alt

ক্যাম্পাস

ঢাবির শতবর্ষ পূর্তি উৎসব

গ্র্যাজুয়েট ক্লাব ইউএসএ-এর উদ্যোগে

মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : রোববার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েট ক্লাব ইউএসএ-এর উদ্যোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষ উদযাপিত হয়েছে। সাড়ম্বরভাবে নিউইয়র্কের উডসাইডের গুলশান টেরেসে অনুষ্ঠিত হয়। দুই পর্বে সম্পন্ন হয় অনুষ্ঠানটি।

প্রথম পর্বে ছিল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও র্যারলী। দ্বিতীয় পর্বে কেক কাটা, আলোচনা ও বিভিন্ন প্রকার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা এদিন দুপুরের পর থেকেই জড়ো হতে থাকেন নিউইয়র্কের প্রাণকেন্দ্র জ্যাকসন হাইটসে। টি-শার্ট বিতরণের পর শুরু হয় র্যা লী। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা বাঁশি, ঢোল-তবলা বাজিয়ে, গান গেয়ে অনুষ্ঠানটি আরও আনন্দঘন করে তোলেন।

উল্লেখ্য, র্যা লীতে লালবাসের প্রতিকৃতি তুলে ধরা হয়। আরও ছিলো ঢাবিকে নিয়ে লেখা ভালবাসায় সিক্ত প্ল্যাকার্ড। বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত ও যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল এনথেম গাওয়ার মধ্য দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান। সন্ধ্যা ৭টার দিকে কেক কাটার মাধ্যমে শুরু হয় অনুষ্ঠানের দ্বিতীয়পর্ব। মহুয়া মৌরি ও মুহাম্মদ শাফীর উপস্থাপনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন কনভেনর মো. মাসুদুল ইসলাম, নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল ড. মোহাম্মদ মুনিরুল ইসলাম, ডেপুটি কনসাল জেনারেল এস এম নাজমুল ইসলাম, জাতিসংঘের সহকারী মহাসচিবের অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ম্যানেজিং অফিসার এমডি লোকমান হোসাইন।

এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন পর্যায়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা বক্তব্য রাখেন। তারা কেউ ক্যাম্পাস জীবনের স্মৃতিচারণ করেছেন। এছাড়া কবিতা আবৃত্তি, সংগীত পরিবেশনাসহ বিভিন্ন কার্যক্রমে মেতে উঠেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েট ক্লাব ইউএসএ-এর সদস্যরা। ড. মনিরুল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন, আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েট ক্লাবের এই অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছি কনসাল জেনারেল হিসেবে নয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সাবেক শিক্ষার্থী হিসেবে। যখন থেকে এই অনুষ্ঠানের খবর পেয়েছি, তখন থেকেই এই মাহেন্দ্রক্ষণের অপেক্ষায় ছিলাম। আমার মনের আঙিনায় এখন ভাসছে সেই টিএসসি, কলাভবন, নীলক্ষেত, মলচত্বর, কার্জন হল, কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি আর রেজিস্ট্রার বিল্ডিংয়ের প্রতিটি স্মৃতি। গ্র্যাজুয়েট ক্লাবের আহ্বায়ক মাসুদুল ইসলাম বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আমাদের বুকের মধ্যে ঢুকিয়ে দিয়েছে সত্য সুন্দর ও উজ্জ্বল আগামীর স্বপ্ন। জীবনের অনিবার্য ডাকে আমরা হয়তো ক্যাম্পাস থেকে বেরিয়ে এসেছি, তবে আমরা জানি, বিশ্ববিদ্যালয় কখনো প্রাক্তন হয় না। এই গ্র্যাজুয়েট ক্লাবের মাধ্যমে আমরা আবার সবাইকে এক সুঁতোয় গাঁথবো।

অনুষ্ঠানের বিভিন্ন পর্যায়ে ছিল- র্যা ফেল ড্র টিকিট বিতরণ, তথ্যচিত্র প্রদর্শন, বক্তৃতা, স্মৃতিচারণ, দলীয় ও একক সংগীত পরিবেশন, কবিতা আবৃত্তি, ফ্যাশন শো, নৃত্য পরিবেশনা, ক্যাম্পাসভিত্তিক নাটিকা, শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা।

গ্র্যাজুয়েট ক্লাব কর্তৃক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই শতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে একটি ম্যাগাজিন বের করা হয়। অপরাজেয় মিলনমেলা ম্যাগাজিন- ২০২২ নামের এই স্মরণিকায় যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন স্মৃতিচারণমূলক নিবন্ধ, কবিতা, এবং গল্প প্রকাশিত হয়েছে। ম্যাগাজিনটি সম্পাদনা করেছেন মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, সিলভিয়া সাবেরীন ও মামুন রাশিদ।

প্রসঙ্গত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েট ক্লাব ইউএসএ-এর আহ্বায়ক হিসেবে ছিলেন- মোহাম্মদ মাসুদুল ইসলাম। এছাড়া যুগ্ম আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন- মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, মশিউর রহমান, কহিনূর বেগম, মোহাম্মদ মহসিন উদ্দীন মোল্যা, মহুয়া পারভীন, মামুন রাশিদ, এবং সিলভিয়া সাবেরীন।

মিলনমেলার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এর পরিচালনা করেন মামুন রাশিদ এবং সিলভিয়া সাবেরীন। রম্য বিতর্ক এবং ভিন্নধর্মী ফ্যাশন শো অনুষ্ঠানে আরও মনোরম করে তুলে। ফ্যাশন শো তে ঢাবির বিশেষ গুলো এবং ইতিহাসকে তুলে ধরা হয়। মামুন রাশিদ আর আরিফিন টুলুর কন্ঠে জনপ্রিয় গান গুলো দিয়ে মুখরিত হয়ে উঠে গুলশান টেরেস। রাতের খাবারের পর র্যা ফেল ড্র এর পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। সবশেষে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয় রাত ১১টায়।

সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মাধ্যমে আহবায়ক মোঃ মাসুদুল ইসলাম অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

ছবি

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত ৯ নেতার আগাম জামিন

ছবি

জাতীয় কন্যা শিশু দিবস উপলক্ষে স্ক্রাচ প্রোগ্রামিং এবং রোবটিক্স কর্মশালা

ছবি

গ্রামীণফোনের স্কিটো হ্যাকাথনে বিজয়ী ‘সার্কিট ব্রোকার্স’

ছবি

বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষকদের গবেষণাভিত্তিক সংগঠন ‘ইআরডিএফবি’র আত্মপ্রকাশ

ছবি

ছাত্রলীগের দু-পক্ষের অস্ত্র মহড়া: কুবিতে হল বন্ধ, পরীক্ষা স্থগিত

ছবি

এসি-ফ্রিজ নিয়ে রাজার হালে ঢাবির হলে থাকছেন চাকরিজীবী ছাত্রলীগ নেতা

ছবি

৩ বছরেও অধিগ্রহণ সম্পন্ন হয়নি ভূমি জটিলতায় স্থবির নির্মাণকাজ

ছবি

ইডেন ছাত্রলীগের সংঘর্ষের ঘটনায় পাল্টা মামলা

শাবিপ্রবিতে পরীক্ষায় অনিয়মের ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন

উপাচার্যকে ‘চাকরবাকর’ বলার প্রতিবাদ ঢাবি শিক্ষক সমিতির

ইডেনের ছাত্রলীগ সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বিরুদ্ধে মামলা, তদন্তের নির্দেশ

ক্যাম্পাসে সহাবস্থান নিশ্চিতের দাবি ঢাবির বিএনপিপন্থী শিক্ষকদের

ঢাবিতে ছাত্রদলের উপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত ১০

ঢাবি ভিসির সঙ্গে সাক্ষাৎ নিয়ে ছাত্রলীগ-ছাত্রদলের পাল্টাপাল্টি কর্মসূচি

ছবি

ভিসির সঙ্গে সাক্ষাৎ: ঢাবি ছাত্রদলের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত ১০

ছবি

ইডেনের ঘটনা তদন্তে কলেজ প্রশাসনের ৪ সদস্যের কমিটি

ছবি

ছাত্রলীগ কর্মীর জন্মদিনের অনুষ্ঠানে না যাওয়ায় সাংবাদিককে মারধরের অভিযোগ

ছবি

আমরণ অনশনের ঘোষণা ইডেন ছাত্রলীগের বহিষ্কৃতদের

ছবি

সংবাদ সম্মেলনেই ইডেন কলেজ ছাত্রলীগের দু’পক্ষে সংঘর্ষ

ছবি

ইডেন কলেজ ছাত্রলীগ সভাপতি-সম্পাদককে ‘অবাঞ্ছিত’ ঘোষণা

ছবি

জনরোষে হল ছেড়ে পালাল ইডেন ছাত্রলীগ সভাপতি-সেক্রেটারি

ইডেনে মুখোমুখি ছাত্রলীগের দুই গ্রুপ,রাতভর উত্তেজনা

ছবি

অনিয়মিত ইউরোপফেরতদের প্রতি অপবাদ ও বৈষম্য কমাতে সিফারের মাইগ্র্যান্ট প্রোজেক্ট

চবি ফটকে তালা দিলেই অ্যাকশনে যাবে প্রশাসন

ছবি

ঢাবিতে ২০ লাখ টাকা ছিনতাই, মূল হোতাসহ ৫ জন গ্রেপ্তার

ছবি

ওয়ার্ল্ড রোবট অলিম্পিয়াড-বাংলাদেশের জাতীয় পর্ব এবছর অফলাইনে

ঢাবির জগন্নাথ হলে ঘুমের মধ্যে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ছবি

ঢাবি সাংবাদিক সমিতির ৩৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন

ছবি

সীমান্তে মিয়ানমারের আগ্রাসনের প্রতিবাদে ঢাবিতে বিক্ষোভ

ছবি

ইবিতে যুক্ত হলো নতুন ৫ টি গাড়ি

ছবি

ইবিতে ফটোগ্রাফিক সোসাইটির কর্মশালা

ছবি

আগামীতে জনসংখ্যাকে জনশক্তিতে রুপান্তর করাই হবে বড় চ্যালেঞ্জঃ ড. ফরাসউদ্দিন

ঢাবির সিন্ডিকেট নির্বাচনে সব পদে আওয়ামীপন্থীদের নিরঙ্কুশ জয়

ছবি

ওয়ার্ল্ড রোবট অলিম্পিয়াডের নিবন্ধন চলছে

ছবি

সীমান্তে হত্যার প্রতিবাদে ঢাবিতে বিক্ষোভ ও মশাল মিছিল

ইবি খালেদা জিয়া হল ডিবেটিং সোসাইটির নতুন কমিটি

tab

ক্যাম্পাস

ঢাবির শতবর্ষ পূর্তি উৎসব

গ্র্যাজুয়েট ক্লাব ইউএসএ-এর উদ্যোগে

মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

রোববার, ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েট ক্লাব ইউএসএ-এর উদ্যোগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষ উদযাপিত হয়েছে। সাড়ম্বরভাবে নিউইয়র্কের উডসাইডের গুলশান টেরেসে অনুষ্ঠিত হয়। দুই পর্বে সম্পন্ন হয় অনুষ্ঠানটি।

প্রথম পর্বে ছিল উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ও র্যারলী। দ্বিতীয় পর্বে কেক কাটা, আলোচনা ও বিভিন্ন প্রকার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা এদিন দুপুরের পর থেকেই জড়ো হতে থাকেন নিউইয়র্কের প্রাণকেন্দ্র জ্যাকসন হাইটসে। টি-শার্ট বিতরণের পর শুরু হয় র্যা লী। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা বাঁশি, ঢোল-তবলা বাজিয়ে, গান গেয়ে অনুষ্ঠানটি আরও আনন্দঘন করে তোলেন।

উল্লেখ্য, র্যা লীতে লালবাসের প্রতিকৃতি তুলে ধরা হয়। আরও ছিলো ঢাবিকে নিয়ে লেখা ভালবাসায় সিক্ত প্ল্যাকার্ড। বাংলাদেশের জাতীয় সংগীত ও যুক্তরাষ্ট্রের ন্যাশনাল এনথেম গাওয়ার মধ্য দিয়ে শুরু হয় অনুষ্ঠান। সন্ধ্যা ৭টার দিকে কেক কাটার মাধ্যমে শুরু হয় অনুষ্ঠানের দ্বিতীয়পর্ব। মহুয়া মৌরি ও মুহাম্মদ শাফীর উপস্থাপনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন কনভেনর মো. মাসুদুল ইসলাম, নিউইয়র্কের বাংলাদেশ কনস্যুলেটের কনসাল জেনারেল ড. মোহাম্মদ মুনিরুল ইসলাম, ডেপুটি কনসাল জেনারেল এস এম নাজমুল ইসলাম, জাতিসংঘের সহকারী মহাসচিবের অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ম্যানেজিং অফিসার এমডি লোকমান হোসাইন।

এছাড়া যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন পর্যায়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা বক্তব্য রাখেন। তারা কেউ ক্যাম্পাস জীবনের স্মৃতিচারণ করেছেন। এছাড়া কবিতা আবৃত্তি, সংগীত পরিবেশনাসহ বিভিন্ন কার্যক্রমে মেতে উঠেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েট ক্লাব ইউএসএ-এর সদস্যরা। ড. মনিরুল ইসলাম তার বক্তব্যে বলেন, আমি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েট ক্লাবের এই অনুষ্ঠানে হাজির হয়েছি কনসাল জেনারেল হিসেবে নয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সাবেক শিক্ষার্থী হিসেবে। যখন থেকে এই অনুষ্ঠানের খবর পেয়েছি, তখন থেকেই এই মাহেন্দ্রক্ষণের অপেক্ষায় ছিলাম। আমার মনের আঙিনায় এখন ভাসছে সেই টিএসসি, কলাভবন, নীলক্ষেত, মলচত্বর, কার্জন হল, কেন্দ্রীয় লাইব্রেরি আর রেজিস্ট্রার বিল্ডিংয়ের প্রতিটি স্মৃতি। গ্র্যাজুয়েট ক্লাবের আহ্বায়ক মাসুদুল ইসলাম বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আমাদের বুকের মধ্যে ঢুকিয়ে দিয়েছে সত্য সুন্দর ও উজ্জ্বল আগামীর স্বপ্ন। জীবনের অনিবার্য ডাকে আমরা হয়তো ক্যাম্পাস থেকে বেরিয়ে এসেছি, তবে আমরা জানি, বিশ্ববিদ্যালয় কখনো প্রাক্তন হয় না। এই গ্র্যাজুয়েট ক্লাবের মাধ্যমে আমরা আবার সবাইকে এক সুঁতোয় গাঁথবো।

অনুষ্ঠানের বিভিন্ন পর্যায়ে ছিল- র্যা ফেল ড্র টিকিট বিতরণ, তথ্যচিত্র প্রদর্শন, বক্তৃতা, স্মৃতিচারণ, দলীয় ও একক সংগীত পরিবেশন, কবিতা আবৃত্তি, ফ্যাশন শো, নৃত্য পরিবেশনা, ক্যাম্পাসভিত্তিক নাটিকা, শিশুদের চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা।

গ্র্যাজুয়েট ক্লাব কর্তৃক ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এই শতবর্ষ পূর্তি উপলক্ষে একটি ম্যাগাজিন বের করা হয়। অপরাজেয় মিলনমেলা ম্যাগাজিন- ২০২২ নামের এই স্মরণিকায় যুক্তরাষ্ট্রে বসবাসরত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন স্মৃতিচারণমূলক নিবন্ধ, কবিতা, এবং গল্প প্রকাশিত হয়েছে। ম্যাগাজিনটি সম্পাদনা করেছেন মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, সিলভিয়া সাবেরীন ও মামুন রাশিদ।

প্রসঙ্গত, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় গ্র্যাজুয়েট ক্লাব ইউএসএ-এর আহ্বায়ক হিসেবে ছিলেন- মোহাম্মদ মাসুদুল ইসলাম। এছাড়া যুগ্ম আহ্বায়ক হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন- মুহাম্মদ শহীদুল্লাহ, মশিউর রহমান, কহিনূর বেগম, মোহাম্মদ মহসিন উদ্দীন মোল্যা, মহুয়া পারভীন, মামুন রাশিদ, এবং সিলভিয়া সাবেরীন।

মিলনমেলার সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান এর পরিচালনা করেন মামুন রাশিদ এবং সিলভিয়া সাবেরীন। রম্য বিতর্ক এবং ভিন্নধর্মী ফ্যাশন শো অনুষ্ঠানে আরও মনোরম করে তুলে। ফ্যাশন শো তে ঢাবির বিশেষ গুলো এবং ইতিহাসকে তুলে ধরা হয়। মামুন রাশিদ আর আরিফিন টুলুর কন্ঠে জনপ্রিয় গান গুলো দিয়ে মুখরিত হয়ে উঠে গুলশান টেরেস। রাতের খাবারের পর র্যা ফেল ড্র এর পুরস্কার ঘোষণা করা হয়। সবশেষে অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করা হয় রাত ১১টায়।

সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মাধ্যমে আহবায়ক মোঃ মাসুদুল ইসলাম অনুষ্ঠানের সমাপ্তি ঘোষণা করেন।

back to top