alt

ক্যাম্পাস

‘যেমন খুশি তেমন পরো’ বৈচিত্র্যময় বাংলাদেশে সাংবিধানিক অধিকার

প্রতিনিধি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় : শনিবার, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

ঢাবি : মেয়েদের পোশাকের স্বাধীনতার বিরুদ্ধে কর্মসূচি নিয়ে তোলপাড়ের মধ্যে পোশাকের বৈচিত্র্যকে স্বাগত জানিয়ে অবস্থান কর্মসূচি -সংবাদ

মেয়েদের পোশাকের স্বাধীনতার বিরুদ্ধে কর্মসূচি নিয়ে তোলপাড়ের মধ্যে এবার পোশাকের বৈচিত্রকে স্বাগত জানিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী। বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্য এর পাদদেশে এই কর্মসূচি পালিত হয়। এ সময় পোশাকের স্বাধীনতা নিয়ে বিভিন্ন প্যাকার্ড প্রদর্শন করা হয়। আয়োজকরা বলছেন, বৈচিত্র্যময় এবং অযাচিত খবরদারিহীন বাংলাদেশের প্রতিরূপ তুলে ধরতেই তাদের এই আয়োজন। এই কর্মসূচিতে প্যাকার্ডগুলোতে লেখা ছিল ‘সংস্কৃতি কারও বাপের না’, ‘শান্তিপূর্ণ দাসত্বের ওপরে প্রশ্নবিদ্ধ স্বাধীনতা বেঁচে নিলাম’, ‘কয়দিন পর যদি নাম শুনেই সিডিউসড হয়ে যান’, ‘সিডিউসড হোন বা না হোন হামলে পরবেন না’, ‘আমি বলি না নিপাত যাক, বলি সব থাক থাক’ ইত্যাদি। এতে বেসরকারি ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি এবং ভিকারুননিসা নূন স্কুলেরও কয়েকজন শিক্ষার্থীও অংশ নেন। তারা যার যেমন খুশি তেমন পোশাক পরে আসেন। আয়োজনের নামও দেয়া হয়েছে ‘যেমন খুশি তেমন পরো’। এতে অংশ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের শিক্ষার্থী খাদিজা শারমিন বলেন, যারা পোশাকের স্বাধীনতার বিরুদ্ধে রাজু ভাস্কর্যে দাড়িয়েছিল, তারা বলেছে স্বাধীনতার নামে আমরা যারা ইচ্ছেমতো পোশাক পরতে চাই, আমাদের যেন আইনের আওতায় আনা হয়। ‘কিন্তু বাংলাদেশের সংবিধান বাঙালি নারী হিসেবে আমাকে আমার কাছে যেটা শালীন মনে হয় সেটা পরার অধিকার দিয়েছে। কিন্তু যারা এখানে দাঁড়িয়েছিল এবং পরে তাদের প্রভাবে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে দাঁড়িয়েছিল তারাই সংবিধানবিরোধী কথা বলছে। তারা আমাদের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করছে। তাদেরই আইনের আওতায় আনা উচিত।’ সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী অরুণিমা তাহসীন বলেন, শাড়ি, লুঙ্গি, পাজামা-পাঞ্জাবি, সালোয়ার কামিজ, স্কার্ট, ওয়েস্টার্ন, বোরকা, থামিসহ সকল আদিবাসী পোশাক আমাদের পোশাক। নিজের চোখে যে পোশাক মানানসই, তার ব্যতিক্রম অন্যের পোশাকে দেখলে আক্রমণের যে প্রবণতা শুরু হয়েছে তার বিরুদ্ধে আমরা। এই শিক্ষার্থী বলেন, নিজের পছন্দকেই দেশীয় মূল্যবোধ এর সর্বোচ্চ স্ট্যান্ডার্ড ধরা, আর এদেশেরই আরেকজন স্বাধীন নাগরিকের পছন্দকে খারিজ করে দেয়ার যে নাৎসিবাদী প্রবণতা, তার বিরুদ্ধেই আমাদের আজকের আয়োজন।

ছবি

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত ৯ নেতার আগাম জামিন

ছবি

জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উপলক্ষে স্ক্রাচ প্রোগ্রামিং এবং রোবটিক্স কর্মশালা

ছবি

গ্রামীণফোনের স্কিটো হ্যাকাথনে বিজয়ী ‘সার্কিট ব্রোকার্স’

ছবি

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের গবেষণাভিত্তিক সংগঠন ‘ইআরডিএফবি’র আত্মপ্রকাশ

ছবি

ছাত্রলীগের দু-পক্ষের অস্ত্র মহড়া: কুবিতে হল বন্ধ, পরীক্ষা স্থগিত

ছবি

এসি-ফ্রিজ নিয়ে রাজার হালে ঢাবির হলে থাকছেন চাকরিজীবী ছাত্রলীগ নেতা

ছবি

৩ বছরেও অধিগ্রহণ সম্পন্ন হয়নি ভূমি জটিলতায় স্থবির নির্মাণকাজ

ছবি

ইডেন ছাত্রলীগের সংঘর্ষের ঘটনায় পাল্টা মামলা

শাবিপ্রবিতে পরীক্ষায় অনিয়মের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

উপাচার্যকে ‘চাকরবাকর’ বলার প্রতিবাদ ঢাবি শিক্ষক সমিতির

ইডেনের ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা, তদন্তের নির্দেশ

ক্যাম্পাসে সহাবস্থান নিশ্চিতের দাবি ঢাবির বিএনপিপন্থী শিক্ষকদের

ঢাবিতে ছাত্রদলের উপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত ১০

ঢাবি ভিসির সঙ্গে সাক্ষাৎ নিয়ে ছাত্রলীগ-ছাত্রদলের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি

ছবি

ভিসির সঙ্গে সাক্ষাৎ: ঢাবি ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত ১০

ছবি

ইডেনের ঘটনা তদন্তে কলেজ প্রশাসনের ৪ সদস্যের কমিটি

ছবি

ছাত্রলীগ কর্মীর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে না যাওয়ায় সাংবাদিককে মারধরের অভিযোগ

ছবি

আমরণ অনশনের ঘোষণা ইডেন ছাত্রলীগের বহিষ্কৃতদের

ছবি

সংবাদ সম্মেলনেই ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষ

ছবি

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদককে ‘অবাঞ্ছিত’ ঘোষণা

ছবি

জনরোষে হল ছেড়ে পালাল ইডেন ছাত্রলীগ সভাপতি-সেক্রেটারি

ইডেনে মুখোমুখি ছাত্রলীগের দুই গ্রুপ,রাতভর উত্তেজনা

ছবি

অনিয়মিত ইউরোপফেরতদের প্রতি অপবাদ ও বৈষম্য কমাতে সিফারের মাইগ্র্যান্ট প্রোজেক্ট

চবি ফটকে তালা দিলেই অ্যাকশনে যাবে প্রশাসন

ছবি

ঢাবিতে ২০ লাখ টাকা ছিনতাই, মূল হোতাসহ ৫ জন গ্রেপ্তার

ছবি

ওয়ার্ল্ড রোবট অলিম্পিয়াড-বাংলাদেশের জাতীয় পর্ব এবছর অফলাইনে

ঢাবির জগন্নাথ হলে ঘুমের মধ্যে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ছবি

ঢাবি সাংবাদিক সমিতির ৩৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

ছবি

সীমান্তে মিয়ানমারের আগ্রাসনের প্রতিবাদে ঢাবিতে বিক্ষোভ

ছবি

ইবিতে যুক্ত হলো নতুন ৫ টি গাড়ি

ছবি

ইবিতে ফটোগ্রাফিক সোসাইটির কর্মশালা

ছবি

আগামীতে জনসংখ্যাকে জনশক্তিতে রুপান্তর করাই হবে বড় চ্যালেঞ্জঃ ড. ফরাসউদ্দিন

ঢাবির সিন্ডিকেট নির্বাচনে সব পদে আওয়ামীপন্থীদের নিরঙ্কুশ জয়

ছবি

ওয়ার্ল্ড রোবট অলিম্পিয়াডের নিবন্ধন চলছে

ছবি

সীমান্তে হত্যার প্রতিবাদে ঢাবিতে বিক্ষোভ ও মশাল মিছিল

ইবি খালেদা জিয়া হল ডিবেটিং সোসাইটির নতুন কমিটি

tab

ক্যাম্পাস

‘যেমন খুশি তেমন পরো’ বৈচিত্র্যময় বাংলাদেশে সাংবিধানিক অধিকার

প্রতিনিধি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

ঢাবি : মেয়েদের পোশাকের স্বাধীনতার বিরুদ্ধে কর্মসূচি নিয়ে তোলপাড়ের মধ্যে পোশাকের বৈচিত্র্যকে স্বাগত জানিয়ে অবস্থান কর্মসূচি -সংবাদ

শনিবার, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২২

মেয়েদের পোশাকের স্বাধীনতার বিরুদ্ধে কর্মসূচি নিয়ে তোলপাড়ের মধ্যে এবার পোশাকের বৈচিত্রকে স্বাগত জানিয়ে অবস্থান কর্মসূচি পালন করেছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একদল শিক্ষার্থী। বৃহস্পতিবার (১ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্য এর পাদদেশে এই কর্মসূচি পালিত হয়। এ সময় পোশাকের স্বাধীনতা নিয়ে বিভিন্ন প্যাকার্ড প্রদর্শন করা হয়। আয়োজকরা বলছেন, বৈচিত্র্যময় এবং অযাচিত খবরদারিহীন বাংলাদেশের প্রতিরূপ তুলে ধরতেই তাদের এই আয়োজন। এই কর্মসূচিতে প্যাকার্ডগুলোতে লেখা ছিল ‘সংস্কৃতি কারও বাপের না’, ‘শান্তিপূর্ণ দাসত্বের ওপরে প্রশ্নবিদ্ধ স্বাধীনতা বেঁচে নিলাম’, ‘কয়দিন পর যদি নাম শুনেই সিডিউসড হয়ে যান’, ‘সিডিউসড হোন বা না হোন হামলে পরবেন না’, ‘আমি বলি না নিপাত যাক, বলি সব থাক থাক’ ইত্যাদি। এতে বেসরকারি ব্র্যাক ইউনিভার্সিটি এবং ভিকারুননিসা নূন স্কুলেরও কয়েকজন শিক্ষার্থীও অংশ নেন। তারা যার যেমন খুশি তেমন পোশাক পরে আসেন। আয়োজনের নামও দেয়া হয়েছে ‘যেমন খুশি তেমন পরো’। এতে অংশ নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম বিভাগের শিক্ষার্থী খাদিজা শারমিন বলেন, যারা পোশাকের স্বাধীনতার বিরুদ্ধে রাজু ভাস্কর্যে দাড়িয়েছিল, তারা বলেছে স্বাধীনতার নামে আমরা যারা ইচ্ছেমতো পোশাক পরতে চাই, আমাদের যেন আইনের আওতায় আনা হয়। ‘কিন্তু বাংলাদেশের সংবিধান বাঙালি নারী হিসেবে আমাকে আমার কাছে যেটা শালীন মনে হয় সেটা পরার অধিকার দিয়েছে। কিন্তু যারা এখানে দাঁড়িয়েছিল এবং পরে তাদের প্রভাবে দেশের বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে দাঁড়িয়েছিল তারাই সংবিধানবিরোধী কথা বলছে। তারা আমাদের স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করছে। তাদেরই আইনের আওতায় আনা উচিত।’ সমাজবিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী অরুণিমা তাহসীন বলেন, শাড়ি, লুঙ্গি, পাজামা-পাঞ্জাবি, সালোয়ার কামিজ, স্কার্ট, ওয়েস্টার্ন, বোরকা, থামিসহ সকল আদিবাসী পোশাক আমাদের পোশাক। নিজের চোখে যে পোশাক মানানসই, তার ব্যতিক্রম অন্যের পোশাকে দেখলে আক্রমণের যে প্রবণতা শুরু হয়েছে তার বিরুদ্ধে আমরা। এই শিক্ষার্থী বলেন, নিজের পছন্দকেই দেশীয় মূল্যবোধ এর সর্বোচ্চ স্ট্যান্ডার্ড ধরা, আর এদেশেরই আরেকজন স্বাধীন নাগরিকের পছন্দকে খারিজ করে দেয়ার যে নাৎসিবাদী প্রবণতা, তার বিরুদ্ধেই আমাদের আজকের আয়োজন।

back to top