alt

ক্যাম্পাস

ঢাবির আরবী বিভাগ

বর্ধিত উন্নয়ন ফি কমানোর দাবি করায় বহিষ্কারের হুমকি

#ফি পরিশোধ না করলে নেওয়া হবে না পরীক্ষা #সেশন জটের কবলে শিক্ষার্থীরা

ঢাবি প্রতিনিধি : শনিবার, ১৮ জুন ২০২২

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের বর্ধিত উন্নয়ন ফি কমানোর দাবি করায় মাস্টার্সের প্রথম সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা দুদফা স্থগিত করেছে বিভাগটির একাডেমিক কমিটি। যার ফলে দীর্ঘমেয়াদি সেশন জটে পড়তে যাচ্ছে বিভাগটি।

ফি কমানোর দাবি করায় কয়েকজন শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল কাদিরের বিরুদ্ধে।

বিভাগ সূত্রে জানা যায়, আরবি বিভাগের ১১তম ব্যাচের মাস্টার্স প্রথম সেমিস্টারে পরীক্ষা গত এপ্রিল মাসের ১৭ তারিখ শুরু হওয়ার কথা ছিল।

পরীক্ষা শুরুর আগে শিক্ষার্থীদের বিভাগ উন্নয়নের জন্য ৫ হাজার টাকা ফি জমা দেওয়ার নির্দেশ হয়। তবে শিক্ষার্থীরা উন্নয়ন ফি কমানোর দাবি করায় পরীক্ষা পিছিয়ে ৫ জুন নির্ধারণ করা হয়। ৫ জুনের আগেই উন্নয়ন ফি জমা দেওয়ার জন্য পুনরায় নির্দেশ দেন বিভাগের চেয়ারম্যান। এর প্রেক্ষিতে গত ১৭ মে বিভাগটির মাস্টার্স শিক্ষার্থীরা উন্নয়ন ফি কমানোর দাবিতে একটি আবেদন জমা দিতে বিভাগের চেয়ারম্যানের কাছে যান।

অভিযোগ ওঠে, এ সময় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল কাদির। উন্নয়ন ফি জমা না দিলে পরীক্ষা হবে না বলে জানান তিনি। এ সময় তিনি কয়েকজন শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের হুমকি দেন।

মাস্টার্সের একজন শিক্ষার্থী নাম প্রকাশ না করার শর্তে সংবাদকে বলেন, উন্নয়ন ফি না দেওয়ায় দুবার আমাদের পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। আমরা ফি কমানোর জন্য চেয়ারম্যানের কাছে গিয়েছিলাম।

উনি ফি না কমিয়ে জানিয়েছে ৫ হাজার টাকাই দিতে হবে, না হলে পরীক্ষা নেয়া হবে না। এমনকি তিনি আমাদের বহিষ্কারের হুমকিও দিয়েছেন।

তিনি বলেন, আমরা যেহেতু এখনো মাস্টার্সে ভর্তি হতে পারিনি, সেজন্য ওনার মনোভাব হচ্ছে আমরা তার শিক্ষার্থীই না। করোনার কারণে আমরা এমনিতেই অনেক পিছিয়ে গেছি। এতেদিনে আমাদের মাস্টার্স শেষ হয়ে যাওয়ার কথা। এখন আমরা দীর্ঘমেয়াদী সেশনজটে পড়তে যাচ্ছি।"

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগে উন্নয়ন ফি নেয়া হয়। উন্নয়ন ফির পরিমাণ সাধারণত ১৫০০ থেকে ২৫০০ টাকার মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে। কলা অনুষদের কয়েকটি বিভাগে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, অনুষদের বিভাগগুলোতে উন্নয়ন ফি ১৫০০ থেকে ২০০০ টাকার মধ্যে।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, একমাত্র আরবি বিভাগেই অতিমাত্রায় উন্নয়ন ফি নেওয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে বিভাগের চেয়ারম্যান আবদুল কাদিরের কাছে ফোন করে জানতে চাইলে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

ঢাবির ৫০ গ্র্যাজুয়েটকে বাদ দিয়ে এনএসইউ ছাত্রীর নিয়োগ

নড়াইলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে গোপনে ব্যবহার হচ্ছে মোবাইল ফোন, বন্ধে কঠোর নিদের্শনা

ছবি

স্টেট ইউনিভার্সিটির উদ্যোগে ট্রাফিক সচেতনতামূলক কর্মশালা

নড়াইলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে মোবাইল ফোন নিষিদ্ধ

ছবি

ঢাবির ১০১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপিত

রাবি ভর্তি পরীক্ষায় আবেদন ১ লাখ ৭৮ হাজার

ঢাবির মনোবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ৭ শিক্ষকের অনাস্থা

ঢাবিতে র‍্যাগ ডে’কে ‘এক দিনের শিক্ষা সমাপনী উৎসবে’ পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত

ছবি

ঢাবির মনোবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ৭ শিক্ষকের অনাস্থা

ছবি

সংখ্যালঘু শিক্ষকদের লাঞ্ছিত ও হত্যা এবং রাবি শিক্ষকের জমি দখলের প্রতিবাদ

ছবি

রুয়েটে রোবটিক্স ফেয়ার ‘রোবোট্রনিক ২.০’ শুরু

ছবি

রাবির বহিস্কৃত শিক্ষার্থী ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতার

ছবি

সামাজিক নিরাপত্তা ও নাগরিকের মর্যাদা প্রদানে ব্যার্থতার দায় সম্পূর্ণ সরকারের

ছবি

নড়াইলে অধ্যক্ষকে হেনস্তা এবং সাভারে শিক্ষক হত্যার প্রতিবাদ ছাত্র অধিকার পরিষদের

ছবি

সাভারে শিক্ষক হত্যাকারীকে গ্রেফতারের দাবিতে ঢাবিতে আমরণ অনশন

ছবি

ঢাবিতে বন্যার্তদের জন্য কনসার্ট, থাকছে দেশসেরা সব ব্যান্ড

ছবি

ঢাবির ‘খ’ ইউনিটের ফলাফল প্রকাশ কাল

ছবি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রতীকী অনশন

ছবি

উচ্চশিক্ষা মানেই উচ্চ পর্যায়ের চাকরির মানসিকতা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে: নওফেল

ছবি

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনীতে ইবিতে জমকালো কর্মসূচী

ছবি

খুলনায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের আত্মহনন, প্রেমিকা গ্রেপ্তার

ছবি

শিক্ষার্থীকে মারধর করে হল থেকে নামিয়ে দিলেন ছাত্রলীগ

ঢাবি শিক্ষার্থীকে বেধড়ক পিটিয়ে হল ছাড়া করলো ছাত্রলীগ

মধ্যরাতে ঢাবি ক্লাবে রিজভীর অবস্থান, তদন্ত কমিটি

ছবি

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ২ ঢাবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার চেষ্টা

ছবি

ছাত্র ফ্রন্টের নেতাকর্মীদের উপর ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের হামলা

ছবি

১২ দফা দাবিতে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাদের মানব বন্ধন

স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের বিশেষ বর্ধিতসভা

ঢাবির সিনেটে ‘‘বাংলাদেশ জিন্দাবাদ’’ স্লোগান নিয়ে তুমুল হট্টগোল

ছবি

সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, এক সপ্তাহ বন্ধ শাবি

ছবি

ঢাবিতে ধনীদের সন্তানের কাছ থেকে বেশি ফি নেওয়ার প্রস্তাব

ছবি

সিনেটে ৯২২ কোটি ৪৮ লাখ টাকার বাজেট অনুমোদন

ছবি

জবিতে উদীচী সংসদের ‘বর্ষাকল্প’ বরণে উৎসব

বেরোবির উপাচার্য অধ্যাপক রশীদের এক বছরপূর্তি

যৌন হয়রানির অভিযোগ তদন্ত না করেই অব্যাহতি

ছবি

পিএইচডিতে ইনক্রিমেন্ট বন্ধ: কলম বিরতিতে রাবি শিক্ষকরা

tab

ক্যাম্পাস

ঢাবির আরবী বিভাগ

বর্ধিত উন্নয়ন ফি কমানোর দাবি করায় বহিষ্কারের হুমকি

#ফি পরিশোধ না করলে নেওয়া হবে না পরীক্ষা #সেশন জটের কবলে শিক্ষার্থীরা

ঢাবি প্রতিনিধি

শনিবার, ১৮ জুন ২০২২

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আরবি বিভাগের বর্ধিত উন্নয়ন ফি কমানোর দাবি করায় মাস্টার্সের প্রথম সেমিস্টার ফাইনাল পরীক্ষা দুদফা স্থগিত করেছে বিভাগটির একাডেমিক কমিটি। যার ফলে দীর্ঘমেয়াদি সেশন জটে পড়তে যাচ্ছে বিভাগটি।

ফি কমানোর দাবি করায় কয়েকজন শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের হুমকি দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল কাদিরের বিরুদ্ধে।

বিভাগ সূত্রে জানা যায়, আরবি বিভাগের ১১তম ব্যাচের মাস্টার্স প্রথম সেমিস্টারে পরীক্ষা গত এপ্রিল মাসের ১৭ তারিখ শুরু হওয়ার কথা ছিল।

পরীক্ষা শুরুর আগে শিক্ষার্থীদের বিভাগ উন্নয়নের জন্য ৫ হাজার টাকা ফি জমা দেওয়ার নির্দেশ হয়। তবে শিক্ষার্থীরা উন্নয়ন ফি কমানোর দাবি করায় পরীক্ষা পিছিয়ে ৫ জুন নির্ধারণ করা হয়। ৫ জুনের আগেই উন্নয়ন ফি জমা দেওয়ার জন্য পুনরায় নির্দেশ দেন বিভাগের চেয়ারম্যান। এর প্রেক্ষিতে গত ১৭ মে বিভাগটির মাস্টার্স শিক্ষার্থীরা উন্নয়ন ফি কমানোর দাবিতে একটি আবেদন জমা দিতে বিভাগের চেয়ারম্যানের কাছে যান।

অভিযোগ ওঠে, এ সময় শিক্ষার্থীদের সঙ্গে দুর্ব্যবহার করেন বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক আবদুল কাদির। উন্নয়ন ফি জমা না দিলে পরীক্ষা হবে না বলে জানান তিনি। এ সময় তিনি কয়েকজন শিক্ষার্থীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কারের হুমকি দেন।

মাস্টার্সের একজন শিক্ষার্থী নাম প্রকাশ না করার শর্তে সংবাদকে বলেন, উন্নয়ন ফি না দেওয়ায় দুবার আমাদের পরীক্ষা পেছানো হয়েছে। আমরা ফি কমানোর জন্য চেয়ারম্যানের কাছে গিয়েছিলাম।

উনি ফি না কমিয়ে জানিয়েছে ৫ হাজার টাকাই দিতে হবে, না হলে পরীক্ষা নেয়া হবে না। এমনকি তিনি আমাদের বহিষ্কারের হুমকিও দিয়েছেন।

তিনি বলেন, আমরা যেহেতু এখনো মাস্টার্সে ভর্তি হতে পারিনি, সেজন্য ওনার মনোভাব হচ্ছে আমরা তার শিক্ষার্থীই না। করোনার কারণে আমরা এমনিতেই অনেক পিছিয়ে গেছি। এতেদিনে আমাদের মাস্টার্স শেষ হয়ে যাওয়ার কথা। এখন আমরা দীর্ঘমেয়াদী সেশনজটে পড়তে যাচ্ছি।"

জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগে উন্নয়ন ফি নেয়া হয়। উন্নয়ন ফির পরিমাণ সাধারণত ১৫০০ থেকে ২৫০০ টাকার মধ্যেই সীমাবদ্ধ থাকে। কলা অনুষদের কয়েকটি বিভাগে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, অনুষদের বিভাগগুলোতে উন্নয়ন ফি ১৫০০ থেকে ২০০০ টাকার মধ্যে।

শিক্ষার্থীদের অভিযোগ, একমাত্র আরবি বিভাগেই অতিমাত্রায় উন্নয়ন ফি নেওয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে বিভাগের চেয়ারম্যান আবদুল কাদিরের কাছে ফোন করে জানতে চাইলে তিনি কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি।

back to top