alt

ক্যাম্পাস

ঢাবি হলে চার শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগের নির্যাতনের অভিযোগ

প্রতিনিধি, ঢাবি : বুধবার, ২৪ মে ২০২৩

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মাস্টারদা সূর্যসেন হলের চার শিক্ষার্থীকে রাতভর নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে হল ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিয়াম রহমানের বড় ভাইয়ের অবৈধভাবে রুম দখলকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা জানায়, পেটানোর পরে তাদের কাছ থেকে জোরপূর্বক মুচলেকা নিয়ে হলছাড়া করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় হল প্রাধ্যক্ষের নিকট লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন তারা। এছাড়া বুধবার (২৪ মে) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা।

অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতারা হলেন- হল শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি হামিদ কারজাই, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ জামান অভি, আব্দুল আহাদ, আপ্যায়ন সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম নীরব ও উপ-আইন সম্পাদক মুহাম্মদ তালহা।

ভুক্তভোগী চার ছাত্র হলেন ইসলামিক স্ট্যাডিজ বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের আলম বাদশা, একই বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের লুৎফুর রহমান, মনোবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের আল-আমিন ও আরবি বিভাগের একই বর্ষের আশিকুর রহমান। তারা সূর্যসেন হলের ৫৩২ নম্বর কক্ষে থাকেন।

সংবাদ সম্মেলনে আলম বাদশা বলেন, হলের অবৈধ শিক্ষার্থী সুমন আহমেদকে হলে রাখাকে কেন্দ্র করে গত মঙ্গলবার আনুমানিক ৩টার সময় আব্দুল আহাদ (হল ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক) আমাদেরকে রুম থেকে ডেকে নিয়ে ৪৫০ নম্বর রুমে নিয়ে যান, যেখানে সিয়াম রহমান থাকেন। সেখানে গেলে দেখতে পাই সিয়াম রহমান এবং সুমন আহমেদের সঙ্গে আগে থেকেই লাঠিসোঁটা নিয়ে অবস্থান করছিলেন। এছাড়া হল ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ জামান অভি, উপ-আইন সম্পাদক মুহাম্মদ তালহা, সহ-সভাপতি হামিদ কারজাই এবং আপ্যায়ন সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম নীরব সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, আমরা রুমে প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের মোবাইল কেড়ে নেয়া হয়। আমাদের মোবাইল চেক করতে থাকে। কিন্তু কোনকিছুই পাননি তিনি। শুধু লুৎফুর ভাইয়ের একটা পোস্ট পেয়েছে পদ্মা সেতু নিয়ে। সেটাও ছিল খুব লজিক্যাল। কিন্তু তারা কোন লজিক শোনার আগেই মারধর শুরু করে। এটা নাকি সরকারবিরোধী ছিল। কিল, ঘুষি ও লাথি দিতে থাকেন আমাদের চারজনকে।

তিনি আরও বলেন, সিয়াম রহমান দফায় দফায় আমাকে মারধর করে। বলা যায় মধ্যযুগীয় কায়দায়। আমাকে চুল ধরে টানে, বুকে লাথি দেয়, চড়-থাপ্পড় মারে। আমাদের চারজনকেই তিনি মেরেছেন। পরে হামিদ কারজাই আমাকে শিবির করিস বলে অতর্কিতভাবে নির্যাতন শুরু করে।

মুচলেকা নেয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, পরে আমাদের কাছ থেকে জোরপূর্বক আলাদা চারটি মুচলেকা নেয় এই বলে যে, ‘আমরা বর্তমানে ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত নই। সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের সঙ্গে একমত নই। অন্যায়ভাবে সুমন আহমেদকে রুম থেকে বের করেছি। হল থেকে স্বেচ্ছায় বের হয়ে যাব।’ নির্যাতনের একপর্যায়ে আমরা লিখতে বাধ্য হই।

বিচার দাবি করে সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা বলেন, নির্যাতন করতে করতে আমাদের ৫ ঘণ্টা পর রাত ৮টার সময় বের করে দেয়। আমরা ভয়ে হলে আর অবস্থান করিনি। রাতেই আমরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিই। আজ আমরা প্রভোস্ট স্যারকে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি, প্রক্টর স্যারের কাছেও যাব। আমরা সঠিক বিচার চাই এবং হলে থাকতে চাই। নিয়মিত শিক্ষার্থী হিসেবে হলে থাকা আমাদের অধিকার।

এদিকে অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিয়াম রহমান। তার দাবি ভুক্তভোগীরা পদ্মা সেতু নিয়ে ব্যাঙ্গাত্মক পোস্ট করেছিল এবং সে কারণে কোন ঝামেলায় না জড়িয়ে স্বেচ্ছায় হল ত্যাগ করবে বলে মুচলেকা দিয়েছিল।

এ ঘটনা তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. জাকির হোসেন ভূঁইয়া।

ছবি

শিক্ষার্থী শূন্য জাবির হল, ক্যাম্পাসে বিদ্যুৎ-পানি-ইন্টারনেট বন্ধ

ছবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা আন্দোলনকারীরা ছত্রভঙ্গ, হল ছাড়ছেন অনেক শিক্ষার্থী

ছবি

ঢাবি ক্যাম্পাসে পুলিশের সাউন্ড গ্রেনেড, টিয়ারশেল

ছবি

শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে জবির ফজিলাতুন্নেছা মুজিব হল বন্ধের সিদ্ধান্ত বাতিল

ছবি

ঢাবির হলে ছাত্র রাজনীতি ‘নিষিদ্ধ’, অঙ্গীকারনামায় প্রাধ্যক্ষদের সই নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা

ছবি

শিক্ষার্থীর মৃত্যুর খবরে ঢাকা কলেজে হল ছাড়ার হিড়িক

ছবি

বেরোবিতে আন্দোলনকারী শিক্ষার্থীদের ওপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত ২

ছবি

ভিকারুননিসার ১৬৯ শিক্ষার্থীর ভর্তি বাতিলই থাকছে

ছবি

মুক্তিযোদ্ধা কোটা সংস্কারের দাবিতে ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে ছিনতাই কান্ডে জড়িত তিন শিক্ষার্থী বহিষ্কার

ছবি

কোটা সংস্কার আন্দোলনে পঞ্চম দিনে উত্তাল ঢাবি, কাল থেকে ‘বাংলা ব্লকেড’ কর্মসূচি

ছবি

কুষ্টিয়ায় বৃষ্টি উপেক্ষা করে ইবি শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক অবরোধ

ছবি

কোটা সংস্কার ও পুনর্বহাল বাতিলের দাবিতে রাবিতে শিক্ষার্থীদের ঢাকা-রাজশাহী মহাসড়ক অবরোধ

ছবি

৭২ বছরে পা রাখছে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়

ছবি

ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে জবি ছাত্রলীগের সঙ্গে কবি নজরুল ছাত্রলীগের মারামারির অভিযোগ

ছবি

কর্মবিরতিতে অচল ঢাবি, অর্থমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি

ছবি

রাবি-ব্র্যাক এআইএসপি কর্মসূচির সমাপনী অনুষ্ঠিত

ছবি

মুক্তিযোদ্ধাদের কটুক্তির প্রতিবাদে জবিতে মানববন্ধন

ছবি

দ্বিতীয় দিনের সর্বাত্মক কর্মবিরতিতে অচল জবি

ছবি

সরকারি চাকরিতে কোটা পুনর্বহালের বিরুদ্ধে লাগাতার আন্দোলন শুরু ঢাবি শিক্ষার্থীদের

ছবি

সর্বজনীন পেনশন প্রত্যাহারের দাবিতে বশেমুরকৃবি শিক্ষকদের সকল ক্লাস পরীক্ষা বর্জন

ছবি

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে কোটা বাতিলের দাবিতে বিক্ষোভ কর্মসূচি

ছবি

প্রত্যয় স্কিম: ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীর অনুষ্ঠান বয়কট করল শিক্ষক সমিতি

ছবি

কোটা পুনর্বহালের প্রতিবাদে জবিতে বিক্ষোভ মিছিল

ছবি

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১০৫ বছরে পদার্পণ

ক্লাস বর্জনের ঘোষণা শাবিপ্রবি শিক্ষকদের

ছবি

পেনশন স্কিম : কাল থেকে কর্মবিরতিতে যাচ্ছেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক-কর্মকর্তা-কর্মচারীরা

ছবি

কাল থেকে জবিতে ক্লাস-পরীক্ষা বন্ধ : শিক্ষক সমিতি

ছবি

জবি রোভার ইন কাউন্সিলের নেতৃত্বে রাকিব-মেহেদি

ছবি

২০১ কোটি টাকার বাজেট ঘোষণা জবির, গবেষণায় বরাদ্দ ৯ কোটি

ছবি

দ্বিতীয় দিনের মতো চলছে ঢাবি শিক্ষকদের কর্মবিরতি

ছবি

খাসি তুমি কার!

ছবি

ঈদের ছুটিতে হলে অবস্থান করায় ছাত্রীদের ডেকে শাসালেন জবির হল প্রভোস্ট

ছবি

ঢাবিতে বাজেট ২০২৪-২৫: প্রত্যাশা ও প্রাপ্তি শীর্ষক সভা

ছবি

তীব্র গরমে লম্বা লাইনে ভোগান্তি শিক্ষার্থীদের

কোটা পুনবর্হালের প্রতিবাদে শিক্ষার্থী আন্দোলনে উত্তপ্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়

tab

ক্যাম্পাস

ঢাবি হলে চার শিক্ষার্থীকে ছাত্রলীগের নির্যাতনের অভিযোগ

প্রতিনিধি, ঢাবি

বুধবার, ২৪ মে ২০২৩

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) মাস্টারদা সূর্যসেন হলের চার শিক্ষার্থীকে রাতভর নির্যাতনের অভিযোগ উঠেছে ছাত্রলীগের বিরুদ্ধে। গত মঙ্গলবার দিবাগত রাতে হল ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সিয়াম রহমানের বড় ভাইয়ের অবৈধভাবে রুম দখলকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা জানায়, পেটানোর পরে তাদের কাছ থেকে জোরপূর্বক মুচলেকা নিয়ে হলছাড়া করেছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এ ঘটনায় হল প্রাধ্যক্ষের নিকট লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছেন তারা। এছাড়া বুধবার (২৪ মে) দুপুরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতির কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা।

অভিযুক্ত ছাত্রলীগ নেতারা হলেন- হল শাখা ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি হামিদ কারজাই, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ জামান অভি, আব্দুল আহাদ, আপ্যায়ন সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম নীরব ও উপ-আইন সম্পাদক মুহাম্মদ তালহা।

ভুক্তভোগী চার ছাত্র হলেন ইসলামিক স্ট্যাডিজ বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের আলম বাদশা, একই বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের লুৎফুর রহমান, মনোবিজ্ঞান বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের আল-আমিন ও আরবি বিভাগের একই বর্ষের আশিকুর রহমান। তারা সূর্যসেন হলের ৫৩২ নম্বর কক্ষে থাকেন।

সংবাদ সম্মেলনে আলম বাদশা বলেন, হলের অবৈধ শিক্ষার্থী সুমন আহমেদকে হলে রাখাকে কেন্দ্র করে গত মঙ্গলবার আনুমানিক ৩টার সময় আব্দুল আহাদ (হল ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক) আমাদেরকে রুম থেকে ডেকে নিয়ে ৪৫০ নম্বর রুমে নিয়ে যান, যেখানে সিয়াম রহমান থাকেন। সেখানে গেলে দেখতে পাই সিয়াম রহমান এবং সুমন আহমেদের সঙ্গে আগে থেকেই লাঠিসোঁটা নিয়ে অবস্থান করছিলেন। এছাড়া হল ছাত্রলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক তৌহিদ জামান অভি, উপ-আইন সম্পাদক মুহাম্মদ তালহা, সহ-সভাপতি হামিদ কারজাই এবং আপ্যায়ন সম্পাদক মাজহারুল ইসলাম নীরব সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

তিনি বলেন, আমরা রুমে প্রবেশের সঙ্গে সঙ্গে আমাদের মোবাইল কেড়ে নেয়া হয়। আমাদের মোবাইল চেক করতে থাকে। কিন্তু কোনকিছুই পাননি তিনি। শুধু লুৎফুর ভাইয়ের একটা পোস্ট পেয়েছে পদ্মা সেতু নিয়ে। সেটাও ছিল খুব লজিক্যাল। কিন্তু তারা কোন লজিক শোনার আগেই মারধর শুরু করে। এটা নাকি সরকারবিরোধী ছিল। কিল, ঘুষি ও লাথি দিতে থাকেন আমাদের চারজনকে।

তিনি আরও বলেন, সিয়াম রহমান দফায় দফায় আমাকে মারধর করে। বলা যায় মধ্যযুগীয় কায়দায়। আমাকে চুল ধরে টানে, বুকে লাথি দেয়, চড়-থাপ্পড় মারে। আমাদের চারজনকেই তিনি মেরেছেন। পরে হামিদ কারজাই আমাকে শিবির করিস বলে অতর্কিতভাবে নির্যাতন শুরু করে।

মুচলেকা নেয়ার বিষয়ে তিনি বলেন, পরে আমাদের কাছ থেকে জোরপূর্বক আলাদা চারটি মুচলেকা নেয় এই বলে যে, ‘আমরা বর্তমানে ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে সম্পৃক্ত নই। সরকারের উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের সঙ্গে একমত নই। অন্যায়ভাবে সুমন আহমেদকে রুম থেকে বের করেছি। হল থেকে স্বেচ্ছায় বের হয়ে যাব।’ নির্যাতনের একপর্যায়ে আমরা লিখতে বাধ্য হই।

বিচার দাবি করে সংবাদ সম্মেলনে ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীরা বলেন, নির্যাতন করতে করতে আমাদের ৫ ঘণ্টা পর রাত ৮টার সময় বের করে দেয়। আমরা ভয়ে হলে আর অবস্থান করিনি। রাতেই আমরা ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা নিই। আজ আমরা প্রভোস্ট স্যারকে লিখিত অভিযোগ দিয়েছি, প্রক্টর স্যারের কাছেও যাব। আমরা সঠিক বিচার চাই এবং হলে থাকতে চাই। নিয়মিত শিক্ষার্থী হিসেবে হলে থাকা আমাদের অধিকার।

এদিকে অভিযোগের বিষয়টি অস্বীকার করেছেন হল শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক সিয়াম রহমান। তার দাবি ভুক্তভোগীরা পদ্মা সেতু নিয়ে ব্যাঙ্গাত্মক পোস্ট করেছিল এবং সে কারণে কোন ঝামেলায় না জড়িয়ে স্বেচ্ছায় হল ত্যাগ করবে বলে মুচলেকা দিয়েছিল।

এ ঘটনা তদন্তের আশ্বাস দিয়েছেন হল প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. জাকির হোসেন ভূঁইয়া।

back to top