alt

ক্যাম্পাস

অনিয়মিত ইউরোপফেরতদের প্রতি অপবাদ ও বৈষম্য কমাতে সিফারের মাইগ্র্যান্ট প্রোজেক্ট

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি : শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

ইউরোপ থেকে জোরপূর্বক বা স্বেচ্ছায় দেশে ফেরত আসা অনিয়মিত বাংলাদেশি অভিবাসীদের প্রতি নানা ধরনের অপবাদ বা কলঙ্ক কমানো এবং সমাজে তাদের সফল পুনঃএকত্রীকরণে, একটি নতুন অপবাদ-বিরোধী প্রচারণা শুরু হয়েছে। ‘মাইগ্র্যান্ট প্রোজেক্ট’ নামে একটি প্রকল্প বিদেশফেরত অভিবাসী ও জনগোষ্ঠীর সঙ্গে কাজের মাধ্যমে প্রচারণাটি এগিয়ে নেবে।

একটি আন্তর্জাতিক সামাজিক উদ্যোগ ’সিফার’ আগামী পাঁচ মাসব্যাপী এই প্রকল্পটি বাংলাদেশে বাস্তবায়ন করছে। এটি অভিবাসীদের জেনে-বুঝে বিদেশ যাওয়ার ক্ষেত্রে সচেতন করে।

এই প্রচারণার লক্ষ্য, ইউরোপফেরত বাংলাদেশি অভিবাসীদের মনো-সামাজিক সহায়তা (সাইকোসোশ্যাল সাপোর্ট) এবং সমাজে তাদের সফল পুনঃএকত্রীকরণে জনগোষ্ঠীর সঙ্গে কাজ করা।

এরই অংশ হিসেবে ২০০ জন বিদেশফেরত অভিবাসী মাইগ্র্যান্ট প্রোজেক্টের অভিজ্ঞ ও পেশাদার কাউন্সেলিং দল থেকে বিনামূল্যে ও গোপনীয় কাউন্সেলিং সেবা পাবেন।

অনলাইনে একটি ফর্ম পূরণ (ফর্মের লিংক: https://malto crm.org/bn/forms/181) করে অথবা সরাসরি কাউন্সেলরদের ফোন করে (+880 1537-315770, +8801969-835505) অভিবাসীরা এই কাউন্সেলিং সেবা পেতে পারেন।

বিদেশফেরতরা যে ধরনের সীমাবদ্ধতার মুখোমুখি হয় সেগুলো আরও ভালোভাবে বোঝা এবং দেশে ফেরার পরে সামাজিকভাবে যেসব অপবাদের মুখোমুখি হয় তা কমাতে প্রচারণাটি জনগোষ্ঠীর সঙ্গে কাজ করবে।

সিফার’র গবেষণা বলছে, ইউরোপ থেকে ব্যর্থ হয়ে দেশে ফিরে বাংলাদেশি অনিয়মিত অভিবাসীরা প্রায়ই নানা ধরনের অপবাদ বা কলঙ্কের মুখোমুখি হন। প্রায় অর্ধেক অভিবাসী নানা ধরনের অপবাদ বা কলঙ্কের সঙ্গে সঙ্গে পরিবার ও এলাকার মানুষের কাছ থেকে বেশ খারাপ আচরণের সম্মুখীন হয়ে থাকে।

প্রতিষ্ঠানটির ২০২১ সালের একটি গবেষণা আরও বলছে, ইউরোপে যাওয়ার জন্য পরিবার থেকে মোটা অংকের অর্থ ব্যয় করা হয়, তাই অভিবাসীরা যখন খালি হাতে ফিরে আসে তখন বিষয়টি ইতিবাচকভাবে দেখা হয় না। এর মধ্যে অনেককেই বিদেশে শারীরিক-মানসিক নির্যাতন, শোষণ, কঠিন কাজ ও নানান বাজে পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হয়। সব মিলিয়ে একজন অভিবাসী অত্যন্ত মানসিক চাপ, উদ্বেগ ও হতাশায় ভুগতে থাকেন।

ফ্রান্সফেরত একজন পুরুষ অভিবাসী বলেন, ’আমি জানতাম মানুষকে বোঝানো খুব কঠিন হবে। আমি ইউরোপে যেতে প্রায় ১৫ লাখ টাকা খরচ করেছি। সবাই এখন এই ব্যর্থতা এবং অর্থ অপচয়ের জন্য আমাকে দায়ী করে। আমাকে বিদেশ পাঠাতে আমার বাবা-মা তাদের জমি-জমা বিক্রি করে টাকা দিয়েছিলেন।’

সিফার’র গবেষণা বলছে, যেসব দেশ থেকে অভিবাসীরা অনিয়মিতভাবে সবচেয়ে বেশি ইউরোপে যায়, বাংলাদেশ তাদের মধ্যে অন্যতম। ২০২১ সালে প্রায় নয় হাজার বাংলাদেশি অনিয়মিতভাবে ইউরোপে প্রবেশ করেছে। এছাড়াও কোভিড ১৯ মহামারীর কারণে অসংখ্য অভিবাসীকে ইউরোপ থেকে জোরপূর্বক দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন’র (আইওএম) একটি সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে, ৯৬% বিদেশফেরত বাংলাদেশি অভিবাসী চাকরির সুযোগের অভাব, অপর্যাপ্ত আয় ও আর্থিক সমস্যায় ভুগছেন।

আরেক বিদেশফেরত যিনি অনিয়মিতভাবে ইউরোপে গিয়েছিলেন তিনি বলেন, ‘আপনি যদি ফিরে আসেন, তাহলে এর মানে আপনি একজন ব্যর্থ। মানুষ আপনাকে করুণা করে, বন্ধুরা আপনাকে নিয়ে হাসে। পরিবারের সদস্যরা কখনই বুঝতে পারে না, আপনি কীভাবে এত বছর ইউরোপে বেঁচে ছিলেন।’

ছবি

ঢাবি ক্যাম্পাসে বহিরাগতদের অবাধ চলাচল ও ভারী যান বন্ধের দাবি

ছবি

নিরাপদ ক্যাম্পাসের দাবিতে ঢাবিতে অবস্থান কর্মসূচি

নিহতের ক্ষতিপূরণসহ ইবি শ্রমিকদের নিরাপত্তার দাবিতে সাত দিনের আলটিমেটাম

ছবি

ঢাবির বার্ষিক নাট্যোৎসব: মঞ্চায়িত হচ্ছে ১৫ টি নাটক

ছবি

মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নতুন প্রজন্মের মধ্যে জাগ্রত রাখতে হবে

ছবি

নিউইয়র্কে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শতবর্ষ উদযাপন

ছবি

সিটিও ফোরাম ইনোভেশন হ্যাকাথনের চ্যাম্পিয়ন জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়

ছবি

মাইলস্টোন কলেজে জিপিএ-৫ পেয়েছে ১২৫০ জন

বেঞ্চে বসা নিয়ে ইবিতে মারধর, তদন্ত কমিটি গঠন

ছবি

বিজনেস ক্লাব বিজবক্স এর উদ্যোগে

ছবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে হলের ছাদ থেকে পড়ে শিক্ষার্থীর মৃত্যু

ছবি

ইবির আন্তঃহল বিতর্কে চ্যাম্পিয়ন শেখ রাসেল ও বঙ্গমাতা হল

ছবি

মেজর জেনারেল আমিনুল হকের পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন

ছবি

শিক্ষার্জনকে সমাবর্তন আর সার্টিফিকেটেই সীমাবদ্ধ না রাখার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

ছবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৩তম সমাবর্তন শুরু

চুয়েটে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় ঢাবি সাংবাদিক সমিতির নিন্দা

ছবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫৩ তম সমাবর্তন কাল: ক্যাম্পাসজুড়ে উৎসবের আমেজ

ছবি

পরিবর্তনশীল বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যাবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়: প্রধানমন্ত্রী

ছবি

শনিবার ঢাবির ৫৩তম সমাবর্তন

ছবি

সমাবর্তন ইস্যুতে সাত কলেজ শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

ছবি

ঢাবির হলে সাংবাদিক হেনস্তার অভিযোগ ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে

জবির আন্তঃবিভাগ বিতর্কে চ্যাম্পিয়ন আইন বিভাগ

ছবি

জবির আন্ত:বিভাগ বিতর্ক প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন আইন বিভাগ

ছবি

রড দিয়ে পিটিয়ে ঢাবি শিক্ষার্থীকে হাসপাতালে পাঠালো ছাত্রলীগ কর্মী

ছবি

আইসিপিসি ওয়ার্ল্ড ফাইনালস্ ঢাকা আসরের উদ্বোধন

ছবি

ফারদিনের হত্যাকারীদের দ্রুত বিচার চান বুয়েট শিক্ষার্থীরা

ছবি

ক্যাম্পাসে হলুদ বরণে ইবি ছাত্র

ছবি

‘হাল্ট প্রাইজ’ শুরু হচ্ছে ড্যাফোডিলে, মিলিয়ন ডলার জেতার সুযোগ

ছবি

ছাত্রলীগের উদ্যোগে ঢাবিতে রোবটিক্স ক্যাম্প 

ছবি

চিত্রশিল্পী হাশেম খানের সান্নিধ্যে আঁকিবুকিতে শিক্ষার্থীরা

বদরুন্নেসা কলেজে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপে সংঘর্ষ, আহত দুই

ছবি

অস্ট্রেলিয়া টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের গ্যালারিতে ঢাকার ডিপিএস এসটিএস স্কুলের শিক্ষার্থীরা

ছবি

মাসব্যাপী মানসিক স্বাস্থ্য দিবস উদযাপন করলো ঢাবি

ছবি

বাংলাদেশে গণতন্ত্র এবং মানবাধিকারের চেতনা সমুন্নত রাখা উচিত : কেনেডি জুনিয়র

পূর্বাচলের জমি সংস্কৃতি মন্ত্রণালয়কে দেওয়ার সুপারিশের প্রতিবাদ

ঢাবিতে পুষ্টিবিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত

tab

ক্যাম্পাস

অনিয়মিত ইউরোপফেরতদের প্রতি অপবাদ ও বৈষম্য কমাতে সিফারের মাইগ্র্যান্ট প্রোজেক্ট

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিনিধি

শনিবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২২

ইউরোপ থেকে জোরপূর্বক বা স্বেচ্ছায় দেশে ফেরত আসা অনিয়মিত বাংলাদেশি অভিবাসীদের প্রতি নানা ধরনের অপবাদ বা কলঙ্ক কমানো এবং সমাজে তাদের সফল পুনঃএকত্রীকরণে, একটি নতুন অপবাদ-বিরোধী প্রচারণা শুরু হয়েছে। ‘মাইগ্র্যান্ট প্রোজেক্ট’ নামে একটি প্রকল্প বিদেশফেরত অভিবাসী ও জনগোষ্ঠীর সঙ্গে কাজের মাধ্যমে প্রচারণাটি এগিয়ে নেবে।

একটি আন্তর্জাতিক সামাজিক উদ্যোগ ’সিফার’ আগামী পাঁচ মাসব্যাপী এই প্রকল্পটি বাংলাদেশে বাস্তবায়ন করছে। এটি অভিবাসীদের জেনে-বুঝে বিদেশ যাওয়ার ক্ষেত্রে সচেতন করে।

এই প্রচারণার লক্ষ্য, ইউরোপফেরত বাংলাদেশি অভিবাসীদের মনো-সামাজিক সহায়তা (সাইকোসোশ্যাল সাপোর্ট) এবং সমাজে তাদের সফল পুনঃএকত্রীকরণে জনগোষ্ঠীর সঙ্গে কাজ করা।

এরই অংশ হিসেবে ২০০ জন বিদেশফেরত অভিবাসী মাইগ্র্যান্ট প্রোজেক্টের অভিজ্ঞ ও পেশাদার কাউন্সেলিং দল থেকে বিনামূল্যে ও গোপনীয় কাউন্সেলিং সেবা পাবেন।

অনলাইনে একটি ফর্ম পূরণ (ফর্মের লিংক: https://malto crm.org/bn/forms/181) করে অথবা সরাসরি কাউন্সেলরদের ফোন করে (+880 1537-315770, +8801969-835505) অভিবাসীরা এই কাউন্সেলিং সেবা পেতে পারেন।

বিদেশফেরতরা যে ধরনের সীমাবদ্ধতার মুখোমুখি হয় সেগুলো আরও ভালোভাবে বোঝা এবং দেশে ফেরার পরে সামাজিকভাবে যেসব অপবাদের মুখোমুখি হয় তা কমাতে প্রচারণাটি জনগোষ্ঠীর সঙ্গে কাজ করবে।

সিফার’র গবেষণা বলছে, ইউরোপ থেকে ব্যর্থ হয়ে দেশে ফিরে বাংলাদেশি অনিয়মিত অভিবাসীরা প্রায়ই নানা ধরনের অপবাদ বা কলঙ্কের মুখোমুখি হন। প্রায় অর্ধেক অভিবাসী নানা ধরনের অপবাদ বা কলঙ্কের সঙ্গে সঙ্গে পরিবার ও এলাকার মানুষের কাছ থেকে বেশ খারাপ আচরণের সম্মুখীন হয়ে থাকে।

প্রতিষ্ঠানটির ২০২১ সালের একটি গবেষণা আরও বলছে, ইউরোপে যাওয়ার জন্য পরিবার থেকে মোটা অংকের অর্থ ব্যয় করা হয়, তাই অভিবাসীরা যখন খালি হাতে ফিরে আসে তখন বিষয়টি ইতিবাচকভাবে দেখা হয় না। এর মধ্যে অনেককেই বিদেশে শারীরিক-মানসিক নির্যাতন, শোষণ, কঠিন কাজ ও নানান বাজে পরিস্থিতির মধ্য দিয়ে যেতে হয়। সব মিলিয়ে একজন অভিবাসী অত্যন্ত মানসিক চাপ, উদ্বেগ ও হতাশায় ভুগতে থাকেন।

ফ্রান্সফেরত একজন পুরুষ অভিবাসী বলেন, ’আমি জানতাম মানুষকে বোঝানো খুব কঠিন হবে। আমি ইউরোপে যেতে প্রায় ১৫ লাখ টাকা খরচ করেছি। সবাই এখন এই ব্যর্থতা এবং অর্থ অপচয়ের জন্য আমাকে দায়ী করে। আমাকে বিদেশ পাঠাতে আমার বাবা-মা তাদের জমি-জমা বিক্রি করে টাকা দিয়েছিলেন।’

সিফার’র গবেষণা বলছে, যেসব দেশ থেকে অভিবাসীরা অনিয়মিতভাবে সবচেয়ে বেশি ইউরোপে যায়, বাংলাদেশ তাদের মধ্যে অন্যতম। ২০২১ সালে প্রায় নয় হাজার বাংলাদেশি অনিয়মিতভাবে ইউরোপে প্রবেশ করেছে। এছাড়াও কোভিড ১৯ মহামারীর কারণে অসংখ্য অভিবাসীকে ইউরোপ থেকে জোরপূর্বক দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হয়।

ইন্টারন্যাশনাল অর্গানাইজেশন ফর মাইগ্রেশন’র (আইওএম) একটি সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে, ৯৬% বিদেশফেরত বাংলাদেশি অভিবাসী চাকরির সুযোগের অভাব, অপর্যাপ্ত আয় ও আর্থিক সমস্যায় ভুগছেন।

আরেক বিদেশফেরত যিনি অনিয়মিতভাবে ইউরোপে গিয়েছিলেন তিনি বলেন, ‘আপনি যদি ফিরে আসেন, তাহলে এর মানে আপনি একজন ব্যর্থ। মানুষ আপনাকে করুণা করে, বন্ধুরা আপনাকে নিয়ে হাসে। পরিবারের সদস্যরা কখনই বুঝতে পারে না, আপনি কীভাবে এত বছর ইউরোপে বেঁচে ছিলেন।’

back to top