alt

ক্যাম্পাস

মধ্যরাতে ঢাবি ক্লাবে রিজভীর অবস্থান, তদন্ত কমিটি

ঢাবি প্রতিনিধি : বুধবার, ২২ জুন ২০২২

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাব) ক্লাবে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর গভীর রাতে অবস্থান করা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এ বিষয়ে ক্লাবের সদস্য ও ফার্মেসি অনুষদের ডিন অধ্যাপক সীতেশ চন্দ্র বাছারকে আহ্বায়ক করে একটি অনুসন্ধান কমিটি গঠন করা হয়েছে।

তদন্ত কমিটি গঠনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও নীল দলের সিনেট সদস্য অধ্যাপক আব্দুর রহীম। তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমরা সোমবার ক্লাবের কার্যনির্বাহী পরিষদের মিটিং করি। সেখানে এ বিষয়ে ক্লাবের সভাপতির কাছে মৌখিক ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে। তিনি ব্যাখ্যা দিয়েছেন। ক্লাবের অনেক সদস্য ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তারা বলছেন এখানে নিয়মের ব্যত্যয় ঘটানো হয়েছে। তার প্রেক্ষিতে এবং জনমনে উৎকন্ঠা তৈরি হওয়ায় প্রকৃত সত্য উদঘাটনে ক্লাবের সহ-সভাপতি ও ফার্মেসি অনুষদের ডিন অধ্যাপক সীতেশ চন্দ্র বাছারকে আহ্বায়ক করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, এ কমিটিকে আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।কমিটির প্রতিবেদনের ভিত্তিতে পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে ক্লাবের কার্যকরী পরিষদ। কমিটিতে নীল দল এবং সাদা দলের দুইজন করে শিক্ষক আছেন বলে জানান অধ্যাপক আব্দুর রহীম।

জানা যায়, রোববার (১৯ জুন) রাতে ক্লাবের সভাপতি বিএনপি সমর্থিত সাদা দলের শিক্ষক ও সিনেট সদস্য অধ্যাপক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলামের আমন্ত্রণে রুহুল কবির রিজভী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে যান। সেখানে রাত ১টা পর্যন্ত তিনি অবস্থান করেন। এ সময় রিজভীর সঙ্গে তার স্ত্রী এবং কয়েকজন বন্ধু ছিলেন।

এ বিষয়ে অধ্যাপক এবিএম ওবায়দুল ইসলাম বলেন, রাতে ক্লাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অতিথিরা আসেন। খাওয়া-দাওয়া করেন। এটা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। আমি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং ক্লাবের সভাপতি। আমার আমন্ত্রণেও রিজভীসহ কিছু অতিথি এসেছিলেন। কেউ গোপন বৈঠক করতে কি ক্লাবে আসবে? কোনো বৈঠক করা হয়নি। সাধারণ আড্ডা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, সিসিটিভি ফুটেজ আছে এবং অতিথিরা তাদের স্ত্রীদের নিয়ে এসেছিলেন। কেউ যদি গোপন বৈঠকের পরিকল্পনা নিয়ে আসে তাহলে কি স্ত্রীদের নিয়ে আসবেন? আমরা যখন ক্লাবে আড্ডা দিচ্ছিলাম তখন অন্য রুমে আওয়ামীপন্থী শিক্ষকরাও ছিলেন। রাতে ক্লাবে এ রকম অতিথি সব শিক্ষকেরই আসে। আমরা তো কখনো এ নিয়ে প্রশ্ন তুলিনি? কেন তুলবো? এটা স্বাভাবিক ব্যাপার। মূলত হয়রানি করার উদ্দেশ্যে এ ধরনের ঘটনাকে ভিন্নখাতে নেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।

এদিকে মঙ্গলবার (২২ জুন) এ বিষয়ে নিজের অবস্থান ব্যাখ্যা করে রুহুল কবির রিজভী গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে ইউট্যাবের একটি ঘরোয়া দাওয়াতে আমি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষক ও তিনজন সাংবাদিক উপস্থিত ছিলাম। আমন্ত্রিত অতিথি সহ সব মিলিয়ে ১০ থেকে ১২ জন উপস্থিত ছিলেন। এখানে যদি নাশকতার কোন পরিকল্পনা করা হতো, তাহলে সিসিটিভি’র ক্যামেরার আওতার মধ্যে কিভাবে আমরা ডাইনিং কক্ষে গিয়ে বসলাম। সেখানে অনেকেই সস্ত্রীক উপস্থিত ছিলেন। এটিকেই এখন ষড়যন্ত্র তত্ত্ব হিসেবে দাঁড় করিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন এবং তাদের দলদাস কিছু শিক্ষক।

তিনি আরো বলেন, পদ্মা সেতুর দুর্নীতি এবং সিলেট সহ দেশের অন্যান্য অঞ্চলে বন্যা মোকাবেলায় ব্যর্থতা, প্রচন্ড মূদ্রস্ফীতির কারণে দ্রব্যমূল্য হু হু করে বেড়ে যাওয়া ইত্যাদি কারণে সরকার বিরোধী দলের সমালোচনাকে দমন করার লক্ষ্যে দলবাজ কিছু শিক্ষক ও মিডিয়ায় নাশকতার অপপ্রচারের ধুম্রজাল সৃষ্টি করে সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাবে আমাদের উপস্থিতিকে নিয়ে নাটক শুরু করেছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি অনুষ্ঠানে যাওয়াকে কেন্দ্র করে যে নাটক করা হচ্ছে তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

রাবি ভর্তি পরীক্ষায় আবেদন ১ লাখ ৭৮ হাজার

ঢাবির মনোবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ৭ শিক্ষকের অনাস্থা

ঢাবিতে র‍্যাগ ডে’কে ‘এক দিনের শিক্ষা সমাপনী উৎসবে’ পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত

ছবি

ঢাবির মনোবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে ৭ শিক্ষকের অনাস্থা

ছবি

সংখ্যালঘু শিক্ষকদের লাঞ্ছিত ও হত্যা এবং রাবি শিক্ষকের জমি দখলের প্রতিবাদ

ছবি

রুয়েটে রোবটিক্স ফেয়ার ‘রোবোট্রনিক ২.০’ শুরু

ছবি

রাবির বহিস্কৃত শিক্ষার্থী ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে গ্রেফতার

ছবি

সামাজিক নিরাপত্তা ও নাগরিকের মর্যাদা প্রদানে ব্যার্থতার দায় সম্পূর্ণ সরকারের

ছবি

নড়াইলে অধ্যক্ষকে হেনস্তা এবং সাভারে শিক্ষক হত্যার প্রতিবাদ ছাত্র অধিকার পরিষদের

ছবি

সাভারে শিক্ষক হত্যাকারীকে গ্রেফতারের দাবিতে ঢাবিতে আমরণ অনশন

ছবি

ঢাবিতে বন্যার্তদের জন্য কনসার্ট, থাকছে দেশসেরা সব ব্যান্ড

ছবি

ঢাবির ‘খ’ ইউনিটের ফলাফল প্রকাশ কাল

ছবি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের প্রতীকী অনশন

ছবি

উচ্চশিক্ষা মানেই উচ্চ পর্যায়ের চাকরির মানসিকতা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে: নওফেল

ছবি

পদ্মা সেতুর উদ্বোধনীতে ইবিতে জমকালো কর্মসূচী

ছবি

খুলনায় বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রের আত্মহনন, প্রেমিকা গ্রেপ্তার

ছবি

শিক্ষার্থীকে মারধর করে হল থেকে নামিয়ে দিলেন ছাত্রলীগ

ঢাবি শিক্ষার্থীকে বেধড়ক পিটিয়ে হল ছাড়া করলো ছাত্রলীগ

ছবি

ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়ে ২ ঢাবি শিক্ষার্থীর আত্মহত্যার চেষ্টা

ছবি

ছাত্র ফ্রন্টের নেতাকর্মীদের উপর ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের হামলা

ছবি

১২ দফা দাবিতে রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মকর্তাদের মানব বন্ধন

স্বাধীনতা শিক্ষক পরিষদের বিশেষ বর্ধিতসভা

বর্ধিত উন্নয়ন ফি কমানোর দাবি করায় বহিষ্কারের হুমকি

ঢাবির সিনেটে ‘‘বাংলাদেশ জিন্দাবাদ’’ স্লোগান নিয়ে তুমুল হট্টগোল

ছবি

সিলেটে বন্যা পরিস্থিতির অবনতি, এক সপ্তাহ বন্ধ শাবি

ছবি

ঢাবিতে ধনীদের সন্তানের কাছ থেকে বেশি ফি নেওয়ার প্রস্তাব

ছবি

সিনেটে ৯২২ কোটি ৪৮ লাখ টাকার বাজেট অনুমোদন

ছবি

জবিতে উদীচী সংসদের ‘বর্ষাকল্প’ বরণে উৎসব

বেরোবির উপাচার্য অধ্যাপক রশীদের এক বছরপূর্তি

যৌন হয়রানির অভিযোগ তদন্ত না করেই অব্যাহতি

ছবি

পিএইচডিতে ইনক্রিমেন্ট বন্ধ: কলম বিরতিতে রাবি শিক্ষকরা

ছবি

ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষের জেরে চুয়েট বন্ধ

ছবি

নতুন অর্থবছরে গবেষণায় বরাদ্দ বাড়ছে ঢাবির

ঢাবি এলাকায় তরুণীকে যৌন হয়রানি, পুলিশ খুঁজছে দুই হেলমেটধারীকে

ছবি

ঢাবির ‘ক’ ইউনিটের পরীক্ষা: সাংবাদিকদের টাকা দেওয়ার প্রস্তাব

ছবি

ঢাবিতে ভর্তি পরীক্ষাকেন্দ্রের ছবি তোলায় ২ জন আটক

tab

ক্যাম্পাস

মধ্যরাতে ঢাবি ক্লাবে রিজভীর অবস্থান, তদন্ত কমিটি

ঢাবি প্রতিনিধি

বুধবার, ২২ জুন ২০২২

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাব) ক্লাবে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভীর গভীর রাতে অবস্থান করা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এ বিষয়ে ক্লাবের সদস্য ও ফার্মেসি অনুষদের ডিন অধ্যাপক সীতেশ চন্দ্র বাছারকে আহ্বায়ক করে একটি অনুসন্ধান কমিটি গঠন করা হয়েছে।

তদন্ত কমিটি গঠনের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ও নীল দলের সিনেট সদস্য অধ্যাপক আব্দুর রহীম। তিনি বলেন, এ বিষয়ে আমরা সোমবার ক্লাবের কার্যনির্বাহী পরিষদের মিটিং করি। সেখানে এ বিষয়ে ক্লাবের সভাপতির কাছে মৌখিক ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে। তিনি ব্যাখ্যা দিয়েছেন। ক্লাবের অনেক সদস্য ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তারা বলছেন এখানে নিয়মের ব্যত্যয় ঘটানো হয়েছে। তার প্রেক্ষিতে এবং জনমনে উৎকন্ঠা তৈরি হওয়ায় প্রকৃত সত্য উদঘাটনে ক্লাবের সহ-সভাপতি ও ফার্মেসি অনুষদের ডিন অধ্যাপক সীতেশ চন্দ্র বাছারকে আহ্বায়ক করে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, এ কমিটিকে আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।কমিটির প্রতিবেদনের ভিত্তিতে পরবর্তী পদক্ষেপ নেবে ক্লাবের কার্যকরী পরিষদ। কমিটিতে নীল দল এবং সাদা দলের দুইজন করে শিক্ষক আছেন বলে জানান অধ্যাপক আব্দুর রহীম।

জানা যায়, রোববার (১৯ জুন) রাতে ক্লাবের সভাপতি বিএনপি সমর্থিত সাদা দলের শিক্ষক ও সিনেট সদস্য অধ্যাপক ড. এবিএম ওবায়দুল ইসলামের আমন্ত্রণে রুহুল কবির রিজভী ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে যান। সেখানে রাত ১টা পর্যন্ত তিনি অবস্থান করেন। এ সময় রিজভীর সঙ্গে তার স্ত্রী এবং কয়েকজন বন্ধু ছিলেন।

এ বিষয়ে অধ্যাপক এবিএম ওবায়দুল ইসলাম বলেন, রাতে ক্লাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের অতিথিরা আসেন। খাওয়া-দাওয়া করেন। এটা খুবই স্বাভাবিক ব্যাপার। আমি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং ক্লাবের সভাপতি। আমার আমন্ত্রণেও রিজভীসহ কিছু অতিথি এসেছিলেন। কেউ গোপন বৈঠক করতে কি ক্লাবে আসবে? কোনো বৈঠক করা হয়নি। সাধারণ আড্ডা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, সিসিটিভি ফুটেজ আছে এবং অতিথিরা তাদের স্ত্রীদের নিয়ে এসেছিলেন। কেউ যদি গোপন বৈঠকের পরিকল্পনা নিয়ে আসে তাহলে কি স্ত্রীদের নিয়ে আসবেন? আমরা যখন ক্লাবে আড্ডা দিচ্ছিলাম তখন অন্য রুমে আওয়ামীপন্থী শিক্ষকরাও ছিলেন। রাতে ক্লাবে এ রকম অতিথি সব শিক্ষকেরই আসে। আমরা তো কখনো এ নিয়ে প্রশ্ন তুলিনি? কেন তুলবো? এটা স্বাভাবিক ব্যাপার। মূলত হয়রানি করার উদ্দেশ্যে এ ধরনের ঘটনাকে ভিন্নখাতে নেওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে।

এদিকে মঙ্গলবার (২২ জুন) এ বিষয়ে নিজের অবস্থান ব্যাখ্যা করে রুহুল কবির রিজভী গণমাধ্যমে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ক্লাবে ইউট্যাবের একটি ঘরোয়া দাওয়াতে আমি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়সহ অন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষক ও তিনজন সাংবাদিক উপস্থিত ছিলাম। আমন্ত্রিত অতিথি সহ সব মিলিয়ে ১০ থেকে ১২ জন উপস্থিত ছিলেন। এখানে যদি নাশকতার কোন পরিকল্পনা করা হতো, তাহলে সিসিটিভি’র ক্যামেরার আওতার মধ্যে কিভাবে আমরা ডাইনিং কক্ষে গিয়ে বসলাম। সেখানে অনেকেই সস্ত্রীক উপস্থিত ছিলেন। এটিকেই এখন ষড়যন্ত্র তত্ত্ব হিসেবে দাঁড় করিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন এবং তাদের দলদাস কিছু শিক্ষক।

তিনি আরো বলেন, পদ্মা সেতুর দুর্নীতি এবং সিলেট সহ দেশের অন্যান্য অঞ্চলে বন্যা মোকাবেলায় ব্যর্থতা, প্রচন্ড মূদ্রস্ফীতির কারণে দ্রব্যমূল্য হু হু করে বেড়ে যাওয়া ইত্যাদি কারণে সরকার বিরোধী দলের সমালোচনাকে দমন করার লক্ষ্যে দলবাজ কিছু শিক্ষক ও মিডিয়ায় নাশকতার অপপ্রচারের ধুম্রজাল সৃষ্টি করে সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভকে ভিন্ন খাতে প্রবাহিত করতেই ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লাবে আমাদের উপস্থিতিকে নিয়ে নাটক শুরু করেছে। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি অনুষ্ঠানে যাওয়াকে কেন্দ্র করে যে নাটক করা হচ্ছে তার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।

back to top