alt

ক্যাম্পাস

বেরোবির উপাচার্য কলিম উল্লাহ

ইউজিসির নির্দেশ অমান্য করে ঢাকায় দাপ্তরিক কাজ করছেন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক রংপুর : মঙ্গলবার, ০৮ জুন ২০২১
image

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি)র নির্দেশ অমান্য করে এখনও রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ঢাকাস্থ লিয়াজো অফিসে সকল দাপ্তরিক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন মেয়াদ শেষ হওয়া উপাচার্য অধ্যাপক নাজমুল আহসান কলিম উল্লাহ। শুধু ত্ইা নয় পছন্দের ব্যাক্তিদের বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপুর্ন পদে বদলী নতুন নিয়োগ সহ বিভিন্ন কর্মকান্ড অব্যাহত রাখা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

উল্লেখ্য ইউজিসি গত ২৩ মে স্মারক নম্বর ২০১৭ তারিখ ২৩.০৫.২১ইং এক পরিপত্র জারি করেছে। সেখানে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ অর্থবছরের মুল বাজেট পরিচালন বরাদ্দ ব্যায়ের ক্ষেত্রে গাইড লাইন প্রদান করা হয়েছে। ওই পরিপত্রে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য ঢাকায় রেষ্ট হাউজ ব্যাতিত লিয়াজো অফিস অথবা অন্য কোন নামে অফিস করা/ রাখা যাবেনা। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস/ ঠিকানায় বিশ্ববিদ্যালয়ের যাবতীয় প্রশাসনিক ও একাডেমিক কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে। এ নির্দেশ জারির পরেও উপাচার্য তার বানানো লিয়াজো অফিসকে সকল কর্মকান্ডের কেন্দ্র বিন্দু বানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ও একাডেমিক কর্মকান্ড সহ সকল কাজ করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক নাজমুল আহসান কলিম উল্লাহর সাথে তার মোবাইল ফোনে অসংখ্যবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। তবে নাম প্রকাশে অনিশ্চুক এক কর্মকর্তা জানান ২০১৭ সালের ১ জুন তারিখে কলিম উল্লাহ উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পান। সে হিসেবে ৩১ মে তার চার বছর মেয়াদ শেষ হলেও উনি দাবি করছেন ২০১৭ সালের ১৪ জুন তিনি উপাচার্য হিসেবে যোগদান করেছেন সে কারনে চলতি মাসের ১৪ জুন পর্যন্ত তিনি উপাচার্য হিসেবে বহাল আছেন। তবে ইউজিসির নির্দেশনা তিনি কেন মানছেননা সেটা তিনি বলতে পারেবন।

এদিকে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারন সম্পাদক মশিউর রহমান জানান ৩১ মে উপাচার্যের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। এখন তিনি যে সব কর্মকান্ড করছেরন তা সম্পুর্ন বেআইনী। ১ জুনের পরে উপাচার্যের দেয়া সকল আদেশ নির্দেশ আমরা মানিনা। বিষয়টি লিখিত আকারে শিক্ষা মন্ত্রীর কাছে জানানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন উপাচার্যের বিরুদ্ধে দুর্নিতী নিয়োগ বানিজ্য ক্ষমতার অপব্যাহারের অভিযোগ ইউজিসি কর্তৃক প্রমানিত। ইউজিসির তদন্ত কমিটি ইতিমধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন মন্ত্রনালয়ে দাখিল করেছে। যে ব্যাক্তি ইউজিসির নির্দেশনা অমান্য করে নিলজ্যের মতো ঢাকার গেষ্ট হাউজকে লিয়াজো অফিস বানিয়ে অবস্থান করে অবৈধ নির্দেশনা দিচ্ছেন তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্তা নেয়ার দাবি জানান।

অন্যদিকে অধিকার সুরক্ষা পরিষদের আহবায়ক অধ্যাপক মতিউর রহমান বলেন উপাচার্যের সকল কর্মকান্ড বেআইনী। তিনি বলেন লজ্জা থাকলে তিনি ইউজিসির নির্দেশনা মানতেন। তিনি আর উপাচার্য নন তাকে আমরা মানিনা।

এ ব্যাপারে ইউজিসির পরিচালক শাহ আলমের সাথে তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

ছবি

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আবেদনে ভোগান্তি

ছবি

গবেষণা প্রকাশের জন্য শিক্ষক ও গবেষকদের অনুদান দেবে ঢাবি

ছবি

উনিশ দিন বন্ধ থাকবে ঢাবির অফিস

ছবি

নিরাপত্তা চেয়ে রাবি শিক্ষার্থীর জিডি

ছবি

ঢাবির জন্মশতবর্ষে কবিতা-প্রবন্ধ ও থিম সং আহ্বান

ফের পেছালো ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা, শুরু ১ অক্টোবর

ছবি

জবি বিজ্ঞান ক্লাবের যাত্রা শুরু

ছবি

জন্ডিসে আক্রান্ত হয়ে রাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ছবি

ঢাবির ক-খ-গ-ঘ-চ ইউনিটের প্রবেশপত্র ডাউনলোড কার্যক্রম স্থগিত

ছবি

একজন অক্সিজেন ফেরিওয়ালার গল্প

ছবি

ডেঙ্গুতে মারা গেলেন জবি শিক্ষক

ছবি

ঢাবির শতবর্ষের উদ্বোধন, ১০০ বৃক্ষরোপণের কর্মসূচি

ছবি

ক্যাম্পাসে সশরীরে হবে না ঢাবির শতবর্ষ পূর্তি অনুষ্ঠান

ছবি

লকডাউনেও সশরীরে পরীক্ষা নিলো ঢাবি

ছবি

বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় নিরাপত্তা বাড়ানোর দাবি

ছবি

সুসম নিয়োগ নীতিমালা প্রণয়নসহ নীলদলের ২২ দাবি

ছবি

ফি দেয়ার সময় বাড়লো

ছবি

নীতিমালা ভেঙ্গে পরিকল্পনা পরিচালক নিয়োগ

‘সিনিয়র রোভার মেট’ নির্বাচিত হলেন জবির ২২ রোভার

ছবি

জবি লিও ক্লাবের সভাপতি এরফান, সেক্রেটারি রাওফুন

ছবি

‘খেলার মাঠে বাণিজ্যিক মার্কেট নির্মাণ চলবে না’

ছবি

অনির্দিষ্টকালের জন্য প্রশাসন ভবনে তালা!

ছবি

করোনাকালে সশরীরে ঢাবির পরীক্ষা, উপস্থিতি শতভাগ

ঈদের পর ইবিতে পরীক্ষা

ছবি

প্রাথমিক শিক্ষকদের বকেয়া ভাতার দাবীতে মানববন্ধন

ছবি

ছাত্রদলের সাংগঠনিক সম্পাদক থেকে ছাত্রলীগের সভাপতি

ছবি

ঢাবি শিক্ষক লীনা তাপসীর বিরুদ্ধে পিএইচডি জালিয়াতির অভিযোগ

ছবি

পুলিশের লাঠিচার্জে ছত্রভঙ্গ ‘৩২ চাই’ মিছিল

ছবি

করোনার টিকা প্রার্থী জবির সাড়ে নয় হাজার শিক্ষার্থী

ছবি

’অনলাইনে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক নিয়োগ নজিরবিহীন’

ছবি

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে রাবি শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ছবি

জাবিতে ছয় শিক্ষক নিয়োগ বন্ধে হাইকোর্টে রিট

ছবি

শেষ সময়েও বিতর্কিত কর্মকান্ড বেরোবির উপাচার্য কলিমউল্লার

ছবি

বেরোবিতে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা নিতে গড়িমসি প্রশাসনের

ঢাবি শিক্ষক মোর্শেদের অপসারণ কেন অবৈধ নয় : হাইকোর্ট

ছবি

জবিতে ক্লাস-পরীক্ষার বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত ১৩ জুন

tab

ক্যাম্পাস

বেরোবির উপাচার্য কলিম উল্লাহ

ইউজিসির নির্দেশ অমান্য করে ঢাকায় দাপ্তরিক কাজ করছেন

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক রংপুর
image

মঙ্গলবার, ০৮ জুন ২০২১

বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি)র নির্দেশ অমান্য করে এখনও রংপুর বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ঢাকাস্থ লিয়াজো অফিসে সকল দাপ্তরিক কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছেন মেয়াদ শেষ হওয়া উপাচার্য অধ্যাপক নাজমুল আহসান কলিম উল্লাহ। শুধু ত্ইা নয় পছন্দের ব্যাক্তিদের বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন গুরুত্বপুর্ন পদে বদলী নতুন নিয়োগ সহ বিভিন্ন কর্মকান্ড অব্যাহত রাখা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে।

উল্লেখ্য ইউজিসি গত ২৩ মে স্মারক নম্বর ২০১৭ তারিখ ২৩.০৫.২১ইং এক পরিপত্র জারি করেছে। সেখানে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২১ অর্থবছরের মুল বাজেট পরিচালন বরাদ্দ ব্যায়ের ক্ষেত্রে গাইড লাইন প্রদান করা হয়েছে। ওই পরিপত্রে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য ঢাকায় রেষ্ট হাউজ ব্যাতিত লিয়াজো অফিস অথবা অন্য কোন নামে অফিস করা/ রাখা যাবেনা। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাস/ ঠিকানায় বিশ্ববিদ্যালয়ের যাবতীয় প্রশাসনিক ও একাডেমিক কার্যক্রম পরিচালনা করতে হবে। এ নির্দেশ জারির পরেও উপাচার্য তার বানানো লিয়াজো অফিসকে সকল কর্মকান্ডের কেন্দ্র বিন্দু বানিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ও একাডেমিক কর্মকান্ড সহ সকল কাজ করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক নাজমুল আহসান কলিম উল্লাহর সাথে তার মোবাইল ফোনে অসংখ্যবার ফোন করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি। তবে নাম প্রকাশে অনিশ্চুক এক কর্মকর্তা জানান ২০১৭ সালের ১ জুন তারিখে কলিম উল্লাহ উপাচার্য হিসেবে নিয়োগ পান। সে হিসেবে ৩১ মে তার চার বছর মেয়াদ শেষ হলেও উনি দাবি করছেন ২০১৭ সালের ১৪ জুন তিনি উপাচার্য হিসেবে যোগদান করেছেন সে কারনে চলতি মাসের ১৪ জুন পর্যন্ত তিনি উপাচার্য হিসেবে বহাল আছেন। তবে ইউজিসির নির্দেশনা তিনি কেন মানছেননা সেটা তিনি বলতে পারেবন।

এদিকে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারন সম্পাদক মশিউর রহমান জানান ৩১ মে উপাচার্যের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। এখন তিনি যে সব কর্মকান্ড করছেরন তা সম্পুর্ন বেআইনী। ১ জুনের পরে উপাচার্যের দেয়া সকল আদেশ নির্দেশ আমরা মানিনা। বিষয়টি লিখিত আকারে শিক্ষা মন্ত্রীর কাছে জানানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন উপাচার্যের বিরুদ্ধে দুর্নিতী নিয়োগ বানিজ্য ক্ষমতার অপব্যাহারের অভিযোগ ইউজিসি কর্তৃক প্রমানিত। ইউজিসির তদন্ত কমিটি ইতিমধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন মন্ত্রনালয়ে দাখিল করেছে। যে ব্যাক্তি ইউজিসির নির্দেশনা অমান্য করে নিলজ্যের মতো ঢাকার গেষ্ট হাউজকে লিয়াজো অফিস বানিয়ে অবস্থান করে অবৈধ নির্দেশনা দিচ্ছেন তার বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্তা নেয়ার দাবি জানান।

অন্যদিকে অধিকার সুরক্ষা পরিষদের আহবায়ক অধ্যাপক মতিউর রহমান বলেন উপাচার্যের সকল কর্মকান্ড বেআইনী। তিনি বলেন লজ্জা থাকলে তিনি ইউজিসির নির্দেশনা মানতেন। তিনি আর উপাচার্য নন তাকে আমরা মানিনা।

এ ব্যাপারে ইউজিসির পরিচালক শাহ আলমের সাথে তার মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি।

back to top