alt

ক্যাম্পাস

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী হেনস্থার ঘটনায় বাস আটক

জাবি প্রতিনিধি : বুধবার, ১৫ মে ২০২৪

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) এক ছাত্রীকে ঢাকা-সাভারগামী মৌমিতা পরিবহনের বাসের হেল্পার কর্তৃক শ্লীলতাহানির ঘটনা প্রতিবাদে বুধবার সকাল থেকে মৌমিতা পরিবহনের ১৬ টি বাস আটকে রেখেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাভার থেকে টিউশন শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ে ফেরার পথে সাভারের রেডিও কলোনি এলাকায় হেনস্তার ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন তিনি। এ ঘটনার জেরে বুধবার সকাল আটটা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক (ডেইরী গেট) এলাকায় ঢাকা- নবীনগরগামী মৌমিতা পরিবহনের ১৬ টি বাস আটক করে শিক্ষার্থীরা। তবে আটককৃত বাসের চালক ও হেল্পারদের কাছ থেকে মোবাইল ফোন ও নগদ অর্থসহ মানিব্যাগ ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ করেছেন বাস কর্তৃপক্ষ।

ভুক্তভোগী অভিযোগপত্রে উল্লেখ করেন, আমি মঙ্গলবার সন্ধ্যা সোয়া ছয়টার দিকে ব্যাংক টাউন থেকে টিউশন করিয়ে মৌমিতা বাসে করে ক্যাম্পাসের উদ্দেশ্যে আসছিলাম। বাস চলাকালে হেল্পার ভাড়া চাইলে আমি টাকা দেই। হেল্পার বলে তার কাছে ভাংতি নাই, পরবর্তীতে আমাকে ভাংতি টাকা ফেরত দিবে। কিন্তু বাস রেডিও কলোনির কাছাকাছি আসার পর হেল্পার জানায় বাস আর সামনে যাবে না। বাসের যাত্রীরা সবাই তখন নেমে চলে যায়। আমি তখন হেল্পারকে ভাংতি টাকা ফেরত দেয়ার জন্য বললে হেল্পার বলে, আপনাকে ঢাকা নিয়ে যাই।

ভুক্তভোগী তার অভিযোগপত্রে আরও উল্লেখ করেন, বাসে মাত্র তিনজন লোক ছিল। বাসের চালক, হেল্পার এবং ওদের সাথের একজন। ঢাকা নিয়ে যাবে বলেই, তারা আমাকে বাজেভাবে ইঙ্গিত দেয়। আমি খুব ভয় পেয়ে যাই। তাড়াহুড়ো করে বাস থেকে নামতে চেষ্টা করলে বাস ছেড়ে দেয়। আমি কিছু না ভেবে বাস থেকে লাফ দেই এবং হাঁটুতে প্রচুর ব্যথা পাই। এই ঘটনার পরে আমি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছি। আমার ব্যাচমেটদের বিষয়টি জানালে ওরা আমাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর বন্ধু বায়োকেমিস্ট্রি এন্ড মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের শিক্ষার্থী সোহেল রানা জানান, গতকাল আমাদের বান্ধবীর সাথে একটা খারাপ ঘটনা ঘটেছে। প্রতিবাদে আমরা মৌমিতা পরিবহনের বাস আটকিয়েছি। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর স্যার ও আশুলিয়া থানার পুলিশকে সাথে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছি। কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে সব সিসিটিভি ফুটেজ থাকলেও ৬.১০ থেকে ৬.১৮ পর্যন্ত সময়ের কোনো ফুটেজ পাওয়া যায়নি। আমরা এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

আটক করে রাখা একটি বাসের চালক মোজাম্মেল ও হেল্পার বাবলু জানান, সকাল সাড়ে আটটা থেকে বাসগুলো ছাত্ররা আটক করতে শুরু করে। ঠিক কোন কারণে আটকানো হয়েছে তা জানতেন না তারা। এসময় ছাত্ররা বাস আটকে তাদের কাছ থেকে মোবাইল ফোন ও মানিব্যাগ নিয়ে নেয়ার অভিযোগ করেন তারা। এছাড়া মোবাইল নেয়ার সময় প্রতিবাদ করলে একজনকে চড় মারা হয় বলে অভিযোগ করেছেন এই চালক ও হেল্পার।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক আলমগীর কবির বলেন, ছাত্ররা ও আশুলিয়া থানার পুলিশসহ আমরা ঘটনাস্থলে গিয়েছি। কিন্তু সিসিটিভি ফুটেজ দেখে আমরা কিছু শনাক্ত করতে পারি নাই। আমরা বাস কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি দ্রুত ওই বাসের হেল্পার ও চালককে শনাক্ত করে আমাদের জানাতে। পুলিশ ও চেষ্টা করছে তাদেরকে শনাক্ত করার জন্য।

এ ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর মনির উদ্দিন শিকদার বলেন, আমরা আশুলিয়া থানার পুলিশ সহ ছাত্রদের নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। কিন্তু সিসিটিভি দেখে কোনো ঘটনা শনাক্ত করতে পারিনি। বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে বিষয়টা গুরুত্ব দিয়ে দেখছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে নিরাপত্তা কর্মকর্তা সুদীপ্ত শাহীন বাদী হয়ে মামলা করবেন। ঘটনা সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত বাসগুলো এখানেই থাকবে।

তবে মোবাইল ছিনিয়ে নেয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, উত্তেজিত অবস্থায় ছাত্ররা এ কাজ করেছে। পরে আমি উপস্থিত হয়ে এক ঘণ্টার মধ্যে মোবাইলগুলো ফিরিয়ে দিয়েছি।

ছবি

টিউশনের প্রলোভন দেখিয়ে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্রতারণা

ছবি

১১তম পরিবেশ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন রাবি

ছবি

যাদের প্রিয় কিছু নেই, তাদের জীবন অন্তঃসারশূন্য: জবি উপাচার্য

পেনশন স্কিম বাতিলের দাবিতে কর্মবিরতিসহ কঠোর কর্মসূচির হুঁশিয়ারি ঢাবি শিক্ষক সমিতির

ছবি

জাবিতে স্বেচ্ছাচারিতা ও অসৌজন্যমূলক আচরণের প্রতিবাদে প্রভোস্ট কক্ষে তালা

৩.৬৫ পেয়ে তৃতীয় হলেন জবির সেই অবন্তিকা

ছবি

বশেমুরকৃবিতে কৃষিতে রিমোট সেন্সিং ও জিআইএস এর ব্যবহার বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

ছবি

বারিতে ক্যানসার কোষ কালচার বিষয়ে সেমিনার অনুষ্ঠিত

ছবি

গাজীপুরে ডুয়েট শিক্ষকদের মৌন মিছিল, প্রতিবাদ সভা

ছবি

বশেমুরকৃবি ভেটেরিনারি টিচিং হসপিটালে ইয়ং ডক্টরস লার্নিং প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত

ছবি

কৃষ্ণচূড়ার আগুন রঙ্গে সেজেছে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস

ছবি

বিএআরআই বিজ্ঞানীদের নতুন প্রযুক্তি বিষয়ক প্রশিক্ষণ অনুষ্ঠিত

ছবি

জাবির সঙ্গে এনআইএলএমআরসি’র সমঝোতা চুক্তি স্বাক্ষরিত

ছবি

দক্ষতা অর্জন করতে হবে, শিক্ষার্থীদের প্রতি আহবান জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের

জাবিতে ইভটিজিংয়ের মিথ্যা অভিযোগ করায় ছাত্রীকে জরিমানা

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ডিন নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশ

ছবি

রাবিতে প্রথম বারের মতো বিএসসিএফ ডিভিশনাল অ্যাস্ট্রো ক্যাম্প ১৭ মে

ছবি

স্টামফোর্ডে বিশ্ববিদ্যালয়ে “সাংবাদিকতায় নিউ মিডিয়ার ব্যবহার” শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত

ছবি

এক্সিম ব্যাংক কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সাথে ফিলিস্তিনের রাষ্ট্রদূতের সাক্ষাৎ

ছবি

পরিবর্তন হলো জবির একমাত্র ছাত্রী হলের নাম

ছবি

জবিতে ব্যান্ড মিউজিক এসোসিয়েশনের নেতৃত্বে ফয়সাল-আরাবি

ছবি

জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে আর্থিক স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিতের নির্দেশ উপাচার্যের

ছবি

দেড় মাস পর পরীক্ষায় বসলেন বুয়েট শিক্ষার্থীরা

ছবি

নতুন শিক্ষাবর্ষের ক্লাস জুলাইয়ে শুরু করতে চায় জবি

ছবি

দেশ সেরা“শ্রেষ্ঠ উদ্ভাবনী উদ্যোগ” পুরস্কার পেয়েছে ফরিদপুর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল কলেজ

ছবি

গাজায় গণহত্যা বন্ধের দাবিসহ ৩ দাবিতে ঢাবিতে মানব পতাকা প্রদর্শন ও সমাবেশ

ছবি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে নবীন শিক্ষার্থীদের প্রবেশিকা অনুষ্ঠান সম্পন্ন

উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে টানা তৃতীয়দিনের মত অবস্থান কর্মসূচীতে কুবি শিক্ষকরা

ছবি

ঢাবিতে আন্তঃবিশ্ববিদ্যালয় কোড সামুরাই হ্যাকাথন শুরু শুক্রবার

যৌন হয়রানির দায়ে ঢাবির ২ অধ্যাপককে অব্যাহতি, থিসিস জালিয়াতির ঘটনা তদন্তে কমিটি

ছবি

ডিন পদ ফিরে পাচ্ছেন ঢাবি অধ্যাপক রহমত উল্লাহ

ছবি

চায়না্থর আনহুই একাডেমি প্রতিনিধি দলের বারি পরিদর্শন

ছবি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রথম গ্রাজুয়েট রিসার্চ কনফারেন্স অনুষ্ঠিত

তথ্য অধিকারের মাধ্যমে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত হয়েছে -সাদেকা হালিম

ছবি

রাবির সাংবাদিকতা বিভাগের নতুন সভাপতি অধ্যাপক সাজ্জাদ বকুল

ছবি

যুক্তরাষ্ট্রের শিক্ষার্থীদের সাথে সংহতি জানিয়ে ঢাবিতে ফিলিস্তিনের পক্ষে বিক্ষোভ

tab

ক্যাম্পাস

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী হেনস্থার ঘটনায় বাস আটক

জাবি প্রতিনিধি

বুধবার, ১৫ মে ২০২৪

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাবি) এক ছাত্রীকে ঢাকা-সাভারগামী মৌমিতা পরিবহনের বাসের হেল্পার কর্তৃক শ্লীলতাহানির ঘটনা প্রতিবাদে বুধবার সকাল থেকে মৌমিতা পরিবহনের ১৬ টি বাস আটকে রেখেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সাভার থেকে টিউশন শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ে ফেরার পথে সাভারের রেডিও কলোনি এলাকায় হেনস্তার ঘটনা ঘটেছে বলে জানিয়েছেন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী। বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন তিনি। এ ঘটনার জেরে বুধবার সকাল আটটা থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান ফটক (ডেইরী গেট) এলাকায় ঢাকা- নবীনগরগামী মৌমিতা পরিবহনের ১৬ টি বাস আটক করে শিক্ষার্থীরা। তবে আটককৃত বাসের চালক ও হেল্পারদের কাছ থেকে মোবাইল ফোন ও নগদ অর্থসহ মানিব্যাগ ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগ করেছেন বাস কর্তৃপক্ষ।

ভুক্তভোগী অভিযোগপত্রে উল্লেখ করেন, আমি মঙ্গলবার সন্ধ্যা সোয়া ছয়টার দিকে ব্যাংক টাউন থেকে টিউশন করিয়ে মৌমিতা বাসে করে ক্যাম্পাসের উদ্দেশ্যে আসছিলাম। বাস চলাকালে হেল্পার ভাড়া চাইলে আমি টাকা দেই। হেল্পার বলে তার কাছে ভাংতি নাই, পরবর্তীতে আমাকে ভাংতি টাকা ফেরত দিবে। কিন্তু বাস রেডিও কলোনির কাছাকাছি আসার পর হেল্পার জানায় বাস আর সামনে যাবে না। বাসের যাত্রীরা সবাই তখন নেমে চলে যায়। আমি তখন হেল্পারকে ভাংতি টাকা ফেরত দেয়ার জন্য বললে হেল্পার বলে, আপনাকে ঢাকা নিয়ে যাই।

ভুক্তভোগী তার অভিযোগপত্রে আরও উল্লেখ করেন, বাসে মাত্র তিনজন লোক ছিল। বাসের চালক, হেল্পার এবং ওদের সাথের একজন। ঢাকা নিয়ে যাবে বলেই, তারা আমাকে বাজেভাবে ইঙ্গিত দেয়। আমি খুব ভয় পেয়ে যাই। তাড়াহুড়ো করে বাস থেকে নামতে চেষ্টা করলে বাস ছেড়ে দেয়। আমি কিছু না ভেবে বাস থেকে লাফ দেই এবং হাঁটুতে প্রচুর ব্যথা পাই। এই ঘটনার পরে আমি মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছি। আমার ব্যাচমেটদের বিষয়টি জানালে ওরা আমাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর বন্ধু বায়োকেমিস্ট্রি এন্ড মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের শিক্ষার্থী সোহেল রানা জানান, গতকাল আমাদের বান্ধবীর সাথে একটা খারাপ ঘটনা ঘটেছে। প্রতিবাদে আমরা মৌমিতা পরিবহনের বাস আটকিয়েছি। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর স্যার ও আশুলিয়া থানার পুলিশকে সাথে নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়েছি। কিন্তু আশ্চর্যজনকভাবে সব সিসিটিভি ফুটেজ থাকলেও ৬.১০ থেকে ৬.১৮ পর্যন্ত সময়ের কোনো ফুটেজ পাওয়া যায়নি। আমরা এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করছি।

আটক করে রাখা একটি বাসের চালক মোজাম্মেল ও হেল্পার বাবলু জানান, সকাল সাড়ে আটটা থেকে বাসগুলো ছাত্ররা আটক করতে শুরু করে। ঠিক কোন কারণে আটকানো হয়েছে তা জানতেন না তারা। এসময় ছাত্ররা বাস আটকে তাদের কাছ থেকে মোবাইল ফোন ও মানিব্যাগ নিয়ে নেয়ার অভিযোগ করেন তারা। এছাড়া মোবাইল নেয়ার সময় প্রতিবাদ করলে একজনকে চড় মারা হয় বলে অভিযোগ করেছেন এই চালক ও হেল্পার।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক আলমগীর কবির বলেন, ছাত্ররা ও আশুলিয়া থানার পুলিশসহ আমরা ঘটনাস্থলে গিয়েছি। কিন্তু সিসিটিভি ফুটেজ দেখে আমরা কিছু শনাক্ত করতে পারি নাই। আমরা বাস কর্তৃপক্ষকে জানিয়েছি দ্রুত ওই বাসের হেল্পার ও চালককে শনাক্ত করে আমাদের জানাতে। পুলিশ ও চেষ্টা করছে তাদেরকে শনাক্ত করার জন্য।

এ ঘটনার বিষয়ে জানতে চাইলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সহকারী প্রক্টর মনির উদ্দিন শিকদার বলেন, আমরা আশুলিয়া থানার পুলিশ সহ ছাত্রদের নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। কিন্তু সিসিটিভি দেখে কোনো ঘটনা শনাক্ত করতে পারিনি। বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে বিষয়টা গুরুত্ব দিয়ে দেখছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে নিরাপত্তা কর্মকর্তা সুদীপ্ত শাহীন বাদী হয়ে মামলা করবেন। ঘটনা সুরাহা না হওয়া পর্যন্ত বাসগুলো এখানেই থাকবে।

তবে মোবাইল ছিনিয়ে নেয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, উত্তেজিত অবস্থায় ছাত্ররা এ কাজ করেছে। পরে আমি উপস্থিত হয়ে এক ঘণ্টার মধ্যে মোবাইলগুলো ফিরিয়ে দিয়েছি।

back to top