alt

ক্যাম্পাস

ইবিতে ছাত্রী নির্যাতন : গোপনে ক্যাম্পাসে আসলেন ৫ অভিযুক্ত

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক : বুধবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রী নির্যাতনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে প্রকাশ পায় ৫ জন ছাত্রীর নাম। গত সোমবার দুইজন ক্যাম্পাসে উপস্থিত হয়ে তিনটি তদন্ত কমিটির মুখোমুখি হয়। তবে বুধবার উক্ত দুইজন সহ ৫ অভিযুক্ত ছাত্রীই তদন্ত কমিটির মুখোমুখি হয়েছেন বলে জানা গেছে। তবে তারা অত্যন্ত গোপনে ক্যাম্পাসে এসে বিশ্ববিদ্যালয়ের মীর মশাররফ হোসেন ভবনে সাক্ষাৎকার শেষ করে চলে যান। এসময় তাদের নিরাপত্তায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি উপস্থিত ছিলো।

জানা যায়, বুধবার সকাল সাড়ে ৯ টায় ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে অভিযুক্তরা। এর মধ্যে ছাত্রলীগ সহ-সভাপতি সানজিদা চৌধুরী একাডেমিক পরীক্ষায় অংশ নেন। পরীক্ষা শেষে সেও বাকি চার অভিযুক্ত তাবাসসুম, উর্মি, মিম ও মুয়াবিয়ার সাথে তদন্ত কমিটির মুখোমুখি হন।

বিকাল চারটায় তদন্ত কমিটির সাক্ষাৎকার শেষে তারা ৫ জন ছাত্রী বের হয়ে যান। এসময় তাদের নিকট সাক্ষাৎকারের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলেও তারা মন্তব্য করতে রাজি হননি।

তারা জানান, আমাদের যা বলার তদন্ত কমিটির নিকট বলেছি। এখন আর কিছু বলার নেই।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. রেবা মন্ডল কোনো মন্তব্য না করেই সাক্ষাৎকার শেষে বেরিয়ে যান।

তবে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সহকারী প্রক্টর আমজাদ হোসেন জানান, ঘটনায় যে ৫ জন ছাত্রীর নাম এসেছিলো আমি তাদের কি নিয়ে তদন্ত কমিটির নিকট এসেছিলাম। এখন তাদের পৌছে দিবো।

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলে গত ১১ ও ১২ ফেব্রুয়ারি দুই দফায় ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের এক ছাত্রীকে রাতভর নির্যাতন করার অভিযোগ ওঠে। এ ঘটনায় শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সানজিদা চৌধুরী অন্তরা, ফিন্যান্স বিভাগের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের তাবাসসুমসহ আরও ৭-৮ জন জড়িত ছিলেন বলে অভিযোগ করন ভুক্তভোগী ছাত্রী। ঘটনা তদন্তে হল প্রশাসন ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে দুটি পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

এছাড়া এ ঘটনায় গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন বুধবার হাইকোর্টের নজরে আনেন আইনজীবী গাজী মো. মহসীন ও আজগর হোসেন তুহিন। তখন তাদের লিখিত আবেদন দিতে বলেন আদালত। সে অনুসারে তারা জনস্বার্থে রিট করেন।

গত বৃহস্পতিবার রিটের শুনানি শেষে একজন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ও একজন প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তার সমন্বয়ে তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এছাড়া অভিযুক্তদের ক্যাম্পাসের বাইরে রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়। এরই মাঝে গত শনিবার ও সোমবার ভুক্তভোগী এবং অভিযুক্তদের তদন্ত সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হয়।

ছবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইবিএ: বাইন্ডার নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ

ঢাবিতে ৩ কি.মি. জুড়ে লেখা হয়েছে পাইয়ের মান, বিশ্বরেকর্ডের অপেক্ষা

ছবি

শিক্ষার্থীদের ওপর হামলা: নগ্নপদে দাঁড়ালেন রাবি অধ্যাপক

ছবি

শিক্ষার্থীদের মারধর: ইবিতে বহিরাগত প্রবেশ নিষিদ্ধ

কাল থেকে ক্লাসে ফিরছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা

ছবি

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের দায়িত্ব ছাড়লেন আরও ৩ শিক্ষক

ছবি

রাবিতে সংঘর্ষ, ৩০০ জনকে আসামি করে পুলিশের মামলা

ছবি

স্থানীয়-শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষ : ফের উত্তপ্ত রাবি ক্যাম্পাস

ছবি

ছাত্রলীগের সহায়তায় ২ ঘণ্টা পর মুক্ত রাবি ভিসি

ছবি

প্রশাসন ভবনে তালা ঝুলিয়ে ভিসির বাসভবনের সামনে শিক্ষার্থীরা

স্থানীয়দের সঙ্গে রাবি শিক্ষার্থীদের মুখোমুখি সংঘর্ষ, আহত শতাধিক

ছবি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে স্থানীয়দের সংঘর্ষ, দোকানে দোকানে অগ্নিসংযোগ, আহত দুই শতাধিক

এবার বদরুন্নেসায় ছাত্রলীগ নেত্রীর বিরুদ্ধে হয়রানির অভিযোগ

ছবি

এবার বদরুন্নেসায় ছাত্রলীগ নেত্রীর বিরুদ্ধে হয়রানির অভিযোগ

২৯ কেন্দ্রে ঢাবির রেজিস্টার্ড গ্রাজুয়েট প্রতিনিধি নির্বাচন অনুষ্ঠিত

ছবি

ফুলপরীকে নির্যাতন: ছাত্রলীগের সানজিদাসহ ৫ ছাত্রী বহিষ্কার

ছবি

জাবির সেই শিক্ষকের বিরুদ্ধে কি পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, জানতে চায় ইউজিসি

ছবি

‘আত্মহত্যাচেষ্টা’ ঢাবির ছাত্রলীগ নেতার

ছবি

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়: ছাত্রী নির্যাতনের ঘটনায় তদারকি করতে এসে ছাত্র উপদেষ্টাকে অবরুদ্ধ

ছবি

ফুলপরীকে নির্যাতনের ঘটনা পূর্বপরিকল্পিত : তদন্ত কমিটি

ছবি

প্রাধ্যক্ষ, হাউস টিউটরসহ কয়েকজনের দায়িত্বে অবহেলার প্রমাণ পেয়েছে কমিটি

ছবি

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্র ইউনিয়নের রাগিংবিরোধী মশাল মিছিল

ছবি

ইবি হলে ছাত্রী নির্যাতন: ছাত্রলীগ নেত্রীসহ ৫ শিক্ষার্থীকে বহিষ্কার

ছাত্রলীগের তদন্ত কমিটিকে ফোনে নির্যাতনের বর্ণনা দিয়েছি : ফুলপরী

ছবি

এক প্রতিবাদী ফুলপরীর গল্প

ঢাবির বাসে মারধরের শিকার ছাত্রের বিরুদ্ধে উল্টো থানায় অভিযোগের চেষ্টা

ছবি

র‍্যাগিংয়ের অভিযোগে শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ৫ শিক্ষার্থী বহিষ্কার

আমি অভিযুক্তদের চিনিয়ে দিয়েছি প্রশাসন যা ব্যবস্থা নেবে তাই হবে

তিন দফায় আট ঘণ্টা তদন্তের মুখে অভিযুক্তরা

ছবি

ইবি উপাচার্যের কার্যালয়ে তল্লাশি, কর্তৃপক্ষের বক্তব্য

সখীপুরে ৫৯ টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে নেই শহীদ মিনার

ছবি

ক্যাম্পাসে ফিরেছেন ইবির সেই ভুক্তভোগী ছাত্রী

ছবি

ঢাবিতে ছাত্র অধিকারের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ছাত্রলীগের হামলার অভিযোগ

ছবি

পুলিশ পরিচয়ে চাঁদাবাজি, হাতেনাতে আটক ঢাবির দুই ছাত্রলীগ নেতা

ইবিতে ছাত্রী নির্যাতন

ছবি

ঢাবিতে ফারসি ভাষা ও পারস্যের সংস্কৃতি বিষয়ক প্রকাশনা উৎসব অনুষ্ঠিত

tab

ক্যাম্পাস

ইবিতে ছাত্রী নির্যাতন : গোপনে ক্যাম্পাসে আসলেন ৫ অভিযুক্ত

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

বুধবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৩

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রী নির্যাতনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে প্রকাশ পায় ৫ জন ছাত্রীর নাম। গত সোমবার দুইজন ক্যাম্পাসে উপস্থিত হয়ে তিনটি তদন্ত কমিটির মুখোমুখি হয়। তবে বুধবার উক্ত দুইজন সহ ৫ অভিযুক্ত ছাত্রীই তদন্ত কমিটির মুখোমুখি হয়েছেন বলে জানা গেছে। তবে তারা অত্যন্ত গোপনে ক্যাম্পাসে এসে বিশ্ববিদ্যালয়ের মীর মশাররফ হোসেন ভবনে সাক্ষাৎকার শেষ করে চলে যান। এসময় তাদের নিরাপত্তায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টরিয়াল বডি উপস্থিত ছিলো।

জানা যায়, বুধবার সকাল সাড়ে ৯ টায় ক্যাম্পাসে প্রবেশ করে অভিযুক্তরা। এর মধ্যে ছাত্রলীগ সহ-সভাপতি সানজিদা চৌধুরী একাডেমিক পরীক্ষায় অংশ নেন। পরীক্ষা শেষে সেও বাকি চার অভিযুক্ত তাবাসসুম, উর্মি, মিম ও মুয়াবিয়ার সাথে তদন্ত কমিটির মুখোমুখি হন।

বিকাল চারটায় তদন্ত কমিটির সাক্ষাৎকার শেষে তারা ৫ জন ছাত্রী বের হয়ে যান। এসময় তাদের নিকট সাক্ষাৎকারের বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলেও তারা মন্তব্য করতে রাজি হননি।

তারা জানান, আমাদের যা বলার তদন্ত কমিটির নিকট বলেছি। এখন আর কিছু বলার নেই।

এ বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের তদন্ত কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. রেবা মন্ডল কোনো মন্তব্য না করেই সাক্ষাৎকার শেষে বেরিয়ে যান।

তবে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সহকারী প্রক্টর আমজাদ হোসেন জানান, ঘটনায় যে ৫ জন ছাত্রীর নাম এসেছিলো আমি তাদের কি নিয়ে তদন্ত কমিটির নিকট এসেছিলাম। এখন তাদের পৌছে দিবো।

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের দেশরত্ন শেখ হাসিনা হলে গত ১১ ও ১২ ফেব্রুয়ারি দুই দফায় ফিন্যান্স অ্যান্ড ব্যাংকিং বিভাগের ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের এক ছাত্রীকে রাতভর নির্যাতন করার অভিযোগ ওঠে। এ ঘটনায় শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি সানজিদা চৌধুরী অন্তরা, ফিন্যান্স বিভাগের ২০২০-২১ শিক্ষাবর্ষের তাবাসসুমসহ আরও ৭-৮ জন জড়িত ছিলেন বলে অভিযোগ করন ভুক্তভোগী ছাত্রী। ঘটনা তদন্তে হল প্রশাসন ও বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন থেকে দুটি পৃথক তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

এছাড়া এ ঘটনায় গণমাধ্যমে প্রকাশিত প্রতিবেদন বুধবার হাইকোর্টের নজরে আনেন আইনজীবী গাজী মো. মহসীন ও আজগর হোসেন তুহিন। তখন তাদের লিখিত আবেদন দিতে বলেন আদালত। সে অনুসারে তারা জনস্বার্থে রিট করেন।

গত বৃহস্পতিবার রিটের শুনানি শেষে একজন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট, বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক ও একজন প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তার সমন্বয়ে তদন্ত কমিটি গঠনের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। এছাড়া অভিযুক্তদের ক্যাম্পাসের বাইরে রাখার নির্দেশনা দেওয়া হয়। এরই মাঝে গত শনিবার ও সোমবার ভুক্তভোগী এবং অভিযুক্তদের তদন্ত সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হয়।

back to top