alt

শিক্ষা

সংসদে শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন

‘আন্দোলনের ভয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খুলছি না, এমন অভিযোগ হাস্যকর’

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : বুধবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, আন্দোলনের ভয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খোলা হচ্ছে না- এমন অভিযোগকে হাস্যকর। আওয়ামী লীগ তো সারাজীবন আন্দোলন করেছে। গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিয়েছে। কারা তাদের বিরুদ্ধে আন্দোলন করবে? জনবিচ্ছিন্নদের আন্দোলন নিয়ে আমরা ভয় পাব, তা হাস্যকর।

আজ (১৫ সেপ্টেম্বর) বুধবার জাতীয় সংসদে কুড়িগ্রাম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় বিলের বিষয়ে আলোচনায় অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, শিক্ষার মান নিয়ে আমাদের প্রায়ই প্রশ্ন করা হয়। কিন্তু আমাদের এখান থেকে পাস করে দেশে ও বিদেশে যে সাফল্য আমরা দেখি, তাতে শিক্ষার মান তলিয়ে গেছে- কথাটি বলার সুযোগ নেই। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা মানসম্পন্ন নন এ কথাগুলোও আসে না।

তিনি বলেন, ভিসি নিয়োগ দেওয়ার সময় অনেকগুলো বিষয় সামনে আনা হয়। তার একাডেমিক এক্সিলেন্স, প্রশাসনিক দক্ষতা ও নেতৃত্বের গুণাবলী দেখা হয়। সবকিছু দেখে আমরা প্যানেল নির্ধারণ করি। তারপর বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যায়, সেখানেও যাচাই-বাছাই করা হয়। তারপর রাষ্ট্রপতির কাছে যায়। দীর্ঘ ভোটিং প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ভিসি নিয়োগ চূড়ান্ত করা হয়। এখন পর্যন্ত যেসব অভিযোগ এসেছে, সেগুলো হাতেগোনা।

দিপু মনি বলেন, অনেক সময় দেখা যায় ভিসির মেয়াদ শেষ হয়ে আসছে। তখন অনেকই নতুন ভিসি হতে চান। সে কারণে যিনি দায়িত্বে থাকেন, তার সময়কাল নিয়ে প্রশ্ন তোলার জন্য নানা কথা তুলে ধরা হয়। কিন্তু কোনো জায়গা থেকে কোনো অভিযোগ এলে আমরা ইউজিসির মাধ্যমে তদন্ত করি।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৬ ভাগ শিক্ষার্থী বেকার, এমন পরিসংখ্যানের বিষয়ে তিনি বলেন, সারা দেশে এমনকি প্রত্যন্ত অঞ্চলেও যেখানে অনার্স-মাস্টার্স চালু করার অবকাঠামো নেই সেখানে আমাদের জনপ্রতিনিধিদের কারণে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বাধ্য হয়েছে তা চালু করতে। যেখানে যোগ্যতাসম্পন্ন শিক্ষক নেই সেখানেও অনার্স-মাস্টার্স খুলে যত্রতত্র সনদ দেওয়া হয়েছে। তার জন্য আমরা জনপ্রতিনিধিরাই অধিকাংশ দায়ী।

শিক্ষক নিয়োগের অনিয়ম প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষক নিয়োগের ন্যূনতম যোগ্যতার একটি নীতিমালা করে দেওয়া হয়েছে ইউজিসির মাধ্যমে। ইউজিসির সক্ষমতার বৃদ্ধির জন্যও কাজ করছি। আশা করি, শিগগিরিই এটি সংসদে উঠবে।

এনটিআরসি নিয়োগে পুলিশ ভেরিফিকেশন এখন খুবই প্রয়োজনীয় বিষয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, এখন জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসসহ নানান রকমের সমস্যা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে যেভাবে জাল বিস্তার করছে। সেখানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়োগের ক্ষেত্রে সজাগ ও সতর্ক থাকা উচিত বলেও জানান তিনি।

ছবি

সব বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের টিকার নিবন্ধনে ওয়েবলিংক চালু

ছবি

উপাচার্যের বাসভবনের সামনে কৃষ্ণচূড়ার প্রতীকী লাশ

এইচএসসির ফরম পূরণের সময় আবারও বাড়লো

ছবি

বিশ্ববিদ্যালয়ে সেশনজটের সুযোগ বেশি নেই: ডা. দীপু মনি

ছবি

কুড়িগ্রামে কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় স্থাপনের বিল জাতীয় সংসদে পাস

ছবি

বাঘায় কাদা পানি মাড়িয়ে স্কুলে আসা শিক্ষার্থীরা ক্লাস করে গাছ তলায়

ছবি

লালমোহনে মাত্র এক শিক্ষিকায় চলছে পাঁচ শ্রেণির পাঠদান

২৭ সেপ্টেম্বরের পর খুলবে বিশ্ববিদ্যালয়

ছবি

সিবিআইইউতে শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে স্মারকলিপি পেশ

ছবি

সব বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীদের ২৭ সেপ্টেম্বরের মধ্যে টিকার নিবন্ধন করতে

ছবি

দেশের সব বিশ্ববিদ্যালয় খোলা সিদ্ধান্ত

ছবি

নতুন শিক্ষাক্রমে যেসব পরিবর্তন বাস্তবায়ন করা হবে

ছবি

দেশের সব বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে পর্ষদ গঠন ও নির্বাচনের অনুমতি

ছবি

স্বশরীরে উপস্থিতির ভিত্তিতে ক্লাস শুরু করেছে ডিপিএস এসটিএস স্কুল

ছবি

আজ থেকে শুরু মেডিকেলের ক্লাস

ছবি

নারায়ণগঞ্জে খুলেছে সহস্রাধিক শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, স্বাস্থ্যবিধির কড়াকড়ি, শিক্ষার্থীদের উচ্ছ্বাস

বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের তৃতীয় ধাপে আবেদনের সুযোগ

ছবি

আজ থেকে শুরু হচ্ছে ঢাবি ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র সংগ্রহ

ছবি

খুলছে স্কুল, গ্রাম ও শহরে বেড়ে যাওয়া ব্যবধান কমানোই চ্যালেঞ্জ

ছবি

শ্রেণিকক্ষে এক বেঞ্চে বসবে একজন শিক্ষার্থী

ছবি

শিক্ষকদের বিভিন্ন দাবি আদায়ের জন্য ‘মহাজোট’ গঠন

ছবি

খুলছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, দ্বিধাদ্বন্দ্বে শিক্ষার্থী-অভিভাবকরা

ছবি

সেশনজট নিরসনে ঢাবির শরৎকালীন ও শীতকালীন ছুটি বাতিল

ছবি

৪২তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ করেছে পিএসসি

ছবি

৬ মাসের বেশি বেসরকারি শিক্ষকদের বরখাস্ত নয়: হাই কোর্ট

ছবি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের রুটিন তৈরিতে ১১ নির্দেশনা

ছবি

সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের জন্য রুটিন তৈরিতে ১১ নির্দেশনা

প্রথম দিকে অল্প সময়ের জন্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলা রাখার পরামর্শ

ছবি

১২ সেপ্টম্বর ভর্তির আবেদন শুরু: জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়

ছবি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৩৮ জনের নিয়োগে স্থগিতাদেশ: হাইকোর্ট

ছবি

১২ সেপ্টেম্বর থেকেই শুরু শ্রেণিকক্ষে পাঠদান

ছবি

চীনে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের ক্যাম্পাসে ফেরানোর দাবিতে মানববন্ধন

ছবি

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে ঢাবিতে গোল টেবিল বৈঠক

ছবি

বিশ্বের সেরা বিশ্ববিদ্যালয়ের তালিকায় ঢাবি, বাকৃবি ও বুয়েট

ছবি

শিক্ষার্থীদের ক্ষতিপূরণ ক্লাস নেওয়া হবে: ডা. দীপু মনি

ছবি

অক্টোবরে খুলবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: ভিসি

tab

শিক্ষা

সংসদে শিক্ষামন্ত্রী বলেছেন

‘আন্দোলনের ভয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খুলছি না, এমন অভিযোগ হাস্যকর’

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

বুধবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২১

শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি বলেছেন, আন্দোলনের ভয়ে বিশ্ববিদ্যালয় খোলা হচ্ছে না- এমন অভিযোগকে হাস্যকর। আওয়ামী লীগ তো সারাজীবন আন্দোলন করেছে। গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিয়েছে। কারা তাদের বিরুদ্ধে আন্দোলন করবে? জনবিচ্ছিন্নদের আন্দোলন নিয়ে আমরা ভয় পাব, তা হাস্যকর।

আজ (১৫ সেপ্টেম্বর) বুধবার জাতীয় সংসদে কুড়িগ্রাম কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় বিলের বিষয়ে আলোচনায় অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন তিনি।

মন্ত্রী বলেন, শিক্ষার মান নিয়ে আমাদের প্রায়ই প্রশ্ন করা হয়। কিন্তু আমাদের এখান থেকে পাস করে দেশে ও বিদেশে যে সাফল্য আমরা দেখি, তাতে শিক্ষার মান তলিয়ে গেছে- কথাটি বলার সুযোগ নেই। বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা মানসম্পন্ন নন এ কথাগুলোও আসে না।

তিনি বলেন, ভিসি নিয়োগ দেওয়ার সময় অনেকগুলো বিষয় সামনে আনা হয়। তার একাডেমিক এক্সিলেন্স, প্রশাসনিক দক্ষতা ও নেতৃত্বের গুণাবলী দেখা হয়। সবকিছু দেখে আমরা প্যানেল নির্ধারণ করি। তারপর বিষয়টি প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে যায়, সেখানেও যাচাই-বাছাই করা হয়। তারপর রাষ্ট্রপতির কাছে যায়। দীর্ঘ ভোটিং প্রক্রিয়ার মাধ্যমে ভিসি নিয়োগ চূড়ান্ত করা হয়। এখন পর্যন্ত যেসব অভিযোগ এসেছে, সেগুলো হাতেগোনা।

দিপু মনি বলেন, অনেক সময় দেখা যায় ভিসির মেয়াদ শেষ হয়ে আসছে। তখন অনেকই নতুন ভিসি হতে চান। সে কারণে যিনি দায়িত্বে থাকেন, তার সময়কাল নিয়ে প্রশ্ন তোলার জন্য নানা কথা তুলে ধরা হয়। কিন্তু কোনো জায়গা থেকে কোনো অভিযোগ এলে আমরা ইউজিসির মাধ্যমে তদন্ত করি।

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬৬ ভাগ শিক্ষার্থী বেকার, এমন পরিসংখ্যানের বিষয়ে তিনি বলেন, সারা দেশে এমনকি প্রত্যন্ত অঞ্চলেও যেখানে অনার্স-মাস্টার্স চালু করার অবকাঠামো নেই সেখানে আমাদের জনপ্রতিনিধিদের কারণে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় বাধ্য হয়েছে তা চালু করতে। যেখানে যোগ্যতাসম্পন্ন শিক্ষক নেই সেখানেও অনার্স-মাস্টার্স খুলে যত্রতত্র সনদ দেওয়া হয়েছে। তার জন্য আমরা জনপ্রতিনিধিরাই অধিকাংশ দায়ী।

শিক্ষক নিয়োগের অনিয়ম প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, শিক্ষক নিয়োগের ন্যূনতম যোগ্যতার একটি নীতিমালা করে দেওয়া হয়েছে ইউজিসির মাধ্যমে। ইউজিসির সক্ষমতার বৃদ্ধির জন্যও কাজ করছি। আশা করি, শিগগিরিই এটি সংসদে উঠবে।

এনটিআরসি নিয়োগে পুলিশ ভেরিফিকেশন এখন খুবই প্রয়োজনীয় বিষয় উল্লেখ করে তিনি বলেন, এখন জঙ্গিবাদ, সন্ত্রাসসহ নানান রকমের সমস্যা পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে যেভাবে জাল বিস্তার করছে। সেখানে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে নিয়োগের ক্ষেত্রে সজাগ ও সতর্ক থাকা উচিত বলেও জানান তিনি।

back to top