alt

অপরাধ ও দুর্নীতি

পীরগজ্ঞে যৌতুক না দেয়ায় স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা : স্বামীর মৃত্যুদন্ড

লিয়াকত আলী বাদল, রংপুর : বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৩

দীর্ঘ ১৫ বছর পর রংপুরের পীরগজ্ঞে ১৫ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করে না পাওয়ায় স্ত্রী তানজিনা বেগমকে পিটিয়ে নৃশংস ভাবে হত্যা করে লাশ বাড়ির কাছে ধান ক্ষেতে ফেলে রাখার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ঘাতক স্বামী আবু সাঈদকে দোষি সাব্যস্ত করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ বৃহসপতিবার দুপুরে রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালত ৩ এর বিচারক আলী হোসেন এ রায় প্রদান করেছেন। রায় ঘোষনার আগে থেকে আসামী জামিনে মুক্তি পেয়ে পলাতক থাকায় তার অনুপস্থিতিতেই রায় ঘোষনা করেছেন বিচারক।

মামলার বিবরনে জানা গেছে ২০ বছর আগে রংপুরের পীরগজ্ঞ উপজেলার অনন্তরামপুর গ্রামের গরীব দীনমজুর তাজিম উদ্দিনের কন্যা তানজিমা খাতুনের সাথে একই উপজেলার পার্শ্ববর্তী পীরগড় গ্রামের আজিম উদ্দিনের ছেলে আবু সাঈদের সাথে বিয়ে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই ২৫ হাজার যৌতুক দাবি করে আসছিলো স্বামী আবু সাঈদ। এ জন্য তাকে প্রায়শই নির্যাতন করতো। পরে তানজিমার বাবা তাদের শেষ সম্বল গাভী বিক্রি করে ১০ হাজার টাকা প্রদান করে স্বামী আবু সাঈদকে। কিন্তুৃ বাকী ১৫ হাজার টাকা না দেয়ায় তাকে মারধর করতো পাষন্ড স্বামী। ঘটনার কিছুদিন আগে স্বামী আবু সাঈদ তাসকিরা বেগম নামে এক নারীকে বিয়ে করে বাড়িতে নিয়ে আসে। এ নিয়ে নিহত তানজিনা বেগম প্রতিবাদ করলে তাকে আবারো নির্যাতন করে স্বামী আবু সাঈদ। গত ২০০৭ সালের ৮ ফ্রেরুয়ারী তারিখে স্বামী সাঈদ তার স্ত্রী তানুজিনাকে বাবার বাড়ি থেকে ১৫ হাজার টাকা যৌতুক আনার জন্য চাপ দিলে তার বাবা গরীব অসহায় টাকা দিতে পারবেনা বলে জানালে নব বিবাহিতা স্ত্রী তাসকিরা বেগমের সহায়তায় স্বামী আবু সাঈদ তার স্ত্রী তানজিনা বেগমকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে নৃশংস ভাবে হত্যা করে। এর পর তার লাশ বাড়ির অদুরে একটি ধান ক্ষেতে ফেলে রাখে স্বামী সাঈদ। এ ঘটনায় নিহত তানসজিনা বেগমের বাবা তাজিম উদ্দিন বাদী হয়ে পীরগজ্ঞ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়েঢর করে। তদন্ত শেষে পুলিশ আসামী আবু সাঈদ ও তার নব বিবাহিতা স্ত্রী তাসকিরা বেগমের নামে আদালতে চার্জসীট দাখিল করে। মামলায় ১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য ও জেরা শেষে বিজ্ঞ বিচারক আসামী আবু সাঈদকে দোষি সাব্যস্ত করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেয়। অপর আসামী তাসকিরা বেগমকে বেকসুর খালাস প্রদান করে। রায় ঘোষনার আদালত বলেন আসামী সাঈদ এর আগে ১৬ টি বিয়ে করেছে নিহত তানজিনা বেগম তার ১৭ তম স্ত্রী আর তাসকিরা বেগম তার ১৮ তম স্ত্রী। আসামী এভাবেই ১৮টি বিয়ে করেছে বিয়ে করে যৌতুক নেয়া এবং বিয়ে করা তার পেশা ও নেশায় পরিনত হয়েছিলো। আদালত তার পর্যবেক্ষনে বলেন আসামীর একমাত্র শাস্তি মৃত্যুদন্ড হওয়া উচিত বলে আদালত মনে করে। সে কারে ন মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে সেই সাথে ৫ হাজার টাকা জরিমানারও আদেশ দেয়া হয়েছে।

সরকার পক্ষে মামলা পরিচালনা কারী বিশেষ পিপি তাইজুর রহমান লাইজু এ্যাডভোকেট বলেন এ রায়ে তারা সন্তোষ প্রকাশ করছে সেই সাথে আসামীকে দ্রুত গ্রেফতার করে সাজা কার্যকর করার ব্যবস্থা নেবে। রায় ঘোষনার সময় আসামী পক্ষের কোন আইনজিবী উপস্থিত না থাকায় তাদের বক্তব্য জানা যায়নি।

শরীয়তপুরে পাঁচ বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টাকালে একজন আটক

ছবি

মুক্তাগাছায় ইউপি চেয়ারম্যানকে হত্যা করে টাকা ছিনাতাইয়ের চেষ্টা, আটক ২, এলাকাবাসীর বিক্ষোভ

চুনারুঘাটে রঘুনন্দন পাহাড়ে গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ

ছবি

মনোনয়ন পেতে চেয়েছিলেন মিন্টু, আক্তারুজ্জামান চোরাকারবারি সিন্ডিকেটের প্রধান : ডিবি

ছবি

আনার হত্যা মামলায় ৮ দিনের রিমান্ডে মিন্টু

বেনজীরের বিরুদ্ধে দুর্নীতির প্রমাণ পাওয়া গেছে: দুদকের আইনজীবী

ছবি

নিজেকে নির্দোষ দাবি করে ন্যায়বিচার চাইলেন ড. ইউনূস

ছবি

এমপি আজীম খুন : জেলা আ’লীগের সাধারণ সম্পাদক আটক

সোনারগাঁয়ে মাদকের টাকার দ্বন্দ্বে মাদক ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে হত্যা

ছবি

কলেজ ছাত্রীকে ব্ল্যাক মেইল,ধর্ষণ অভিযুক্ত গ্রেফতার,স্বীকারোক্তি

বেনজীরের সেই রিসোর্টের নিয়ন্ত্রণ নিল প্রশাসন

ছবি

এমপি আনার হত্যা : কলকাতায় সিয়াম ১৪ দিনের রিমান্ডে

নারায়ণগঞ্জে পুরোনো দ্বন্দ্বের জেরে যুবক খুন

ছবি

নেপালে আটক সিয়াম কলকাতা সিআইডির হেফাজতে

কালিয়াকৈরে ছাত্রলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যার অভিযোগ ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে

ছবি

মোটর সাইকেল বিক্রি নিয়ে স্কুল ছাত্রকে কুপিয়ে হত্যা

ছবি

আজ দুদকে যাচ্ছেন না বেনজীর, ১৫ দিনের সময় চেয়ে আবেদন

গঙ্গাচড়ায় স্বামী জবাই করে স্ত্রীকে হত্যা করেছে

ছবি

ফরিদপুরে সরকারি ঘর দেওয়ার কথা বলে ভিক্ষুকের টাকা মেরে দিলেন ইউপি চেয়ারম্যান

ছবি

তারাগঞ্জে ভোটারদের টাকা দেয়ার ছবি তোলায় দুই সাংবাদিকের ওপর হামলা

ফরিদপুরে প্রেমিকাকে ধর্ষণ চেষ্টা, ৩ বখাটে আটক, থানায় মামলা

ছবি

এমপি আনার হত্যায় আটক তিনজনকে আরও ৫ দিনের রিমান্ডে

ছবি

নিয়োগে দুর্নীতি, ভিকারুননিসার সাবেক অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

ছবি

শিবচরে সন্ত্রাসী হামলায় ইউপি চেয়ারম্যানসহ আহত ৩

ছবি

রিজেন্টের সাহেদসহ ৫ জনের বিচার শুরু

ফরিদপুরে হত্যার দায়ে ১০ বছরের কারাদণ্ড কিশোরের

ছবি

পেনশন স্কিম ‘বাতিল’ দাবি, লাগাতার কর্মবিরতির হুশিয়ারি ঢাবির কর্মকর্তা-কর্মচারীদের

রূপগঞ্জে শিশুকে অপহরণের পর হত্যার দায়ে যুবকের মৃত্যুদণ্ড

ছবি

বেনজীর ও তার স্ত্রী, সন্তানদের দুদকে তলব

ছবি

সাভারে সংবাদ সংগ্রহে গিয়ে হামলার শিকার সাংবাদিক

ছবি

আজীমকে দুই দিন জীবিত রেখে ব্ল্যাকমেইলের পরিকল্পনা ছিল খুনিদের : ডিবি

সোনারগাঁয়ে স্ত্রী হত্যার অভিযোগে স্বামী গ্রেফতার

ছবি

এমপি আজিম খুনে কলকাতায় ‘কসাই’ জিহাদ রিমান্ডে, লাশের অংশের খোঁজে পুলিশ

ছবি

এমপি আজিম হত্যা: ভারতে গ্রেপ্তার সেই ‘কসাই’ দেড় বছর ধরে এলাকায় পলাতক

ছবি

আখতারুজ্জামান হোতা, শিমুল বাস্তবায়নকারী : ডিবি

ছবি

আখতারুজ্জামান হোতা, শিমুল বাস্তবায়নকারী : ডিবি

tab

অপরাধ ও দুর্নীতি

পীরগজ্ঞে যৌতুক না দেয়ায় স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা : স্বামীর মৃত্যুদন্ড

লিয়াকত আলী বাদল, রংপুর

বৃহস্পতিবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২৩

দীর্ঘ ১৫ বছর পর রংপুরের পীরগজ্ঞে ১৫ হাজার টাকা যৌতুক দাবি করে না পাওয়ায় স্ত্রী তানজিনা বেগমকে পিটিয়ে নৃশংস ভাবে হত্যা করে লাশ বাড়ির কাছে ধান ক্ষেতে ফেলে রাখার ঘটনায় দায়ের করা মামলায় ঘাতক স্বামী আবু সাঈদকে দোষি সাব্যস্ত করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। আজ বৃহসপতিবার দুপুরে রংপুরের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আদালত ৩ এর বিচারক আলী হোসেন এ রায় প্রদান করেছেন। রায় ঘোষনার আগে থেকে আসামী জামিনে মুক্তি পেয়ে পলাতক থাকায় তার অনুপস্থিতিতেই রায় ঘোষনা করেছেন বিচারক।

মামলার বিবরনে জানা গেছে ২০ বছর আগে রংপুরের পীরগজ্ঞ উপজেলার অনন্তরামপুর গ্রামের গরীব দীনমজুর তাজিম উদ্দিনের কন্যা তানজিমা খাতুনের সাথে একই উপজেলার পার্শ্ববর্তী পীরগড় গ্রামের আজিম উদ্দিনের ছেলে আবু সাঈদের সাথে বিয়ে বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই ২৫ হাজার যৌতুক দাবি করে আসছিলো স্বামী আবু সাঈদ। এ জন্য তাকে প্রায়শই নির্যাতন করতো। পরে তানজিমার বাবা তাদের শেষ সম্বল গাভী বিক্রি করে ১০ হাজার টাকা প্রদান করে স্বামী আবু সাঈদকে। কিন্তুৃ বাকী ১৫ হাজার টাকা না দেয়ায় তাকে মারধর করতো পাষন্ড স্বামী। ঘটনার কিছুদিন আগে স্বামী আবু সাঈদ তাসকিরা বেগম নামে এক নারীকে বিয়ে করে বাড়িতে নিয়ে আসে। এ নিয়ে নিহত তানজিনা বেগম প্রতিবাদ করলে তাকে আবারো নির্যাতন করে স্বামী আবু সাঈদ। গত ২০০৭ সালের ৮ ফ্রেরুয়ারী তারিখে স্বামী সাঈদ তার স্ত্রী তানুজিনাকে বাবার বাড়ি থেকে ১৫ হাজার টাকা যৌতুক আনার জন্য চাপ দিলে তার বাবা গরীব অসহায় টাকা দিতে পারবেনা বলে জানালে নব বিবাহিতা স্ত্রী তাসকিরা বেগমের সহায়তায় স্বামী আবু সাঈদ তার স্ত্রী তানজিনা বেগমকে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে নৃশংস ভাবে হত্যা করে। এর পর তার লাশ বাড়ির অদুরে একটি ধান ক্ষেতে ফেলে রাখে স্বামী সাঈদ। এ ঘটনায় নিহত তানসজিনা বেগমের বাবা তাজিম উদ্দিন বাদী হয়ে পীরগজ্ঞ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়েঢর করে। তদন্ত শেষে পুলিশ আসামী আবু সাঈদ ও তার নব বিবাহিতা স্ত্রী তাসকিরা বেগমের নামে আদালতে চার্জসীট দাখিল করে। মামলায় ১৫ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য ও জেরা শেষে বিজ্ঞ বিচারক আসামী আবু সাঈদকে দোষি সাব্যস্ত করে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেয়। অপর আসামী তাসকিরা বেগমকে বেকসুর খালাস প্রদান করে। রায় ঘোষনার আদালত বলেন আসামী সাঈদ এর আগে ১৬ টি বিয়ে করেছে নিহত তানজিনা বেগম তার ১৭ তম স্ত্রী আর তাসকিরা বেগম তার ১৮ তম স্ত্রী। আসামী এভাবেই ১৮টি বিয়ে করেছে বিয়ে করে যৌতুক নেয়া এবং বিয়ে করা তার পেশা ও নেশায় পরিনত হয়েছিলো। আদালত তার পর্যবেক্ষনে বলেন আসামীর একমাত্র শাস্তি মৃত্যুদন্ড হওয়া উচিত বলে আদালত মনে করে। সে কারে ন মৃত্যুদন্ডের আদেশ দেয়া হয়েছে সেই সাথে ৫ হাজার টাকা জরিমানারও আদেশ দেয়া হয়েছে।

সরকার পক্ষে মামলা পরিচালনা কারী বিশেষ পিপি তাইজুর রহমান লাইজু এ্যাডভোকেট বলেন এ রায়ে তারা সন্তোষ প্রকাশ করছে সেই সাথে আসামীকে দ্রুত গ্রেফতার করে সাজা কার্যকর করার ব্যবস্থা নেবে। রায় ঘোষনার সময় আসামী পক্ষের কোন আইনজিবী উপস্থিত না থাকায় তাদের বক্তব্য জানা যায়নি।

back to top