alt

ক্যাম্পাস

ঢাবির সিনেটে ‘‘বাংলাদেশ জিন্দাবাদ’’ স্লোগান নিয়ে তুমুল হট্টগোল

ঢাবি প্রতিনিধি : শুক্রবার, ১৭ জুন ২০২২

Lঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট অধিবেশনে এক সিনেট সদস্যের বক্তব্য শেষে দেওয়া বাংলাদেশ জিন্দাবাদ শব্দ দুটিকে নিয়ে তুমুল হট্টগোল ও উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) রাত সাড়ে নয়টার দিকে সিনেট অধিবেশন চলাকালীন বিএনপিপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দল থেকে নির্বাচিত সিনেট সদস্য অধ্যাপক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম তার বক্তব্যের শেষে "বাংলাদেশ জিন্দাবাদ" বলে বক্তব্য শেষ করেন।

অধিবেশনের শেষের দিকে পয়েন্ট অফ অর্ডারে তার এই মন্তব্যের প্রতিবাদ করেন নীল দল প্যানেল থেকে নির্বাচিত শিক্ষক প্রতিনিধি ফিল্ম অ্যান্ড ফটোগ্রাফি বিভাগের অধ্যাপক আবু জাফর মো. শফিউল আলম ভূঁইয়া। তাৎক্ষণিকভাবে নীল দলের বাকি সদস্যরাও সম্মতি জ্ঞাপন করেন।

এসময় অধ্যাপক ওবায়দুল তার স্লোগানের পক্ষে বক্তব্য দিতে গেলে তুমুল হট্টগোল সৃষ্টি হয়। তিনি বলেন, সবাইকে নিজস্ব মতাদর্শ প্রকাশের স্বাধীনতা দেওয়া উচিত। এই স্লোগান এখনো পর্যন্ত বাংলাদেশে তুমুল জনপ্রিয়। ভিন্ন মতের প্রতি সকলের সহনশীল আচরণ করা উচিত।

পরে শব্দ দুটিকে এক্সপাঞ্জ (বাতিল) করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। উপাচার্য বলেন, এটি পাকিস্তানি ভাবধারার একটি স্লোগান। সিনেট অধিবেশনকে অস্থিতিশীল করার জন্য উদ্দ্যেশ্য প্রণোদিতভাবে এ স্লোগান ব্যবহার করা হয়েছে। তাই এটিকে এক্সপাঞ্জ করা হলো।

ঢাবির ৫০ গ্র্যাজুয়েটকে বাদ দিয়ে এনএসইউ ছাত্রীর নিয়োগ

নড়াইলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গোপনে ব্যবহার হচ্ছে মোবাইল ফোন, বন্ধে কঠোর নিদের্শনা

ছবি

স্টেট ইউনিভার্সিটির উদ্যোগে ট্রাফিক সচেতনতামূলক কর্মশালা

নড়াইলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মোবাইল ফোন নিষিদ্ধ

ছবি

ঢাবির ১০১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

রাবি ভর্তি পরীক্ষায় আবেদন ১ লাখ ৭৮ হাজার

ঢাবির মনোবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ৭ শিক্ষকের অনাস্থা

ঢাবিতে র‍্যাগ ডে’কে ‘এক দিনের শিক্ষা সমাপনী উৎসবে’ পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত

ছবি

ঢাবির মনোবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ৭ শিক্ষকের অনাস্থা

ছবি

সংখ্যালঘু শিক্ষকদের লাঞ্ছিত ও হত্যা এবং রাবি শিক্ষকের জমি দখলের প্রতিবাদ

ছবি

রুয়েটে রোবটিক্স ফেয়ার ‘রোবোট্রনিক ২.০’ শুরু

ছবি

রাবির বহিস্কৃত শিক্ষার্থী ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতার

ছবি

সামাজিক নিরাপত্তা ও নাগরিকের মর্যাদা প্রদানে ব্যার্থতার দায় সম্পূর্ণ সরকারের

ছবি

নড়াইলে অধ্যক্ষকে হেনস্তা এবং সাভারে শিক্ষক হত্যার প্রতিবাদ ছাত্র অধিকার পরিষদের

ছবি

সাভারে শিক্ষক হত্যাকারীকে গ্রেফতারের দাবিতে ঢাবিতে আমরণ অনশন

ছবি

ঢাবিতে বন্যার্তদের জন্য কনসার্ট, থাকছে দেশসেরা সব ব্যান্ড

ছবি

ঢাবির ‘খ’ ইউনিটের ফলাফল প্রকাশ কাল

ছবি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রতীকী অনশন

ছবি

উচ্চশিক্ষা মানেই উচ্চ পর্যায়ের চাকরির মানসিকতা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে: নওফেল

ছবি

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনীতে ইবিতে জমকালো কর্মসূচী

ছবি

খুলনায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের আত্মহনন, প্রেমিকা গ্রেপ্তার

ছবি

শিক্ষার্থীকে মারধর করে হল থেকে নামিয়ে দিলেন ছাত্রলীগ

ঢাবি শিক্ষার্থীকে বেধড়ক পিটিয়ে হল ছাড়া করলো ছাত্রলীগ

মধ্যরাতে ঢাবি ক্লাবে রিজভীর অবস্থান, তদন্ত কমিটি

ছবি

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ২ ঢাবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার চেষ্টা

ছবি

ছাত্র ফ্রন্টের নেতাকর্মীদের উপর ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের হামলা

ছবি

১২ দফা দাবিতে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাদের মানব বন্ধন

স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের বিশেষ বর্ধিতসভা

বর্ধিত উন্নয়ন ফি কমানোর দাবি করায় বহিষ্কারের হুমকি

ছবি

সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, এক সপ্তাহ বন্ধ শাবি

ছবি

ঢাবিতে ধনীদের সন্তানের কাছ থেকে বেশি ফি নেওয়ার প্রস্তাব

ছবি

সিনেটে ৯২২ কোটি ৪৮ লাখ টাকার বাজেট অনুমোদন

ছবি

জবিতে উদীচী সংসদের ‘বর্ষাকল্প’ বরণে উৎসব

বেরোবির উপাচার্য অধ্যাপক রশীদের এক বছরপূর্তি

যৌন হয়রানির অভিযোগ তদন্ত না করেই অব্যাহতি

ছবি

পিএইচডিতে ইনক্রিমেন্ট বন্ধ: কলম বিরতিতে রাবি শিক্ষকরা

tab

ক্যাম্পাস

ঢাবির সিনেটে ‘‘বাংলাদেশ জিন্দাবাদ’’ স্লোগান নিয়ে তুমুল হট্টগোল

ঢাবি প্রতিনিধি

শুক্রবার, ১৭ জুন ২০২২

Lঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২২-২৩ অর্থবছরের বাজেট অধিবেশনে এক সিনেট সদস্যের বক্তব্য শেষে দেওয়া বাংলাদেশ জিন্দাবাদ শব্দ দুটিকে নিয়ে তুমুল হট্টগোল ও উত্তেজনা সৃষ্টি হয়।

বৃহস্পতিবার (১৬ জুন) রাত সাড়ে নয়টার দিকে সিনেট অধিবেশন চলাকালীন বিএনপিপন্থী শিক্ষকদের সংগঠন সাদা দল থেকে নির্বাচিত সিনেট সদস্য অধ্যাপক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলাম তার বক্তব্যের শেষে "বাংলাদেশ জিন্দাবাদ" বলে বক্তব্য শেষ করেন।

অধিবেশনের শেষের দিকে পয়েন্ট অফ অর্ডারে তার এই মন্তব্যের প্রতিবাদ করেন নীল দল প্যানেল থেকে নির্বাচিত শিক্ষক প্রতিনিধি ফিল্ম অ্যান্ড ফটোগ্রাফি বিভাগের অধ্যাপক আবু জাফর মো. শফিউল আলম ভূঁইয়া। তাৎক্ষণিকভাবে নীল দলের বাকি সদস্যরাও সম্মতি জ্ঞাপন করেন।

এসময় অধ্যাপক ওবায়দুল তার স্লোগানের পক্ষে বক্তব্য দিতে গেলে তুমুল হট্টগোল সৃষ্টি হয়। তিনি বলেন, সবাইকে নিজস্ব মতাদর্শ প্রকাশের স্বাধীনতা দেওয়া উচিত। এই স্লোগান এখনো পর্যন্ত বাংলাদেশে তুমুল জনপ্রিয়। ভিন্ন মতের প্রতি সকলের সহনশীল আচরণ করা উচিত।

পরে শব্দ দুটিকে এক্সপাঞ্জ (বাতিল) করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান। উপাচার্য বলেন, এটি পাকিস্তানি ভাবধারার একটি স্লোগান। সিনেট অধিবেশনকে অস্থিতিশীল করার জন্য উদ্দ্যেশ্য প্রণোদিতভাবে এ স্লোগান ব্যবহার করা হয়েছে। তাই এটিকে এক্সপাঞ্জ করা হলো।

back to top