alt

রাজনীতি

বিএনপি শুরু থেকে নির্বাচনে সিরিয়াসলি অংশ নিলে আরো ভালো করত: তথ্যমন্ত্রী

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ জানিয়েছেন, বিএনপি ২০১৮ সালে নির্বাচনের শুরুতে তারা বানচালের দিকে না গিয়ে, শুরু থেকে সিরিয়াসলি নিয়ে অংশগ্রহণ করত, তাহলে হয়তো তারা আরও ভালো ফলাফল করতে পারত। তিনি বলেন, ২০১৪ ও ২০১৮ সালে যে ভুল করেছে, সেই ভুলের পুনরাবৃত্তি করলে বিএনপি আরও ছোট হয়ে যাবে। যেটা তাদের জন্য আত্মহননমূলক হবে।

আজ (১৩ সেপ্টেম্বর) সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

বিএনপি বলছে, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে হতে হবে। না হলে বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেবে না এবং কোনো নির্বাচনও বাংলাদেশে হতে দেবে না। দলটির এ শতর্কবাণীর বিষয়টি কীভাবে দেখছেন, জানতে চাইলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি এ ধরনের কথা ২০১৪ সালের বহু আগে থেকেই বলে আসছিল এবং ২০১৪ সালের নির্বাচন বানচাল করার জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়েছিল। সে সময় তারা ৫০০ ভোটকেন্দ্র জ্বালিয়ে দিয়েছিল, ছাত্রছাত্রীদের নতুন বই পুড়িয়ে দিয়েছে। কারণ স্কুলগুলো ভোটকেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছিল। আর সেখানে রক্ষিত ছিল বইগুলো।

তিনি আরও বলেন, সেই বই জ্বালিয়ে দিয়েছে বহু মানুষকে হত্যা করেছে, নির্বাচনী কর্মকর্তাদের হত্যা করেছে। এরপরও তারা নির্বাচন ঠেকাতে পারেনি, দেশে নির্বাচন হয়েছে। ২০১৮ সালেও নির্বাচন বানচাল করার চেষ্টা করা হয়েছিল। তখনও তারা এ ধরনের হুমকি-ধমকি দিয়েছে। কিন্তু পরবর্তীতে নির্বাচনে অংশ নিয়েছে।

তিনি বলেন, ২০১৮ সালে নির্বাচনের শুরুতে তারা বানচালের দিকে না গিয়ে, শুরু থেকে সিরিয়াসলি নিয়ে অংশগ্রহণ করত, তাহলে হয়তো তারা আরও ভালো ফলাফল করতে পারত। বর্তমানে বিএনপির একই তর্জন-গর্জন শোনা যাচ্ছে, যখন নির্বাচনের বাকি সোয়া দুই বছর। বিএনপিকে অনুরোধ জানাব, ২০১৪ ও ২০১৮ সালে তারা যে ভুল করেছে, সেই ভুলের পুনরাবৃত্তি করলে বিএনপি আসলে ছোট হয়ে আসছে, আরও ছোট হয়ে যাবে। যেটা তাদের জন্য আত্মহননমূলক হবে। যেটি ২০১৪ ও ২০১৮ সালে হয়েছিল।

ইউটিউবে যে পরিমাণ অশ্লীল কনটেন্ট দেখানো হয়, একই সঙ্গে রাষ্ট্রসহ সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হয়, সেগুলো বন্ধ করার কোনো সুযোগ আছে কি না, এ বিষয়ে তিনি বলেন, এগুলোর সার্ভিস প্রোভাইডার হচ্ছে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ বা অন্যান্য যেসকল প্ল্যাটফর্মে দেখানো হয় সেসকল কর্তৃপক্ষ।

তিনি আরও বলেন, তাদেরকে বলা হয় অনেক ক্ষেত্রে সারা পাওয়া যায়, অনেক ক্ষেত্রে সারা পাওয়া যায় না। সে কারণে আমরা আরও জোড়ালো ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সার্ভিস প্রোভাইডারের সঙ্গে আলোচনায় আছি। অনেকটা এগিয়ে এসেছে আমরা আশায় আছি। সরকারের পক্ষ থেকে ফেসবুকসহ অন্য প্লাটফর্মকে বলা হয়েছে বাংলাদেশে তাদের অফিস খোলার জন্য। বাংলাদেশে যখন এ সকল কোম্পানি নিবন্ধিত হবে, তখন বাংলাদেশের আইনানুযায়ী এ সমস্ত কনটেন্ট বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া অনেকটা সহজ হবে। এ ধরনের কনটেন্ট সরানো বা বন্ধ করার ক্ষেত্রে যে প্রতিবন্ধকতা আছে, সেগুলো দূর হবে।

ছবি

সরকার যে কারো ব্যাংক হিসাব তলব করতে পারে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

নির্বাচন কমিশনের ক্ষমতা সাধারণ মানুষের কাছে দৃশ্যমান নয়: জি এম কাদের

ছবি

সাংবাদিক নেতার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ ব্যাংকের চিঠি অপ্রত্যাশি: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

বিএনপির আন্দোলনের চেষ্টা বরাবরের মতই ব্যর্থ হবে: ওবায়দুল কাদের

ছবি

কুমিল্লা-৭ : সংসদে যাচ্ছেন চিকিৎসক প্রাণ গোপাল

ছবি

নির্বাচনী প্রেসক্রিপশন বিএনপির কাছ থেকে শিখতে হবে না: তথ্যপ্রতিমন্ত্রী

ছবি

ছাত্র-যুব পরিষদ ২০ নেতাদের পক্ষে আদালতে কথা বললেন জাফরুল্লাহ

ছবি

সরকার ভয় পায় বলেই, খালেদা জিয়াকে বিদেশে যেতে দিচ্ছে না: মির্জা ফখরুল

ছবি

আওয়ামী লীগের নৌকায় সবাই উঠতে চায়: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

বিএনপি দেশের চলমান স্থিতিশীলতা বিনষ্টের চেষ্টা করছে: ওবায়দুল কাদের

ছবি

জাতীয় পার্টির ভাইস চেয়ারম্যান পদে ফিরলেন শাফিন

ছবি

খালেদা জিয়ার মুক্তির মেয়াদ আরো ৬ মাস বাড়ল

ছবি

নির্বাচনী পরিবেশ নষ্ট হওয়ার জন্য প্রার্থীরা দায়ী: ইসি শাহাদাত

ছবি

পরিবহন জগতের শ্রেষ্ঠ চাঁদাবাজ রাঙ্গা: কাদের মির্জা

ছবি

সরকার কখনোই পার পাবে না: মির্জা ফখরুল

ছবি

নির্বাচন দলের অধীনে হয় না, নির্বাচন হয় কমিশনের অধীনে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

নির্বাচনে আস্থা ফেরাতে ইসির ‘সক্রিয়’ এবং ‘ইতিবাচক’ ভূমিকা চায় ওয়ার্কার্স পার্টি

ছবি

‘সবরকম গ্রহণযোগ্য পন্থায় নির্বাচন কমিশন গঠন করা হবে’: ওবায়দুল কাদের

ছবি

বাংলাদেশে কোনও নিরপেক্ষ-তত্বাবধায়ক সরকার হবে না

ছবি

জনগণের সেবা করতে চাই চাকর হিসেবে: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

ছবি

বিএনপি রুদ্ধদ্বার বৈঠক: দল চাঙা করতে ‘সহযোগী সংগঠন গোছানোর তাগাদা’

ছবি

প্রধানমন্ত্রী পরবর্তী নির্বাচন নিয়ে ভাবেন না, ভাবেন আগামী প্রজন্ম নিয়ে: ওবায়দুল কাদের

ছবি

জিয়ার লাশ চন্দ্রিমায় থাকার প্রমাণ কোথাও নেই: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতারা মতামত দিলেন

ছবি

বঙ্গবন্ধু আমাদের সকলের প্রেরণার উৎস: তথ্য প্রতিমন্ত্রী

ছবি

‘অসত্য’ বক্তব্য উপস্থাপনকে রেওয়াজে পরিণত করেছে বিএনপি: ওবায়দুল কাদের

ছবি

সরকারকে গ্রাহকের টাকা ফিরিয়ে দিতে হবে: সংসদে রুমিন ফারহানা

ছবি

সংসদে জিয়ার কবর নিয়ে রাজনৈতিক বিতর্ক

ছবি

‘জিয়ার লাশের নামে সাজিয়ে-গুজিয়ে একটা বাক্সো আনা হয়েছিল’

ছবি

বিএনপির দ্বিতীয় দিনের রুদ্ধদ্বার বৈঠক

ছবি

বিএনপির বৈঠক: ‘বর্তমান সরকারের অধীনে কোনো নির্বাচন নয়’

ছবি

প্রতিটি ঘরে জাতির পিতার ছবি রাখার অনুরোধ তথ্য প্রতিমন্ত্রীর

ছবি

আফগানিস্তানে মানবিক সহায়তা পাঠাতে প্রস্তুত বাংলাদেশ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

ছবি

বিএনপি সবসময় পেছনের দরজা খোঁজে: তথ্যমন্ত্রী

ছবি

রিজভীর বিরুদ্ধে মানহানি মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

ছবি

সরকারকে ফ্যাসিবাদী বলার আগে আয়নায় নিজেদের দেখুন: ওবায়দুল কাদের

tab

রাজনীতি

বিএনপি শুরু থেকে নির্বাচনে সিরিয়াসলি অংশ নিলে আরো ভালো করত: তথ্যমন্ত্রী

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

সোমবার, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ জানিয়েছেন, বিএনপি ২০১৮ সালে নির্বাচনের শুরুতে তারা বানচালের দিকে না গিয়ে, শুরু থেকে সিরিয়াসলি নিয়ে অংশগ্রহণ করত, তাহলে হয়তো তারা আরও ভালো ফলাফল করতে পারত। তিনি বলেন, ২০১৪ ও ২০১৮ সালে যে ভুল করেছে, সেই ভুলের পুনরাবৃত্তি করলে বিএনপি আরও ছোট হয়ে যাবে। যেটা তাদের জন্য আত্মহননমূলক হবে।

আজ (১৩ সেপ্টেম্বর) সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

বিএনপি বলছে, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে হতে হবে। না হলে বিএনপি নির্বাচনে অংশ নেবে না এবং কোনো নির্বাচনও বাংলাদেশে হতে দেবে না। দলটির এ শতর্কবাণীর বিষয়টি কীভাবে দেখছেন, জানতে চাইলে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপি এ ধরনের কথা ২০১৪ সালের বহু আগে থেকেই বলে আসছিল এবং ২০১৪ সালের নির্বাচন বানচাল করার জন্য সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়েছিল। সে সময় তারা ৫০০ ভোটকেন্দ্র জ্বালিয়ে দিয়েছিল, ছাত্রছাত্রীদের নতুন বই পুড়িয়ে দিয়েছে। কারণ স্কুলগুলো ভোটকেন্দ্র হিসেবে ব্যবহার করা হচ্ছিল। আর সেখানে রক্ষিত ছিল বইগুলো।

তিনি আরও বলেন, সেই বই জ্বালিয়ে দিয়েছে বহু মানুষকে হত্যা করেছে, নির্বাচনী কর্মকর্তাদের হত্যা করেছে। এরপরও তারা নির্বাচন ঠেকাতে পারেনি, দেশে নির্বাচন হয়েছে। ২০১৮ সালেও নির্বাচন বানচাল করার চেষ্টা করা হয়েছিল। তখনও তারা এ ধরনের হুমকি-ধমকি দিয়েছে। কিন্তু পরবর্তীতে নির্বাচনে অংশ নিয়েছে।

তিনি বলেন, ২০১৮ সালে নির্বাচনের শুরুতে তারা বানচালের দিকে না গিয়ে, শুরু থেকে সিরিয়াসলি নিয়ে অংশগ্রহণ করত, তাহলে হয়তো তারা আরও ভালো ফলাফল করতে পারত। বর্তমানে বিএনপির একই তর্জন-গর্জন শোনা যাচ্ছে, যখন নির্বাচনের বাকি সোয়া দুই বছর। বিএনপিকে অনুরোধ জানাব, ২০১৪ ও ২০১৮ সালে তারা যে ভুল করেছে, সেই ভুলের পুনরাবৃত্তি করলে বিএনপি আসলে ছোট হয়ে আসছে, আরও ছোট হয়ে যাবে। যেটা তাদের জন্য আত্মহননমূলক হবে। যেটি ২০১৪ ও ২০১৮ সালে হয়েছিল।

ইউটিউবে যে পরিমাণ অশ্লীল কনটেন্ট দেখানো হয়, একই সঙ্গে রাষ্ট্রসহ সরকারের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালানো হয়, সেগুলো বন্ধ করার কোনো সুযোগ আছে কি না, এ বিষয়ে তিনি বলেন, এগুলোর সার্ভিস প্রোভাইডার হচ্ছে ইউটিউব কর্তৃপক্ষ বা অন্যান্য যেসকল প্ল্যাটফর্মে দেখানো হয় সেসকল কর্তৃপক্ষ।

তিনি আরও বলেন, তাদেরকে বলা হয় অনেক ক্ষেত্রে সারা পাওয়া যায়, অনেক ক্ষেত্রে সারা পাওয়া যায় না। সে কারণে আমরা আরও জোড়ালো ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য সার্ভিস প্রোভাইডারের সঙ্গে আলোচনায় আছি। অনেকটা এগিয়ে এসেছে আমরা আশায় আছি। সরকারের পক্ষ থেকে ফেসবুকসহ অন্য প্লাটফর্মকে বলা হয়েছে বাংলাদেশে তাদের অফিস খোলার জন্য। বাংলাদেশে যখন এ সকল কোম্পানি নিবন্ধিত হবে, তখন বাংলাদেশের আইনানুযায়ী এ সমস্ত কনটেন্ট বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া অনেকটা সহজ হবে। এ ধরনের কনটেন্ট সরানো বা বন্ধ করার ক্ষেত্রে যে প্রতিবন্ধকতা আছে, সেগুলো দূর হবে।

back to top