alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

বিয়ের ৭ দিনের মাথায় স্ত্রীকে গলাকেটে খুন, স্বামীর যাবজ্জীবন

প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ: : মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে যৌতুকের টাকা না পেয়ে বিয়ের মাত্র সাতদিনের মাথায় স্ত্রীর গলাকেটে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেছে আদালত। মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ মুন্সি মশিয়ার রহমান এই রায় ঘোষণা করেন।

রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) মনিরুজ্জামান বুলবুল। তিনি জানান, এই মামলায় একমাত্র আসামি মো. শামীম (২৯) রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামি শামীম রূপগঞ্জ উপজেলার ভুলতা ইউনিয়নের পঁচাইখা গ্রামের মনির মিয়ার ছেলে। তিনি ওই গ্রামের একটি অ্যামব্রডায়েরি কারখানার মেশিন অপারেটর ছিলেন।

মামলার নথিসূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২৩ আগস্ট শামীমের সাথে একই গ্রামের মনির হোসেনের মেয়ে শিউলি আক্তারের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের সময় ছেলেপক্ষ ৭০ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করলেও ৩৫ হাজার টাকা দেয় মেয়ের দরিদ্র পরিবার। এ নিয়ে কলহের জেরে বিয়ের সাতদিনের মাথায় শামীম তার নববিবাহিত স্ত্রী শিউলির গলাকেটে হত্যা করে। ৩১ আগস্ট সকালে শিউলির গলাকাটা লাশ উদ্ধার হলে তার মা আমেনা বেগম রূপগঞ্জ থানায় শামীমসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

আদালত পুলিশের পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান বলেন, ‘এই মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ার পর স্বামী শামীম আদালতে ১৬৪ ধারায় হত্যার বিষয়টি স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়। থানা পুলিশের তদন্তকারী কর্মকর্তা তাকে একমাত্র অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। অভিযোগপত্রে বলা হয়, দাম্পত্য কলহের জেরে শিউলির হাতের মেহেদীর রঙ শুকানোর আগেই তাকে কলাকেটে হত্যা করে শামীম।’

পিপি মনিরুজ্জামান বুলবুল বলেন, ‘অভিযোগ গঠনের পর আদালতে বাদী ও তদন্ত কর্মকর্তাসহ এগারোজনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। সাক্ষ্য ও প্রমাণের ভিত্তিতে জেলা ও দায়রা জজ আদালত একমাত্র আসামির যাবজ্জীবন সাজা প্রদান করেন।’

তবে এই রায়ে সন্তুষ্ট নন বলে জানান মামলার বাদী ও নিহতের মা আমেনা খাতুন। পেশায় গৃহকর্মী এই নারী বলেন, ‘ঘুমের মধ্যে বটি দিয়ে আমার মেয়ের গলাকেটে হত্যা করেছে তার স্বামী। আমরা আদালতের কাছে আসামির ফাঁসি চাইছিলাম। আমি গরীব মানুষ, মানুষের বাড়িতে কাম কইরা খাই। এই রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে যাওয়ার সামর্থ্যও নাই।’

ছবি

ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহীউদ্দিনের সম্পদের হিসাব চেয়ে দুদকের নোটিশ

ছবি

উখিয়া থেকে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সক্রিয় সদস্য গ্রেপ্তার

ছবি

গ্রেপ্তার সাতজনই নতুন জঙ্গি সংগঠনের সদস্য: র‍্যাব

ছবি

অধ্যাপক তাহের হত্যায় দুই আসামির ফাঁসির রায় স্থগিত

ছবি

‘জঙ্গি সম্পৃক্ততায় বাড়িছাড়া’ চার ছাত্রসহ গ্রেপ্তার ৭

অশ্লীলতা ছড়িয়ে ১০৮ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয় বিগো, পাচার ৭৯ কোটি

নোয়াখালীতে বিয়ে বাড়িতে কিশোরীকে ধর্ষণ

ছবি

নওগাঁয় নকল সার-কীটনাশকের কারখানা, ৪০হাজার টাকা জরিমানা

ছবি

রংপুরে জাপানী নাগরিক হোশি কোনিও হত্যার ফাঁসির দন্ড প্রাপ্ত জেএমবি নেতা বিপ্লব ৭ বছর ধরে পলাতক

ছবি

যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত শুক্কুর আলী ও দিদার গ্রেপ্তার

ছবি

রাজধানীতে বিদ্যুৎহীন রাতে ছিনতাই, আটক ২৪

ছবি

মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে ট্রলারডুবি, ৩৫ রোহিঙ্গা উদ্ধার

সুবর্ণচরে ইউপি সদস্যের যোগসাজশে বসতভিটা জবর-দখলের চেষ্টা

ছবি

ধর্ষণ মামলা: মামুনুলের বিরুদ্ধে আরও দুই পুলিশ কর্মকর্তার সাক্ষ্য

ফরিদপুরে দুই হাজার কোটি টাকা মানিলন্ডারিং মামলা, বরকতের সহযোগী হিটার মাষ্টার সাইফুল কারাগারে

ছবি

অজ্ঞান করে ৩০০ প্রবাসীর সর্বস্ব লুট, গ্রেপ্তার চার

ধর্মীয় উসকানিমূলক স্ট্যাটাস ফেইসবুকে : বেগমগঞ্জে তরুণ আটক

কালীগঞ্জে যুবকের ৭ টুকরা লাশ, পরিচায় পাওয়া যায়নি

ছবি

তিনশ প্রবাসীকে অচেতন করে সর্বস্ব লুট, মূলহোতাসহ ৪ জন গ্রেফতার

ছবি

পাচারকারি চক্র নানা ভাবে হুমকি দিচ্ছে, মামলার খরচের টাকাও নেই নাহিদের

লক্ষ্মীপুরে যুবলীগ নেতাকে গুলি করে হত্যা

ছবি

বঙ্গবন্ধুর হত্যাকাণ্ড নিয়ে কটূক্তি: ফুয়াদের ৭ বছর জেল

ছবি

কর্মচারীকে জুতাপেটার অভিযোগে ভূঞাপুরের এসি ল্যান্ডকে বদলি

ছবি

আদালতে ক্যাসিনো-কাণ্ডে গ্রেপ্তার সেলিম প্রধানের জামিন চাইলেন রুশ স্ত্রী

ছবি

আইনজীবী অসুস্থ : পেছাল খালেদা জিয়ার নাইকো মামলার চার্জ শুনানি

নোয়াখালীতে কিশোর গ্যাংয়ের ২৩ সদস্য আটক

সখীপুরে তিন গরু চোর গ্রেপ্তার

বগুড়ার শেরপুরে এক সন্ত্রাসীকে কুপিয়ে হত্যা

শিবালয়ে চাল লুটপাটকারী পুরস্কৃত, অভিযোগকারীরা বহিস্কৃত

ছবি

একাত্তরের রাজাকার খলিলকে ধরা হলো যেভাবে

ছবি

জামিন পেলেন ক্রিকেটার আল আমিন

ছবি

১০ বছরে ৫ শতাধিক চুরি করেছে ‘স্পাইডারম্যান’ বিল্লাল

ছবি

ঝুমন দাসের জামিন ফের নামঞ্জুর

ছবি

ডিসি অফিসের আট কর্মচারীসহ ১১ জনের ৭ বছরের জেল

মুন্সীগঞ্জে হাসপাতালে ভর্তি কিশোরীকে ধর্ষণ, ওয়ার্ড বয় গ্রেফতার

ঘোড়াঘাটে মাদকাসক্ত ছেলের ৬ মাসের কারাদন্ড

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

বিয়ের ৭ দিনের মাথায় স্ত্রীকে গলাকেটে খুন, স্বামীর যাবজ্জীবন

প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ:

মঙ্গলবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২২

নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে যৌতুকের টাকা না পেয়ে বিয়ের মাত্র সাতদিনের মাথায় স্ত্রীর গলাকেটে হত্যার দায়ে স্বামীর যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেছে আদালত। মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টার দিকে জেলা ও দায়রা জজ মুন্সি মশিয়ার রহমান এই রায় ঘোষণা করেন।

রায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন আদালতের রাষ্ট্রপক্ষের কৌঁসুলি (পিপি) মনিরুজ্জামান বুলবুল। তিনি জানান, এই মামলায় একমাত্র আসামি মো. শামীম (২৯) রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

সাজাপ্রাপ্ত আসামি শামীম রূপগঞ্জ উপজেলার ভুলতা ইউনিয়নের পঁচাইখা গ্রামের মনির মিয়ার ছেলে। তিনি ওই গ্রামের একটি অ্যামব্রডায়েরি কারখানার মেশিন অপারেটর ছিলেন।

মামলার নথিসূত্রে জানা যায়, ২০১৮ সালের ২৩ আগস্ট শামীমের সাথে একই গ্রামের মনির হোসেনের মেয়ে শিউলি আক্তারের পারিবারিকভাবে বিয়ে হয়। বিয়ের সময় ছেলেপক্ষ ৭০ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করলেও ৩৫ হাজার টাকা দেয় মেয়ের দরিদ্র পরিবার। এ নিয়ে কলহের জেরে বিয়ের সাতদিনের মাথায় শামীম তার নববিবাহিত স্ত্রী শিউলির গলাকেটে হত্যা করে। ৩১ আগস্ট সকালে শিউলির গলাকাটা লাশ উদ্ধার হলে তার মা আমেনা বেগম রূপগঞ্জ থানায় শামীমসহ অজ্ঞাত আরও কয়েকজনকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

আদালত পুলিশের পরিদর্শক মো. আসাদুজ্জামান বলেন, ‘এই মামলায় গ্রেপ্তার হওয়ার পর স্বামী শামীম আদালতে ১৬৪ ধারায় হত্যার বিষয়টি স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়। থানা পুলিশের তদন্তকারী কর্মকর্তা তাকে একমাত্র অভিযুক্ত করে আদালতে অভিযোগপত্র দেন। অভিযোগপত্রে বলা হয়, দাম্পত্য কলহের জেরে শিউলির হাতের মেহেদীর রঙ শুকানোর আগেই তাকে কলাকেটে হত্যা করে শামীম।’

পিপি মনিরুজ্জামান বুলবুল বলেন, ‘অভিযোগ গঠনের পর আদালতে বাদী ও তদন্ত কর্মকর্তাসহ এগারোজনের সাক্ষ্যগ্রহণ করা হয়। সাক্ষ্য ও প্রমাণের ভিত্তিতে জেলা ও দায়রা জজ আদালত একমাত্র আসামির যাবজ্জীবন সাজা প্রদান করেন।’

তবে এই রায়ে সন্তুষ্ট নন বলে জানান মামলার বাদী ও নিহতের মা আমেনা খাতুন। পেশায় গৃহকর্মী এই নারী বলেন, ‘ঘুমের মধ্যে বটি দিয়ে আমার মেয়ের গলাকেটে হত্যা করেছে তার স্বামী। আমরা আদালতের কাছে আসামির ফাঁসি চাইছিলাম। আমি গরীব মানুষ, মানুষের বাড়িতে কাম কইরা খাই। এই রায়ের বিরুদ্ধে হাইকোর্টে যাওয়ার সামর্থ্যও নাই।’

back to top