alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

তনু হত্যা মামলা

কিনারা হয়নি পাঁচ বছরেও, শেষ ভরসা পিবিআই

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক : সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১

দীর্ঘ পাঁচ বছরেও কুল কিনারা হয়নি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী ও নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনু হত্যা মামলার। এই স্পর্শকাতর হত্যা মামলার তদন্তভার ইতোমধ্যে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)’র কাছে হন্তান্তর করা হয়েছে।

তনুর স্বজনরা বলেছেন, আমাদের শেষ ভরসা এখন পিবিআই। স্বচ্ছতা নিয়ে এ মামলার তদন্ত সম্পন্ন করবে বলে তনুর মা-বাবার বিশ্বাস। ক্লু লেস হত্যাকাণ্ডে তদন্ত করে অনেক মামলার চার্জশিট প্রদানসহ অনেক সফলতার উদাহরণ রয়েছে পিবিআইয়ের। ফলে তনুর স্বজনদের শেষ ভরসার স্থল পিবিআই।

তনু হত্যাকাণ্ডে তদন্তে সদিচ্ছা, চেষ্টা ও সততা নিয়ে কাজ করবে পিবিআই। বয়ে আনতে পারবে আরও প্রসংশা এমনটাই আশা তাদের।

আলোচিত তনু হত্যাকাণ্ডের পর গত প্রায় পাঁচ বছর এই মামলাটির চারবার তদন্ত সংস্থা পরিবর্তন হয়েছে। মামলা তদন্তে পাঁচজন কর্মকর্তা দায়িত্ব পেয়েছেন।

কিন্তু এখন পর্যন্ত এই হত্যাকাণ্ডে কোনো কিনারা হয়নি, শনাক্ত হয়নি খুনি। মামলারও বিশেষ কোনো অগ্রগতি নেই।

২০১৬ সালের ২০ মার্চ কুমিল্লা ময়নামতি সেনানিবাসের ভেতর থেকে তনুর লাশ উদ্ধার করা হয়।

এরপর পুলিশ, পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) এবং সবশেষ পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) মামলাটি তদন্ত করে।

পিবিআই কুমিল্লার পরিদর্শক তৌহিদুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, গত ২১ অক্টোবর পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশনায় মামলাটি পিবিআইকে হস্তান্তর করা হয়। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট আদালতে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

২০১৬ সালের ২০ মার্চ রাতে কুমিল্লা সেনানিবাসের ভেতরে নিজ বাসা থেকে ২০০ গজ দূরে তনুর লাশ পাওয়া যায়। পাশেই পড়েছিল তাঁর জুতা, ছেঁড়া চুল, ছেঁড়া ওড়না। তনু কুমিল্লা ময়নামতি সেনানিবাসের ভেতরে অলিপুর এলাকায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন। তাঁর বাবা ইয়ার হোসেন ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী।

হত্যাকাণ্ডের পর তনুর বাবা অজ্ঞাতদের আসামি করে একটি মামলা করেন।

এতে তিনি উল্লেখ করেন, ২০ মার্চ সন্ধ্যায় টিউশনির জন্য বাসা থেকে বের হয়েছিলেন তনু। পরে বাসায় ফিরে না আসায় তাঁকে খোঁজাখুঁজি করে পরিবারের সদস্যরা।

রাতে কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন কালভার্টের পাশে ঝোপের মধ্যে তাঁর লাশ পাওয়া যায়।

এই হত্যাকাণ্ডের পর সারাদেশে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এর পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও তনু হত্যাকাণ্ড নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বিচার দাবি করে দেশবাসী।

এ বিষয়ে পিআইবি প্রধান পুলিশের ডিআইজি বনজ কুমার বলেন, সবেমাত্র মামলার তদন্তভার পেয়েছি। অফিসিয়াল ভাবে কেস ডকেট (সিডি) কার্যালয়ে আনা হয়েছে। কাগজপত্র দেখবো। পর্যালোচনা করে পরিকল্পনার মাধ্যমে তদন্ত কাজ এগিয়ে নিয়ে যাব।

তবে আশা করছি, এই মামলার একটা ভালো ফল দেশবাসীর কাছে পৌঁছাতে পারবো। আপনারা আমাদের সহযোগিতা করবেন।

মৃত্যুর গুজবে ভাঙচুর লুটপাটের অভিযোগ

ছবি

শাবি শিক্ষককে ফেনসিডিল সাপ্লাই দিতে গিয়ে গার্ড আটক!

ছবি

সিদ্ধিরগঞ্জে ফ্ল্যাটে হাত-পা বাঁধা গৃহবধূর লাশ, স্বামী পলাতক

ছবি

শিক্ষককে ৬ মাসের বেশি সাময়িক বরখাস্ত নয়: হাইকোর্ট

স্বর্ণসহ অজ্ঞান পার্টির ২ সদস্য গ্রেপ্তার

ছবি

মিজান-বাছিরের সর্বোচ্চ সাজা চায় দুদক

লালমনিরহাটে ৩ কোটি টাকার মাদকদ্রব্য ধ্বংস

ভেড়ামারায় ১৭ ভাটাকে জরিমানা ৪৩ লাখ টাকা

চট্টগ্রাম সাব-রেজিস্ট্রার কার্যালয় সহকারীর স্ত্রীর ৭ বছর জেল

ছবি

২০ বছর পর হত্যা মামলার রায়, ৫ জনকে মৃত্যুদণ্ড

চাঁদা দাবিতে ছেলেসহ কনস্টেবল গ্রেপ্তার

ছবি

নাসির-তামিমার বিয়েকাণ্ড : অভিযোগ গঠনের আদেশ ৯ ফেব্রুয়ারি

ছবি

মোবাইল গ্রাহকদের অভিযোগ শুনতে কমিটি গঠনের নির্দেশ

কুমিল্লায় নদীর মাটি কাটায় দন্ডিত ৭

যৌতুক না পেয়ে স্ত্রীকে রক্তাক্ত করে রাস্তায় ফেলে গেল স্বামী

ছবি

পল্লবীর ওসিসহ ১৭ পুলিশের বিরুদ্ধে মামলার আবেদন খারিজ

আধিপত্য বিবাদে বাড়িঘর ভাঙচুর : আহত ১০

মামলা না তোলায় যুবলীগ নেতার হাত-পা ভাঙল

বাড়িতে ঢুকে কৃষককে হত্যা

ছবি

ট্রান্সজেন্ডার বিউটি ব্লগারকে যৌন নির্যাতন ও হত্যাচেষ্টা, গ্রেফতার ৩

ছবি

নারায়ণগঞ্জে ২ চাঁদাবাজ গ্রেফতার

ছবি

প্রশ্নফাঁস: উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যানসহ ১০ জন আটক

ছবি

গৃহকর্মী নির্যাতন, অভিযুক্ত সুমি গ্রেপ্তার

ছবি

ক্লু-লেস হত্যার রহস্য উদঘাটন

ছবি

শিমু হত্যা: নোবেল একা নয়, হত্যাকাণ্ডের সময় ছিলেন বন্ধু

মেজর জিয়াসহ ৫ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা

ছবি

সিদ্ধিরগঞ্জে যুবককে পিটিয়ে ও শ্বাসরোধে হত্যা ॥ থানায় মামলা

চাটখিলে সাংবাদিক পরিচয়ে চাঁদাবাজি, আসামি হাজতে

টঙ্গীতে ২ শিশুকে ধর্ষণ : গ্রেপ্তার ১

মতলবে সিডিউল ছিনতাই, আটক ১

বদলগাছীতে পর্নোগ্রাফি ভিডিও সরবরাহকারী ৭ জন গ্রেপ্তার

পচা চাল সংগ্রহে রৌমারী খাদ্য গুদাম সিলগালা

ছবি

টেকনাফে দুই দ্বীপকে ঘিরে মাদক ব্যবসায়ীরা বেপরোয়া

ছবি

আবরার হত্যা: ফাঁসির আসামি সেতুর হাইকোর্টে আপিল

ছবি

রাজধানীতে ৫১৩টি চোরাই মোবাইলসহ ৮ সদস্য আটক

ছবি

সেফাতউল্লাহর মামলায় সাক্ষ্যগ্রহণ পিছিয়ে ৪ জুলাই

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

তনু হত্যা মামলা

কিনারা হয়নি পাঁচ বছরেও, শেষ ভরসা পিবিআই

নিজস্ব বার্তা পরিবেশক

সোমবার, ০৬ ডিসেম্বর ২০২১

দীর্ঘ পাঁচ বছরেও কুল কিনারা হয়নি কুমিল্লা ভিক্টোরিয়া সরকারি কলেজের ইতিহাস বিভাগের শিক্ষার্থী ও নাট্যকর্মী সোহাগী জাহান তনু হত্যা মামলার। এই স্পর্শকাতর হত্যা মামলার তদন্তভার ইতোমধ্যে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (পিবিআই)’র কাছে হন্তান্তর করা হয়েছে।

তনুর স্বজনরা বলেছেন, আমাদের শেষ ভরসা এখন পিবিআই। স্বচ্ছতা নিয়ে এ মামলার তদন্ত সম্পন্ন করবে বলে তনুর মা-বাবার বিশ্বাস। ক্লু লেস হত্যাকাণ্ডে তদন্ত করে অনেক মামলার চার্জশিট প্রদানসহ অনেক সফলতার উদাহরণ রয়েছে পিবিআইয়ের। ফলে তনুর স্বজনদের শেষ ভরসার স্থল পিবিআই।

তনু হত্যাকাণ্ডে তদন্তে সদিচ্ছা, চেষ্টা ও সততা নিয়ে কাজ করবে পিবিআই। বয়ে আনতে পারবে আরও প্রসংশা এমনটাই আশা তাদের।

আলোচিত তনু হত্যাকাণ্ডের পর গত প্রায় পাঁচ বছর এই মামলাটির চারবার তদন্ত সংস্থা পরিবর্তন হয়েছে। মামলা তদন্তে পাঁচজন কর্মকর্তা দায়িত্ব পেয়েছেন।

কিন্তু এখন পর্যন্ত এই হত্যাকাণ্ডে কোনো কিনারা হয়নি, শনাক্ত হয়নি খুনি। মামলারও বিশেষ কোনো অগ্রগতি নেই।

২০১৬ সালের ২০ মার্চ কুমিল্লা ময়নামতি সেনানিবাসের ভেতর থেকে তনুর লাশ উদ্ধার করা হয়।

এরপর পুলিশ, পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) এবং সবশেষ পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি) মামলাটি তদন্ত করে।

পিবিআই কুমিল্লার পরিদর্শক তৌহিদুল ইসলাম গণমাধ্যমকে বলেন, গত ২১ অক্টোবর পুলিশ সদর দপ্তরের নির্দেশনায় মামলাটি পিবিআইকে হস্তান্তর করা হয়। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট আদালতে চিঠি পাঠানো হয়েছে।

২০১৬ সালের ২০ মার্চ রাতে কুমিল্লা সেনানিবাসের ভেতরে নিজ বাসা থেকে ২০০ গজ দূরে তনুর লাশ পাওয়া যায়। পাশেই পড়েছিল তাঁর জুতা, ছেঁড়া চুল, ছেঁড়া ওড়না। তনু কুমিল্লা ময়নামতি সেনানিবাসের ভেতরে অলিপুর এলাকায় পরিবারের সঙ্গে থাকতেন। তাঁর বাবা ইয়ার হোসেন ক্যান্টনমেন্ট বোর্ডের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী।

হত্যাকাণ্ডের পর তনুর বাবা অজ্ঞাতদের আসামি করে একটি মামলা করেন।

এতে তিনি উল্লেখ করেন, ২০ মার্চ সন্ধ্যায় টিউশনির জন্য বাসা থেকে বের হয়েছিলেন তনু। পরে বাসায় ফিরে না আসায় তাঁকে খোঁজাখুঁজি করে পরিবারের সদস্যরা।

রাতে কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট বোর্ড বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় সংলগ্ন কালভার্টের পাশে ঝোপের মধ্যে তাঁর লাশ পাওয়া যায়।

এই হত্যাকাণ্ডের পর সারাদেশে সমালোচনার ঝড় ওঠে। এর পাশাপাশি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকেও তনু হত্যাকাণ্ড নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করে বিচার দাবি করে দেশবাসী।

এ বিষয়ে পিআইবি প্রধান পুলিশের ডিআইজি বনজ কুমার বলেন, সবেমাত্র মামলার তদন্তভার পেয়েছি। অফিসিয়াল ভাবে কেস ডকেট (সিডি) কার্যালয়ে আনা হয়েছে। কাগজপত্র দেখবো। পর্যালোচনা করে পরিকল্পনার মাধ্যমে তদন্ত কাজ এগিয়ে নিয়ে যাব।

তবে আশা করছি, এই মামলার একটা ভালো ফল দেশবাসীর কাছে পৌঁছাতে পারবো। আপনারা আমাদের সহযোগিতা করবেন।

back to top