়ারম্যান ও মেম্বারের দুর্নীতির অনুসন্ধানে দুদক

বগুড়ায় খাদ্যবান্ধব কর্মসুচীর ৭১ বস্তা চাল আটক

চাটখিলে অবাধে চলছে হাইড্রোলিক ট্রাক : দুর্ঘটনা প্রতিদিন

দুই জেলায় মা ইলিশ ধরায় ১৮২ জেলের কারাদন্ড শরীয়তপুর

কিশোরগঞ্জে ইয়াবা, যুবক ধৃত

সৈয়দপুরে স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা ইয়াবাসহ গ্রেপ্তার

ছবি

সুইস ব্যাংকে প্রিন্স মুসার বিলিয়ন ডলারের সকল তথ্য মিথ্যা: ডিবি

হাতিয়ায় পঞ্চম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণ, ধর্ষক আটক

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

বাঘাইছড়িতে প্রতিপক্ষের গুলিতে সন্তুলারমা দলের নেতা নিহত

নিজস্ব প্রতিবেদক, পার্বত্যাঞ্চল

শুক্রবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২১

রাঙামাটির বাঘাইছড়ি উপজেলার বঙ্গলতলী ইউনিয়নের মধ্যম বঙ্গলতলী এলাকায় প্রতিপক্ষের গুলিতে সন্তু লারমা নেতৃত্বাধীন পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির এক নেতা নিহত হয়েছেন। তার নাম সুরেশ চাকমা ওরফে দীনেশ (৫৬)। শুক্রবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ভোরের দিকে এ ঘটনা ঘটেছে।

এদিকে এ ঘটনার জন্য সন্তু লারমা গ্রুপের পক্ষ থেকে প্রতিপক্ষ এমএন লারমা গ্রুপকে দায়ী করেছে। তবে এমএন লারমা গ্রুপের পক্ষ থেকে জড়িত থাকার কথা অস্বীকার করা হয়েছে।

জানা গেছে, শুক্রবার উপজেলার বঙ্গলতলী ইউনিয়নের মধ্যম বঙ্গলতলী এলাকায় সুপ্পে চাকমার বাড়িতে অবস্থান করে ঘুমাচ্ছিলেন নিহত সুরেশ চাকমা। ভোর ৪টার দিকে একদল দুর্বৃত্ত বাড়ি ঘেরাও করে। এতে প্রাণের ভয়ে সুরেশ চাকমা খাটের নিচে লুকালেও সেখানে দুর্বৃত্তরা গুলি করে মৃত্যুর নিশ্চিত করে পালিয়ে যায়। খবর পেয়ে সকালের দিকে পুলিশ লাশ উদ্ধার করতে গেলেও ঘটনাস্থলে লাশ খুঁজে পায়নি। ধারণা করা হচ্ছে স্থানীয়রা লাশ অন্যত্র সরিয়ে ফেলেছে। তবে পুলিশ স্থানীয়দের সঙ্গে যোগাযোগ করার পর বিকালের দিকে লাশ পুলিশের হাতে হস্তান্তর করেছে। নিহত দীনেশ চাকমা জনসংহতি সমিতির সন্তু লারমা গ্রুপের উপজেলা শাখার বিচার বিভাগের প্রধান দায়িত্বে ছিলেন।

এদিকে, সন্তু লারমা দলের বাঘাইছড়ি উপজেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ত্রিদিপ চাকমা ওরপেফ দীপের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি এ ঘটনার জন্য এমএন লারমা দলকে দায়ী করে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার জন্য সরকারের কাছে জোর দাবি জানিয়েছেন। তবে এই অভিযোগ অস্বীকার করে এমএন লারমা দলের উপজেলা শাখার সভাপতি জ্ঞানজীব চাকমা বলেন তাদের দলে কোন সন্ত্রাসী কার্যক্রম নেই। তারা পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নের কাজ করছেন। তাদের অভ্যন্তরীণ কোন্দলের কারণে তারা নিজেদের গুলিতে নিজেরাই নিহত হয়েছেন।

বাঘাইছড়ি থানার ওসি আনোয়ার হোসেন খানের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থল গেলেও প্রথমে স্থানীয়রা লাশ না দিলেও পরে লাশ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য খাগড়াছড়ি জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

back to top