alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

ফরিদপুরে অস্ত্র মামলায় রুবেল ও তার সহযোগীর কারাদণ্ড

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট : রোববার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনে দায়ের করা একটি মামলায় ফরিদপুর প্রেসক্লাবের বহিষ্কৃত সভাপতি ইমতিয়াজ হাসান রুবেল (৪৯) ও তার সহযোগী রেজাউল করিম বিপুলকে (৩৮) একই মামলায় দুটি ধারায় তাদের যথাক্রমে ১০ বছর ও ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। তবে দুটি সাজাই এক সঙ্গে চলবে বলে সর্বোচ্চ ১০ বছর কারাগারে থাকতে হবে।

রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ফরিদপুর জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক অশোক কুমার দত্ত এ রায় দেন। এ সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণার পর তাদেরকে পুলিশ পাহারায় কারাগারে পাঠানো হয়।

রুবেল শহর আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বরকতের ছোট ভাই। তারা দুজনই সদর আসনে আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত।

দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধেই বিদেশে অর্থ পাচার, অবৈধ সম্পদ অর্জন, মানুষকে নির্যাতনসহ নানা অভিযোগ রয়েছে। তারা মোট ১১টি মামলার আসামি। এর মধ্যে প্রথম কোনোটির রায় ঘোষণা হল।

সাজা ঘোষণার সময় দুই আসামি রুবেল ও বিপুল আদালতে উপস্থিত ছিলেন। বিচারক সিদ্ধান্ত জানানোর পর পুলিশ পাহারায় তাদেরকে কারাগারে ফেরত পাঠানো হয়।

এই মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌসুঁলি (পিপি) নওয়াব আলী বলেছেন, ১৮৭৮ সালের অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯ (এ) ধারায় পিস্তল রাখার দায়ে ১০ বছর করে এবং গুলি রাখায় একই আইনের ১৯ (এফ) ধারায় ৭ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, “এ রায়ে দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার পথ সুগম হবে। ক্ষমতার ছত্রচ্ছায়ায় থেকে অপরাধ করেও যে পার পাওয়া যায় না, এ রায়ে সেই সত্য প্রমাণিত হল।”

অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় আরও একটি মামলার আসামি রুবেল। সেই মামলায় নাম আছে তার ভাই বরকতেরও আসামি।

২০২০ সালের ৭ জুন রাতে ফরিদপুর শহরের শ্রী অঙ্গন মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড এলাকা থেকে একটি পিস্তল ও দুটি গুলিসহ বিপুলকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ।

এ ঘটনায় তাকে আসামি করে অস্ত্র আইনে মামলা করেন গোয়েন্দা পুলিশের এসআই আবদুল জব্বার। তিনি ১৬৪ ধারায় দেওয়া জবানবন্দিতে রুবেলের নাম বলেন। পরে তদন্ত কর্মকর্তা দুইজনের নাম উল্লেখ করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন।

২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর রুবেল ও বরকত ধীরে ধীরে ফরিদপুরে প্রভাবশালী হয়ে উঠেন। তাদের বিপাকে পড়া শুরু ২০২০ সালের মাঝামাঝি সময়ে।

২০২০ সালের ১৬ মে রাতে শহরের গোয়ালচামট এলাকার মোল্লা বাড়িতে তৎকালীন আওয়ামী লীগ সভাপতি সুবল চন্দ্র সাহার বাড়ি যমুনা ভবনে দুই দফা হামলা হয়। দুদিন পর সুবল চন্দ্র ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে একটি মামলা করেন।

ওই মামলার ওই বছরের ৭ জুন বরকত ও তার ছোট ভাই রুবেলসহ নয়জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এ সময় পুলিশ তাদের কাছ থেকে সাতটি আগ্নেয়াস্ত্র, ২৮১ রাউন্ড গুলি, নগদ ২৯ লাখ টাকা, ৯৮ হাজার ভারতীয় রুপি, তিন হাজার ডলার, ৬৫ ইয়াবা ও ছয় বোতল বিদেশি মদ উদ্ধারের কথা জানায়।

এরপর তাদের বিরুদ্ধে নানা দুর্নীতি, সন্ত্রাস ও অর্থপাচারের খবর এরপর বেরিয়ে আসতে থাকে।

বরকতকে শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং রুবেলকে ফরিদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতির পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

মতলবে ব্যাংকের নৈশপ্রহরী খুনের রহস্য উন্মোচন,মূল আসামী সহ ৩ জন গ্রেফতার

ছবি

লঞ্চে বোরকা পরে ছিনতাই করতেন তারা

বন্ধুর সহায়তায় প্রবাসীর স্ত্রীকে খুন করে ঘরের মালামাল লুট করে আপন ভাই

গাজীপুরে ৩জন ভুয়া ডিবি পুলিশ আটক

ছবি

আইন অমান্য করে ইটভাটা পরিচালনা, সংবাদ প্রকাশের পর অভিযান, ৩ লাখ টাকা জরিমানা

ছবি

দুদকের মামলায় সাবেক এমপি কাদের খানের চার বছরের দন্ড

গাজীপুরে পুত্রকে কুপিয়ে হত্যা, পিতা আটক

ছবি

এবার ভরদুপুরে থানচির দুই ব্যাংকে ডাকাতি

সিলেটে ‘ধর্ষক’ স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাকে গ্রপ্তার করেছে র‌্যাব

ছবি

ড. ইউনূসসহ ১৪ জনের বিরুদ্ধে চার্জশিট গ্রহণ

ছবি

শেকলে বেঁধে তরুণীকে গণধর্ষণ, রিমান্ডে ৪ আসামি

মুন্সীগঞ্জে ডালিম হ.ত্যা মামলার ৬ আসামি জেলহাজতে

ছবি

শিকলে বেঁধে ২৫ দিন ধরে তরুণীকে দলবদ্ধ ধর্ষণ

ছবি

গেন্ডারিয়ায় ৯৮৩ পিস ভয়াবহ মাদক বুপ্রেনরফিনসহ গ্রেপ্তার কারবারি

ছবি

সিলেটে তরুণীকে আটকে রেখে দিনের পর দিন ধর্ষণ অধরা স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতাসহ অভিযুক্তরা

নারায়ণগঞ্জে প্রেমিকাকে ধর্ষণ ও হত্যা, ৩ জনের যাবজ্জীবন

ছবি

স্ত্রী-শাশুড়িসহ ৬ জনের বিরুদ্ধে ‘জল্লাদ’ শাহজাহানের প্রতারণার মামলা

ছবি

মিতু হত্যা মামলায় সাক্ষ্য দিচ্ছেন দুই ম্যাজিস্ট্রেটসহ ৫ জন

ছবি

দুই বছরের দণ্ড ২৭ বছর পর বাতিল, রায়ের কপি যাচ্ছে সব আদালতে

ছবি

মানিকদির জমি দখল নাজিমের দৌরাত্ম্য থামছেই না, আতঙ্কে এলাকাবাসী

ছবি

পুলিশের সোর্স হত্যা মামলার পলাতক ২ আসামি গ্রেপ্তার

ছবি

বড় মনিরের বিরুদ্ধে এবার ঢাকায় কলেজছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

ছবি

রামুর কচ্ছপিয়ায় ছুরিকাঘাতে ছায়া হত্যার ঘটনায় আটক দুই

ছবি

মহেশখালীর সিরিয়াল কিলার আজরাইল গ্রেফতার

ছবি

মুন্সীগঞ্জে পাইপগান-ফেন্সিডিলসহ দু’জন আটক

ছবি

দুদকের মামলায় ২০ কোটি ২২ লাখ টাকার আত্মসাতের অভিযোগে সাবেক এমপি মান্নান কারাগারে

ছবি

আইএমইআই নম্বর পাল্টে মোবাইল বিক্রি, চক্রের ৩ সদস্য গ্রেপ্তার

চুনারুঘাটে স্ত্রীকে গলা টিপে হত্যা, স্বামী আটক

ছবি

সিরাজগঞ্জে ব্যাংকের ভল্ট থেকে ৫ কোটি টাকা গায়েব, ৩ কর্মকর্তা কারাগারে

শতাধিক শিক্ষা ভবন নির্মাণের নামে বিল ভাগ-বাটোয়ারা

নরসিংদীতে গাড়ী চালককে হত্যার অভিযোগে ৩ জনের যাবজ্জীবন

ছবি

চালক ‘সেজে’ শিক্ষার্থী অপহরণ ১৪ লাখ টাকা মুক্তিপণ আদায়, গ্রেপ্তার ৭

ছবি

সালাম মুর্শেদীর বাড়ি ছাড়তে হাইকোর্টের রায়ের ওপর স্থিতাবস্থা জারি

ফয়সালকে কুপিয়ে হত্যার পর পার্টি করে গালকাটা রাব্বির গ্যাং

ছবি

বঙ্গবন্ধু মেডিকেল ভার্সিটিতে বিক্ষোভ, সংঘর্ষ

ছবি

২০ বছর ধরে ট্রেনের টিকেট কালোবাজারিতে ‘মিজান সিন্ডিকেট’

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

ফরিদপুরে অস্ত্র মামলায় রুবেল ও তার সহযোগীর কারাদণ্ড

সংবাদ অনলাইন রিপোর্ট

রোববার, ১৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪

অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনে দায়ের করা একটি মামলায় ফরিদপুর প্রেসক্লাবের বহিষ্কৃত সভাপতি ইমতিয়াজ হাসান রুবেল (৪৯) ও তার সহযোগী রেজাউল করিম বিপুলকে (৩৮) একই মামলায় দুটি ধারায় তাদের যথাক্রমে ১০ বছর ও ৭ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। তবে দুটি সাজাই এক সঙ্গে চলবে বলে সর্বোচ্চ ১০ বছর কারাগারে থাকতে হবে।

রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে ফরিদপুর জেলা ও দায়রা জজ প্রথম আদালতের বিচারক অশোক কুমার দত্ত এ রায় দেন। এ সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণার পর তাদেরকে পুলিশ পাহারায় কারাগারে পাঠানো হয়।

রুবেল শহর আওয়ামী লীগের বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক সাজ্জাদ হোসেন বরকতের ছোট ভাই। তারা দুজনই সদর আসনে আওয়ামী লীগের সাবেক সংসদ সদস্য খন্দকার মোশাররফ হোসেনের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত।

দুই ভাইয়ের বিরুদ্ধেই বিদেশে অর্থ পাচার, অবৈধ সম্পদ অর্জন, মানুষকে নির্যাতনসহ নানা অভিযোগ রয়েছে। তারা মোট ১১টি মামলার আসামি। এর মধ্যে প্রথম কোনোটির রায় ঘোষণা হল।

সাজা ঘোষণার সময় দুই আসামি রুবেল ও বিপুল আদালতে উপস্থিত ছিলেন। বিচারক সিদ্ধান্ত জানানোর পর পুলিশ পাহারায় তাদেরকে কারাগারে ফেরত পাঠানো হয়।

এই মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের কৌসুঁলি (পিপি) নওয়াব আলী বলেছেন, ১৮৭৮ সালের অস্ত্র নিয়ন্ত্রণ আইনের ১৯ (এ) ধারায় পিস্তল রাখার দায়ে ১০ বছর করে এবং গুলি রাখায় একই আইনের ১৯ (এফ) ধারায় ৭ বছর করে সশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে।

তিনি বলেন, “এ রায়ে দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠার পথ সুগম হবে। ক্ষমতার ছত্রচ্ছায়ায় থেকে অপরাধ করেও যে পার পাওয়া যায় না, এ রায়ে সেই সত্য প্রমাণিত হল।”

অস্ত্র উদ্ধারের ঘটনায় আরও একটি মামলার আসামি রুবেল। সেই মামলায় নাম আছে তার ভাই বরকতেরও আসামি।

২০২০ সালের ৭ জুন রাতে ফরিদপুর শহরের শ্রী অঙ্গন মাইক্রোবাস স্ট্যান্ড এলাকা থেকে একটি পিস্তল ও দুটি গুলিসহ বিপুলকে গ্রেপ্তার করে গোয়েন্দা পুলিশ।

এ ঘটনায় তাকে আসামি করে অস্ত্র আইনে মামলা করেন গোয়েন্দা পুলিশের এসআই আবদুল জব্বার। তিনি ১৬৪ ধারায় দেওয়া জবানবন্দিতে রুবেলের নাম বলেন। পরে তদন্ত কর্মকর্তা দুইজনের নাম উল্লেখ করে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন।

২০০৮ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পর রুবেল ও বরকত ধীরে ধীরে ফরিদপুরে প্রভাবশালী হয়ে উঠেন। তাদের বিপাকে পড়া শুরু ২০২০ সালের মাঝামাঝি সময়ে।

২০২০ সালের ১৬ মে রাতে শহরের গোয়ালচামট এলাকার মোল্লা বাড়িতে তৎকালীন আওয়ামী লীগ সভাপতি সুবল চন্দ্র সাহার বাড়ি যমুনা ভবনে দুই দফা হামলা হয়। দুদিন পর সুবল চন্দ্র ফরিদপুর কোতোয়ালি থানায় অজ্ঞাত ব্যক্তিদের আসামি করে একটি মামলা করেন।

ওই মামলার ওই বছরের ৭ জুন বরকত ও তার ছোট ভাই রুবেলসহ নয়জনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এ সময় পুলিশ তাদের কাছ থেকে সাতটি আগ্নেয়াস্ত্র, ২৮১ রাউন্ড গুলি, নগদ ২৯ লাখ টাকা, ৯৮ হাজার ভারতীয় রুপি, তিন হাজার ডলার, ৬৫ ইয়াবা ও ছয় বোতল বিদেশি মদ উদ্ধারের কথা জানায়।

এরপর তাদের বিরুদ্ধে নানা দুর্নীতি, সন্ত্রাস ও অর্থপাচারের খবর এরপর বেরিয়ে আসতে থাকে।

বরকতকে শহর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং রুবেলকে ফরিদপুর প্রেস ক্লাবের সভাপতির পদ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

back to top